২০২০-২৩ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০২০-২৩ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লীগ
তারিখ৩০ জুলাই ২০২০ – ৩১ মার্চ ২০২৩
ব্যবস্থাপকআন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল
ক্রিকেটের ধরনএকদিনের আন্তর্জাতিক
অংশগ্রহণকারী১৩
খেলার সংখ্যা১৫৬
ইউডিআরএসহ্যা

২০২০-২০২৩ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লীগ (ইংরেজি: The 2020–23 ICC Cricket World Cup Super League) [১][২] একদিনের আন্তর্জাতিক (ওডিআই) এর একটি উদ্বোধনী সংস্করন হবে।[৩] উক্ত লীগ প্রতিযোগিতাটি জুলাই ২০২০ থেকে শুরু হয়ে মার্চ ২০২৩ পর্যন্ত চলবে এবং ২০২৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের কাজ সম্পন্ন করবে।[৪] ৩০ জুলাই ২০২০ থেকে শুরু ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার সিরিজ ছিল লীগের প্রথম ম্যাচ। কোভিড-১৯ মহামারী লীগের শুরুতে প্রভাব বিস্তার করে, বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক ম্যাচ স্থগিত করা হয়।[৫]

টুর্নামেন্টে ১৩টি আন্তর্জাতিক দলকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এর মধ্যে ১২টি হচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের পূর্ণ সদস্য এবং ২০১৫-১৭ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ চ্যাম্পিয়নশিপ বিজয়ী নেদারল্যান্ডস এই প্রতিযোগিতার জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে।[৬] প্রতিটি দল একটি করে ওডিআই সিরিজ খেলবে ১২টি দলের মধ্যে ৮টি দলের সাথে। চারটি সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে নিজ দেশের মাঠে এবং অপর চারটি সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে বিপক্ষ দলের খেলার মাঠে। প্রতিটি সিরিজে থাকবে তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক খেলা।[৭]

প্রতিযোগী দল[সম্পাদনা]

২০২৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জনের লেখচিত্র

২০২৩ বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন[সম্পাদনা]

বিশ্বকাপের জন্য শীর্ষ ৭টি দল ও ২০২৩ বিশ্বকাপের আয়োজক দল ভারত সহ মোট ৮টি দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে যোগ্যতা অর্জন করবে। বাকী পাঁচটি দল, অনির্ধারিত সংখ্যক এসোসিয়েট সদস্য দলের সাথে বাছাইপর্ব খেলবে। সেখান থেকে মাত্র দুটি দল ফাইনাল প্রতিযোগিতার মধ্যদিয়ে বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। [৯]

তালিকা সূচী[সম্পাদনা]

২০ জুন ২০১৮ তারিখে ২০১৮-২৩ আইসিসি ভবিষ্যত ট্যুর পরিকল্পনার অংশ হিসাবে খেলার তালিকা সূচী প্রকাশ করা হয়। [১০][১১]

স্বাগতিক \ অতিথি
 আফগানিস্তান মার্চ'২২ ৩–০ ডিসে'২১ সেপ্টে'২১
 অস্ট্রেলিয়া ২–১ স্থগিত জানু'২২ স্থগিত
 বাংলাদেশ ফেব্রু'২২ অক্টো'২১ মে'২১ ৩–০
 ইংল্যান্ড ১–২ ২–১ জুলা'২১ জুন'২১
 ভারত স্থগিত মার্চ'২১ অক্টো'২১ জানু'২২
 আয়ারল্যান্ড স্থগিত স্থগিত জুলা'২১ আগ'২১
 নেদারল্যান্ডস মে'২২ জুন'২১ স্থগিত স্থগিত
 নিউজিল্যান্ড ৩–০ মার্চ'২২ জান'২২ স্থগিত
 পাকিস্তান ফেব্রু'২২ অক্টো'২১ ডিসে'২১ ২–১
 দক্ষিণ আফ্রিকা মার্চ'২২ স্থগিত সেপ্ট'২১ এপ্রি'২১
 শ্রীলঙ্কা জুলা'২১ স্থগিত স্থগিত স্থগিত
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ জুন'২১ জান'২২ স্থগিত ৩–০
 জিম্বাবুয়ে নভে'২১ জুন'২১ স্থগিত স্থগিত
১৪ মার্চ ২০২১ তারিখের ম্যাচ(সমূহ) খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: ক্রিকইনফো
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।


