ওয়েলিংটন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ওয়েলিংটন
Te Whanga-nui-a-Tara
শহর
ওয়েলিংটন শহর
ওয়েলিংটন শহরের দৃশ্য
ওয়েলিংটন শহরের দৃশ্য
নাম: হারবার সিটি
ওয়েলিংটনের অবস্থান
ওয়েলিংটনের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৪১°১৭′২০″ দক্ষিণ ১৭৪°৪৬′৩৮″ পূর্ব / ৪১.২৮৮৮৯° দক্ষিণ ১৭৪.৭৭৭২২° পূর্ব / -41.28889; 174.77722
দেশ নিউজিল্যান্ড
অঞ্চলওয়েলিংটন
স্থানিক কর্তৃপক্ষওয়েলিংটন সিটি
লোয়ার হার্ট সিটি
আপার হার্ট সিটি
পরিরুয়া সিটি
সরকার
 • মেয়র পার্টিন্যাশনাল
 • মেয়রকেরি প্রেন্ডেরগেস্ট (২০০১ - বর্তমান)
আয়তন[১]
 • মূল শহর৪৪৪ কিমি (১৭১ বর্গমাইল)
 • মহানগর১৩৯০ কিমি (৫৪০ বর্গমাইল)
উচ্চতা০ মিটার (০ ফুট)
জনসংখ্যা (জুলাই ২০০৯)[২][৩]
 • ঘনত্ব৮৬৯.৪/কিমি (২২৫২/বর্গমাইল)
 • মূল শহর৩,৮৬,০০০
সময় অঞ্চলএনজেটএসটি (ইউটিসি+১২)
 • Summer (ডিএসটি)এনজেটএসটি (ইউটিসি+১৩)
পোষ্ট কোড৬০০০ গ্রুপ, এবং ৫০০০ এবং ৫৩০০ সারি
এলাকা কোড০৪
ওয়েবসাইটওয়েলিংটন শহরের সরকারি ওয়েবসাইট
ওয়েলিংটন হারবার এবং কেবল্ কার - দৃশ্য: কেলবার্ন থেকে

ওয়েলিংটন (ইংরেজি: ইংরেজি উচ্চারণ: /ˈwɛlɪŋtən/ (অসমর্থিত টেমপ্লেট)) হল রাজধানী শহর এবং জনসংখ্যার দিক দিয়ে নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় বৃহত্তম শহর। নগরীরর প্রধান এলাকাটি মূলত: উত্তর আইল্যান্ডের শেষ প্রান্তে অবস্থিত।

ওয়েলিংটন নগর এলাকাটি হল উত্তর আইল্যান্ডের দক্ষিনাংশের প্রধান জনবহুল এলাকা। নগর এলাকাটি প্রধান চারটি অংশে বিভক্ত: ওয়েলিংটন সিটি,ওয়েলিংটন হারবার-এর প্রান্তে, শহরটির সবচেয়ে জনবহুল অংশ যেখানে শহরের অর্ধেক লোক বাস করে; পরিরুয়া সিটি on পরিরুয়া হারবার-এর প্রান্তে অবস্থিত। এছাড়া লোয়ার হার্ট সিটি এবং আপার হার্ট একত্রে হার্ট ভ্যালি নামে পরিচিত।

২০০৯ সালে পরিসংখ্যান অনুযায়ী ওয়েলিংটন হল জীবযাপনের মানের দিক দিয়ে পৃথিবীর ১২ তম শ্রেষ্ঠ শহর।.[৪]

নাম[সম্পাদনা]

ওয়েলিংটন শহরটির নাম রাখা হয়েছিল আর্থার ওয়েলেসলে, ওয়েলিংটনের প্রথম ডিউক ওয়াটারলু যুদ্ধের সেনানয়ক এর নামে।

গুরুত্ব[সম্পাদনা]

ওয়েলিংটন হল নিউজিল্যান্ডের রাজনৈতিক কেন্দ্র । মন্ত্রণালয়সমূহ সংসদ, সরকারী প্রধান অফিসসমূহ সরকারী, নিউজিল্যান্ড ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংগঠনের প্রধান অফিসসমূহ, প্রভৃতি ওয়েলিংটনে অবস্থিত।

