বিবিসি বাংলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বিবিসি বাংলা
বিবিসি বাংলার লোগো.svg
সম্প্রচার এলাকাবাংলাদেশ
প্রথম সম্প্রচার১১ অক্টোবর ১৯৪১
ফরম্যাটরেডিও নেটওয়ার্ক এবং ওয়েবসাইট
ভাষাবাংলা
মালিকানাস্বত্ত্ববিবিসি
ওয়েবকাস্টবিবিসি বাংলা সরাসরি
ওয়েবসাইটwww.bbc.com/bengali

বিবিসি বাংলা হল বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসের অধীনে বিদেশী ভাষা হিসেবে বাংলা ভাষায় সম্প্রচারিত বিবিসির একটি বিভাগ। বিবিসি বাংলা বাংলাদেশ, তার প্রতিবেশী এবং গোটা বিশ্বের সংবাদ পরিবেশন করে। সংবাদদাতার প্রতিবেদন ছাড়াও বিবিসি বাংলা সাক্ষাৎকার, সংবাদপত্র পর্যালোচনা এবং সরাসরি ফোন-ইন প্রচার করে থাকে।[১] ২০২২ সালের ৩১ শে ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠার ৮১ বছর পর বিবিসি বাংলার রেডিও সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যায়[২]। বর্তমানে এটির কেবল টেলিভিশন ও অনলাইন অনুষ্ঠান চালু রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বিবিসি থেকে বাংলায় সম্প্রচার শুরু হয় ১৯৪১ সালের ১১ই অক্টোবর। প্রথমে এর অনুষ্ঠান সাপ্তাহিকভাবে ১৫ মিনিটের ছিল।[৩] পরে ১৯৬৫ সাল থেকে পর্যায়ক্রমে নিয়মিত সংবাদ সম্প্রচার শুরু হয়। নিরপেক্ষ অনুষ্ঠান তথা সংবাদ পরিবেশনের কারণে বাংলাদেশভারতের ১ কোটি ৩০ লক্ষ বাংলাভাষী শ্রোতার কাছে এটি জনপ্রিয় হয়। বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে এর নিরপেক্ষ সংবাদ প্রচারের কারণে এটি বিপুল জনপ্রিয়তা ও বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করেছিল।[৪][৩]

২০২২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর, বিবিসি তার বাংলাসহ দশটি ভাষার রেডিও সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। ২৮.৫ মিলিয়ন পাউন্ড (আনুমানিক ৩২০ কোটি টাকা) সঞ্চয় করার উদ্দেশ্যে বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসের ৩৮২টি পদ শূন্য করার অংশ হিসেবে এটি করা হয়।[৫] ২০২২ সালের ৩১ শে ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠার ৮১ বছর পর "পরিক্রমা" অনুষ্ঠান সম্প্রচারের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে বিবিসি বাংলার রেডিও সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যায়। তবে প্রতিষ্ঠানটি এটির টেলিভিশন ও অনলাইন অনুষ্ঠান চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়।[৬][৭][৮][৯]

সম্প্রচার[সম্পাদনা]

২৩ ডিসেম্বর ২০১১ সালের বিবিসি বাংলার ওয়েবসাইটের প্রধান পাতা

বিবিসি বাংলা বিভাগের অনুষ্ঠান লন্ডনের নিউ ব্রডকাস্টিং হাউজের সদর দপ্তর থেকে এফ.এম, মিডিয়াম ওয়েভ ও শর্টওয়েভে সমগ্র বিশ্বে সম্প্রচারিত হত। ঢাকা, দিল্লি ও কোলকাতা ব্যুরো অফিসে এ বিভাগের সম্প্রচার ত্বরান্বিত করতে অনেক সংবাদকর্মী ও প্রযোজক কাজ করত।[৪] রেডিও, ইন্টারনেট, ইন্টারনেট রেডিও এবং ভিডিও এ সকল মাধ্যমে বিবিসি বাংলা সম্প্রচারিত হত।[৪] সপ্তাহে ১৫ মিনিটের রেডিও অনুষ্ঠান দিয়ে যাত্রা শুরু করে বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসের বাংলা বিভাগ। রেডিও সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যাওয়ার আগ পর্যন্ত বিবিসি বাংলায় প্রতিদিন মোট এক ঘণ্টার সংবাদ ও সাময়িক প্রসঙ্গের অনুষ্ঠান প্রচারিত হত, যেখানে সংবাদ, নানা ধরনের ম্যাগাজিন, শ্রোতাদের চিঠিপত্রের আয়োজন এবং লাইভ ফোন-ইন অনুষ্ঠান থাকত। বিবিসি বাংলা তিনটি সাপ্তাহিক টেলিভিশন অনুষ্ঠান - বিবিসি প্রবাহ, বাংলাদেশ #trending আর ক্লিক বাংলাদেশে চ্যানেল আইতে সম্প্রচার করা হয়।

বাংলাদেশে যেসব শহর থেকে এফ এম প্রচার তরঙ্গে বিবিসি বাংলার অনুষ্ঠান শোনা যেত তার তালিকা নিম্নরূপ:

ভারতের যেসব শহরে:

সম্প্রচারিত অনুষ্ঠান[সম্পাদনা]