যে কোন দলের সাথে যে চারটি দল উক্ত প্রতিযোগিতায় একে অপরের মুখোমুখি হবে না তাদের তালিকা নিম্নরূপ

দল যে সকল দলের সাথে খেলবে না
আফগানিস্তান   ইংল্যান্ড  নিউজিল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
অস্ট্রেলিয়া   বাংলাদেশ  আয়ারল্যান্ড  নেদারল্যান্ডস  শ্রীলঙ্কা
বাংলাদেশ   অস্ট্রেলিয়া  ভারত  নেদারল্যান্ডস  পাকিস্তান
ইংল্যান্ড   আফগানিস্তান  নিউজিল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  জিম্বাবুয়ে
ভারত   বাংলাদেশ  আয়ারল্যান্ড  নেদারল্যান্ডস  পাকিস্তান
আয়ারল্যান্ড   অস্ট্রেলিয়া  ভারত  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা
নেদারল্যান্ডস   অস্ট্রেলিয়া  বাংলাদেশ  ভারত  শ্রীলঙ্কা
নিউজিল্যান্ড   আফগানিস্তান  ইংল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা  জিম্বাবুয়ে
পাকিস্তান   বাংলাদেশ  ভারত  আয়ারল্যান্ড  শ্রীলঙ্কা
দক্ষিণ আফ্রিকা   আফগানিস্তান  নিউজিল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  জিম্বাবুয়ে
শ্রীলঙ্কা   অস্ট্রেলিয়া  আয়ারল্যান্ড  নেদারল্যান্ডস  পাকিস্তান
ওয়েস্ট ইন্ডিজ   আফগানিস্তান  ইংল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা  জিম্বাবুয়ে
জিম্বাবুয়ে   ইংল্যান্ড  নিউজিল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা  ওয়েস্ট ইন্ডিজ

লীগের পয়েন্ট টেবিল[সম্পাদনা]

অব দল খেলা হা ফহ জরি পয়েন্ট এনআরআর যোগ্যতা অর্জন
 ইংল্যান্ড ৪০ ০.৪৬৮ ২০২৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপ-এর যোগ্যতার্জন।[ক]
 পাকিস্তান ৪০ ০.৪২৬
 অস্ট্রেলিয়া ৪০ ০.৩৪৭
 নিউজিল্যান্ড ৩০ ২.৩৫২
 আফগানিস্তান ৩০ ০.৫২৭
 বাংলাদেশ ৩০ −০.১২৮
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩০ −০.৮৭৬
 ভারত (Q) ২৯ −০.২৫২
 জিম্বাবুয়ে ১০ −০.৭৪১ ২০২৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব-এর যোগ্যতা অর্জন।[খ]
১০  আয়ারল্যান্ড ১০ −১.০৭৬
১১  দক্ষিণ আফ্রিকা −০.০৮৭
১২  শ্রীলঙ্কা −২ −০.২২১
১৩  নেদারল্যান্ডস
৭ এপ্রিল ২০২১ তারিখের ম্যাচ খেলা শেষের পর হালনাগাদকৃত। উৎস: আইসিসি[১২]
(Q) টুর্নামেন্টের নির্দেশিত পর্যায়ে যাওয়ার উপযুক্ত।
টীকা:
  1. ভারত আয়োজক হিসাবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে যোগ্যতা অর্জন করে।
  2. সুপার লীগের নিচের দলগুলোকে লীগ ২ পর্যায়ে অবনমিত করা হবে যদি তাদের অবস্থান ২০২৩ বাছাইপর্বের ২০১৯-২৩ লীগ ২ এর চেয়ে নীচে হয়।

খেলা[সম্পাদনা]

