লেন্ডল সিমন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লেন্ডল সিমন্স
Lendl Simmons.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামলেন্ডল মার্ক প্ল্যাটার সিমন্স
জন্ম (1985-01-25) ২৫ জানুয়ারি ১৯৮৫ (বয়স ৩৪)
পোর্ট অব স্পেন, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট
সম্পর্কপিভি সিমন্স (কাকা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২৭৩)
৬ মার্চ ২০০৯ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট২১ অক্টোবর ২০১১ বনাম বাংলাদেশ
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৩২)
৭ ডিসেম্বর ২০০৬ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ বনাম আয়ারল্যান্ড
ওডিআই শার্ট নং৫৪
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০১–বর্তমানত্রিনিদাদ ও টোবাগো
২০১২চিটাগং কিংস
২০১৩–বর্তমানগায়ানা আমাজন ওয়ারিয়র্স
২০১৪–বর্তমানমুম্বই ইন্ডিয়ান্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই টি২০আই এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৬৮ ৩৪ ৯৪
রানের সংখ্যা ২৭৮ ১,৯৫৮ ৭৬১ ৫,১১০
ব্যাটিং গড় ১৭.৩৭ ৩১.৫৮ ২৫.৩৬ ৩২.৫৪
১০০/৫০ ০/০ ২/১৬ ০/৪ ১০/২৩
সর্বোচ্চ রান ৪৯ ১২২ ৭৭ ২৮২
বল করেছে ১৯২ ১৫৬ ৩৬ ১,০৯২
উইকেট ১৭
বোলিং গড় ১৪৭.০০ ১৭২.০০ ৯.১৬ ৩৪.৪১
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/৬০ ১/৩ ৪/১৯ ৩/৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/– ২৮/– ১৬/- ৯৭/৪
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৫

লেন্ডল মার্ক প্ল্যাটার সিমন্স (ইংরেজি: Lendl Mark Platter Simmons; জন্ম: ২৫ জানুয়ারি, ১৯৮৫) ওয়েস্ট ইন্ডিজের ত্রিনিদাদ ও টোবাগো’র পোর্ট অব স্পেনে জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। তার কাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক টেস্ট ক্রিকেটার ফিল সিমন্স[১] ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তবে, দলের প্রয়োজনে মাঝে-মধ্যে ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলিং করে থাকেন লেন্ডল সিমন্স। এছাড়াও তিনি উইকেট-রক্ষকের দায়িত্বও পালন করে থাকেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

উদীয়মান তরুণ খেলোয়াড় হিসেবে ২০০২ সালে নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ২০০৪ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের সদস্যরূপে খেলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

দুই বছর পর ৭ ডিসেম্বর, ২০০৬ তারিখে ফয়সালাবাদের ইকবাল স্টেডিয়ামে পাকিস্তান দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মাধ্যমে অভিষিক্ত হন। ২০০৮-০৯ মৌসুমে ইংল্যান্ড দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর করলে ত্রিনিদাদের কুইন্স পার্ক ওভালে অনুষ্ঠিত ৫ম ও চূড়ান্ত টেস্টে অভিষেক ঘটে লেন্ডলের। খেলায় তিনি ২৪ ও ৮ রান করলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ ড্র করতে সক্ষম হয়।[২]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃপক্ষ ১১ জানুয়ারি, ২০১৫ তারিখে ২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের ১৫-সদস্যের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করে। তিনিও দলের অন্যতম সদস্য মনোনীত হন। ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ তারিখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল গ্রুপ-পর্বে আয়ারল্যান্ড দলের বিপক্ষে প্রথম খেলায় অংশগ্রহণ করে। ৫ উইকেটে ৮৭ করার পর ৬ষ্ঠ উইকেটে ড্যারেন স্যামিকে (৮৯) সাথে নিয়ে ২১.১ ওভারে ১৫৪ রান তোলে দলকে ৩০৪/৭-এ নিয়ে যান।[৩] খেলায় তিনি তার ২য় ওডিআই সেঞ্চুরি করেন। তার অসামান্য ক্রীড়ানৈপুণ্য থাকা স্বত্ত্বেও দল ৪ উইকেটে পরাজয়বরণ করে যা ক্রিকেট বিশ্বকাপের ইতিহাসে টেস্টখেলুড়ে দলের বিপক্ষে আয়ারল্যান্ডের চতুর্থ জয়লাভ।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Cricket Archive - Lendl Simmons
  2. "West Indies v England, 5th Test, 2008/9"। ৮ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০১৩ 
  3. Monga, Sidharth (১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫)। "Joyful Ireland deepen West Indies turmoil"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  4. "Cricket World Cup 2015: Ireland stun West Indies in Nelson"BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]