মান্না

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
মান্না
জন্ম এস এম আসলাম তালুকদার
১৯৬৪
টাঙ্গাইল জেলা, বাংলাদেশ
মৃত্যু ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০০৮
ঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তা বাংলাদেশী
জাতিসত্তা বাঙালি
পেশা চলচ্চিত্র অভিনেতা
কার্যকাল ১৯৮৪–২০০৮
ধর্ম ইসলাম
দাম্পত্য সঙ্গী সীমা কাদের
ওয়েবসাইট manna.com.bd

এস এম আসলাম তালুকদার (১৯৬৪, কালিহাতি, টাঙ্গাইল - ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০০৮, ঢাকা ) যিনি মান্না নামেই অধিক পরিচিত বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনেতা ও চলচ্চিত্র প্রযোজক ছিলেন।[১] তিনি ২০০ র বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন ও ২০০৬ সালে "সেরা অভিনেতা" হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯৬৪ সালে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গায় জন্মগ্রহণ করেন মান্না। তার আসল নাম[২] এস এম আসলাম তালুকদার। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করার পরই ১৯৮৪ সালে তিনি নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন। এরপর থেকে একের পর এক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে নিজেকে সেরা নায়ক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন এবং চলচ্চিত্র অঙ্গনে তাঁর শক্ত ভিত্তি গড়ে তোলেন। সমগ্র চলচ্চিত্র জীবনে তিনি ২০০ এর অধিক সিনেমায় অভিনয় করেন।[২] মান্না বঞ্চিত মানুষের কথা সিনেমার পর্দায় সুনিপুণভাবে তুলে ধরেছেন।

কর্মপরিধি[সম্পাদনা]

নব্বই দশকে অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণের ধারা শুরু হলে যে কজন প্রথমেই এর প্রতিবাদ করেছিলেন,তাদের মধ্যে নায়ক মান্না ছিলেন অন্যতম। রীতিমতো যুদ্ধ করেছেন অশ্লীল চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে। এসব চলচ্চিত্রের নির্মাতাদের সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়েছিলেন। দাঙ্গা, লুটতরাজ, তেজী, আম্মাজান, আব্বাজান প্রভৃতি চলচ্চিত্রে চমৎকার অভিনয় এর মাধ্যমে জনপ্রিয়তার চূড়া ছুঁয়েছিলেন মান্না। তাঁর অভিনীত আম্মাজান চলচ্চিত্রটি বাংলাদেশের সর্বাধিক ব্যবসাসফল ও জনপ্রিয় চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে অন্যতম।

তাঁর প্রথম অভিনীত ছবির নাম তওবা কিন্তু প্রথম মুক্তি পায় 'পাগলি' ছবিটি। ১৯৯১ সালে মোস্তফা আনোয়ার পরিচালিত 'কাসেম মালার প্রেম' ছবিতে প্রথম একক নায়ক হিসেবে সুযোগ পেয়েছিলেন। এর আগে সব ছবিতে মান্না ২য় নায়ক হিসেবে অভিনয় করেছেন । কাসেম মালার প্রেম ছবিটি দর্শকের মাঝে সাড়া ফেলার কারনে মান্না একের পর এক একক ছবিতে কাজ করার সুযোগ লাভ করেন। এরপর কাজী হায়াত পরিচালিত দাঙ্গাত্রাস ছবির কারনে তাঁর একক নায়ক হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়া সহজ হয়ে যায়। এরপর মোস্তফা আনোয়ার এর অন্ধ প্রেম, মনতাজুর রহমান আকবর এর প্রেম দিওয়ানা, ডিস্কো ড্যান্সার, কাজী হায়াত এর দেশদ্রোহী, আকবরের বাবার আদেশ ছবিগুলো মান্নার অবস্থান শক্তভাবে প্রতিষ্ঠিত করে। এটিই তার প্রথম একক ছবি। ৯৯ সালে মুক্তি পায় আকবরের 'কে আমার বাবা', কাজী হায়াত এর আম্মাজান রায়হান মুজিব ও আজিজ আহমেদ বাবুল এর খবর আছে, মালেক আফসারী পরিচালিত এবং তার প্রযোজিত ২য় ছবি লাল বাদশা মতো সুপারহিট ছবি। মান্না শুধু চলচ্চিত্র অভিনেতাই ছিলেন না, তাঁর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে যতগুলো ছবি প্রযোজনা করেছেন, প্রতিটি ছবি ব্যবসাসফল হয়েছিল। ছবিগুলো হচ্ছে লুটতরাজ, লাল বাদশা, আব্বাজান, স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ, দুই বধূ এক স্বামী, মনের সাথে যুদ্ধ, মান্না ভাইপিতা মাতার আমানত[৩]

