স্টিভেন বয়েড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্টিভেন বয়েড
Stephen Boyd.jpg
১৯৬১ সালে স্টিভেন বয়েড
স্থানীয় নাম
Stephen Boyd
জন্ম
উইলিয়াম মিলার

(১৯৩১-০৬-০৪)৪ জুন ১৯৩১
গ্লেনগোর্মলি, কাউন্টি আনট্রিম, উত্তর আয়ারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য
মৃত্যু২ জুন ১৯৭৭(1977-06-02) (বয়স ৪৫)
মৃত্যুর কারণহার্ট অ্যাটাক
সমাধিওকউড মেমোরিয়াল পার্ক সিমেট্রি, ক্যালিফোর্নিয়া
পেশাঅভিনেতা
কার্যকাল১৯৫৫-১৯৭৭
দাম্পত্য সঙ্গীমারিয়েলা দি সারজানা (বি. ১৯৫৮; তালাক. ১৯৫৯) এলিজাবেথ মিলস (বি. ১৯৭৪; তার মৃত্যু ১৯৭৭)
পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার (১ বার)

স্টিভেন বয়েড (ইংরেজি: Stephen Boyd; জন্ম: উইলিয়াম মিলার, ৪ঠা জুলাই ১৯৩১ - ২রা জুন ১৯৭৭) ছিলেন একজন উত্তর আয়ারল্যান্ডীয় অভিনেতা।[১] তিনি ষাটের অধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য চরিত্র হল বেন-হার চলচ্চিত্রে মেসালা। এই চরিত্রে তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেন। এছাড়া তিনি বিলি রোজস জাম্বো (১৯৬২) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তার দ্বিতীয় গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

স্টিভেন বয়েড ১৯৩১ সালের ৪ঠা জুলাই (কোন কোন সূত্রে ১৯২৮) উত্তর আয়ারল্যান্ডের কাউন্টি আনট্রিমের গ্লেনগোর্মলিতে জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্মনাম উইলিয়াম মিলার। তার নয় ভাইবোন। তিনি বলিক্লের হাই স্কুলে পড়াশুনা করেন। সাত বছর বয়সে তিনি উলস্টার বেতারে চিলড্রেন আওয়ার অনুষ্ঠানে তার কাজের জন্য বেলফাস্টে পরিচিতি অর্জন করেন।[২] ১৬ বছর বয়সে বয়েড বিদ্যালয় ত্যাগ করেন এবং উলস্টার গ্রুপ থিয়েটারে যোগ দেন। সেখানে তিনি থিয়েটারের পর্দার পিছনের কাজগুলো শিখেন। বয়েড ধীরে ধীরে চরিত্রাভিনেতা ও পরে কেন্দ্রীয় চরিত্রে কাজ শুরু করেন। ১৯ বছর বয়সে তিনি গ্রীষ্মকালীন স্টক কোম্পানিগুলোর সাথে কানাডা সফরে যান। ১৯৫০ সালে তিনি ক্লের ট্রি মেজর কোম্পানির সাথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফরে যান।[৩] ১৯৫৬ সালে তিনি আ স্ট্রিটকার নেমড ডিজায়ার মঞ্চনাটকে স্ট্যানলি কোওয়াল্‌স্কির সাথে অভিনয় করেন।[৪] বয়েড পরবর্তী সময়ে তার এই কাজকে তার জীবনের সেরা অভিনয় বলে উল্লেখ করেন।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ম্যাককি, রস (২০১১)। "From busker to big screen idol"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০১৮ 
  2. "The Journal News - White Plains New York"। ৯ জুন ১৯৬৯। 
  3. নিল, জন। Stephen Boyd, The Man Who Never Wants to Pour Another Coffee 
  4. "Daily News"। ডেইলি নিউজ। ৫ মে ১৯৬৩। 
  5. "Movieland Magazine interview"। মুভিল্যান্ড ম্যাগাজিন। ডিসেম্বর ১৯৬২। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]