সাতক্ষীরা স্টেডিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম
সাতক্ষীরা স্টেডিয়াম
Satkhira stadium gate.jpg
সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামের প্রবেশদ্বার
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম খুলনা বিভাগ-এ অবস্থিত
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম
বাংলাদেশের মানচিত্রে স্টেডিয়ামের অবস্থান
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম
সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম
বাংলাদেশের মানচিত্রে স্টেডিয়ামের অবস্থান
পূর্ণ নামসাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম
অবস্থানসাতক্ষীরা, বাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২২°৪৩′১২.১০″ উত্তর ৮৯°০৪′২৭.৮০″ পূর্ব / ২২.৭২০০২৭৮° উত্তর ৮৯.০৭৪৩৮৮৯° পূর্ব / 22.7200278; 89.0743889স্থানাঙ্ক: ২২°৪৩′১২.১০″ উত্তর ৮৯°০৪′২৭.৮০″ পূর্ব / ২২.৭২০০২৭৮° উত্তর ৮৯.০৭৪৩৮৮৯° পূর্ব / 22.7200278; 89.0743889
মালিকজাতীয় ক্রীড়া পরিষদ
পরিচালকসাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থা
উপরিভাগঘাস
স্কোরবোর্ডনেই
নির্মাণ
কপর্দকহীন মাঠ১৯৫০
উন্মোচন১৯৭২
নির্মাণ ব্যয়৯ কোটি ৩১ লক্ষ ৪৩ হাজার বাংলাদেশি টাকা (২০১৫)
ভাড়াটে
সাতক্ষীরা জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন

সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়াম ১৯৭২ সালে বাংলাদেশে নির্মিত[১] একটি জেলা পর্যায়ের স্টেডিয়াম। স্টেডিয়ামটি সাতক্ষীরা জেলার সাতক্ষীরা পৌরসভায় পলাশপোল এলাকার প্রাণ সায়ের খালের উত্তরে অবস্থিত। ঐতিহাসিক কারণে স্টেডিয়ামটি এখনো “কনক পার্ক” নামে পরিচিত।[১] এই স্টেডিয়ামে জেলা ও জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেট,[২] ফুটবল, কাবাডি,[৩][৪] ভলিবল[৪] ও অন্যান্য খেলা আয়োজনের পাশাপাশি বাংলাদেশের জাতীয় দিবসসমূহের কর্মসূচি, খেলোয়াড় বাছাই, তায়কোয়ান্দো ও কুস্তি প্রশিক্ষণ এবং বিভিন্ন কনসার্ট অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। বাংলাদেশের অন্যান্য স্টেডিয়ামের মতো এই স্টেডিয়ামটিও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অধিভুক্ত[৫] এবং জেলা ক্রীড়া পরিষদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৫০-এর দশকে স্থানীয় বাসিন্দা কনক চন্দ্র পাল ক্রীড়ায়োজন ও খেলাধুলায় উৎসাহ প্রদানের জন্য তৎকালীন মহকুমা পার্ক কমিটিকে বর্তমান স্টেডিয়ামের অংশবিশেষ অনুদান হিসেবে দেন। পরবর্তীতে নূর আহম্মদ খাঁ, নুরুল ইসলাম খাঁ ও আশরাফ উদ্দিন খান প্রমুখের নিকট থেকে সেই স্থানসংলগ্ন আরও কিছু জমি নিয়ে ১৯৭২ সালে বর্তমান স্টেডিয়ামটি গড়ে তোলা হয়।[১][৬]

বৈশিষ্ট্য ও কাঠামো[সম্পাদনা]

স্টেডিয়ামটির মাঠ ডিম্বাকৃতির। মাঠের দক্ষিণ দিকে কংক্রিট-নির্মিত গ্যালারি ও প্যাভিলিয়ন অবস্থিত। তবে, গ্যালারি ও ড্রেসিং রুমের কাজ এখনও অসম্পন্ন রয়েছে। মাঠের উত্তর দিকে কোনো গ্যালারি নেই। গ্যালারি ও প্যাভিলিয়নের মোট ছয়টি প্রবেশমুখ রয়েছে। এছাড়া স্টেডিয়ামের দক্ষিণ-পূর্ব পাশে লনটেনিস কোর্টও রয়েছে।

