লিওনেল স্কালোনি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
লিওনেল স্কালোনি
Lionel Scaloni.JPG
২০১৪ সালে আতালান্তার সাথে স্কালোনির প্রশিক্ষণ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম লিওনেল সেবাস্তিয়ান স্কালোনি[১]
জন্ম (1978-05-16) ১৬ মে ১৯৭৮ (বয়স ৪৪)[১]
জন্ম স্থান পুজাতো, আর্জেন্টিনা
উচ্চতা ১.৮২ মিটার[১]
মাঠে অবস্থান উইং-ব্যাক
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান দল
আর্জেন্টিনা (কোচ)
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
১৯৯৫–১৯৯৬ নিওয়েল'স ওল্ড বয়েজ ১২ (০)
১৯৯৬–১৯৯৭ এস্তুদিয়ান্তেস ৩৭ (৭)
১৯৯৮–২০০৬ দেপোর্তিভো লা কোরুনিয়া ২০০ (১৪)
২০০৬ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড (লোন) ১৩ (০)
২০০৬–২০০৭ রেসিং সান্তান্দের ৩০ (১)
২০০৭–২০১৩ লাৎসিয়ো ৫২ (২)
২০০৮–২০০৯মায়োর্কা (লোন) ২৮ (০)
২০১৩–২০১৫ আতালান্তা ১৫ (০)
মোট ৩৮৭ (২৩)
জাতীয় দল
১৯৯৭ আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২০ (২)
২০০৩–২০০৬ আর্জেন্টিনা (০)
পরিচালিত দল
২০১৬–২০১৭ সেভিয়া (সহকারী)
২০১৭–২০১৮ আর্জেন্টিনা (সহকারী)
২০১৮ আর্জেন্টিনা (অন্তর্বর্তীকালীন)
২০১৮– আর্জেন্টিনা
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে

লিওনেল সেবাস্তিয়ান স্কালোনি (স্পেনীয় উচ্চারণ: [ljoˈnel eskaˈloni] ; জন্ম ১৬ মে ১৯৭৮) হচ্ছেন একজন আর্জেন্টিনার পেশাদার ফুটবল কোচ ও প্রাক্তন খেলোয়াড়। তিনি বর্তমানে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের কোচের দ্বায়িত্ব পালন করছেন। খেলোয়াড়ী জীবনে তিনি মাঠের বিস্তৃত পরিসরের রাইট ব্যাক বা ডানপ্রান্তের মিডফিল্ডার হিসাবে খেলতেন।

তিনি স্পেনের দেপোর্তিভো লা কোরুনিয়া ক্লাবেই তার পেশাদার ক্যারিয়ারের বেশিরভাগ সময় কাটিয়েছেন। তিনি মোট তিনটি দলের হয়ে লা লিগায় ১২ মৌসুমে ২৫৮টি খেলায় অংশগ্রহণ করে ১৫টি গোল করেছেন। পাশাপাশি তিনি বেশ কয়েকবছর ইতালিতে লাজিও এবং আতালান্তা ক্লাবের হয়ে খেলেছেন।

স্কালোনি ২০০৩ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে সাতটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে তিনি আর্জেন্টিনার ২০০৬ বিশ্বকাপ দলের অংশ ছিলেন। খেলোয়াড়ী জীবনের সমাপ্তির পর তিনি কোচ বা ম্যানেজার হিসেবে কাজ শুরু করেন। সর্বশেষ ২০১৮ সালে তিনি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের কোচের দ্বায়িত্ব গ্রহণ করেন। কোচ হিসেবে তার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য সাফল্য হচ্ছে ২০২১ কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার শিরোপা জয়।

খেলোয়াড়ি জীবন[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক সময় এবং দেপোর্তিভো[সম্পাদনা]

স্কালোনি (বামে) ১৯৯৬ সালে এস্তুদিয়ানতেস ক্লাবের সাথে

সান্তা ফে প্রদেশের ছোট শহর পূজাতোতে জন্মগ্রহণ করা[২] স্কালোনি আর্জেন্টিনার প্রাইমেরা ডিভিশনে স্থানীয় ক্লাব নিওয়েল'স ওল্ড বয়েজের হয়ে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন। তারপরে এস্তুদিয়ান্তেস দে লা প্লাটাতে যোগ দেন। ১৯৯৭ সালের ডিসেম্বরে স্পেনের দেপোর্তিভো লা কোরুনিয়ায় ৪০৫ মিলিয়ন পেসেতার (তৎকালীন স্প্যানীয় মুদ্রা) বিনিময়ে যোগদান করেন।[৩]