মৃত্যুর পূর্বপর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

  1. তওবা
  2. পাগলী
  3. কাসেম মালার প্রেম
  4. দাঙ্গা (১৯৯২)
  5. চাঁদাবাজ
  6. ত্রাস
  7. তেজী
  8. মিনিস্টার
  9. প্রেম দিওয়ানা
  10. ডিস্কো ড্যান্সার
  11. খল নায়ক
  12. শান্ত কেন মাস্তান
  13. গুণ্ডা নাম্বার ওয়ান
  14. কুখ্যাত খুনী
  15. রংবাজ বাদশা
  16. বসিরা
  17. ঢাকাইয়া মাস্তান
  18. মেজর সাহেব
  19. আরমান
  20. মাস্তানের ওপর মাস্তান
  21. বিগবস
  22. টপ সম্রাট
  23. সুলতান
  24. ভাইয়া
  25. বিদ্রোহী সালাহউদ্দিন
  26. বাবা
  27. মান্না ভাই
  28. কিলার
  29. টপ টেরর
  30. জনতার বাদশা
  31. রাজপথের রাজা
  32. এতিম রাজা
  33. টোকাই রংবাজ
  34. ভিলেন
  35. নায়ক
  36. সন্ত্রাসী মুন্না
  37. মোস্তফা ভাই
  38. রাজা বাংলাদেশী
  39. বীর সৈনিক
  40. ভণ্ড বাবা
  41. জুম্মান কসাই
  42. আব্বাস দারোয়ান
  43. জিদ্দি ড্রাইভার
  44. রাজা
  45. লাল বাদশা
  46. রুস্তম
  47. দানব
  48. ঈমানদার মাস্তান
  49. বাবা মাস্তান
  50. রাজা নাম্বার ওয়ান
  51. তেজী সন্তান
  52. রাজু মাস্তান
  53. মুসা ভাই
  54. নেতা
  55. বাংলার হিরো
  56. সিপাহী
  57. দেশপ্রেমিক (১৯৯৪)
  58. চিরঋনী
  59. লুটতরাজ
  60. আম্মাজান (১৯৯৯)
  61. কষ্ট (২০০০)
  62. আব্বাজান
  63. বীর সৈনিক (২০০৩)
  64. স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ
  65. দুই বধূ এক স্বামী
  66. মনের সাথে যুদ্ধ
  67. বাঘের বাচ্চা
  68. পিতা মাতার আমানত
  69. আমি জেল থেকে বলছি
  70. অবুঝ শিশু
  71. অশান্ত আগুন
  72. অমর
  73. অবুঝ সন্তান
  74. অন্ধ আইন
  75. অন্ধ প্রেম
  76. অতিক্রম
  77. আসলাম ভাই
  78. আজকের সন্ত্রাসী
  79. আম্মা
  80. আবার একটি যুদ্ধ
  81. আমি একাই একশো
  82. আন্দোলন
  83. আলিবাবা
  84. আলো আমার আলো
  85. আমাদের সন্তান
  86. আমার জান
  87. আমার প্রতিক্ষা
  88. আমার প্রতিজ্ঞা
  89. আঘাত পাল্টা আঘাত
  90. উল্টাপাল্টা ৬৯
  91. উত্তরের খেপ
  92. এই যে দুনিয়া
  93. এ দেশ কার
  94. একরোখা
  95. ওরা ভয়ংকর
  96. ওরা তিনজন
  97. কঠিন পুরুষ
  98. কঠিন সিমার
  99. কালাকাফন
  100. কাবুলিওয়ালা
  101. কে আমার বাবা
  102. কলিজার টুকরা
  103. কোবরা
  104. কান্দ কেন মন
  105. ক্রিমিনাল
  106. খবর আছে
  107. গরিবের দাদা
  108. গরিবের বউ
  109. গরিব কেন কাদে
  110. গরিবের বন্ধু
  111. গুন্ডা পুলিশ
  112. গণ দুশমন
  113. গণধোলাই
