শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মানিকগঞ্জ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম
মানিকগঞ্জ স্টেডিয়াম
পূর্ণ নামশেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম
অবস্থানপাটুরিয়া, মানিকগঞ্জ, বাংলাদেশ
মালিকজাতীয় ক্রীড়া পরিষদ
পরিচালকমানিকগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থা
ক্ষেত্রফল.২৫.৯৬ একর
উপরিভাগঘাস
নির্মাণ
কপর্দকহীন মাঠ২০২২
নির্মাণ ব্যয় ৫২০ কোটি (প্রাক্কালিত)
সাধারণ ঠিকাদারভিস্তারা ও বসত জেভি
ভাড়াটে
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড

শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম [টীকা ১] বাংলাদেশের মানিকগঞ্জে নির্মিতব্য একটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ২০১৫ স্টেডিয়ামটি নির্মাণের ঘোষণা আসে, এবং ২০২২ সালে এটির নির্মাণ সম্ভাব্যতা যাচাই শুরু হয়। বাংলাদেশের বেশিরভাগ স্টেডিয়ামের মত, এটিও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ নিয়ন্ত্রিত ক্রীড়াস্থাপনা। নির্মিত হলে শহীদ মিরাজ-তপন স্টেডিয়ামের পর, এটি জেলার দ্বিতীয় এবং বাংলাদেশের একাদশ আন্তর্জাতিক এই ক্রিকেট স্টেডিয়াম হবে।[২]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

সম্ভাব্যতা যাচাই[সম্পাদনা]

২০১৫ সালে আয়োজিত আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের পর, ও পরবর্তীতে ২০১৮ সালে পদ্মার পাড়ে একটি আন্তর্জাতিক মানের ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মাণের ঘোষণা দেয়া হয়। ২০২২ সালের ৩ মার্চ, মানিকগঞ্জ স্টেডিয়াম শিরোনামে মাঠ নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে ভিস্তারা ও বসত জেভি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তির মাধ্যমে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ প্রকল্পের কাজ শুরু করে। এটির নির্মাণ সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে ৪ কোটি[৩] সহ মোট প্রাক্কালিত ব্যয় ধরা হয় ৫২০ কোটি টাকা[২]

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

স্টেডিয়ামটির সম্ভাব্য অবস্থান পদ্মা নদীর তীরে মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলার পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় ডান দিকে পদ্মা রিভারভিউ রিসোর্টের পেছনে।[৩][৪] এটির আয়তন ২৫ দশমিক ৯৬ একর।[২]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. ২০২১ সালের ১১ সেপ্টেবর বাংলাদেশের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি প্রস্তাবিত স্টেডিয়ামটির নাম শেখ হাসিনার নামে নির্মাণের সুপারিশ করে।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]