রমজানের তাবু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
দোহার একটি বড়ধরনের রমজানের তাঁবু

রমজানের তাবু হলো রমজান মাসে লোকদের প্রতিদিনের ইফতারের খাবার খেতে মিলিত হওয়ার একটি ভেন্যু। এটি মধ্য প্রাচ্য জুড়ে প্রচলিত এবং যে কোনও জায়গায় মুসলমানদের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে এটি পাওয়া যায়। রমজানের তাঁবুগুলিতে সূর্যাস্তের সময় প্রতিদিনের রোজা ভাঙার পরে লোকেরা তাদের পরিবার এবং বন্ধুদের সাথে মিলিত হয়। লোকেরা সেখানে ইফতার খেতে, চা পান করতে এবং হুক্কার ধোঁয়া নিতে জড়ো হয়। রমজানের তাঁবু ঐতিহ্যগতভাবে মধ্য প্রাচ্যের একটি পরিবার বা প্রতিবেশিদের সাথে মিলিত হওয়ার ব্যাপার।[১][২] জর্ডানের একজন সাংবাদিক ২০০৮ সালে একটি সাধারণ রমজানের তাঁবুর বর্ণনা করেন এভাবে:[৩]:66

বড় তাঁবুতে ফুঁয়োফুঁয়োর রঙিন সিলিংয়ের নীচে, আপনি কার্ডের খেলা শেষে গেম খেলার সাথে খুব সকাল অবধি নিজের এবং বন্ধুদের সাথে বিভিন্ন ধরণের মিষ্টি খেতে পারেন, বিনোদন এবং চিত্তবিনোদন করতে পারেন। একজন শীর্ষস্থানীয় গায়কের সাথে একটি মিউজিকাল ব্যান্ড শাস্ত্রীয় আরব সংগীতের অংশবিশেষ পরিবেশন করতে পারে। ... সেবকরা উনবিংশ বা অষ্টাদশ শতাব্দীর পোশাকের সাথে "তারবুশ" নামে পরিচিত লাল সিলিন্ডার আকৃতির টুপি পরিধান করে থাকে। তারা আপনাকে খুব জনপ্রিয় আরগিলাহ বা হুক্কা ছাড়াও, ছোট স্ন্যাকসের প্রচুর মিশ্রিত বস্তু পরিবেশন করবে।

— সেলিম আইয়ুব কুনা

সাম্প্রতিক বছরগুলিতে রেস্তোঁরা এবং হোটেলগুলি গ্রাহকদের আকর্ষণ করার জন্য রমজানের তাঁবু চালু করেছে। জর্দান, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং অন্যান্য দেশের বেশিরভাগ বিলাসবহুল (৪ বা ৫ তারা) হোটেলগুলি রমজানের তাঁবু স্থাপন করে।[৩] এই রমজানের তাঁবুগুলি লাভের জন্য সাধারণত ১০ ডলার থেকে ১৫ ডলার প্রবেশ ফি নিয়ে থাকে,[৩]:63 যদিও ভাল হোটেলগুলিতে এটি আরও ব্যয়বহুল তার ৩৬ ডলার বা তার বেশি চার্জ নিয়ে থাকে।[৪] আরও ভালমানের রমজানের তাঁবুতে প্রায়শই সংগীত বা অন্যান্য বিনোদনের ব্যবস্থা থাকে।[৫] এই অত্যন্ত বাণিজ্যিক এবং বস্তুবাদী প্রকৃতির রমজানের তাঁবুগুলি মধ্য প্রাচ্যের অনেকে ছুটি কমিয়ে দেওয়ার জন্য এবং বিশেষত মেলামেশার জন্য "কর্পোরেট-স্পনসরযুক্ত বস্তুবাদকে নৈতিকতার সাথে যুক্ত করার" জন্য তাদের সমালোচনা করে থাকে।[৩]:63, 66-7 তবে কেউ কেউ রমজানের তাঁবু নিয়ে এই নেতিবাচক মত পোষণ করেন না; উপর্যুক্ত জর্দানের সাংবাদিক বলেন যে:[৩]:66

সম্ভবত তাঁবু উন্মুক্ত স্থান এবং চলাফেরার স্বাধীনতার প্রতীক যা এই শহরে আমাদের আধুনিক জীবন ব্যবস্থা ছিনিয়ে নিয়েছে ... শান্ত এবং প্রকৃতির কাছাকাছি শান্তিতে জীবনযাপন আপনাকে ঈশ্বর ও ধর্মকে ঘনিষ্ঠভাবে অনুভব করতে এবং যেহেতু আমি আমার বাস্তব জীবনে এই বিষয়গুলি মিস করি, এখানে এই তাঁবুটির নীচে থাকাই কঠোর ভারসাম্যহীনতার একটি অংশ পুনরুদ্ধার করে।