গ্যালিসিয়ানদের হয়ে নিয়মিতভাবে সাড়ে আট বছর ধরে খেলার সময় তিনি ডান দিকের উভয় প্রান্তেই শুরুর একাদশে স্থান পাওয়ার জন্য জন্য ম্যানুয়েল পাবলো এবং ভিক্টরের সাথে প্রতিযোগিতায় ছিলেন।[৪][৫] তবে চোটের কারণে তিনি কারণ দেপোর্তিভোর ইতিহসে প্রথমবার লিগ শিরোপা অর্জনের মৌসুমে কেবল ১৪টি লা লিগা ম্যাচে খেলতে পেরেছিলেন।

ক্লাবের কোচ জোয়াকিন ক্যাপাররোসের সাথে বিচ্ছেদের পর স্কালোনি ২০০৬ সালের ৩১ জানুয়ারিতে সেবছরের ট্রান্সফার উইন্ডোর শেষ দিনে আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার জাতীয় দলে নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ বাড়াতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডে ধারে যোগদান করেন।[৬] তিনি বিদায়ী টমাসেপকা থেকে ২ নম্বর জার্সি গ্রহণ করেন। ৪ ফেব্রুয়ারিতে তিনি সান্ডারল্যান্ডের বিপক্ষে পূর্ব লন্ডনবাসীদের হয়ে প্রিমিয়ার লিগের অভিষেক করেন।[৭] একই মৌসুমে তিনি এছাড়াও তিনি ওয়েস্ট হ্যামকে এফএ কাপের ফাইনালে উঠাতে ভূমিকা রেখেছিলেন। যদিও ফাইনাল ম্যাচে লিভারপুলের কাছে পেনাল্টি শুটআউটে তার দল পরাজিত হয়।[৮][৯]

রেসিং সান্তান্দের[সম্পাদনা]

দেপোর্তিভোর খেলোয়াড় হিসেবে স্কালোনি

স্থায়ী পদক্ষেপে সম্মত না হওয়ায় স্কালোনি ওয়েস্ট হ্যাম ত্যাগ করেন। ২০০৬ সালের ১ সেপ্টেম্বরে গ্রীষ্মকালীন ট্রান্সফার উইন্ডো বন্ধ হওয়ার একদিন পর দেপোর্তিভো দিয়েগো ট্রাইস্তানের সাথে তাকেও ছেড়ে দেয়।[১০]

দল বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ফ্রি এজেন্টদের জন্য কোনও সীমাবদ্ধতা না থাকায় দুই সপ্তাহ পরে স্কালোনি রেসিং দে সান্তান্দেরের সাথে এক বছরের চুক্তি স্বাক্ষর করেন।[১১] কান্তাব্রিয়ানরা লা লিগায় মাঝামাঝিতে থেকে সেই মৌসুম শেষ করে। সেবার তার প্রাক্তন ক্লাবের বিরুদ্ধে দুই ম্যাচই গোলশূন্য ড্র হয়েছিল।[১২][১৩]

ইতালি[সম্পাদনা]

২০০৭ সালের ৩০ জুনে স্কালোনি পাঁচ বছরের চুক্তিতে ইতালির সেরিয়ে আ-র এসএস ল্যাজিওতে চলে যান।[১৪] পরের বছরের জানুয়ারিতে তিনি দেপোর্তিভো মায়োর্কাতে ১৮ মাসের জন্য ধারে যোগদানের মাধ্যমে স্পেনে ফিরে আসেন।[১৫][১৬][১৭] পরবর্তীতে তিনি রোমে ল্যাজিওতে ফিরে আসলেও পরবর্তী তিনটি মৌসুমে তিনি খুব কম ম্যাচেই খেলার সুযোগ পান।

২০১৩ সালের জানুয়ারিতে প্রায় ৩৫ বছর বয়সে স্কালোনি আতালান্তাতে যোগ দেন।[১৮] প্রচারাভিযানের শেষে তাকে ছেড়ে দেওয়া হলেও নতুন ক্লাব খুঁজে পেতে ব্যর্থ হওয়ায় তিনি পুনরায় দলটির সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন।[১৯]

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

১৯৯৭ ফিফা বিশ্ব যুব চ্যাম্পিয়নশিপে স্কালোনি এবং তার বোন

২০০৩ সালের ৩০ এপ্রিল লিবিয়ার সাথে একটি প্রীতি ম্যাচে আর্জেন্টিনার হয়ে তার অভিষেক হয়। তিনি বিস্ময়করভাবে অভিজ্ঞ ডান-উইংব্যাক হাভিয়ের জানেত্তির বদলে আর্জেন্টিনার ২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেয়ে যান।[২০] পুরো বিশ্বকাপে তিনি মাত্র একটি ম্যাচে খেলার সুযোগ পান। ২০০৬ সালের ২৪ জুনে বিশ্বকাপের শেষ ষোলোর ম্যাচে মেক্সিকোর বিরুদ্ধে তিনি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত খেলেন। এই ম্যচে আর্জেন্টিনা অতিরিক্ত সময়ে ২-১ গোলে জয়লাভ করেছিল।[২১]

