আলবার্তো সুপ্পিসি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আলবার্তো সুপ্পিসি
Suppici.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম আলবার্তো হোর‌্যাসিও সুপ্পিসি
জন্ম (১৮৯৮-১১-২০)২০ নভেম্বর ১৮৯৮
জন্ম স্থান কলোনিয়া দেল সেক্রেমেন্তো, উরুগুয়ে
মৃত্যু ২১ জুন ১৯৮১(1981-06-21) (বয়স ৮২)
মৃত্যুর স্থান মোন্তেভিতিও, উরুগুয়ে
উচ্চতা ১.৬৭ মিটার (৫ ফুট   ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান লেফট হাফ
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
১৯১৫-১৯২৩ ন্যাশিওন্যাল ১৪৩ (৬)
দলসমূহ পরিচালিত
১৯২৮-১৯৩২ উরুগুয়ে (কারিগরী পরিচালক)
৬-৯/১৯৩৫ সেন্ট্রাল ইস্পানল
১৯৩৫-১৯৪১ উরুগুয়ে
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে।
† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

আলবার্তো হোর‌্যাসিও সুপ্পিসি (ইংরেজি: Alberto Horacio Suppici; জন্ম: ২০ নভেম্বর, ১৮৯৮ - মৃত্যু: ২১ জুন, ১৯৮১) উরুগুয়ের কোচ ছিলেন। ১৯৩০ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলে উরুগুয়ে ফুটবল দলকে নেতৃত্ব দেন এবং বিশ্বকাপ ফুটবলের অভিষেক প্রতিযোগিতায় স্বাগতিক দেশকে চ্যাম্পিয়ন হতে সহায়তা করেন। সুপ্পিসি এল প্রফেসর (দ্য প্রফেসর) নামেও পরিচিত ছিলেন।[১] হেক্টর সুপ্পিসি সিদেস নামীয় তার এক চাচাতো ভাই পেশাদারী পর্যায়ের ড্রাইভার ছিলেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২২ এপ্রিল, ১৯১৭ সালে নিজ শহর কলোনিয়া ডেল সেক্রেমেন্তো এলাকায় প্লাজা কলোনিয়া নামক একটি ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেন। ১২,০০০ আসনবিশিষ্ট নিজ শহরের এ মাঠটিকে পরবর্তীকালে তার সম্মানে পরিবর্তিত করে রাখা হয় এস্তাদিও প্রফেসর আলবের্তো সুপ্পিসি নামে।[১] বর্তমানে কোপা আমেরিকা প্রতিযোগিতার পূর্বে নামাঙ্কিত ১৯২৯ সালের দক্ষিণ আমেরিকান চ্যাম্পিয়নশীপ প্রতিযোগিতায় তিনি উরুগুয়ে ফুটবল দলের কারিগরী পরিচালক হিসেবে কোচের দায়িত্ব পালন করে দলকে তৃতীয় স্থান অর্জনে সহায়তা করেন।

১৯৩০ ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ হিসেবে উরুগুয়েতে ১৯৩০ সালে প্রথমমারের মতো বিশ্বকাপ ফুটবল অণুষ্ঠিত হয়। ১৯২৮ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে স্বর্ণপদক বিজয়ী আন্দ্রেজ মাজালি নামীয় গোলরক্ষককে তিনি দল থেকে বাদ দেন। মাজালি কার্ফু লঙ্ঘনজনিত কারণে আটক হয়েছিলেন। ফলে মোন্তেভিদিওতে প্রতিযোগিতা শুরুর পূর্বে দলীয় হোটেলে সময়মতো উপস্থিত হতে না পারাই ছিল এর মূল কারণ। প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ৯৩,০০০ দর্শক এস্তাদিও সেন্টারিও স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে আসেন।[২] প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে উরুগুয়ে ২-১ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকলেও শেষ পর্যন্ত অবিশ্বাস্যভাবে ৪-২ গোলের ব্যবধানে ম্যাচ জেতে এবং প্রথম বিশ্বকাপ বিজয়ী দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। প্রতিযোগিতায় সুপ্পিসি'র কোচিং সহকারী হিসেবে পেদ্রো এরিস্পে, আর্নেস্তো ফিগোলি, লুইস গ্রেকো এবং পেদ্রো অলিভিয়েরি ছিলেন।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

উরুগুয়ে
কোপা আমেরিকা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
প্রথম বিজয়ী
বিশ্বকাপ ফুটবল বিজয়ী ম্যানেজার
১৯৩০
উত্তরসূরী
ইতালি ভিত্তোরিও পোজ্জো

টেমপ্লেট:Uruguay national football team managers টেমপ্লেট:C.A. Peñarol managers