২০২০[সম্পাদনা]

ইংল্যান্ড ব আয়ারল্যান্ড[সম্পাদনা]

এই সিরিজটি মূলত সেপ্টেম্বর ২০২০ এর জন্য নির্ধারিত ছিল, কিন্তু কোভিড-১৯ এর কারণে একে পুনরায় সূচিত করা হয়।

৩০ জুলাই ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
আয়ারল্যান্ড 
১৭২ (৪৪.৪ ওভার)
 ইংল্যান্ড
১৭৪/৪ (২৭.৫ ওভার)
ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে জয়ী
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
পয়েন্ট : ইংল্যান্ড ১০, আয়ারল্যান্ড ০
১ আগস্ট ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
আয়ারল্যান্ড 
২১২/৯ (৫০ ওভার)
 ইংল্যান্ড
২১৬/৬ (৩২.৩ ওভার)
ইংল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
পয়েন্ট : ইংল্যান্ড ১০, আয়ারল্যান্ড ০
৪ আগস্ট ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড 
৩২৮ (৪৯.৫ ওভার)
 আয়ারল্যান্ড
৩২৯/৩ (৪৯.৫ ওভার)
আয়ারল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
পয়েন্ট : আয়ারল্যান্ড ১০, ইংল্যান্ড ০

ইংল্যান্ড ব অস্ট্রেলিয়া[সম্পাদনা]

এই সিরিজটি মূলত জুলাই ২০২০ এ অনুষ্ঠিত হতে নির্ধারিত ছিল, কিন্তু কোভিড-১৯ এর কারণে পুনরায় সূচী নির্ধারণ করা হয়।

১১ সেপ্টেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া 
২৯৪/৯ (৫০ ওভার)
 ইংল্যান্ড
২৭৫/৯ (৫০ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ১৯ রানে জয়ী
ওল্ড ট্রাফর্ড, ম্যানচেস্টার
পয়েন্ট : অস্ট্রেলিয়া ১০, ইংল্যান্ড ০
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড 
২৩১/৯ (৫০ ওভার)
 অস্ট্রেলিয়া
২০৭ (৪৮.৪ ওভার)
ইংল্যান্ড ২৪ রানে জয়ী
ওল্ড ট্রাফর্ড, ম্যানচেস্টার
পয়েন্ট : ইংল্যান্ড ১০, অস্ট্রেলিয়া ০
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ইংল্যান্ড 
৩০২/৭ (৫০ ওভার)
 অস্ট্রেলিয়া
৩০৫/৭ (৪৯.৪ ওভার)
অস্ট্রেলিয়া ৩ উইকেটে জয়ী
ওল্ড ট্রাফর্ড, ম্যানচেস্টার
পয়েন্ট : অস্ট্রেলিয়া ১০, ইংল্যান্ড ০

পাকিস্তান ব জিম্বাবুয়ে[সম্পাদনা]

এই সিরিজটি মূলত নভেম্বর ২০২০ এ অনুষ্ঠিত হতে নির্ধারিত ছিল।[১০]

৩০ অক্টোবর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
পাকিস্তান 
২৮১/৮ (৫০ ওভার)
 জিম্বাবুয়ে
২৫৫ (৪৯.৪ ওভার)
১ নভেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
জিম্বাবুয়ে 
২০৬ (৪৫.১ ওভার)
 পাকিস্তান
২০৮/৪ (৩৫.২ ওভার)

অস্ট্রেলিয়া ব ভারত[সম্পাদনা]

২৭ নভেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া 
৬/৩৭৪ (৫০ ওভার)
 ভারত
৮/৩০৮ (৫০ ওভার)
২৯ নভেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
অস্ট্রেলিয়া 
৪/৩৮৯ (৫০ ওভার)
 ভারত
৯/৩৩৮ (৫০ ওভার)
২ ডিসেম্বর ২০২০
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ভারত 
৫/৩০২ (৫০ ওভার)
 অস্ট্রেলিয়া
২৮৯ (৪৯.৩ ওভার)
ভারত ১৩ রানে জয়ী
ম্যানুকা ওভাল, ক্যানবেরা
পয়েন্ট : ভারত ১০, অস্ট্রেলিয়া ০

