বসুন্ধরা (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বসুন্ধরা
বসুন্ধরা (১৯৭১).jpg
পরিচালকসুভাষ দত্ত
প্রযোজকসুভাষ দত্ত
চিত্রনাট্যকারসুভাষ দত্ত
উৎস{{তেইশ নম্বর তৈলচিত্র|আলাউদ্দিন আল আজাদ}}
শ্রেষ্ঠাংশেববিতা
ইলিয়াস কাঞ্চন
নূতন
সৈয়দ হাসান ইমাম
সুরকারসত্য সাহা
পরিবেশকআনিস ফিল্ম কর্পোরেশন
মুক্তি
  • ১১ নভেম্বর ১৯৭৭ (1977-11-11)
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

বসুন্ধরা ১৯৭৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশী বাংলা ভাষার চলচ্চিত্র। ঔপন্যাসিক আলাউদ্দিন আল আজাদের উপন্যাস তেইশ নম্বর তৈলচিত্র অবলম্বনে নির্মিত চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন চলচ্চিত্রকার সুভাষ দত্ত[১] বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্ট প্রযোজিত ছায়াছবিটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ববিতা, ইলিয়াস কাঞ্চন, নূতন, সৈয়দ হাসান ইমাম, শর্মিলী আহমেদ প্রমুখ। চলচ্চিত্রটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রসহ মোট ৬টি বিভাগে পুরস্কার অর্জন করে।[২]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

করাচী আন্তর্জাতিক চিত্রপ্রদর্শনীতে চিত্রকর জাহেদের "মাদার আর্থ" চিত্রকর্মটি প্রথম পুরস্কার অর্জন করে। এক শিশুর মায়ের স্তনপান চিত্রকর্মটির প্রধান বিষয়। তার এই চিত্রপ্রদর্শনীতে সাতদিন থাকার কথা থাকলেও তার স্ত্রীর প্রতি তার ভালোবাসা ও সন্তানকে দেখার বাসনায় চারদিন পরই সে সেখান থেকে ঢাকা ফিরে আসে।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

নির্মাণ নেপথ্য[সম্পাদনা]

বসুন্ধরা ছায়াছবিটির শ্যুটিং শুরু হয় ১৯৭৭ সালের মার্চ মাসের ২৬ তারিখ।[৩]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

বসুন্ধরা চলচ্চিত্রটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন সত্য সাহা। গীত রচনা করেছেন সৈয়দ শামসুল হক

পুরস্কার[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব[সম্পাদনা]

  • তাসখন্দ চলচ্চিত্র উৎসব - ১৯৭৮[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. জাহেদুর রহমান (১ ডিসেম্বর ২০১২)। "সুভাষ দত্তের সৃষ্টি"দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা, বাংলাদেশ। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৬ 
  2. ফজলে এলাহী (২ অক্টোবর ২০১৫)। "সাদাকালোয় সোনালি দিন"বণিক বার্তা। ২০১৫-১০-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৬ 
  3. "সুভাষ দত্তের আবিষ্কার কাঞ্চনের কথা"দৈনিক আমার দেশ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ১৬ নভেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "আনত্মর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদেশের সিনেমা"আনন্দ আলো। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২০ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]