তারাবীহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
তিউনিশিয়ার গ্রেট মসজিদে তারবীহ নামাজের একটি দৃশ্য

তারাবীহ[সম্পাদনা]

তারাবীহ (تَرَاوِيْحِ) আরবী শব্দ । এটি বহুবচন । এর একবচন 'তারবীহাতুন' (تَروِيْحَة) । এর আভিধানিক অর্থ বসা, বিশ্রাম করা, আরাম করা ।[১] তারাবীহ ‎(تراويح) হল ইসলাম ধর্মের পবিত্র রমজান মাসের গুরুত্বপূর্ণ অতিরিক্ত রাতের নামাজ যেটি মুসলিমগণ রমজান মাস ব্যপী প্রতি রাতে এশার ফরজ নামাজের পর পড়ে থাকেন।[২] তারাবীহ'র নামায কিভাবে পড়তে হবে তা ইসলামের বিভিন্ন শাখাসমূহে বিভিন্নভাবে বলা হয়েছে। তারাবীহ নামাজ একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক রাকাত পড়া হয়, প্রতিবার একসাথে দুই রাকাত করে একাদিক্রমে।[২] হানাফি এবং শাফি'য়ি ফিকহ মতে এটি ২০ রাকাত, কিছু হাম্বলি বলেন এটি শুধু ৮ রাকাত এবং বাকিরা বলেন এটি ২০ রাকাত। মালেকিরা বলেন এটি ৩৬ রাকাত, এবং আহলে হাদীস অনুসারীরা বলেন এটি ৮ রাকাত।

খতম তারাবীহ এবং সূরা তারাবীহ[সম্পাদনা]

বাংলাদেশে তারাবীহর নামাজের দুটি পদ্ধতি প্রচলিত । একটি খতম তারাবীহ আর অন্যটি সূরা তারাবীহ । খতম তারাবীহর ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ কুরআন পাঠ করা হয় । এক্ষেত্রে প্রতিদিন প্রায় এক পারা কুরআন তিলাওয়াত করা হয় । এভাবে ত্রিশ পারা কুরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে খতম তারাবীহ আদায় করা হয় । খতম তারাবীহর জন্য কুরআনের হাফিযগণ ইমামতি করেন । সূরা তারাবীহর জন্য যেকোন সূরা বা আয়াত পাঠের মাধ্যমে সূরা তারাবীহ আদায় করা হয় । এক্ষেত্রে সাধারণত কুরআনের শেষের দশটি সূরা পাঠ করা হয় ।

টীকা[সম্পাদনা]

  1. "দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম " । ইসলামিক ফাউন্ডেশন, দশম সংস্করণ : ফেব্রুয়ারি ২০১২, পৃষ্ঠা. ২৬৮ আইএসবিএন ৯৮৪-০৬-০৫৬০-৭
  2. "The Tarawih Prayer"albalagh.net। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১০ 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]