  114. গাদ্দারী
  115. গরম হাওয়া
  116. গহর বাদশা বানেছা পরি
  117. ঘরবাড়ি
  118. চিটার নাম্বার ওয়ান
  119. চক্রান্তের শিকার
  120. চরম অপমান
  121. ছোট বউ
  122. জোড়া খুন
  123. জানের বাজী
  124. জীবন এক সংর্ঘষ
  125. জীবন নিয়ে যুদ্ধ
  126. জীবন দিয়ে ভালোবাসি
  127. জাদরেল বউ
  128. জারকা
  129. জীবনের গল্প
  130. জগৎ সংসার
  131. জন্ম শত্রু
  132. ঝড়
  133. টোকাইয়ের হাতে অস্ত্র কেন?
  134. টাকা পয়সা
  135. ঠান্ডা মাথার খুনি
  136. তেজী পুরুষ
  137. তান্ডবলীলা
  138. দাফন
  139. দুশমন দুনিয়া
  140. দুই দিনের দুনিয়া
  141. মাথা নষ্ট
  142. রাজধানী
  143. পারলে ঠেকাও
  144. ক্ষমতার গরম
  145. ক্ষুদার জ্বালা
  146. রুটি
  147. মহা সম্মেলন
  148. মহাসংগ্রাম
  149. মহা ভূমিকম্প
  150. মায়ের কসম
  151. বাবার কসম
  152. মায়ের বাদলা
  153. বাবার আদেশ
  154. হৃদয থেকে পাওয়া
  155. হৃদয় নিয়ে যুদ্ধ
  156. বাবার জন্য যুদ্ধ
  157. মরন কামড়
  158. দাপট
  159. বোমা হামলা
  160. ক্ষতবিক্ষত
  161. শেষ্ঠ সন্তান
  162. শেষ বংশধর
  163. ধোকা
  164. ধ্বংস
  165. রিক্সাওয়ালার প্রেম
  166. বাস্তব
  167. সমাজ কে বদলে দাও
  168. মা বাবার স্বপ্ন
  169. প্রতিবাদী মাস্টার
  170. পাঞ্জা
  171. শেষ খেলা
  172. ভাইয়ের আদর
  173. বাদশা কেন চাকর
  174. সিটি টেরর
  175. সাজঘর (২০০৭)
  176. মেশিনম্যান (২০০৭)

সম্মাননা[সম্পাদনা]

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
বাচসাস পুরস্কার
মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০০৮ সালের ১৭ই ফেব্রুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৪৪ বছর বয়সে মান্না মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর তার জানাজা এফ'ডিসিতে হয়। ২য় জানাজা স্মৃতিসৌধে হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু দর্শক ভক্তকুলের ভিড় এবং পুরো ঢাকায় অত্যন্ত জ্যাম থাকায় তাকে সেখানে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। টাঙ্গাইল জেলায় অবস্থিত তার নিজ গ্রাম এলেঙ্গায় তাঁকে সমাহিত করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মান্না
  2. "Charges in Bangladesh actor death"বিবিসি। ১৯ অক্টোবর ২০০৯। সংগৃহীত ২৬ জানুয়ারি ২০১৫ 
  3. "কিং ব দ ন্তী : সুপার স্টার মান্না"দৈনিক আমার দেশ। সংগৃহীত ২৬ জানুয়ারি ২০১৫ 

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]