এই বিভাগ থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যা এবং রাত - ২ দফায় ৩০ মিনিটের অনুষ্ঠান সম্প্রচার করা হত। অনুষ্ঠান সমুহের নাম এবং প্রচারের সময় -

  • জিএমটি ১৩:৩০ - প্রবাহ, বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিট।
  • জিএমটি ১৬:৩০ - পরিক্রমা, বাংলাদেশ সময় রাত ১০:৩০ মিনিট।[১১]

বাংলাদেশ সংলাপ[সম্পাদনা]

বিবিসি বাংলার আয়োজন বাংলাদেশ সংলাপ বাংলাদেশের স্যাটেলাইট চ্যানেল “চ্যানেল আই”-এর সহযোগিতায় সম্প্রচারিত একটি অনুষ্ঠান, যেটি পূর্বে বিবিসি বাংলা রেডিওতে এবং বিবিসি বাংলার ওয়েবসাইটে নিয়মিত প্রচারিত হত।[১২][১৩] সমসাময়িক ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে শ্রোতা, দর্শক এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সরাসরি অংশগ্রহণে এ অনুষ্ঠান প্রচারিত হয়। 'বাংলাদেশ সংলাপের' প্রতিটি অনুষ্ঠানে শ্রোতারা আমন্ত্রিত প্যানেল সদস্যদের কাছে তাদের প্রশ্ন এবং কোন কোন ক্ষেত্রে প্রশ্নের উত্তর নিয়ে মতামত দেন। অনুষ্ঠানের ব্যাপ্তি হচ্ছে ৫০ মিনিট।[১২]

বিবিসি বাংলা এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, দূরপ্রাচ্য, আমেরিকা এবং ইউরোপ-সহ সমগ্র বিশ্বে বাংলাভাষী মানুষের কাছে অন্যতম একটি সংবাদ মাধ্যম।

বিবিসি বাংলার সহযোগী[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ বেতার[সম্পাদনা]

বিবিসি একটি চুক্তির মাধ্যমে ১৯৯৪ সাল থেকে ঢাকায় বাংলাদেশ বেতারের এফ এম ১০০ মিটার ব্যান্ডে দিনে ১২ ঘণ্টা বাংলা ও ইংরেজি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করত। ২০০৮ সালে নতুন একটি চুক্তির মাধ্যমে এর সম্প্রসারণ ঘটে। বিবিসির ৪টি বাংলা অনুষ্ঠান চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, সিলেট, রংপুর আর কুমিল্লায় এফ এম ব্যান্ডে সম্প্রচার শুরু হয়। ২০১৪ সালে ঠাকুরগাঁও (৯২.০), বরিশাল (১০০.৮) ও কক্সবাজার (১০০.৮) শহরও এতে যুক্ত হয়।

চ্যানেল আই[সম্পাদনা]

বিবিসি বাংলার বেশ কিছু টেলিভিশন অনুষ্ঠান, যেমন 'আপনার শহর, আপনার প্রশ্ন' চ্যানেল আই-এর কারিগরি সহায়তায় তৈরি করা হয়। বিবিসি মিডিয়া এ্যাকশনের ব্যবস্থাপনায় সাপ্তাহিক আলোচনা অনুষ্ঠান ‘বাংলাদেশ সংলাপ‘ ২০০৫ সাল থেকে চ্যানেল আই যৌথ প্রযোজনার ভিত্তিতে সম্প্রচার করে আসছে। সংলাপের দ্বিতীয় মৌসুম ২০১০ সালে শেষ হয়, এবং তৃতীয় মৌসুম ২০১২ সালের নভেম্বর মাসে শুরু হয়।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বিবিসি বাংলা"বিবিসি বাংলা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৪-০১ 
  2. "বিবিসি বাংলা রেডিও: একাশি বছরের বর্ণময় ইতিহাস"BBC News বাংলা। ২০২২-১২-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-০১ 
  3. "আমাদের সম্পর্কে"বিবিসি বাংলা। ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  4. "সত্তরে বিবিসি বাংলা"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  5. "৮১ বছর পর বন্ধ হতে যাচ্ছে বিবিসি বাংলা রেডিও সম্প্রচার"বিবিসি বাংলা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  6. "৮১ বছর পর বন্ধ হচ্ছে বিবিসি বাংলার রেডিও সম্প্রচার"aajkaal.in। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১২-৩১ 
  7. "রাতে বন্ধ হচ্ছে বিবিসি বাংলার রেডিও, শেষ হচ্ছে ৮১ বছরের পথ চলা"দৈনিক জনকণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১২-৩১ 
  8. "বিবিসি বাংলা রেডিও'র ৮১ বছরের যাত্রা শেষ"banglanews24.com। ২০২২-১২-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১২-৩১ 
  9. "বিবিসি বাংলা রেডিও'র ৮১ বছরের যাত্রা শেষ"abnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১২-৩১ 
  10. "BBC Bangla - how to listen"। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুলাই ২০১৪ 
  11. "বিবিসি বাংলা রেডিও: এক যুগ পরে সকালের প্রত্যুষা বন্ধ, ফিরছে রাতের পরিক্রমা"BBC বাংলা। ১১ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২০ 
  12. "BBC - Debate programme Sanglap - Media Action"www.bbc.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  13. "চ্যানেল আইয়ের পর্দায় আসছে বিবিসি ক্লিক"channelionline। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]