উত্তরের সুর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উত্তরের সুর
চিত্র:উত্তরের সুরের পোস্টার.png
উত্তরের সুরের পোস্টার
পরিচালকশাহনেওয়াজ কাকলী
প্রযোজকইমপ্রেস টেলিফিল্ম
রচয়িতাশাহনেওয়াজ কাকলী
চিত্রনাট্যকারশাহনেওয়াজ কাকলী
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারশরীফ শাহ
ইমন সাহা
চিত্রগ্রাহকহীরা আজাদ
সম্পাদকইবনে বকুল
পরিবেশকইমপ্রেস টেলিফিল্ম
মুক্তি১৪ এপ্রিল, ২০১২
দৈর্ঘ্য১১৫ মিনিট
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা ভাষা

উত্তরের সুর ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশী বাংলা ভাষার চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটির কাহিনী ও চিত্রনাট্য লিখেছেন এবং পরিচালনা করেছেন শাহনেওয়াজ কাকলী। ছায়াছবিটি ইমপ্রেস টেলিফিল্ম-এর ব্যানারে নির্মিত হয় এবং ২০১২ সালের পহেলা বৈশাখে চ্যানেল আই-এ ছায়াছবিটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়।[১] এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন উৎপল, লুসি তৃপ্তি গোমেজ, মেঘলা এবং আরও অনেকে। ছায়াছবিটি ২০১২ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-এ শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রসহ চারটি পুরস্কার অর্জন করে।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

চাঁন মিয়া ও তার মেয়ে আয়শা রাস্তায় গান গেয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। বাবার স্বপ্ন মেয়ে একদিন বড় গায়িকা হবে। কিন্তু আয়শার মা আম্বিয়া চায় তার মেয়ে লেখাপড়া করুক। আয়শা মায়ের আগ্রহে স্কুলে যায় কিন্তু সে তার বাবার সাথে গান গাইতেই বেশি পছন্দ করে। একদিন কিছু বাইরের লোক তাদের গ্রামে আসে এবং তারা আয়শা ও তার বাবার গান শুনে মুগ্ধ হয়। আয়শা ও তার বাবা গ্রামে আগের চেয়েও বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করে। হঠাৎ একদিন আয়শা অসুস্থ হয়ে যায় এবং তার বাবাও বিদেশী সংস্কৃতির সাথে পাল্লা দিয়ে টিকে থাকতে পারে না। অচিরেই তার জনপ্রিয়তা হ্রাস পেতে থাকে।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

উত্তরের সুর ছায়াছবিটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন শফিকুল ইসলাম রাজা ও শরীফ শাহ এবং আবহ সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ইমন সাহা। গীত রচনা করেছেন নুরুল ইসলাম জাহিদ। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন শফিকুল ইসলাম রাজা, সাইকি, ও তুবা।

পুরস্কার[সম্পাদনা]

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

চলচ্চিত্র উৎসবে অংশগ্রহন[সম্পাদনা]

  • গোয়া আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব - ২০১২
  • কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব - ২০১২[২]
  • মুম্বাই চলচ্চিত্র উৎসব - ২০১২
  • ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি উৎসব - ২০১৬[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "পহেলা বৈশাখে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার 'উত্তরের সুর'"। বাংলানিউজ। এপ্রিল ১২, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০১৬ 
  2. "Six local films to participate in Kolkata Film Festival [কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে ছয়টি চলচ্চিত্র]"নিউ এজ। ৮ নভেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০১৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "শিল্পকলায় আসছে 'উত্তরের সুর'"দৈনিক প্রথম আলো। ২৪ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]