আয়োজন[সম্পাদনা]

নিয়মিত আয়োজন[সম্পাদনা]

  • জাতীয় দিবস উদযাপন: এই স্টেডিয়ামে প্রতিবছর বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিজয় দিবসে কুচকাওয়াজ, শারীরিক কসরত, মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা আয়োজিত হয়।[৪][৭][৮]
  • ফুটবল প্রতিযোগিতা: সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে, সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় এবং সাতক্ষীরা জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এই ভেন্যুতে নিয়মিত জেলা প্রশাসক কাপ ফুটবল[৯][১০] এবং জেলা পর্যায়ের ফুটবল লিগ আয়োজিত হয়।
  • ক্রিকেট প্রতিযোগিতা: সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় এই ভেন্যুতে জেলার বিভিন্ন পর্যায় ক্রিকেট (প্রিমিয়ার ডিভিশন হতে দ্বিতীয় বিভাগ)লিগ আয়োজিত হয়।[১১][১২][১৩][১৪]

উল্লেখযোগ্য আয়োজন[সম্পাদনা]

ইয়ং টাইগার্স বয়সভিত্তিক জাতীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ[সম্পাদনা]

এই ভেন্যুটি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ব্যবস্থাপনায় সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজিত এই প্রতিযোগিতার জন্য খুলনা বিভাগের উল্লেখযোগ্য ভেন্যুগুলির অন্যতম। এই ভেন্যুতে ২০১২ সাল থেকে ইয়ং টাইগার্স বয়স ভিত্তিক ও স্কুল ক্রিকেট প্রতিযোগিতা হচ্ছে।

সাতক্ষীরায় অনুষ্ঠিত ইয়াং টাইগার্স জাতীয় ক্রিকেট প্রতিযোগিতার তালিকা (৫ আগস্ট ২০১৯ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত )
প্রতিযোগিতার নাম প্রতিযোগিতা সময় পৃষ্ট পোষক বয়স সীমা মন্তব্য তথ্যসুত্র
ইয়াং টাইগার্স জাতীয়

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ

জেলা স্কুল ও জাতীয় চুড়ান্ত পর্ব

২০১১-১২

স্কুল প্রতিযোগিতা; মার্চ-এপ্রিল, ২০১২,

জাতীয় চূড়ান্ত পর্ব ১০-২৪ এপ্রিল, ২০১২।

অনূর্ধ্ব-১৪
ইয়াং টাইগার্স জাতীয়

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ

২০১৩-১৪

১০ মার্চ, ২০১৪ অনূর্ধ্ব-১৬ এটা খুলনা বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা ছিল। সাতক্ষীরা জেলা শিরোপা জিতে।
ইয়ং টাইগার্স স্কুল

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশীপ ২০১৪

১৪ মার্চ , ২০১৪ - ২২ মার্চ , ২০১৪ অনূর্ধ্ব-১৬ জেলা ভিত্তিক প্রতিযোগিতা। সাতক্ষীরা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শিরোপা জিতে।
ইয়াং টাইগার্স জাতীয়

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ

২০১৪-১৫

২৬ ডিসেম্বর, ২০১৪ অনূর্ধ্ব-১৬ এটা খুলনা বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা ছিল।
ইয়ং টাইগার্স স্কুল

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশীপ ২০১৫-১৬

৮ জুন, ২০১৬ প্রাইম ব্যাংক এটা খুলনা বিভাগীয় পর্যায়ের স্কুলের প্রতিযোগিতা ফাইনাল ছিল।
ইয়াং টাইগার্স জাতীয়

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ

২০১৬-১৭

৭, জানুয়ারি ২০১৭ - ১০, জানুয়ারি ২০১৭ অনূর্ধ্ব-১৬ এটা খুলনা বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা ছিল। খুলনা জেলাকে হারিয়ে যশোর জেলা শিরোপা জিতে।
ইয়াং টাইগার্স জাতীয় ও স্কুল

