ব্রিস্টল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ব্রিস্টল
শহর, কাউন্টি এবং একক কর্তৃত্ব
Bristol skyline sunset.jpg
The Cabot Tower, Bristol - geograph.org.uk - 904859.jpg
Bristol (15988640042).jpg
Clifton Suspension Bridge Late Evening.jpg
উপর থেকে ঘড়ির কাঁটার দিকে: ব্রিস্টল স্কাইলাইন, উইলস স্মৃতি ভবন, ক্লিফ্টন সাসপেনশন সেতু এবং ক্যাবোট টাওয়ার
Coat of arms of the City Council
প্রতীক
নীতিবাক্য: Virtute et industria
(সাহস ও শিল্পের সাথে)
ব্রিস্টল ইংল্যান্ড-এ অবস্থিত
ব্রিস্টল
ব্রিস্টল
ব্রিস্টল যুক্তরাজ্য-এ অবস্থিত
ব্রিস্টল
ব্রিস্টল
ব্রিস্টল ইউরোপ-এ অবস্থিত
ব্রিস্টল
ব্রিস্টল
ইংল্যান্ড, যুক্তরাজ্য ও ইউরোপে অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৫১°২৭′ উত্তর ২°৩৫′ পশ্চিম / ৫১.৪৫০° উত্তর ২.৫৮৩° পশ্চিম / 51.450; -2.583
সার্বভৌম রাষ্ট্র যুক্তরাজ্য
দেশ ইংল্যান্ড
অঞ্চলদক্ষিণ পশ্চিম
রয়েল সনদ১১৫৫
কাউন্টি অবস্থা১৩৭৩
স্থিতিশহর, কাউন্টি এবং একক কর্তৃত্ব
সরকার
 • ধরনঐকিক কর্তৃপক্ষ
 • পরিচালনা পর্ষদব্রিস্টল সিটি কাউন্সিল
 • প্রশাসনীক সদর দপ্তরসিটি হল, কলেজ গ্রিন
 • নির্বাহীলেবার
 • মেয়রমার্ভিন রীস (লেবার)
 • এমপিকেরি ম্যাকার্থি (লেবার)
ড্যারেন জোন্স (লেবার)
থাংগাম দেবোনায়ার (লেবার)
কারিন স্মিথ (লেবার)
আয়তন
 • শহর ও কাউন্টি১১০ বর্গকিমি (৪০ বর্গমাইল)
উচ্চতা[১]১১ মিটার (৩৬ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১৭)
 • শহর ও কাউন্টি৪,৬৩,৪০০ (দশম জেলা এবং ৪৩rdতম আনুষ্ঠানিক কাউন্টি হিসাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে)
 • জনঘনত্ব৩,৮৯২/বর্গকিমি (১০,০৮০/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৭,২৪,০০০ [২]
 • মহানগর১০,০৬,৬০০ (এলইউজেড ২,০০৯)
 • জাতিতত্ত্ব[৩]
  • ৮৪.০% শ্বেতাঙ্গ (৭৭.৯% শ্বেতাঙ্গ ব্রিটিশ)
  • ৬.০% কৃষ্ণাঙ্গ
  • ৫.৫% এশিয়
  • ৩.৬% মিশ্র-জাতি
  • ০.৩% আরব
  • ০.৬% অন্যান্য
বিশেষণব্রিস্টলিয়ান
সময় অঞ্চলজিএমটি (ইউটিসি)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)বিএসটি (ইউটিসি+১)
পোস্টকোডবিএস
আইএসও ৩১৬৬ কোডজিবি-বিএসটি
জিভিএ২০১৭
 • মোট£২১.২ বিলিয়ন ($২৬.৯ বিলিয়ন) (৪র্থ)
 • বৃদ্ধিবৃদ্ধি ১.৬%
 • মাথাপিছু£৩৩,৭০০ ($৪২,৮০০) (৪র্থ)
 • বৃদ্ধিবৃদ্ধি ৩.১%
ওয়েবসাইটwww.bristol.gov.uk

ব্রিস্টল দক্ষিণ পশ্চিম ইংল্যান্ডের একটি শহর এবং কাউন্টি,[৪] যার জনসংখ্যা হল ৪,৬৩,৪০০ জন।[৫] বিস্তৃত জেলাটিতে ইংল্যান্ডের দশম বৃহত্তম জনসংখ্যা রয়েছে।[৬] শহরাঞ্চলের জনসংখ্যা ৭,২৪,০০০ জন, যা যুক্তরাজ্যের মধ্যে অষ্টম বৃহত্তম।[২] শহরটি উত্তরে গ্লৌচেস্টারশায়ার এবং দক্ষিণে সমারসেটের মধ্যে অবস্থিত। সাউথ ওয়েলস সেভেন মোহনা জুড়ে রয়েছে।

