নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়াম
ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেডিয়াম
Viewers At Niaz Mohammad Stadium.jpg
নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়ামের দর্শক গ্যালারী
অবস্থানডাউনটাউন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, বাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২৩°৫৭′৩৩.৮৭″ উত্তর ৯১°০৬′৪৭.৯৫″ পূর্ব / ২৩.৯৫৯৪০৮৩° উত্তর ৯১.১১৩৩১৯৪° পূর্ব / 23.9594083; 91.1133194স্থানাঙ্ক: ২৩°৫৭′৩৩.৮৭″ উত্তর ৯১°০৬′৪৭.৯৫″ পূর্ব / ২৩.৯৫৯৪০৮৩° উত্তর ৯১.১১৩৩১৯৪° পূর্ব / 23.9594083; 91.1133194
মালিকজাতীয় ক্রীড়া পরিষদ[১]
পরিচালকজাতীয় ক্রীড়া পরিষদ[১]
ধারণক্ষমতা১৫,০০০
আয়তন১৭৫ × ১২২ মি (৫৭৪ × ৪০০ ফু)
আকারডিম্বাকৃতির
উপরিভাগঘাস
স্কোরবোর্ডসাধারণ বোর্ড এবং ইলেক্ট্রনিক বোর্ড
নির্মাণ
নির্মাণাধীন১৯৩৪
উন্মোচন১৯৩৪
ভাড়াটে
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া ক্রিকেট দল
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহিলা ক্রিকেট
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফুটবল দল
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া এক্সপ্রেস

নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়াম বা "ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা স্টেডিয়াম"টি বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডায়বেটিক হাসপাতালের পাশেই অবস্থিত একটি স্টেডিয়াম। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার একমাত্র স্টেডিয়াম ও খেলাধুলার প্রাণকেন্দ্র। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা এখানে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। এটা ক্রিকেট[২] এবং ফুটবল উভয় খেলার জন্য ব্যবহৃত হয়। ঐতিহ্যবাহী এবং জাতীয় দিবস উপলক্ষে এই স্টেডিয়ামে বিশেষ কর্মসূচী উদযাপন করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৩৪ সালে তৎকালীন এসডিও নিয়াজ মোহাম্মদ খান এ স্টেডিয়ামটি প্রতিষ্ঠা করেন[৩]। এটি বাংলাদেশের প্রাচীনতম স্টেডিয়াম[৩]। এখানে দর্শকদের জন্য পূর্ব, পশ্চিম এবং দক্ষিণ দিকে গ্যালারী এবং প্যাভিলিয়ন রয়েছে।[৪]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ: যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়"। জানুয়ারি ১৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  2. "অবশেষে জয় অনুর্ধ্ব ১৪ ক্রিকেট দলের"parbatyachattagram.com। ২০১৬-০২-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-১৭ 
  3. "ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দেশের প্রাচীন স্টেডিয়াম"www.jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৮ 
  4. "সমস্যায় জর্জরিত নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়াম"The Report24.com 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]