২০২০-২১[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ব ওয়েস্ট ইন্ডিজ[সম্পাদনা]

২০ জানুয়ারি ২০২১
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ওয়েস্ট ইন্ডিজ 
১২২ (৩২.২ ওভার)
 বাংলাদেশ
১২৫/৪ (৩৩.৫ ওভার)
২২ জানুয়ারি ২০২১
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
ওয়েস্ট ইন্ডিজ 
১৪৮ (৪৩.৪ ওভার)
 বাংলাদেশ
১৪৯/৩ (৩৩.২ ওভার)
২৫ জানুয়ারি ২০২১
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
২৯৭/৬ (৫০ ওভার)
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
১৭৭ (৪৪.২ ওভার)

আফগানিস্তান ব আয়ারল্যান্ড[সম্পাদনা]

২১ জানুয়ারি ২০২১
স্কোরকার্ড
আফগানিস্তান 
২৮৭/৯ (৫০ ওভার)
 আয়ারল্যান্ড
২৭১/৯ (৫০ ওভার)
২৪ জানুয়ারি ২০২১
স্কোরকার্ড
আয়ারল্যান্ড 
২৫৯/৯ (৫০ ওভার)
 আফগানিস্তান
২৬০/৩ (৪৫.২ ওভার)
২৬ জানুয়ারি ২০২১
স্কোরকার্ড
আফগানিস্তান 
২৬৬/৯ (৫০ ওভার)
 আয়ারল্যান্ড
২৩০ (৪৭.১ ওভার)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব শ্রীলঙ্কা[সম্পাদনা]

১০ মার্চ ২০২১
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা 
২৩২ (৪৯ ওভার)
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২৩৬/২ (৪৭ ওভার)
১২ মার্চ ২০২১
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা 
২৭৩/৮ (৫০ ওভার)
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২৭৪/৫ (৪৯.৪ ওভার)
১৪ মার্চ ২০২১
স্কোরকার্ড
শ্রীলঙ্কা 
২৭৪/৬ (৫০ ওভার)
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২৭৬/৫ (৪৮.৩ ওভার)

নিউজিল্যান্ড ব বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

২০ মার্চ ২০২১
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
১৩১ (৪১.৫ ওভার)
 নিউজিল্যান্ড
১৩২/২ (২১.২ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী
ইউনিভার্সিটি ওভাল, ডুনেডিন
পয়েন্ট : নিউজিল্যান্ড ১০, বাংলাদেশ ০
২৩ মার্চ ২০২১
(দিন/রাত)
স্কোরকার্ড
 বাংলাদেশ
২৭১/৬ (৫০ ওভার)
নিউজিল্যান্ড 
২৭৫/৫ (৪৮.২ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়ী
হ্যাগলে ওভাল, ক্রাইস্টচার্চ
পয়েন্ট : নিউজিল্যান্ড ১০, বাংলাদেশ ০
২৬ মার্চ ২০২১
স্কোরকার্ড
নিউজিল্যান্ড 
৩১৮/৬ (৫০ ওভার)
 বাংলাদেশ
১৫৪ (৪২.৪ ওভার)
নিউজিল্যান্ড ১৬৪ রানে জয়ী
ব্যাসিন রিজার্ভ, ওয়েলিংটন
পয়েন্ট : নিউজিল্যান্ড ১০, বাংলাদেশ ০

ভারত ব ইংল্যান্ড[সম্পাদনা]

এই সিরিজটি মূলত ২০২০ এর সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু সেপ্টেম্বর-নভেম্বর ২০২০ সময়ে ২০২০ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ শুরু হওয়ার কারণে সিরিজটিকে পুনঃনির্ধারণ করে ২০২১ এর মার্চে স্থানান্তর করা হয়।[১৩]

