বিষয়বস্তুতে চলুন

১৯৮৭-এ বাংলাদেশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
১৯৮৭
-এ
বাংলাদেশ
শতাব্দী:
দশক:
আরও দেখুন:১৯৮৭-এর অন্যান্য ঘটনা
বছরের তালিকা অনুযায়ী বাংলাদেশ

১৯৮৭ সাল ছিল বাংলাদেশের স্বাধীনতার ১৬ তম বছর। এটি ছিল হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সরকারের ষষ্ঠ বছর।

দায়িত্বপ্রাপ্ত[সম্পাদনা]

জলবায়ু[সম্পাদনা]

১৯৮৭-এ বাংলাদেশ-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
দৈনিক গড় °সে (°ফা) ১৯.
(৬৬)
২১.৮
(৭১.২)
২৫.
(৭৭)
২৭.৪
(৮১.৩)
২৮.৫
(৮৩.৩)
২৯.২
(৮৪.৬)
২৮.
(৮২)
২৮.১
(৮২.৬)
২৮.৩
(৮২.৯)
২৭.৩
(৮১.১)
২৪.২
(৭৫.৬)
২০.৪
(৬৮.৭)
২৫.৬
(৭৮.১)
অধঃক্ষেপণের গড় মিমি (ইঞ্চি) ৩.৬
(০.১৪)
১২.৮
(০.৫০)
৫১.
(২.০)
২০০.২
(৭.৮৮)
১৫০.৫
(৫.৯৩)
৪৮৬.৬
(১৯.১৬)
৭১৩.১
(২৮.০৭)
৬৪৭.৩
(২৫.৪৮)
৩৩১.
(১৩.০)
১১৯.
(৪.৭)
৩১.২
(১.২৩)
১৪.৫
(০.৫৭)
২,৭৬০.৮
(১০৮.৬৯)
উৎস: Climatic Research Unit (CRU) of University of East Anglia (UEA)[১]

ঘূর্ণিঝড়/জলোচ্ছ্বাস/বন্যা[সম্পাদনা]

  • ৫ জুন মধ্যরাতে একটি গভীর নিম্নচাপ (পূর্বে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছিল) হাতিয়া, সন্দ্বীপ, পটুয়াখালী এবং ভোলা অঞ্চল অতিক্রম করে একটি ঘূর্ণিঝড় হিসেবে স্বাভাবিকের থেকে ৬ ফুট উপরে জলোচ্ছ্বাস বয়ে আনে এবং নিচু দ্বীপগুলো প্লাবিত হয়।
  • সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলে ভারী বর্ষণে কয়েকটি এলাকায় আকস্মিক বন্যা দেখা দেয়।
  • ৩০/৩১ জুলাই ভারি বর্ষণ এবং উপরের অঞ্চল থেকে বন্যার পানির কারণে সামগ্রিক বন্যা পরিস্থিতির গুরুতর অবনতি হয়। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত রংপুর, নেত্রকোনা, গাইবান্ধা, নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, জামালপুর, কক্সবাজার, চট্টগ্রামনোয়াখালী জেলা । প্রায় ৩.৫ মিলিয়ন মানুষ আক্রান্ত হয় এবং প্রায় ৬৫০,০০০ একর ফসলের ক্ষতি হয়। উপচে পড়া পানি ও কালভার্ট ধসে রাজধানী থেকে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। [২]

ঘটনাবলী[সম্পাদনা]

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার[সম্পাদনা]

প্রাপক এলাকা বিঃদ্রঃ
এম হোসেন আলী সামাজিক কাজ
অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান সাহিত্য
অধ্যাপক মুহাম্মদ ইউনূস পল্লী উন্নয়ন [৬]
আর্মড ফোর্সেস ইনস্টিটিউট অফ প্যাথলজি অ্যান্ড ট্রান্সফিউশন চিকিৎসা বিজ্ঞান সংগঠন

একুশে পদক[সম্পাদনা]

  1. মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান (সাহিত্য)
  2. আবু হেনা মোস্তফা কামাল (সঙ্গীত)
  3. আনিস সিদ্দিকী
  4. জাহানারা আরজু (সাহিত্য)
  5. আহমদ শামসুল ইসলাম (শিক্ষা)
  6. এম এ নাসের (শিক্ষা)
  7. অধ্যক্ষ আবুল কাশেম (শিক্ষা)
  8. নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী (সাংবাদিকতা)
  9. আহমেদ হুমায়ুন (সাংবাদিকতা)
  10. কানাইলাল শীল (যন্ত্রসঙ্গীত)
  11. ফরিদা পারভীন (সঙ্গীত)
  12. সৈয়দ মইনুল হোসেন (স্থাপত্য)

খেলাধুলা[সম্পাদনা]

জন্ম[সম্পাদনা]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

জন্ম[সম্পাদনা]

সাকিব আল হাসান, বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার।

জানুয়ারি-মার্চ[সম্পাদনা]

এপ্রিল-জুন[সম্পাদনা]

জুলাই-সেপ্টেম্বর[সম্পাদনা]

অক্টোবর-ডিসেম্বর[সম্পাদনা]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

আবু সাঈদ চৌধুরী, বাংলাদেশের দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি।

জানুয়ারি-মার্চ[সম্পাদনা]

এপ্রিল-জুন[সম্পাদনা]

জুলাই-সেপ্টেম্বর[সম্পাদনা]

অক্টোবর-ডিসেম্বর[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Climate Change Knowledge Portal"। The World Bank Group। ২৭ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০১৮ 
  2. "Bangladesh – Cyclonic Storm/Tidal Surge/Floods Jun 1987 UNDRO Situation Reports 1–15"। UN Department of Humanitarian Affairs। সংগ্রহের তারিখ ৩১ অক্টোবর ২০১৮ 
  3. Introducing the Bangladesh Civil Service Administration Academy – Government of Pakistan
  4. "Bangladesh Declares Emergency and Bans Strikes"The New York Times। Reuters। ২৮ নভেম্বর ১৯৮৭। সংগ্রহের তারিখ ৩১ অক্টোবর ২০১৮ 
  5. "Awardees who worked in Bangladesh"। Ramon Magsaysay Award Foundation। ১ জুলাই ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৮ 
  6. "PROFESSOR MUHAMMAD YUNUS"। Grameen Bank, Bangladesh। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-১৭ 
  7. "South Asian Games"। Olympic Council of Asia। ১ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৮ 
  8. "List of Champions"। Atsushi Fujioka for Rec.Sport.Soccer Statistics Foundation। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৮ 
  9. "Bangladesh – List of Cup Winners"। Ian King, Hans Schöggl and Erlan Manaschev for Rec.Sport.Soccer Statistics Foundation। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৮ 
  10. Iraj, S. (১২ অক্টোবর ২০১৭)। "Let's Play Chess"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৮ 
  11. Khan, Muhammad Zafarullah (১৪ জুন ২০১৭)। হযরত হাফেজ্জী হুজুর রহDaily Inqilab