লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (বাংলাদেশ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি
নেতাঅলি আহমেদ
প্রেসিডেন্টঅলি আহমেদ
মহাসচিবরেদোয়ান আহমেদ
কার্যনির্বাহী প্রেসিডেন্টজাহানারা বেগম
প্রতিষ্ঠা২৬ অক্টোবর ২০০৬; ১৪ বছর আগে (2006-10-26)
সদর দপ্তর২৯/বি, পূর্ব পান্থপথ, তেজগাঁও, ঢাকা-১২০৮
মতাদর্শউদারনীতিবাদ,
সামাজিক উদারনীতিবাদ
রাজনৈতিক অবস্থানকেন্দ্রপন্থী
জাতীয় অধিভুক্তিবিশ দলীয় জোট (বর্তমান)
মহাজোট
আন্তর্জাতিক অধিভুক্তিনা
আনুষ্ঠানিক রঙ    
জাতীয় সংসদের আসন
০ / ৩০০
নির্বাচনী প্রতীক
লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (বাংলাদেশ) লোগো.jpg
দলীয় পতাকা
লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (বাংলাদেশ) লোগো.svg
ওয়েবসাইট
ldp-bangladesh.com
বাংলাদেশের রাজনীতি
রাজনৈতিক দল
নির্বাচন

লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি বা এলডিপি বাংলাদেশের একটি রাজনৈতিক দল যা বাংলাদেশের "জনপ্রতিনিধিত্ব আইন ২০০৮" বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত।[১] ২০০৬ সালের ২৬ অক্টোবর বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি এ.কিউ,এম, বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বিকল্প ধারার সাথে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য কর্ণেল অলি আহমেদ ও বিএনপির অন্য ২৪ জন মন্ত্রী, সংসদ সদস্য একত্রিত হয়ে এই দল প্রতিষ্ঠা করেন।[২] তবে ২০০৭ সালে আদর্শগত কারণে বিকল্প ধারা, এলডিপি থেকে বের হয়ে যায়।

রাজনৈতিক জোট ও নির্বাচন[সম্পাদনা]

২০০৬ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত এলডিপি মহাজোটের সাথে অবস্থান করে। কিন্তু নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচন, ২০০৮-এর পূর্বে এলডিপি মহাজোট থেকে বের হয়ে আসে এবং সতন্ত্রভাবে অংশগ্রহণ করে। এলডিপি উক্ত নির্বাচনে ১৮টি আসনে প্রার্থী দিয়ে ১টি আসনে জয়লাভ করে। দলের সভাপতি অলি আহমেদ চট্টগ্রাম-১৩ আসনে জয়লাভ করেন। ২০১২ সালে এলডিপি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় ঐক্যজোটে প্রবেশ করে। ১৮ দলীয় ঐক্যজোট ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচন বর্জন করলে সাথে সাথে এলডিপিও নির্বাচনটি বর্জন করে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bangladesh Election Commission - Home page"। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০১৪ 
  2. "Dissidents quit Bangladesh's ruling party, alleging corruption"। International Herald Tribune। অক্টোবর ২৬, ২০০৬।