২৩ মার্চ ২০২১
(দিন/রাত)
Scorecard
ভারত 
৩১৭/৫ (৫০ ওভার)
 ইংল্যান্ড
২৫১ (৪২.১ ওভার)
২৬ মার্চ ২০২১
(দিন/রাত)
Scorecard
ভারত 
৩৩৬/৬ (৫০ ওভার)
 ইংল্যান্ড
৩৩৭/৪ (৪৩.৩ ওভার)
২৮ মার্চ ২০২১
(দিন/রাত)
Scorecard
ভারত 
৩২৯ (৪৮.২ ওভার)
 ইংল্যান্ড
৩২২/৯ (৫০ ওভার)

দক্ষিণ আফ্রিকা ব পাকিস্তান[সম্পাদনা]

সিরিজটি মূলতঃ ২০২০ এর অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে পুনঃনির্ধারিত করা হয়।

২ এপ্রিল ২০২১
Scorecard
দক্ষিণ আফ্রিকা 
২৭৩/৬ (৫০ ওভার)
 পাকিস্তান
২৭৪/৭ (৫০ ওভার)
পাকিস্তান ৩ উইকেটে জয়ী
সেঞ্চুরিয়ন পার্ক, সেঞ্চুরিয়ন
পয়েন্ট : পাকিস্তান ১০, দক্ষিণ আফ্রিকা ০
৪ এপ্রিল ২০২১
Scorecard
দক্ষিণ আফ্রিকা 
৩৪১/৬ (৫০ ওভার)
 পাকিস্তান
৩২৪/৯ (৫০ ওভার)
৭ এপ্রিল ২০২১
(দিন/রাত)
Scorecard
পাকিস্তান 
৩২০/৭ (৫০ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
২৯২ (৪৯.৩ ওভার)
পাকিস্তান ২৮ রানে জয়ী
সেঞ্চুরিয়ন পার্ক, সেঞ্চুরিয়ন
পয়েন্ট : পাকিস্তান ১০, দক্ষিণ আফ্রিকা ০

২০২১[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ব শ্রীলঙ্কা[সম্পাদনা]

সিরিজটি মূলতঃ ২০২০ এর ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে পিছিয়ে দেয়া হয়।

নেদারল্যান্ডস ব আয়ারল্যান্ড[সম্পাদনা]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব অস্ট্রেলিয়া[সম্পাদনা]

জিম্বাবুয়ে ব বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

ইংল্যান্ড ব শ্রীলঙ্কা[সম্পাদনা]

England v Pakistan[সম্পাদনা]

Ireland v South Africa[সম্পাদনা]

Sri Lanka v Afghanistan[সম্পাদনা]

Ireland v Zimbabwe[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "New qualification pathway for ICC Men's Cricket World Cup approved"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৮ 
  2. "Associates pathway to 2023 World Cup undergoes major revamp"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৮ 
  3. "ICC approves Test Championship, ODI league"Cricbuzz (ইংরেজি ভাষায়)। ১৩ অক্টোবর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  4. "New ODI league to act as World Cup qualification pathway"। ২০ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুলাই ২০১৮ 
  5. "International Cricket Council (ICC)"International Year Book and Statesmen's Who's Who। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-৩০ 
  6. "The Netherlands win the ICC World Cricket League Championship"International Cricket Council। ৬ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  7. "Explainer - the Test and ODI league structures"ESPNcricinfo। ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  8. "Nederland wint World Cricket League!"Koninklijke Nederlandse Cricket Bond। ৬ ডিসেম্বর ২০১৭। ৬ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  9. "New cricket calendar aims to give all formats more context"ESPN Cricinfo। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৭ 
  10. "Men's Future Tour Programme 2018-2023 released"International Cricket Council। ২০ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুন ২০১৮ 
  11. "Men's Future Tour Programme 2018-2023" (PDF)International Cricket Council। ২০ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৮ 
  12. "ICC Men's Cricket World Cup Super League - Standings" (ইংরেজি ভাষায়)। International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 
  13. "England men's white-ball Tour to India postponed until early 2021"England and Wales Cricket Board। ৭ আগস্ট ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৭ আগস্ট ২০২০