মাইকেল লাম্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাইকেল লাম্ব
Michael Lumb cricketer.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমাইকেল জন লাম্ব
জন্ম (1980-02-12) ১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৮০ (বয়স ৩৯)
জোহেন্সবার্গ, ট্রান্সভাল প্রদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা
ডাকনামলাম্বি, জো
উচ্চতা৬ ফুট ০ ইঞ্চি (১.৮৩ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২৩৩)
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ ওডিআই৫ মার্চ ২০১৪ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ওডিআই শার্ট নং৪৫
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৫০)
৩ মে ২০১০ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ টি২০আই৩১ মার্চ ২০১৪ বনাম নেদারল্যান্ডস
টি২০আই শার্ট নং৪৫
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০০-২০০৬ইয়র্কশায়ার
২০০৭-২০১১হ্যাম্পশায়ার
২০০৯-২০১০রাজস্থান রয়্যালস
২০১১কুইন্সল্যান্ড
২০১১ডেকান চার্জার্স
২০১১-বর্তমানসিডনি সিক্সার্স
২০১২-বর্তমাননটিংহ্যামশায়ার (দল নং ৪৫)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ২৭ ২০২ ২১০
রানের সংখ্যা ১৬৫ ৫৫২ ১১,১৫১ ৬,৩১২
ব্যাটিং গড় ৫৫.০০ ২১.২৩ ৩৪.৩১ ৩২.৮৭
১০০/৫০ ১/০ ০/৩ ২০/৫৮ ৭/৪৩
সর্বোচ্চ রান ১০৬ ৬৩ ২২১* ১৮৪
বল করেছে ৩৩০ ১২
উইকেট
বোলিং গড় ৪২.৫০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ২/১০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/– ৮/– ১১৬/– ৭০/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ৩০ মার্চ ২০১৭

মাইকেল জন লাম্ব (ইংরেজি: Michael Lumb; জন্ম: ১২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮০) দক্ষিণ আফ্রিকান বংশোদ্ভূত ইংরেজ ক্রিকেটার[১] ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের একদিনের আন্তর্জাতিকটুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের উভয় স্তরে খেলছেন তিনি। পাশাপাশি কাউন্টি ক্রিকেটে নটিংহ্যামশায়ার দলে খেলছেন লাম্ব। মূলতঃ তিনি একজন বামহাতি ব্যাটসম্যান। তবে, দলের প্রয়োজন ডানহাতে মিডিয়াম পেস বোলিং করেন।

ডেনিস অ্যামিসের পর ইংল্যান্ডের পক্ষে দ্বিতীয় ক্রিকেটার ও বিশ্বের নবম ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক ওডিআইয়ে সেঞ্চুরি করার গৌরব অর্জন করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মাইকেল লাম্বের পিতা হচ্ছেন ইয়র্কশায়ারের প্রথিতযশা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রিচার্ড লাম্ব[২] লাম্ব দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্মগ্রহণ করেন। মন্টরোজ প্রাইমারিতে পড়াশোনা শেষে জোহানেসবার্গের সেন্ট স্টিথিয়ান্স কলেজে পড়াশোনা করেন। ট্রান্সভালের জুনিয়র দলের মাধ্যমে ক্রিকেট জীবনে প্রবেশ করেন। এরপর তিনি ইয়র্কশায়ারের পক্ষে খেলার জন্য চুক্তিবদ্ধ হন। কাউন্টিতে ২০০০ সালে তার অভিষেক ঘটে। তুখোড় ব্যাটসম্যান লাম্ব সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষিক্ত হন। ২০০১ সালে হাঁটুর আঘাতে তিনি ইয়র্কশায়ারের পক্ষে মৌসুমে স্বল্পকালীন সময়ে অংশগ্রহণ করেন। ইয়র্কশায়ার ঐ বছর কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে শিরোপা লাভ করে। লিচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে তিনি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেকে সেঞ্চুরি করেন। এর ফলে লাম্ব চতুর্থবারের মতো সেঞ্চুরি করে ইয়র্কশায়ারের পক্ষে পিতা-পুত্রের ঘটনা ঘটান।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০১০ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় ইংল্যান্ডের ১৫-সদস্যবিশিষ্ট দলে মনোনীত হন লাম্ব। টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার অভিষেক ঘটে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে। ক্রিস গেইলের বলে আউট হবার পূর্বে তিনি দ্রুতগতিতে ২৮ রান সংগ্রহ করেছিলেন। প্রতিযোগিতায় ইংল্যান্ডের পক্ষে সাতটি খেলাতেই অংশগ্রহণ করেন ও ক্রেগ কাইজওয়েটারের সাথে ব্যাটিংয়ে উদ্বোধন করেছেন। ১৯.৫৭ রান গড়ে তিনি সর্বমোট ১৩৭ রান সংগ্রহ করেন।

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ তারিখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে লাম্বের একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে। খেলায় তিনি শতরান করেছিলেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Warner, David (২০১১)। The Yorkshire County Cricket Club: 2011 Yearbook (113th সংস্করণ)। Ilkley, Yorkshire: Great Northern Books। পৃষ্ঠা 373। আইএসবিএন 978-1-905080-85-4 
  2. Profile of Michael Lumb
  3. "West Indies v England: Michael Lumb's ton fails to prevent loss"। BBC Sport। ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১ মার্চ ২০১৪ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]