পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি
Official-logo-bangla-akademi.jpg
বাংলা আকাদেমির লোগো

বাংলা আকাদেমির প্রধান ভবন
সংক্ষেপে বাংলা আকাদেমি
গঠন মে ২০, ১৯৮৬ (1986-05-20) (২৮ বছর আগে)
ধরণ ভাষা-নিয়ন্ত্রক সংস্থা
আইনি অবস্থান সরকারি বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান
উদ্দেশ্য/ফোকাস বাংলা ভাষা সংক্রান্ত গবেষণা ও নিয়ন্ত্রণ
সদর দপ্তর কলকাতা
অবস্থান পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
অঞ্চলগত সেবা পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা
দাপ্তরিক ভাষা(সমূহ) বাংলা
সভাপতি মহাশ্বেতা দেবী[১]
প্রধান প্রতিষ্ঠান তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার

পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি, যেটি বাংলা আকাদেমি নামে জনপ্রিয়, পশ্চিমবঙ্গে প্রতিষ্ঠিত বাংলা ভাষার সরকারি নিয়ন্ত্রক সংস্থা। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের বিকাশ ও ঐতিহ্যরক্ষার লক্ষ্যে ফ্রান্সের আকাদেমি ফ্রঁসেজ-এর আদলে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের একটি অঙ্গ হিসাবে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৯৪ সালে এটি একটি স্বশাসিত সংস্থার মর্যাদা পায়। যদিও বাংলা আকাদেমি কর্তৃক প্রচলিত ভাষাসংক্রান্ত সংস্কারগুলি আইনগতভাবে বাধ্যতামূলক নয়, তবু পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই সংস্কারগুলির প্রচারে সচেষ্ট থাকেন। ত্রিপুরা সরকারও সম্প্রতি এই সংস্কারগুলি বিদ্যালয়স্তরে চালু করেছেন। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস বা রামকৃষ্ণ মিশনের মতো বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা পশ্চিমবঙ্গে বাংলা প্রকাশনার ক্ষেত্রে বাংলা আকাদেমির নিয়মাবলি মেনে চলেন।

নামকরণ[সম্পাদনা]

কাজ[সম্পাদনা]

বাংলা আকাদেমির গবেষকেরা বাংলা বানান, ব্যাকরণ, উৎপত্তি ও বাংলা ভাষার ইতিহাস নিয়ে গবেষণা করছেন। মৌলিক বাংলা পাণ্ডুলিপি সংরক্ষণ করার জন্য তাঁরা একটি বড় গ্রন্থাগার নির্মাণ করেছেন। এছাড়াও বাংলা আকাদেমি কর্তৃক সংস্কারপ্রাপ্ত বাংলা লিপি অনুসারে এই সংস্থা ইউনিকোড বাংলা ফন্ট তৈরি করে।

পাদটীকা[সম্পাদনা]