সাদরি ভাষা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সদরি
নাগপুরিয়া
দেশোদ্ভববাংলাদেশ, ভারত
অঞ্চলপ্রধানত পূর্ব ও দক্ষিণ ছোট নাগপুর ও এর আশপাশের অঞ্চল
মাতৃভাষী
৩৫ লক্ষ (২০০০–২০০১)[১]
আদমশুমারির ফলাফল কিছু ভাষাভাষীকে হিন্দি ভাষায় বিভ্রান্ত করে।[২]
দেবনাগরী
ভাষা কোডসমূহ
আইএসও ৬৩৯-৩দুইয়ের মধ্যে এক:
sck – সদরি
sdr – ওঁরাও সদরি
গ্লোটোলগsada1242[৩]

সদরি ভাষা যা নাগপুরি নামেও পরিচিত, ভারতের বিহার, ঝাড়খন্ড, উড়িষ্যা রাজ্যে ব্যবহৃত ভাষা। উত্তর পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠী এই ভাষায় কথা বলে থাকে। সদরি ভাষাভাষী জনগোষ্ঠী দ্বিভাষী। অঞ্চলভেদে এরা সদরির পাশাপাশি বাংলা অথবা হিন্দী ভাষা ব্যবহার করে।

উপনাম[সম্পাদনা]

উচ্চারণের ভিন্নতার কারণে সদরি ভাষার উপভাষাগুলো অঞ্চলভেদে একাধিক নামে পরিচিতঃ সাদানি, সাদানা, সাদাতি, সদরি, সাধন,সদনা, সদরিক, সিদ্দ্রি, স্রাদ্রি, সাধারি, সদন, নাগপুরি, নাগপুরিয়া, ছোটা নাগপুরি, দিক্কু কাজি, গাওয়ারি, গাঁওয়ারি, গোয়ারি, গাউয়ারি, ঝাড়খন্ডারি।[৪][৫][৬]

ভাষাভাষী জনগোষ্ঠী[সম্পাদনা]

সদরি ভাষাভাষী জনগোষ্ঠী বাংলা, হিন্দী এবং ওড়িয়া ভাষায়ও কথা বলে। মাতৃভাষার পাশাপাশি ঝাড়খন্ড, উড়িষ্যা, ছত্রিশগড়, উত্তর বঙ্গ, আসাম, আন্দামান ও নিকোবর এর বিভিন্ন অংশের মুন্ডা ও খারিয়া জনগোষ্ঠী সদরি ভাষায় কথা বলে। ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাসে ভারতের জাতীয় পাঠ্যপুস্তক বোর্ড চাকমা, ককবরক, মারমা, সাঁওতালি, সদরি, মান্ডেইলি ভাষায় বই ছাপায়।"

সদরি ভাষার একটি রূপ হচ্ছে নাগপুরি। রাঁচি বিশ্ববিদ্যালয়সহ ঝাড়খন্ডের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ভাষায় কোর্স করা যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. এথ্‌নোলগে সদরি (১৮তম সংস্করণ, ২০১৫)
    এথ্‌নোলগে ওঁরাও সদরি (১৮তম সংস্করণ, ২০১৫)
  2. [১]
  3. হ্যামারস্ট্রোম, হারাল্ড; ফোরকেল, রবার্ট; হাস্পেলম্যাথ, মার্টিন, সম্পাদকগণ (২০১৭)। "Sadani"গ্লোটোলগ ৩.০ (ইংরেজি ভাষায়)। জেনা, জার্মানি: মানব ইতিহাস বিজ্ঞানের জন্য ম্যাক্স প্লাংক ইনস্টিটিউট। 
  4. "Sadri (Language code 'sck')"Global Recordings Network। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-২৫ 
  5. "Oraon Sadri (Language code 'sdr')"Global Recordings Network। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-২৫ 
  6. "Ethnologue report for language code: sck"Ethnologue। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-২৫