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ

২০১৭-১৮

৮ নভেম্বর, ২০১৭- ২৬ নভেম্বর, ২০১৭ অনূর্ধ্ব-১৮ খুলনা বিভাগীয় জেলা দলের প্রতিযোগিতা ছিল। নড়াইল জেলাকে হারিয়ে সাতক্ষীরা জেলা শিরোপা জিতে।
২৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ - ১০, জানুয়ারি ২০১৮ অনূর্ধ্ব-১৪ এটা খুলনা বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা ছিল। খুলনা জেলাকে হারিয়ে সাতক্ষীরা জেলা শিরোপা জিতে। [২][১৫]
১৩, জানুয়ারি ২০১৮ - ২৩, জানুয়ারি ২০১৮ অনূর্ধ্ব-১৬ এটা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাউথ যোনের প্রতিযোগিতা ছিল। বরিশাল বিভাগের চ্যাম্পিয়ন বরিশাল

জেলাকে হারিয়ে খুলনা বিভাগের চ্যাম্পিয়ন সাতক্ষীরা জেলা শিরোপা জিতে।

এপ্রিল, ২০১৮ প্রাইম ব্যাংক
ইয়াং টাইগার্স বিভাগীয় স্কুল

ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ

২০১৮-১৯

ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ প্রাইম ব্যাংক জেলা ভিত্তিক প্রতিযোগিতা। আটটি স্কুল অংশ নেয়। সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় শিরোপা জিতে।

কনসার্ট[সম্পাদনা]

  • ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৬ঃ এই স্টেডিয়ামে দেশব্যাপী মাদক ও জঙ্গিবিরোধী কর্মসূ‌চির অংশ হিসেবে কনসার্ট অনুষ্ঠিত হয়। 'কাদামাটি' নামক একটি সংগঠনের আয়োজনে এই কনসার্টে বিখ্যাত ব্যান্ড সংগীত তারকা জেমস মূলশিল্পী ছিলেন।[১৬]

সংস্কার[সম্পাদনা]

গ্যালারি নির্মাণ, প্যাভিলিয়ন ভবন সম্প্রসারণ, মাঠ উন্নয়ন, সীমানা প্রাচীর ও মূল ফটক নির্মাণে ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ তারিখে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ৯ কোটি ৩১ লক্ষ ৪৩ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে।[১৭]

অন্যান্য ব্যবহার[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের জাতীয় দিবস সমূহের কর্মসূচী ও ক্রীড়ানুষ্ঠান ছাড়াও এই স্টেডিয়াম অন্যান্য কাজে ব্যবহৃত হয়েছে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সাতক্ষীরা জেলার খেলাধুলা ও বিনোদন"সাতক্ষীরা জেলা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৯ 
  2. "সাতক্ষীরা চ্যাম্পিয়ন"ভোরের কাগজ। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৯ 
  3. "সাতক্ষীরায় ঐতিহ্যবাহী কাবাডি প্রতিযোগিতা শুরু"ইউএনবি। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-২৩ 
  4. "সাতক্ষীরায় উদযাপিত হচ্ছে স্বাধীনতা দিবস"ভোরের কাগজ অনলাইন। ২৬ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৯ 
  5. "অবকাঠামো। অন্যান্য সকল"জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১৯ 
  6. "স্বস্তি ফিরেছে সাতক্ষীরায়"কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৯ 
  7. "সাতক্ষীরায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস পালিত"The Daily Sangram। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-২৩ 
  8. "দেশকে ভালোবাসার অঙ্গীকার"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-২৩ 
  9. "কালীগঞ্জের জয়"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-২৩ 
  10. "ঢাকার বাইরে"www.jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০১ 
  11. "সফ্টরক প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০১ 
  12. "সাতক্ষীরায় সফ্টরক প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট শুরু | banglatribune.com"Bangla Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০১ 
  13. "ফের প্রাণচঞ্চল সাতক্ষীরার ক্রীড়াঙ্গন"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০১ 
  14. "সাতক্ষীরার প্রথম নারী আম্পায়ার রিমা"Dhaka Tribune Bangla। ২০১৯-০৪-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০১ 
  15. "খুলনা বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন সাতক্ষীরা"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০৫ 
  16. "সাতক্ষীরা মাতালেন জেমস"jagonews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০৫ 
  17. "আধুনিকায়নে বরাদ্দ পেয়েছে সাতক্ষীরা স্টেডিয়াম"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৯ 
  18. "ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সাতক্ষীরায় ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৯ 
  19. "বাংলাদেশও আইএসের হুমকির মুখে"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-২৩