কোচিং ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০১৬ সালের ১১ ই অক্টোবরে স্কালোনি লা লিগার ক্লাব সেভিয়াতে স্বদেশী হোর্হে হোর্হে সাম্পাওলির কোচিং স্টাফে যোগ দেন।[২২] ২০১৭ সালে জুনে সাম্পাওলিকে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের নতুন কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হলে স্কালোনি তার সহকারী হিসাবে মনোনীত হন।[২৩]

এক বছর পর ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে জাতীয় দলের ব্যর্থতার পর স্কালোনি ও পাবলো আইমারকে বছরের শেষ পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত কোচ হিসেবে মনোনীত করা হয়।[২৪] ২০১৮ সালের নভেম্বরে স্কালোনির পদ স্থায়ী করা হয়। তার অধীনে ২০১৯ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত[২৫] কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনা তৃতীয় হয়।[২৬]

স্কালোনির অধিনেই আর্জেন্টিনা ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটিয়ে ২০২১ কোপা আমেরিকায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকে ফাইনাল ম্যাচে তাদেরই মাটিতে ১-০ গোলে পরাজিত করে।[২৭] সেই বছরের নভেম্বরে তিনি ফিফা ঘোষিত সেরা ফুটবল কোচ পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন।[২৮] কিন্তু শীর্ষ তিন জনের চূড়ান্ত সংক্ষিপ্ত তালিকায় তিনি স্থান করে নিতে পারেননি।[২৯]

২০২২ সালের ১ জুনে স্কালোনির আর্জেন্টিনা ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইতালিকে ৩-০ গোলে পরাজিত করে ফাইনালিসিমা ট্রফি জয় লাভ করে।[৩০]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

স্কালোনির বড় ভাই মাউরোও তার মতোই দেপোর্তিভোর খেলোয়াড় ছিলেন। কিন্তু তিনি কখনোই ক্লাবের রিজার্ভ দলের বাইরে মূল দলে জায়গা পাননি।[৩১][৩]

২০১৯ সালে এপ্রিলে লিওনেল স্কালোনি ক্যালভিয়াতে সাইকেল চালানোর দুর্ঘটনায় আহত হয়। প্রাথমিকভাবে কিছু গণমাধ্যম তার অবস্থা গুরুতর বলে জানালেও কয়েক ঘণ্টা পরে তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।[৩২]

কর্মজীবনের পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

জাতীয় দলের উপস্থিতি এবং গোল ও বছর[৩৩]
জাতীয় দলের বছর অ্যাপস গোল
আর্জেন্টিনা ২০০৩
২০০৪
২০০৫
২০০৬
মোট

কোচিং পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

৫ জুন ২০২২ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
দল এবং মেয়াদ অনুযায়ী কোচিং পরিসংখ্যান
দল জাতীয় থেকে পর্যন্ত পরিসংখ্যান তথ্যসূত্র
খেলা জয় ড্র হার গোল বি. গোল গো ব্য  %
আর্জেন্টিনা আর্জেন্টিনা ৩ আগস্ট ২০১৮ বর্তমান ৪৭ ৩১ ১২ ৯০ ২৬ +৬৪ ৬৫.৯৬ [৩৪]
মোট ক্যারিয়ার ৪৭ ৩১ ১২ ৯০ ২৬ +৬৪ ৬৫.৯৬

শিরোপা[সম্পাদনা]

খেলোয়াড়[সম্পাদনা]

দেপোর্তিভো
ওয়েস্ট হ্যাম
আর্জেন্টিনা

কোচ[সম্পাদনা]

