কিরণ পোলার্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
কিরণ পোলার্ড
Kieron pollard training.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম কিরণ আর্দ্রিয়ান পোলার্ড
জন্ম (১৯৮৭-০৫-১২) ১২ মে ১৯৮৭ (বয়স ৩১)
তাকারিগুয়া, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট
ভূমিকা অল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৩৪)
১০ এপ্রিল ২০০৭ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ ওডিআই ১৭ অক্টোবর ২০১৪ বনাম ভারত
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ২৭)
২০ জুন ২০০৮ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টি২০আই ১৪ জানুয়ারি ২০১৫ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
২০০৬-বর্তমান ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
২০০৯-২০১১ সাউথ অস্ট্রেলিয়ান রেডব্যাকস
২০১০-বর্তমান মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স
২০১০-২০১১ সমারসেট
২০১২-২০১৩ ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স
২০১৩-বর্তমান বার্বাডোস ট্রাইডেন্টস
২০১৪-১৭ অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্স (দল নং ৫৫)
২০১৬-২০১৭ কেপ কোবরাস (দল নং ৫৫)
২০১৭ করাচী কিংস (দল নং ৫৫)
২০১৭–বর্তমান ঢাকা ডায়নামাইটস
২০১৮–বর্তমান মুলতান সুলতানস (দল নং ৫৫)
২০১৮–বর্তমান মেলবোর্ন রেনেগেডেস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৯১ ৪৩ ২৭ ১২১
রানের সংখ্যা ২,০৪২ ৬৩৩ ১,৫৮৪ ২,৮১৮
ব্যাটিং গড় ২৫.২০ ২২.৬০ ৩৭.৭১ ২৭.৩৫
১০০/৫০ ৩/৭ ০/২ ৪/৭ ৩/১৩
সর্বোচ্চ রান ১১৯ ৬৩* ১৭৪ ১১৯
বল করেছে ১,৮০৬ ৩৯০ ৮১১ ২,৩৬৭
উইকেট ৪৪ ১৯ ১৪ ৭৬
বোলিং গড় ৩৮.১১ ২৮.০৫ ৩১.১৪ ২৮.০৯
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - n/a
সেরা বোলিং ৩/২৭ ৩/৩০ ৫/৩৬ ৪/৩২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫০/– ২০/– ৪২/– ৭৪/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো, ১২ এপ্রিল ২০১৫

কিরণ আর্দ্রিয়ান পোলার্ড (ইংরেজি: Kieron Adrian Pollard; জন্ম: ১২ মে, ১৯৮৭) ত্রিনিদাদ ও টোবাগোয় জন্মগ্রহণকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। আগ্রাসী অল-রাউন্ডার হিসেবে পরিচিত পোলার্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের পক্ষ হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। মিডিয়াম ফাস্ট পেস বোলিংয়ে দক্ষ কিরণ পোলার্ড মাঝারী সারির ব্যাটসম্যানরূপে খেলায় অংশগ্রহণ করেন।

২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ টুয়েন্টি২০-তে সুন্দর ক্রীড়া নৈপুণ্য প্রদর্শন করে ঘরোয়া টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় সাউদার্ন রেডব্যাকস ও সমারসেট দলে চুক্তিবদ্ধ হন। ২০১০ সালে যুগ্মভাবে সর্বোচ্চ অর্থলাভকারী খেলোয়াড়রূপে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলেন। এছাড়াও, ২০১৩ সালের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে প্রধান খেলোয়াড় হিসেবে রয়েছেন পোলার্ড।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর তাকারিগুয়া এলাকায় পোলার্ড জন্মগ্রহণ করেন। দুই বোন ও একাকী মায়ের গরিব সংসারে বড় হন পোলার্ড। এ বিষয়ে পোলার্ড বলেন যে, তার মা শুধুই বলতেন আমাদের কোন অর্থ নেই।[১] ২০০৫ সালে টিসিএল গ্রুপ ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতায় ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন। এ সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের হয়ে পাকিস্তান সফরের জন্য মনোনীত হন তিনি। যুবদের প্রথম একদিনের আন্তর্জাতিকে ৪৯ বলে ৫৩ রান করেন।[২] দ্বিতীয় খেলায় অর্ধ-শতক লাভ করলেও শেষ দুই খেলায় দুই অঙ্কে পৌঁছতে পারেননি। ২০০৬ সালে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে চার খেলায় মাত্র ১৯ রান করেছিলেন তিনি।[৩] তবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২ উইকেট লাভ করে দলকে বিজয়ে সহায়তা করেছিলেন।[৪]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৭ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে দলের বাইরে থাকা অভিজ্ঞ খেলোয়াড় থাকা স্বত্ত্বেও ১৫-সদস্যের দলে আশ্চর্য্যজনকভাবে ঠাঁই পান পোলার্ড।[৫] প্রস্তুতিমূলক খেলায় পোলার্ড কেনিয়ার বিপক্ষে ১৪ রান ও দুই উইকেট[৬] এবং বড় ব্যবধানে ভারতের বিপক্ষে পরাজিত খেলায় মাত্র দুই রান করেন।[৭] গ্রুপ-পর্বে খেলার জন্য তাকে মনোনীত না করলেও সুপার-এইট পর্বে উচ্চ পর্যায়ের খেলার জন্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ১০ এপ্রিল, ২০০৭ তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে পোলার্ডের। পোলার্ডের খেলায় অংশগ্রহণের ফলে অধিনায়ক ব্রায়ান লারাকে অনেকগুলো প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়। খেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৬৭ রানের ব্যবধানে পরাভূত হয়।[৮] তিনি তিন ওভার বোলিং করে কোন উইকেট পাননি এবং মাত্র ১০ রান করেছিলেন।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "A cricketing millionaire ... who averages 17"The Sydney Morning Herald। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৭ 
  2. "Pakistan Under-19s v West Indies Under-19s"CricketArchive। ২২ জানুয়ারি ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৭ 
  3. "Batting and Fielding in ICC Under-19 World Cup 2005/06 (Ordered by Average)"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৭ 
  4. "Australia Under-19s v West Indies Under-19s"। CricketArchive। ৮ ফেব্রুয়ারি ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৭ 
  5. Cricinfo staff (১৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৭)। "Samuels makes West Indies squad"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৮ 
  6. "West Indies v Kenya"। CricketArchive। ৫ মার্চ ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৮ 
  7. "West Indies v India"। CricketArchive। ৯ মার্চ ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৮ 
  8. Vasu, Anand (১০ এপ্রিল ২০০৭)। "Clinical South Africa dispatch hosts"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৮ 
  9. "West Indies v South Africa"। CricketArchive। ১০ এপ্রিল ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০২-০৮ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]