বিষয়বস্তুতে চলুন

তুরস্কে ইসলাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ইসলাম হলো তুরস্কের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠীর ধর্ম। তুরস্কের মোট জনসংখ্যার ৯০% মানুষ সুন্নি মুসলিম। অধিকাংশ তুর্কি সুন্নি মুসলিম আইনশাস্ত্রের হানাফি মাযহাবের অন্তর্গত। এই অঞ্চলে ইসলামের প্রতিষ্ঠিত উপস্থিতি শুরু হয় ১১ শতকের শেষার্ধে, যখন সেলজুকরা পূর্ব আনাতোলিয়ায় নিজেদের সাম্রাজ্য বিস্তার করতে শুরু করে।[১]

যদিও সরকারি সমীক্ষা অনুসারে মুসলমানদের সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ৯৯.৮%, [ক] তবে এটিকে অতিরঞ্জিত বলে মনে করা হয়। বেশিরভাগ সমীক্ষায় মুসলিম জনসংখ্যা প্রায় ৯৪% বা তার কম বলে অনুমান করা হয়েছে।[২] [৩] [৪] [৫] [৬] সবচেয়ে জনপ্রিয় মাযহাব, হলো সুন্নি ইসলামের হানাফি মাযহাব (সামগ্রিক মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রায় ৯০%)। অবশিষ্ট মুসলিম সম্প্রদায় মুসলিম জনসংখ্যার প্রায় ৯%, [৭] আলেভিবাদী, জাফরি (১%)[৮][৯] এবং আলবীয় (আনুমানিক জনসংখ্যা প্রায় ৫-১০ লক্ষ, বা প্রায় ১% [১০] [১১] ) মানুষ নিয়ে গঠিত। এছাড়া সুফিঅসাম্প্রদায়িক মুসলিমদের সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর উপস্থিতিও বিদ্যমান। [৯] [১২] [১৩] [১৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Aktas, Vahap (২০১৪-০১-০১)। "Islamization of Anatolia and the Effects of Established Sufism (Orders)": 147–155। আইএসএসএন 0972-0073ডিওআই:10.1080/09720073.2014.11891424। ২২ নভেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ অক্টোবর ২০২০ 
  2. Nişancı, Zübeyir (২১ মার্চ ২০২৩)। Faith and Religiosity in Türkiye (পিডিএফ) (ইংরেজি ভাষায়)। Marmara Universityআইএসবিএন 978-1-64205-906-9। ২০ এপ্রিল ২০২৩ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ আগস্ট ২০২৩ 
  3. "WVS Database" 
  4. Çiçek, Nevzat (২৬ মার্চ ২০২৩)। ""Türkiye'de İnanç ve Dindarlık" araştırması yayımlandı: Dindarlaştık mı, sekülerleştik mi?" (তুর্কি ভাষায়)। indyturk.com। 
  5. "Country – Turkey"। Joshua Project। ২০ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৪ 
  6. "Optimar'dan din-inanç anketi: Yüzde 89 Allah'ın varlığına ve birliğine inanıyor"T24 (Turkish ভাষায়)। ২৯ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০৫-২১ 
  7. "Turkey: International Religious Freedom Report 2007"। U.S. Department of State। ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  8. "Shi'a"। ১০ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ আগস্ট ২০০৯ 
  9. "Pew Forum on Religious & Public life"pewforum.org। ২০১২-০৮-০৯। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৩ 
  10. "Syria strife tests Turkish Alawites | Turkey | al Jazeera"। ১ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৬ 
  11. Prochazka-Eisl, Gisela। "The Arabic speaking Alawis of the Çukurova: The transformation of a linguistic into a purely religious minority"। ২২ নভেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১৮ 
  12. "Sufism"। All about Turkey। ২০ নভেম্বর ২০০৬। ৮ জুন ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১০ 
  13. ÖZKÖK, Ertuğrul (২১ মে ২০১৯)। "Türkiye artık yüzde 99'u müslüman olan ülke değil"www.hurriyet.com.tr (তুর্কি ভাষায়)। ২৩ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৩ 
  14. "Optimar'dan din-inanç anketi: Yüzde 89 Allah'ın varlığına ve birliğine inanıyor"। T24.com.tr। ২৯ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-০৪ 

টীকা[সম্পাদনা]

  1. এই তথ্যগুলি প্রতিটি নাগরিকের জাতীয় পরিচয়পত্রে লেখা বিদ্যমান ধর্মীয় তথ্যের উপর ভিত্তি করে তৈরি, যা প্রতিটি নবজাতকের ক্ষেত্রে পিতামাতার থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্থানান্তরিত হয় এবং যা ব্যক্তিগত পছন্দকে প্রায়শই প্রতিফলিত করে না। তদুপরি, যারা প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সময় আনুষ্ঠানিকভাবে খ্রিস্টান বা ইহুদি হিসেবে নিবন্ধিত ছিলেন না, তাদের স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুসলিম হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়েছিল, এবং এই পরিচয় পরবর্তী প্রজন্মের কাছে হস্তান্তরিত হয়েছে। অতএব, আনুষ্ঠানিকভাবে মুসলমানদের সংখ্যা এমন লোকদেরও অন্তর্ভুক্ত করে যারা নির্ধারিত ধর্ম বিশ্বাস করে না; যারা ইসলাম থেকে ভিন্ন ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছে; এবং যারা পিতামাতার থেকে ভিন্ন ধর্মাবলম্বী কিন্তু তাদের ব্যক্তিগত তথ্য পরিবর্তনের জন্য আবেদন করেনি।