বেরলভী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jasne-Julus.jpg

বেরলভী বা রেজভী হল দক্ষিণ এশিয়ায় ২০ কোটির বেশি অনুসারীদের সুন্নি হানাফি মাযহাবের একটি আন্দোলন।[১] ভারতের উত্তর প্রদেশের বেরেলি জেলার শহর বেরেলি থেকে এর সূচনা হয় তাই ভারতে এবং পাকিস্তানে বেরলভী বা ব্রেলভী নামে পরিচিত। কিন্তু বাংলাদেশে এরা রেজভী নামে বেশি পরিচিত, এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নেতা আহমেদ রেজা খান বেরলভী (১৮৫৬-১৯২১)।[২]

প্রচার মাধ্যম এবং একাডেমিয়াতে বেরলভী নাম সাধারণত ব্যবহৃত হয় তবে আন্দোলনের অনুসারীরা প্রায়ই আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের শিরোনাম বা সুন্নি হিসাবে নিজেদের পরিচিত দিয়ে থাকে।[৩] বেরলভীরা ফিকীহ মাসয়ালায় হানাফী মাযহাবের অনুসারী।[৩] তবে বেরলভীদের আকীদা-বিশ্বাস অন্য সুন্নী দলগুলো দ্বারা সমালোচিত হয়েছে[৪]। এরা ১২ রবিউল আউয়াল ঈদে মিলাদুন্নবী জশনে জুলুস বা আনন্দ শোভাযাত্রা করে।[৫] বাংলাদেশের চট্টগ্রামে আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট এর উদ্যোগে প্রতি বছর জশনে জুলুস অনুষ্ঠিত হয়।[৫] এছাড়া ভারত ও পাকিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় জশনে জুলুস অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলদেশে আহমেদ রেজা খান বেরলভী এর অনুসারির সংখ্যা কম নয়, চট্টগাম বিভাগে এদের সংখ্যা বেশি দেখা যায়, পাকিস্তান ও ভারতে তার অনুসারির সংখ্যা অনেক। তারা সুফিবাদে বিশ্বাসি।[৬]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

ভারত[সম্পাদনা]

পাকিস্তান[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

সংগঠন[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

পাকিস্তান[সম্পাদনা]

  • জামিয়াত উলেমা-ই-পাকিস্তান
  • সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিল
  • জামাত আহলে সুন্নত
  • তানজিম উল মাদারিস
  • সুন্নি তেহরিক
  • মজলিস-ই-তাহাফফুজ-ই-খতমে নবুয়ত

ভারত[সম্পাদনা]

প্রতিষ্ঠাতা ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Barelvi - Oxford Reference" (ইংরেজি ভাষায়)। ডিওআই:10.1093/oi/authority.20110803095446664। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-২৬ 
  2. Sanyal, Usha (জুলাই ১৯৯৮)। "Generational Changes in the Leadership of the Ahl-e Sunnat Movement in North India during the Twentieth Century"Modern Asian Studies (ইংরেজি ভাষায়)। 32 (3): 635–656। আইএসএসএন 1469-8099 
  3. Hewer, C. T. R.; Anderson, Allan (২০০৬)। Understanding Islam: The First Ten Steps (ইংরেজি ভাষায়)। SCM Press। আইএসবিএন 9780334040323 
  4. "বেরলভী মতবাদ : ভিত্তিহীন আকীদা ও ভ্রান্ত ধ্যানধারণা"। মাসিক আলকাউসার। আগস্ট ২০১৬। 
  5. কালের কণ্ঠ। "এবার ৪৪তম 'জশনে জুলুস'"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-২০ 
  6. Sutherland, Stewart R. (১৯৮৮-০১-০১)। The World's Religions (ইংরেজি ভাষায়)। G.K. Hall। আইএসবিএন 9780816189786 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]