আজগর আলী চৌধুরী জামে মসজিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আজগর আলী চৌধুরী জামে মসজিদ
Old building of asgar ali mosque.jpg
১৭৯৫ সালে তৈরি করা পুরনো ভবন
ধর্ম
জেলাচট্টগ্রাম
পরিচালনা সংস্থাচৌধুরী বংশ
অবস্থান
অবস্থানচৌধুরী পাড়া রাস্তা, হালিশহর, চট্টগ্রাম
দেশবাংলাদেশ
স্থাপত্য
ধরনমুঘল স্থাপত্য
প্রতিষ্ঠাতাআজগর আলী চৌধুরী
প্রতিষ্ঠার তারিখ১৭৯৫
নির্দিষ্টকরণ
ধারণ ক্ষমতা৩১
গম্বুজসমূহ
উপাদানসমূহচুন-সুড়কি

আজগর আলী চৌধুরী জামে মসজিদ চট্টগ্রামের হালিশহরে অবস্থিত একটি প্রাচীন মসজিদ।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৭৯৫ সালে আজগর আলী চৌধুরী নামে একজন স্থানীয় ব্যক্তি এই মসজিদটি তৈরি করেন। ১০ শতক জমির ওপর মসজিদটি নির্মাণ করা হয়। ইমামসহ প্রায় ৩১ জন মুসল্লি এই মসজিদে নামায আদায় করতে পারেন। ২০১৬ সালের দিকে মসজিদটি নামায পড়ার অনুপযুক্ত হয়ে পড়ে। ফলে মসজিদ কমিটি এলাকাবাসীর সম্মতিতে ঠিক করে এটি সংস্কার করে নতুন আরেকটি ভবন তৈরি করা হবে। ঢাকাস্থ আরবানা আর্টিটেক্ট গ্রুপকে তারা দায়িত্ব দেয় মসজিদটি সংস্কার করার জন্য। ৫০ লক্ষ টাকা খরচ করে চুন-সুরকি দিয়েই মসজিদটিকে সংস্কার করা হয়। আর প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে এর পশ্চিম দিকে আরেকটি নতুন ভবন তৈরি করা হয়। এটির চারপাশে লেকের মতো পানির স্থাপনা তৈরি করা হয়। অনেকটা জাতীয় সংসদের মতো। দূর থেকে দেখলে মনে হয় এটি ভেসে আছে পানির ওপরে।[১][২]

স্থাপত্যশৈলি[সম্পাদনা]

এটি মূলত মোঘল স্থাপনাকে অনুকরণ করে তৈরি করা একটি মসজিদ। তাজমহলের একটি প্রভাব এর নকশায় লক্ষ্য করা যায়। মসজিদের বাইরে দেয়ালে রয়েছে সুন্দর কারুকাজ। উপরে রয়েছে ২৪ টি মিনার। আর গম্বুজ রয়েছে তিনটি। এর মধ্যে মাঝখানের গম্বুজ আকারে অনেক বড়। বিশেষ কোন জানালা এই মসজিদে নেই। দরজার আকারও খুব একটা বড় নয়। চুন-সুড়কি দিয়েই এই মসজিদটি তৈরি করা হয়েছে।[১]

অন্যান্য স্থাপনা[সম্পাদনা]

মসজিদটির সামনে রয়েছে ১০০ শতক জায়গা জুড়ে বিশাল একটি পুকুর। এর উত্তর দিকে রয়েছে চৌধুরী পরিবারের তৈরি করা প্রাথমিক বিদ্যালয়। দক্ষিণ দিকে রয়েছে কবরস্থান।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "নতুনরূপে ২৫০ বছরের পুরনো মোগল আমলের মসজিদ"। সমকাল। ১৩ জানুয়ারী ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০২০ 
  2. "বাংলাদেশের দৃষ্টিনন্দন কয়েকটি মসজিদ"। ১৪ জুন ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০২০