বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর স্টেডিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(ঝালকাঠি স্টেডিয়াম থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর স্টেডিয়াম
প্রাক্তন নামঝালকাঠি নতুন স্টেডিয়াম (২০০৭-২০১১)
অবস্থানঝালকাঠি , বাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২২°৩৯′৩০.৮২″ উত্তর ৯০°১১′৫৫.৫৫″ পূর্ব / ২২.৬৫৮৫৬১১° উত্তর ৯০.১৯৮৭৬৩৯° পূর্ব / 22.6585611; 90.1987639স্থানাঙ্ক: ২২°৩৯′৩০.৮২″ উত্তর ৯০°১১′৫৫.৫৫″ পূর্ব / ২২.৬৫৮৫৬১১° উত্তর ৯০.১৯৮৭৬৩৯° পূর্ব / 22.6585611; 90.1987639
পাবলিক ট্রানজিটবরিশাল-পিরোজপুর মহাসড়ক-থানা রোড চৌরাস্তা হতে বিকনা রোড দিয়ে ১ কিলোমিটার
মালিকজাতীয় ক্রীড়া পরিষদ
পরিচালকঝালকাঠি জেলা ক্রীড়া সংস্থা
ভূসম্পত্তির পরিমাণসাড়ে ৯ একর
উপরিভাগঘাস
স্কোরবোর্ডনেই
উন্মোচন২০০৭
ভাড়াটিয়া
ঝালকাঠি ক্রিকেট দল
ঝালকাঠি ফুটবল দল

বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর স্টেডিয়াম (পূর্বনাম ঝালকাঠি স্টেডিয়াম) বাংলাদেশের একটি জেলা পর্যায়ের স্টেডিয়াম। স্টেডিয়ামটি ঝালকাঠি জেলার ঝালকাঠি পৌরসভার বিকনা মৌজায় অবস্থিত।[১][২] মূলত ক্রিকেট[৩][৪] স্টেডিয়াম হলেও অন্যান্য খেলা যেমন ফুটবল, ব্যাডমিন্টন প্রভৃতি খেলার প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতা এখানে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের অন্যান্য সকল ক্রীড়া ভেন্যুর মতই এই স্টেডিয়ামটি জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অধিভুক্ত[৫] ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার তত্বাবধায়নে রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এই স্টেডিয়ামটি ঝালকাঠি জেলার নতুন স্টেডিয়াম, সাড়ে ৯ একর জমিতে নির্মিত। পুরনো স্টেডিয়ামটি সাড়ে তিন একর জমির উপর ঝালকাঠি থানা রোডে অবস্থিত। ছয় কোটি টাকায় গড়া স্টেডিয়ামটি উদ্বোধন করা হয়েছিল ২০০৭ সালে[১]ঝালকাঠি নতুন স্টেডিয়াম নামে তৈরী হলেও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ কর্তক এই স্টেডিয়ামের নাম ১২ অক্টোবর, ২০১১ তারিখে বীর শ্রেষ্ঠ মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের নামে পরিবর্তন করা হয়।[২][৬][৭]

আয়োজন[সম্পাদনা]

নিয়মিত আয়োজন[সম্পাদনা]

  • জেলা পর্যায়ের জাতীয় স্কুল-মাদ্রাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়।[৮][৯]

উল্লেখযোগ্য আয়োজন[সম্পাদনা]

ফুটবল প্রতিযোগিতা[সম্পাদনা]

স্টেডিয়ামটি নির্মাণের পর হতে এখানে বেশ কয়েকটি জেলা ও জাতীয় পর্যায়ের ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল প্রতিযোগিতা, পুলিশ রেঞ্জ ফুটবল টুর্নামেন্ট[১০][১১], বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট[১২] উল্লেখযোগ্য।

অন্যান্য ব্যবহার[সম্পাদনা]

  • এই স্টেডিয়াম হেলিকপ্টার অবতরণের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে।[১৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "অযত্ন-অবহেলায় ঝালকাঠি"কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৯ 
  2. "ঝালকাঠি জেলা ক্রীড়া সংস্থা"ঝালকাঠি জেলা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৬ 
  3. "জাতীয় কাবাডিতে সাতক্ষীরা"jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০১ 
  4. "ঝালকাঠিতে আব্দুল হাদী রতন স্মৃতি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন"আলোকিত বাংলাদেশ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮ 
  5. "অন্য সকল স্টেডিয়াম"জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৬ 
  6. "বীরশ্রেষ্ঠদের নামে পাঁচ জেলা স্টেডিয়াম"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৯ 
  7. "চার বীরশ্রেষ্ঠের নামে স্টেডিয়াম"www.prothom-alo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৩ 
  8. "ঝালকাঠিতে স্কুল-মাদ্রাসা গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদ্বোধন"Dainik shiksha। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৬ 
  9. "ঢাকার বাইরে"www.jugantor.com। ২০১৪-০৮-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২২ 
  10. "ঝালকাঠিতে পুলিশ রেঞ্জ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু"মানবজমিন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮ 
  11. "রেঞ্জ পুলিশ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনালে বরিশাল আরআরএফ চ্যাম্পিয়ন"NewsRajshahi.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮ 
  12. "ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট"www.jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮ 
  13. "দেশ এখন আইসিইউ'তে আছে"দৈনিক জনতা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]