ওয়েলিংটন শহরের প্রাণকেন্দ্রটি শিল্পের সমাহারে সুনিপুনভাবে সাজানো গোছানো। তুলনামূলক ছোট্ট এই শহরটিতে রয়ছে বেশ বড় ধরনের জমজমাট কাফে সংস্কৃতি আর নাইটলাইফ। এছাড়া নিউজিল্যান্ডের চলচ্চিত্র এবং নাট্যকলার দিক থেকেও শহরটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

বন্দোবস্ত[সম্পাদনা]

ভূমিকম্প[সম্পাদনা]

নিউজিল্যান্ডের রাজধানী[সম্পাদনা]

ভৌগোলিক অবস্থান[সম্পাদনা]

জলবায়ু[সম্পাদনা]

শহরটিতে গড়ে ২০২৫ ঘন্টা (বা ১৬৯ দিন) সূর্যের আলো দেখা যায় [৫] এছাড়া সাধারণত সারা বছরে তাপমাত্রা থাকে সর্বোচ্চ ২৫ °সে (৭৭ °ফা), এবং সর্বোনিম্ন ৪ °সে (৩৯ °ফা)।

Wellington, New Zealand-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
সর্বোচ্চ °সে (°ফা) গড় ২০٫৩
(৬৯)
২০٫৬
(৬৯)
১৯
(৬৬)
১৬٫৭
(৬২)
১৪٫২
(৫৮)
১২
(৫৪)
১১٫৪
(৫৩)
১২
(৫৪)
১৩٫৫
(৫৬)
১৫
(৫৯)
১৬٫৬
(৬২)
১৮٫৫
(৬৫)
১৫٫৮
(৬০)
সর্বনিম্ন °সে (°ফা) গড় ১৩٫৪
(৫৬)
১৩٫৬
(৫৬)
১২٫৬
(৫৫)
১০٫৯
(৫২)
৮٫৮
(৪৮)
৬٫৯
(৪৪)
৬٫৩
(৪৩)
৬٫৫
(৪৪)
৭٫৭
(৪৬)

(৪৮)
১০٫৩
(৫১)
১২٫২
(৫৪)
৯٫৯
(৫০)
গড় অধঃক্ষেপণ মিমি (ইঞ্চি) ৭২
(২٫৮৩)
৬২
(২٫৪৪)
৯২
(৩٫৬২)
১০০
(৩٫৯৪)
১১৭
(৪٫৬১)
১৪৭
(৫٫৭৯)
১৩৬
(৫٫৩৫)
১২৩
(৪٫৮৪)
১০০
(৩٫৯৪)
১১৫
(৪٫৫৩)
৯৯
(৩٫৯)
৮৬
(৩٫৩৯)
১,২৪৯
(৪৯٫১৭)
মাসিক গড় সূর্যালোকের ঘণ্টা ২৪৬ ২০৯ ১৯১ ১৫৫ ১২৮ ৯৮ ১১৭ ১৩৬ ১৫৬ ১৯৩ ২১০ ২২৬ ২,০৬৫
উৎস: NIWA[৬]

গ্যালারি[সম্পাদনা]

Wellington Harbour and the Lagoon panorama
ভিক্টরিয়া পর্বত থেকে শহর কেন্দ্রের রাত্রির দৃশ্য
ভিক্টরিয়া পর্বতের থেকে তোলা শহর কেন্দ্রের দৃশ্য
ভিক্টরিয়া পর্বতের দৃশ্য

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "About Wellington - Facts & Figures"। Wellington City Council। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৮-০৫ 
  2. "Wellington City Council Annual Plan 2007-2008" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৮-০৫ 
  3. "Subnational Population Estimates: At 30 June 2009". Statistics New Zealand. 23 October 2009. http://www.stats.govt.nz/methods_and_services/access-data/tables/subnational-pop-estimates.aspx. Retrieved 2009-10-23.
  4. "Mercer's 2009 Quality of Living survey highlights"। www.mercer.com। ২৮ এপ্রিল ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০০৯ 
  5. "Mean Monthly Sunshine (hours)"National Institute of Water and Atmospheric Research 
  6. "NIWA Climate Data 1971-2000" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]