আন্দ্রে ফ্লেচার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আন্দ্রে ফ্লেচার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামআন্দ্রে ডেভিড স্টিফন ফ্লেচার
জন্ম (1987-11-28) ২৮ নভেম্বর ১৯৮৭ (বয়স ৩৪)
সেন্ট ডেভিড প্যারিশ, গ্রেনাডা
উচ্চতা৬ ফুট ৪ ইঞ্চি (১.৯৩ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক২৪ জুন ২০০৮ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই২৬ জুন ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ টি২০আই
ম্যাচ সংখ্যা ১৫ ৩০ ৩৯ ৩৬
রানের সংখ্যা ২৫৬ ১৫৯৫ ৮৩২ ৮৫২
ব্যাটিং গড় ১৭.০৬ ৩১.২৭ ২২.৪৮ ২৭.৪৮
১০০/৫০ ০/২ ২/১০ ০/৫ ০/৫
সর্বোচ্চ রান ৫৪ ১২৩ ৮৮ ৯০*
বল করেছে ১২১
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ০/০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/৩ ৩০/১ ২২/৬ ২৪/৪
উৎস: CricketArchive, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১১

আন্দ্রে ডেভিড স্টিফন ফ্লেচার (জন্ম: ২৮ নভেম্বর, ১৯৮৭) গ্রেনাডার সেন্ট ডেভিড প্যারিশে জন্মগ্রহণকারী ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটারওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম উদীয়মান খেলোয়াড় আন্দ্রে ফ্লেচার ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি মাঝে-মধ্যে উইকেট-রক্ষণের কাজেও সম্পৃক্ত রাখেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডের হয়ে খেলে থাকেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলে প্রতিনিধিত্ব করেন। এরপর ২০০৮ সালে ব্রিজটাউনে অনুষ্ঠিত ওয়েস্ট ইন্ডিজের বড়দের দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টুয়েন্টি২০ ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২০০৯ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় মাত্র ৩২ বলে ৫৩ রান সংগ্রহ করলেও পরবর্তী ৭ ইনিংসে মাত্র ২১ রান তোলেন। তন্মধ্যে ৫ ইনিংসেই শূন্য রানে আউট হয়ে যান তিনি। কিন্তু, জুন-জুলাই, ২০১৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত দুই খেলার টুয়েন্টি২০ সিরিজে নিজেকে সঠিকমাত্রায় তুলে ধরেন ফ্লেচার। ১ম ও ২য় টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে যথাক্রমে ৫২ ও ৬২ রান সংগ্রহ করেন।[১] উভয় খেলায়ই তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারসহ ম্যান অব দ্য সিরিজ পুরস্কারও লাভ করেন।[১]

ওয়েস্ট ইন্ডিজের তরুণ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আন্দ্রে ফ্লেচার তাদের মধ্যে একজন, যাদের প্রথম-শ্রেণীর অভিজ্ঞতা ছাড়াই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ছুঁড়ে ফেলেছে। একটি শক্ত কৌশল সহ একজন টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান, ফ্লেচার তার প্রাথমিক আন্তর্জাতিক উপস্থিতিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ লক্ষণ দেখিয়েছিলেন তবে তার চারপাশে মাঠে কী ঘটছে সে সম্পর্কে সচেতনতার অভাব ছিল একটি সমস্যা এবং তাকে একাধিকবার তার উইকেটের মূল্য দিতে হয়েছিল। তিনি 2008 সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সীমিত ওভারের খেলার জন্য একটি ঘরোয়া মৌসুমে ডাক পেয়েছিলেন যেখানে তিনি তার প্রথম প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরি পোস্ট করেছিলেন, জ্যামাইকার বিপক্ষে তার দলের অন্যথায় হতাশাজনক ব্যাটিং প্রদর্শনে উইন্ডওয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জের জন্য অপরাজিত 103 রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের একজন প্রাক্তন অনূর্ধ্ব-১৯ খেলোয়াড়, ফ্লেচার স্ট্যানফোর্ড 20/20-এ গ্রেনাডার হয়ে উইকেট কিপিং করেন এবং অ্যান্টিগায় উদ্বোধনী স্ট্যানফোর্ড সুপার সিরিজের সময় মিলিয়ন ডলার বিজয়ী ছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]