লৌহযুগে পার্বত্য দুর্গরোমান ভিলা ফ্রেমঅ্যাভন নদীর মিলনের নিকটে নির্মিত হয় এবং একাদশ শতাব্দীর শুরুতে এই বসতিটি ব্রাইকস্টো (প্রাচীন ইংরেজি "ব্রিজের স্থান") নামে পরিচিত ছিল। ব্রিস্টল ১১৫৫ সালে একটি রাজকীয় সনদ পায় এবং একটি কাউন্টিতে পরিণত না হওয়া পর্যন্ত ১৩৭৩ সাল অবধি এটি গৌচেস্টারশায়ার ও সমারসেটের মধ্যে ঐতিহাসিকভাবে বিভক্ত ছিল। ত্রয়োদশ থেকে আঠারো শতক পর্যন্ত, ব্রিস্টল কর আদায়ের ক্ষেত্রে লন্ডনের পরে শীর্ষ তিনটি ইংরেজ শহরগুলির মধ্যে একটি ছিল। শিল্প বিপ্লবে বার্মিংহাম, ম্যানচেস্টারলিভারপুলের দ্রুত উত্থানের ফলে ব্রিস্টলকে ছাড়িয়ে যায়।

ব্রিস্টল নতুন বিশ্ব অনুসন্ধানের যাত্রা শুরু করার স্থান ছিল। ১৪৯৭ সালে ব্রিস্টল থেকে বেরিয়ে একটি জাহাজে ভেনিস নিবাসী জন ক্যাবোট উত্তর আমেরিকা মূল ভূখণ্ডে অবতরণকারী প্রথম ইউরোপীয় হয়ে ওঠেন। ১৪৯৯ সালে ব্রিস্টলের বণিক উইলিয়াম ওয়েস্টন প্রথম ইংরেজ হিসাবে উত্তর আমেরিকা অনুসন্ধানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ক্রীতদাস ব্যবসায়ের শীর্ষ সময় ১৭০০ সাল থেকে ১৮০৭ সাল পর্যন্ত ব্রিস্টল থেকে প্রায় ২ হাজারেরও বেশি দাস জাহাজে আনুমানিক ৫০০,০০০ লোককে আফ্রিকা থেকে আমেরিকার দাসত্বের জন্য বহন করা হয়। ব্রিস্টল বন্দরটি তখন থেকে শহরের কেন্দ্রস্থলের ব্রিস্টল পোতাশ্রয় থেকে অ্যাভনমাউথ ও রয়েল পোর্টবারি ডকের সেভেন মোহনায় চলে আসে।

ব্রিস্টলের আধুনিক অর্থনীতিটি সৃজনশীল মিডিয়া, ইলেকট্রনিক্স এবং মহাকাশ শিল্পগুলিতে গড়ে উঠেছে এবং শহর-কেন্দ্রের ডকগুলিকে ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির কেন্দ্র হিসাবে পুনর্নবীকরণ করা হয়। ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ইংল্যান্ড পশ্চিম বিশ্ববিদ্যালয় সহ শহরে দুটি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে এবং রয়্যাল ওয়েস্ট অব ইংল্যান্ড একাডেমি, আর্নলফিনি, স্পাইক দ্বীপ, অ্যাশটন গেট ও মেমোরিয়াল স্টেডিয়াম সহ বিভিন্ন ধরনের শৈল্পিক ও ক্রীড়া সংস্থা এবং ভেন্যু রয়েছে।

এটি লন্ডন ও যুক্তরাজ্যের অন্যান্য প্রধান শহরগুলির সাথে এম৫এম৪ দ্বারা (যা পোর্টওয়ে এবং এম৩২ দ্বারা শহরের কেন্দ্রের সাথে সংযুক্ত) সড়ক পথে, ব্রিস্টল টেম্পল মেইডসব্রিস্টল পার্কওয়ে মূললাইন রেল স্টেশন হয়ে রেলপথে এবং ব্রিস্টল বন্দর ও ব্রিস্টল বিমানবন্দর দ্বারা জল ও বায়ু পথে বিশ্বের সাথে যুক্ত।

যুক্তরাজ্যের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র ব্রিসটলকে ২০০৯ সালে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ প্রকাশক ডরলিং কিন্ডারসেলি তাদের প্রত্যক্ষদর্শী ধারাবাহিক ভ্রমণ নির্দেশিকায় বিশ্বের শীর্ষ দশটি শহর হিসাবে বেছে নিয়েছিল। সানডে টাইমস এটিকে ২০১৪ সালে ও ২০১৭ সালে বসবাস করার জন্য ব্রিটেনের সেরা শহর হিসাবে নির্বাচিত করে এবং ব্রিস্টল ২০১৫ সালে ইইউর ইউরোপীয় গ্রিন ক্যাপিটাল পুরষ্কার জিতেছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Historical Weather for Bristol, England, United Kingdom"Weatherbase। Canty & Associates। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; c4c নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. "2011 Census: Ethnicgroup, local authorities in England and Wales"Census 2011। Office for National Statistics। ১৬ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১২ 
  4. "The Lord-Lieutenant of the County & City of Bristol"। The Lord-Lieutenant of the County & City of Bristol। ২২ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০১৫ 
  5. https://www.bristol.gov.uk/statistics-census-information/the-population-of-bristol
  6. টেমপ্লেট:United Kingdom district population citation

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]