৪৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (বাংলাদেশ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
৪৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
পুরস্কার দেওয়া হয়২০২০ সালে চলচ্চিত্রশিল্পে গৌরবোজ্জ্বল ও অসাধারণ অবদানের জন্য
উপস্থাপিততথ্য মন্ত্রণালয়
ঘোষণা১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২
স্থানঢাকা, বাংলাদেশ
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট
আলোকপাত
আজীবন সম্মাননাআনোয়ারারাইসুল ইসলাম আসাদ
শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রগোরবিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ অভিনেতাসিয়াম আহমেদ
বিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীদীপান্বিতা মার্টিন
গোর
সর্বাধিক পুরস্কারগোর (১১)
 ← ৪৪তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ৪৬তম → 

৪৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বাংলাদেশের তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক চলচ্চিত্রের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য প্রদত্ত পুরস্কার। তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে ২০২২ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারি 'জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০' ঘোষণা করা হয়।[১] এ বছর ২৬টি বিভাগে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।[২] এই বছর সর্বোচ্চ ১১টি বিভাগে পুরস্কার পায় গাজী রাকায়েত নির্মিত গোর চলচ্চিত্র।[৩] আজীবন সম্মাননা লাভ করেন অভিনেত্রী আনোয়ারা এবং অভিনেতা রাইসুল ইসলাম আসাদ[৪]

বিজয়ীদের তালিকা[সম্পাদনা]

Anwara Begum in 1967
Raisul Islam Asad in 2016
আজীবন সম্মাননা পুরস্কার বিজয়ী আনোয়ারারাইসুল ইসলাম আসাদ
পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র গাজী রাকায়েত গোর
বিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র জান্নাতুল ফেরদৌস আড়ং
শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র সৈয়দ আশিক রহমান বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও বাংলাদেশের অভ্যুদয়
শ্রেষ্ঠ পরিচালক গাজী রাকায়েত গোর
শ্রেষ্ঠ অভিনেতা সিয়াম আহমেদ বিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী দীপান্বিতা মার্টিন গোর
শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু বিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেত্রী অপর্ণা ঘোষ গণ্ডি
শ্রেষ্ঠ খলচরিত্রে অভিনয়শিল্পী মিশা সওদাগর বীর
শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী মুগ্ধতা মোরশেদ ঋদ্ধি গণ্ডি
শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক বেলাল খান হৃদয় জুড়ে (গান: "বিশ্বাস যদি যায় রে")
শ্রেষ্ঠ নৃত্য পরিচালক সহিদুর রহমান বিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ পুরুষ কন্ঠশিল্পী ইমরান মাহমুদুল বিশ্বসুন্দরী (গান: "তুই কি আমার হবি রে")
শ্রেষ্ঠ নারী কন্ঠশিল্পী দিলশাদ নাহার কনা বিশ্বসুন্দরী (গান: "তুই কি আমার হবি রে")
সোমনুর মনির কোনাল বীর (গান: "ভালোবাসার মানুষ তুমি")
শ্রেষ্ঠ গীতিকার কবির বকুল বিশ্বসুন্দরী (গান: "তুই কি আমার হবি রে")
শ্রেষ্ঠ সুরকার ইমরান মাহমুদুল বিশ্বসুন্দরী (গান: "তুই কি আমার হবি রে")
শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার গাজী রাকায়েত গোর
শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার গাজী রাকায়েত গোর
শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা ফাখরুল আরেফিন খান গণ্ডি
শ্রেষ্ঠ চিত্রসম্পাদক শরিফুল ইসলাম গোর
শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশক উত্তম গুহ গোর
শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক পঙ্কজ পালিতমাহবুব উল্লাহ নিয়াজ গোর
শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক কাজী সেলিম আহম্মেদ গোর
শ্রেষ্ঠ পোশাক ও সাজসজ্জা এনামতারা বেগম গোর
শ্রেষ্ঠ রূপসজ্জাকার মোহাম্মদ আলী বাবুল গোর

বিশেষ পুরস্কার[সম্পাদনা]

পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
আজীবন সম্মাননা আনোয়ারা
রাইসুল ইসলাম আসাদ
শিশুশিল্পী শাহাদৎ হোসেন বাঁধন আড়ং

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০ ঘোষণা করেছে সরকার"বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  2. "২০২০ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন যারা"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  3. "১১টি পেল 'গোর', ৮টি 'বিশ্বসুন্দরী'"দৈনিক প্রথম আলো। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  4. "আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন আনোয়ারা-আসাদ"চ্যানেল আই অনলাইন। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২