আর্জেন্টিনা

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "2006 FIFA World Cup Germany List of Players" (PDF)। FIFA। পৃষ্ঠা 2। ১০ জুন ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০১৯ 
  2. Reinke, Mariana (২৭ জুলাই ২০২১)। "Pujato, el pueblo rural del DT Lionel Scaloni con el récord de un camión cada diez personas"La Nación (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০২২ 
  3. Levinsky, Sergio (৮ আগস্ট ২০১৮)। "La historia de Lionel Scaloni: el hombre que le teme a los aviones pero derribaba "gigantes" y llevó al título al Sub 20" (স্পেনীয় ভাষায়)। Infobae। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  4. Hermida, Xosé (২১ এপ্রিল ২০০৩)। "El indulto de Víctor" [Víctor's pardon]। El País (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  5. Méndez, Carlos (৩ ফেব্রুয়ারি ২০০৪)। ""Sólo me falta ser central y portero"" ["I only have not played as stopper and goalkeeper"]। Diario AS (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  6. "West Ham capture defender Scaloni"BBC Sport। ১ ফেব্রুয়ারি ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  7. "West Ham 2–0 Sunderland"। BBC Sport। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  8. "Liverpool 3–3 West Ham (aet)"। BBC Sport। ১৩ মে ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  9. Steinberg, Jacob (২০১০)। "Whatever happened to West Ham's FA Cup final team of 2006?"Bleacher Report। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  10. "Tristán and Scaloni released by Depor"। UEFA। ৫ সেপ্টেম্বর ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১১ 
  11. "Racing take a chance on Scaloni"। UEFA। ১৪ সেপ্টেম্বর ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১১ 
  12. "Deportivo La Coruña 0–0 Racing Santander"ESPN Soccernet। ৩ ডিসেম্বর ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  13. "Racing Santander 0–0 Deportivo La Coruña"। ESPN Soccernet। ২৯ এপ্রিল ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  14. "Colpo Lazio, preso Scaloni (CorrieredelloSport.it)" (ইতালীয় ভাষায়)। Lazio.net। ৩০ জুন ২০০৭। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  15. "El Mallorca presenta a Scaloni"Marca (স্পেনীয় ভাষায়)। ২৬ জানুয়ারি ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  16. "Scaloni dice que el único culpable de su expulsión en Getafe es él"Diario AS (স্পেনীয় ভাষায়)। ৪ মার্চ ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  17. "Scaloni: "Me gustaría quedarme, pero no depende de mí""Marca (স্পেনীয় ভাষায়)। ৩০ এপ্রিল ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  18. Losco, Gianluca (২৯ জানুয়ারি ২০১৩)। "Ufficiale: Atalanta, preso Scaloni dalla Lazio" (ইতালীয় ভাষায়)। Tutto Mercato Web। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৬ 
  19. Casalino, Lorenzo (১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩)। "Atalanta, reintegrato Scaloni in rosa" (ইতালীয় ভাষায়)। Tutto Mercato Web। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১৩ 
  20. "Zanetti cree que su marginación del Mundial "no es justa""El Mercurio (স্পেনীয় ভাষায়)। ১৬ মে ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  21. "Argentina 2–1 Mexico (aet)"। BBC Sport। ২৪ জুন ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১১ 
  22. López, José María (১১ অক্টোবর ২০১৬)। "Lionel Scaloni, nuevo ayudante de Sampaoli en el Sevilla"Diario AS (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৭ 
  23. "Cuál es el cuerpo técnico de Jorge Sampaoli y qué tiene por delante con la selección"Clarín (স্পেনীয় ভাষায়)। ১ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৭ 
  24. "Argentina appoint Scaloni, Aimar as caretaker coaches"The Independent। ৪ আগস্ট ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  25. Gómez, Cristian (২৯ নভেম্বর ২০১৮)। "Es oficial: Chiqui Tapia confirmó a Lionel Scaloni como técnico de la Selección"Clarín (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  26. "Argentina 2–1 Chile"। BBC Sport। ৬ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  27. Osborne, Chris (১১ জুলাই ২০২১)। "Lionel Messi wins first Copa America as Argentina beat Brazil in final"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০২১ 
  28. McVitie, Peter (২২ নভেম্বর ২০২১)। "Messi, Ronaldo and Lewandowski headline nominees for FIFA's The Best Awards"Goal। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০২১ 
  29. "Finalists for The Best FIFA Women's Coach and The Best FIFA Men's Coach announced"। FIFA। ৬ জানুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  30. Dawkes, Phil (১ জুন ২০২২)। "Italy 0–3 Argentina: Messi and Di Maria shine in impressive Finalissima win"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২২ 
  31. Cabrera, Martín (১৭ ডিসেম্বর ১৯৯৭)। "Los hermanos Scaloni" (PDF)Diario Hoy (স্পেনীয় ভাষায়)। ৫ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১২ 
  32. Mateo, Roberto (৯ এপ্রিল ২০১৯)। "Scaloni, atropellado en Mallorca por un coche mientras iba en bicicleta"Marca (স্পেনীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১৯ 
  33. ন্যাশনাল-ফুটবল-টিমস.কমে "লিওনেল স্কালোনি"ন্যাশনাল ফুটবল টিমস। বেঞ্জামিন স্ট্রাক-জিমারমান। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৯ 
  34. "Argentina: Matchs"। Soccerway। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১৯ 
  35. "Liverpool 3–3 West Ham (aet)"। BBC Sport। ১৩ মে ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Argentina national under-20 football team managers টেমপ্লেট:Argentina national football team managers টেমপ্লেট:South American Championship / Copa América winning managers