— সেলিম আইয়ুব কুনা
বাহরাইন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিতরে একটি ছোট রমজানের তাঁবু

এই বৈষয়িকতার বিপরীতে, কিছু দাতব্য সংস্থা এবং ব্যক্তি বিনামূল্যে রমজানের তাঁবু চালু করে যা অপরিচিতদের জন্য উন্মুক্ত, বিশেষত দরিদ্র এবং যাদের অন্যকোথাও ইফতার করার ব্যবস্থা নেই।[২] এই দানশীল রমজানের তাঁবুগুলি আড়ম্বরপূর্ণ, বাণিজ্যিক ধরনের তুলনায় বিরল, যদিও এগুলি বিশ্বব্যাপী মুসলিম জনগোষ্ঠীর দেশগুলিতে পাওয়া যায়।[৬] রামাদান টেন্ট প্রজেক্ট (আরটিপি) নামে একটি প্রতিষ্ঠান চারটি মহাদেশে ৫০,০০০ এরও বেশি লোককে সেবা দিয়েছে যা উন্মুক্ত রমজানের তাঁবুগুলিতে বিনামূল্যে ইফতার ও রাতের খাবারের আয়োজন করে।[১] লন্ডনের স্কুল অফ ওরিয়েন্টাল এন্ড আফ্রিকান স্টাডিজ (এসওএএস) এর একজন স্নাতক শিক্ষার্থী ২০১১ সালে আরটিপি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই উন্মুক্ত রমজানের তাঁবুগুলি চালু রয়েছে। [৭] আরটিপির উন্মুক্ত ইফতারের খাবার সকল ধর্মের লোকদের জন্য উন্মুক্ত।[৮]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রমজানের তাঁবু তুলনামূলকভাবে সাম্প্রতিক ঐতিহ্য এবং এগুলি ছুটির সূচনায় উত্সাহ দেয় না।[৯] রমজানের তাঁবুর উৎস সম্পর্কে ধারণা করা হয় যে মিশরীয় "সারাদেক", তারা তাদের দু:খপ্রকাশ করতে কায়রোতে তাঁবু স্থাপন করেছিল। সময়ের সাথে সাথে বিভিন্ন সংস্থা এবং বণিকরা এই সারাদেক ব্যবহার শুরু করে। সারাদেক বিশেষ করে শীতের মাসগুলিতে অভাবী লোকদের খাদ্য ও আশ্রয়ের স্থান হয়ে ওঠে। এটি রমজানের তাঁবুতে পরিণত হওয়ার পরিবর্তনের সূচনা করে যা আজকাল সুপরিচিত। শীঘ্রই, সারাদেক আরব আতিথেয়তার পূর্ববর্তী ঐতিহ্যের সাথে মিশে যায় এবং খরচে ইফতারের নৈশভোজ আয়োজনের আধুনিক রমজানের তাঁবুর ‍উৎপত্তি করে। তবে ১৯৯০ সালে লেবাননের গৃহযুদ্ধের অবসানের পরে যখন তাব্বারা পরিবারের একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী লেবাননে তাদের পরিচয় করিয়ে দেন তখন থেকে রমজানের তাঁবু লেভ্যান্টতে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।[৬] যেহেতু রমজানের তাঁবু সাম্প্রতিক ঐতিহ্য তাই এগুলিকে বিদআত (আরবি: بدعة) - নতুন উদ্ভাবন বা ধর্মবিরোধী হিসাবে বিবেচনা করা হয়।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Khan, Aina (জুন ৮, ২০১৮)। "Open Iftar tent attracts hundreds in the UK"Al-Jazeera। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  2. Dajani, Haneen (মে ৬, ২০১৮)। "This man's Ramadan tent has been feeding hundreds a day for 25 years"The National। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  3. Tobin, Sarah A. (২০১৬-০২-০৪)। "Making it Meaningful: Ramadan"। Everyday Piety: Islam and Economy in Jordan। Cornell University Press। আইএসবিএন 9781501704185 
  4. Zaki, Yousra (মে ২৪, ২০১৮)। "18 Ramadan tents to try in the UAE"Gulf News। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  5. Hamouda, Nada (মে ২২, ২০১৮)। "Here Are 7 Of New Cairo's Most Stunning Ramadan Tents!"Scoop Empire। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  6. "The changing face of the Ramadan tent"Morocco World News। Al-Arabiya। জুলাই ৩০, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  7. Suliman, Adela (জুন ৭, ২০১৮)। "Strangers break bread at Ramadan tent in London park"Thomson Reuters Foundation। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  8. Prichep, Deena (জুন ১১, ২০১৭)। "This Dinner Party Invites People Of All Faiths To Break Bread Together"NPR। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮ 
  9. الظاهري, ناصر (জুলাই ২০, ২০১৪)। "خيمة رمضان"الإتحاد। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৮