নওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম
নওগাঁ স্টেডিয়াম
নওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
নওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম
নওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম
বাংলাদেশ মানচিত্রে স্টেডিয়ামের অবস্থান
পূর্ণ নামনওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম
অবস্থানআন্তঃ জেলা বাস স্ট্যান্ড,
পার-নওগাঁ, নওগাঁ, বাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২৪°৪৮′২৬.৮০″ উত্তর ৮৮°৫৭′০১.৯০″ পূর্ব / ২৪.৮০৭৪৪৪৪° উত্তর ৮৮.৯৫০৫২৭৮° পূর্ব / 24.8074444; 88.9505278স্থানাঙ্ক: ২৪°৪৮′২৬.৮০″ উত্তর ৮৮°৫৭′০১.৯০″ পূর্ব / ২৪.৮০৭৪৪৪৪° উত্তর ৮৮.৯৫০৫২৭৮° পূর্ব / 24.8074444; 88.9505278
মালিকজাতীয় ক্রীড়া পরিষদ
পরিচালকজেলা ক্রীড়া সংস্থা, নওগাঁ
ধারণক্ষমতা৫০০০
ভূসম্পত্তির পরিমাণ১৬ একর
উপরিভাগঘাস
নির্মাণ
কপর্দকহীন ভূমি১৯৫৯
নির্মিত১৯৬৫
পুন: সংস্কার১৯৮৪
সম্প্রসারিত১৯৮৪
ভাড়াটিয়া
নওগাঁ জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন

নওগাঁ জেলা স্টেডিয়াম ১৯৫৯ সালে অধিকৃত, ১৯৬৫ সালে নির্মিত বাংলাদেশের একটি জেলা পর্যায়ের স্টেডিয়াম। এটা নওগাঁ জেলার একমাত্র স্টেডিয়াম। স্টেডিয়ামটি নওগাঁ পৌরসভার পার-নওগাঁ এলাকার আন্তঃজেলা বাস স্ট্যান্ডের উত্তরে অবস্থিত। এই স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের জাতীয় দিবসসমূহের কর্মসূচী, ফুটবল, ক্রিকেট, হ্যান্ডবলসহ জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা আয়োজিত হয়।[১][২] স্টেডিয়ামটি ১৯৭১ সালের গণহত্যা স্মৃতি বিজড়িত স্থান। বাংলাদেশের বেশীর ভাগ স্টেডিয়ামের মত এই ক্রীড়া স্থাপনাটিও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অধিভূক্ত ও এবং স্থানীয় নওগাঁ জেলা ক্রীড়া সংস্থার তত্বাবধায়নে রয়েছে।[৩]

নির্মাণ ও সংস্কার[সম্পাদনা]

১৯৫৯ সালের ১ জুলাই আয়তাকার স্টেডিয়ামটির ৫ একর ১৩ শতক জমি অধিকৃত হয়।[১] ১৯৬৫ সালে নির্মিত হয়।[৪] ১৯৮৪ সালে স্টেডিয়ামের আয়তন বৃদ্ধি করে ১৬ একর করা হয়। মূল মাঠের পশ্চিম পাশে ৩০০ ফুট ও দক্ষিণ পাশে ছাউনিসহ ২০০ ফুট দৈর্ঘ্যের গ্যালারি নির্মাণ করা হয়। এছাড়া একটি প্যাভিলিয়ন সংযোজন করা হয়।[১]

১৯৭১-এর গণহত্যা সংশ্লিষ্টতা[সম্পাদনা]

স্টেডিয়ামটি ১৯৭১ সালে পাক হানাদার বাহিনী ও নওগাঁর স্থানীয় বিহারী অধিবাসী দ্বারা নিরীহ বাঙ্গালীদের উপর গণহত্যা সংঘটিত হওয়ার অন্যতম স্থান হিসেবে চিহ্নিত। ১৯৭১ সালের ২২ এপ্রিল বিকালে বিহারী সম্প্রদায় এই স্টেডিয়ামের পূর্ব উত্তর কোণঘেঁষে থাকা কদম গাছের নিচে নিরীহ তিন বাঙালিকে হত্যা করে লাশগুলো দিঘিতে ফেলে দিয়েছিল।[৫]

আয়োজন[সম্পাদনা]

  • স্টেডিয়ামটিতে প্রতিবছর বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিজয় দিবসে কুচকাওয়াজ, স্বেচ্ছায় রক্তদান, বিভিন্ন প্রদর্শনী আয়োজিত হয়।[৬][৭][৮]
  • উপজেলা পর্যায়ের জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসা গ্রীষ্মকালীন ও শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এই ভেন্যুতে নিয়মিত অনুষ্ঠিত হয়।[৯]
  • জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে বিভিন্ন ধরনের বয়স ভিত্তিক ফুটবল ও ক্রিকেট প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।[১০][১১][১২]

ধারণ ক্ষমতা[সম্পাদনা]

১৯৮৪ সালে সংস্কারের সময় স্টেডিয়ামের ধারণ ক্ষমতা ৩০০০ ছিল। বর্তমানে গ্যালারী ও প্যাভিলিয়ন মিলে ৫০০০ দর্শক খেলা উপভোগ করতে পারেন।[১]

সমস্যা[সম্পাদনা]

স্টেডিয়ামের মাঠ নিচু হওয়ায় এবং পানি নিষ্কাশনের কোন ব্যবস্থা না থাকায় বর্ষা মৌসুমে এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত খেলা বা অন্য যেকোন অনুষ্ঠান আয়োজনের অনুপোযোগী থাকে।[১][৪][১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "নওগাঁ স্টেডিয়ামের বেহাল দশা"archive1.ittefaq.com.bd। ২০১৫-০৮-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৯ 
  2. "নওগাঁয় বিজয় র‌্যালি"Risingbd.com। ২০১৯-১২-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৯ 
  3. "অন্যান্য সকল স্টেডিয়াম"জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৯ 
  4. "বছরের ৭–৮ মাসই থাকে জলাবদ্ধ"প্রথম আলো। ২০১৫-০৭-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৯ 
  5. "নওগাঁয় হানাদাররা বেশিরভাগ গণহত্যা চালায় এপ্রিলে | banglatribune.com"Bangla Tribune। ২০১৭-১২-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৯ 
  6. "নওগাঁয় মহান বিজয় দিবস পালিত"Sarabangla.net। ২০১৮-১২-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  7. "নওগাঁয় বিজয় র‌্যালি"Risingbd.com। ২০১৯-১২-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  8. "মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে নওগাঁ জেলা পুলিশের বীর শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন"digrajshahirange.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  9. "নওগাঁয় ৪৯তম জাতীয় শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন"gramerkagoj.com। ২০২০-০১-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  10. "নওগাঁয় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত"www.deshsangbad.com। ২০১৯-০৯-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  11. "নওগাঁয় প্রাইম ব্যাংক ইয়ং টাইগার্স জাতীয় স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন"www.sahos24.com। ২০১৮-০২-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  12. "নওগাঁয় দিনব্যাপী ক্রিকেট কার্নিভাল অনুষ্ঠিত"Naogaon Dorpon। ২০১৯-০৬-২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২০ 
  13. "ছয় মাসই পানিতে ডুবে থাকে নওগাঁ স্টেডিয়াম"জাগো নিউজ। ২০১৫-০৭-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  1. নওগাঁ জেলা ক্রীড়া সংস্থা
  2. নওগাঁ জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থা