বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

স্থানাঙ্ক: ২৫°৪৫′৪৭″ উত্তর ৮৮°৫৫′০৩″ পূর্ব / ২৫.৭৬৩১° উত্তর ৮৮.৯১৭৫° পূর্ব / 25.7631; 88.9175
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
চিত্র:BAUST Main build.jpg
ধরনবাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রিত
স্থাপিত১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৫
আচার্যরাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ[১]
উপাচার্যব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল অধ্যাপক মোঃ লুৎফর রহমান, পিএইচডি
ঠিকানা,
সৈয়দপুর, নীলফামারী
,
২৫°৪৫′৪৭″ উত্তর ৮৮°৫৫′০৩″ পূর্ব / ২৫.৭৬৩১° উত্তর ৮৮.৯১৭৫° পূর্ব / 25.7631; 88.9175
শিক্ষাঙ্গনসৈয়দপুর সেনানিবাস,
ওয়েবসাইটwww.baust.edu.bd

বাংলাদেশ সামরিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বিএইউএসটি) নিয়মানুবর্তিতা, জ্ঞান ও নৈতিকতা এই মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এটি নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর সেনানিবাসে অবস্থিত।

অবস্থান[সম্পাদনা]

চিত্র:BAUST Main Campus.jpg
প্রধান একাডেমিক ভবন

প্রধান ক্যাম্পাস সৈয়দপুরে অবস্থিত। সৈয়দপুর বাংলাদেশের নীলফামারী জেলার একটি শহর। সৈয়দপুর বিমানবন্দর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের খুব কাছাকাছি অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত তিনটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে অন্যতম যেটি ২০১৫ সালের ১২ই ফেব্রুয়ারি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক স্বীকৃতি লাভ করে। ২০১৫ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণের উপস্থিতিতে সাবেক সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এর উদ্বোধন করেন।[২]

অনুষদ[সম্পাদনা]

পিছনের দৃশ্য
From Office view.jpg
ক্যাম্পাস

সকল বিভাগে ৪ বছর মেয়াদী স্নাতক বি.এস.সি. ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স[৩] বি.বি.এ ও বি.এ কোর্স চালু রয়েছে:

কম্পিউটার ও বৈদ্যুতিক অনুষদ[সম্পাদনা]

যান্ত্রিক ও উৎপাদন প্রকৌশল অনুষদ (এমপিই)[সম্পাদনা]

পুরকৌশল অনুষদ[সম্পাদনা]

ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ[সম্পাদনা]

বিজ্ঞান ও মানবিক অনুষদ[সম্পাদনা]

শিক্ষার্থীদের পোশাক[সম্পাদনা]

প্রতিটি শিক্ষার্থীর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ থেকে নির্ধারিত পরিচয়পত্র ও পোশাক পরা বাধ্যতামূলক।

ছাত্রাবাস[সম্পাদনা]

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পৃথক পৃথক আবাসস্থল রয়েছে। সকল বিভাগের সিনিয়র শিক্ষকদের মধ্যে থেকে একজন প্রভোস্ট নিয়োগ করা হয় যিনি ছাত্রাবাস প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন।

আব্বাস উদ্দিন ছাত্রাবাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের বিখ্যাত লোকসংগীত শিল্পী আব্বাসউদ্দীন আহমদ এর নামে এই ছাত্রাবাসের নামকরণ করা হয়। ৫ তলাবিশিষ্ট এই ভবনের ছাত্র ধারণক্ষমতা ৫৫০ জন। ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধানের জন্য ২০ জন কর্মকর্তা নিয়োজিত আছেন। নিরাপত্তার জন্য দেশের অন্যান্য ছাত্রাবাসের তুলনায় এই ছাত্রাবাস সুপরিচিত। অত্যাধুনিক সুবিধাসহ ছাত্রদের জন্য ২৪ঘণ্টা বিদ্যুৎ, ২৪/৭ ইটারনেট সেবা, জিমনেসিয়াম এবং খেলাধুলার ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতি বছর নভেম্বর মাসে ছাত্রাবাসে বার্ষিক সান্ধ্যভোজের আয়োজন করা হয়।

তারামন বিবি ছাত্রীনিবাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বীর প্রতীক প্রাপ্ত তারামন বিবির নামে এই ছাত্রীনিবাসের নামকরণ করা হয়েছে। দ্বিতল এই ভবনের ছাত্রী ধারণ ক্ষমতা ৩০০ জন। ছাত্রীনিবাসের তত্ত্বাবধানের জন্য ২০ জন কর্মকর্তা নিয়যিত আছেন। নিরাপত্তার জন্য দেশের অন্যান্য ছাত্রীনিবাসের তুলনায় এই ছাত্রীনিবাসের সুপরিচিত।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Chancellor"। ২৯ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৬ 
  2. "Army University in Nilphamari launched"Bangladesh Army University of Science and Technology 
  3. Undergraduate Program ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৮ মে ২০১৬ তারিখে BAUST

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]