এডওয়ার্ড নর্টন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এডওয়ার্ড নর্টন
স্থানীয় নাম Edward Norton
জন্ম এডওয়ার্ড হ্যারিসন নর্টন
(১৯৬৯-০৮-১৮) ১৮ আগস্ট ১৯৬৯ (বয়স ৪৮)
বোস্টন, ম্যাসাচুসেটস, যুক্তরাষ্ট্র
জাতীয়তা মার্কিন
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়
পেশা অভিনেতা, চলচ্চিত্র নির্মাতা, সমাজকর্মী
কার্যকাল ১৯৯৬-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গী শনা রবার্টসন (বি. ২০১২)
সন্তান

এডওয়ার্ড হ্যারিসন নর্টন (জন্ম: ১৮ আগস্ট, ১৯৬৯) হলেন একজন মার্কিন অভিনেতা, চলচ্চিত্র নির্মাতা, ও সমাজকর্মী। তিনি প্রাইমাল ফিয়ার (১৯৯৬), অ্যামেরিকান হিস্ট্রি এক্স (১৯৯৮) এবং বার্ডম্যান (২০১৪) চলচ্চিত্রের জন্য তিনবার একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। এছাড়া তার উল্লেখযোগ্য কাজ হল এভরিওয়ান সেজ আই লাভ ইউ (১৯৯৬), দ্য পিপল ভার্সাস ল্যারি ফ্লিন্ট (১৯৯৭), ফাইট ক্লাব (১৯৯৯), রেড ড্রাগন (২০০২), টোয়েন্টি ফিফথ আওয়ার (২০০২), কিংডম অফ হেভেন (২০০৫), দ্য ইলুশনিস্ট (২০০৬), মুনরাইজ কিংডম (২০১২), দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল (২০১৪), এবং সসেজ পার্টি (২০১৬)। ২০০০ সালে কিপিং দ্য ফেইথ চলচ্চিত্র দিয়ে তার পরিচালনা অভিষেক হয়। পাশাপাশি তিনি এই চলচ্চিত্রের সহ-চিত্রনাট্যকারও ছিলেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

নর্টন ম্যাসাচুসেটসের বোস্টনে ১৯৬৯ সালের ১৮ আগস্ট জন্মগ্রহণ করেন।[১] তিনি ম্যারিল্যান্ডের কলম্বিয়ার বেড়ে ওঠেন।[২] তার পিতা এডওয়ার্ড মাউয়ার নর্টন জুনিয়র ভিয়েতনাম যুদ্ধে মেরিন লেফটেন্যান্ট হিসেবে অংশগ্রহণ করেছিলেন। পরে তিনি পরিবেশবাদী আইনজীবী এবং কনজারভেশন এডভোকেট হিসেবে এশিয়ায় কাজ করেন। তার মাতা লিডিয়া রবিনসন "রবিন" (রোজ) ছিলেন একজন ইংরেজির শিক্ষক।[৩][৪] তিনি ১৯৯৭ সালে ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার মাতামহ জেমস রোজ ছিলেন দ্য রোজ কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়া তিনি নর্টনের সৎ মাতামহী প্যাটি রোজের সাথে যৌথভাবে এন্টারপ্রাইজ কমিউনিটি পার্টনার্স গড়ে তুলেন।[৩] তিন ভাই বোনের মধ্যে নর্টন সবার বড়, তার ছোট বোন মলি এবং ভাই জিম।

অভিনয় জীবন[সম্পাদনা]

নর্টন ১৯৯৬ সালে প্রাইমাল ফিয়ার দিয়ে চলচ্চিত্র অভিনয় জীবন শুরু করেন। এই চলচ্চিত্রে অ্যারন স্ট্যাম্পলার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি সেরা পার্শ্ব অভিনেতার জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার লাভ করেন এবং সেরা পার্শ্ব অভিনেতার জন্য বাফটা পুরস্কারশ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার এর মনোনয়ন লাভ করেন। তিনি ১৯৯৬ সালে এভরিওয়ান সেজ আই লাভ ইউ এবং ১৯৯৭ সালে দ্য পিপল ভার্সাস ল্যারি ফ্লিন্ট চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯৮ সালে তিনি নব্য-নাৎসি ডেরেক ভিনইয়ার্ড চরিত্রে অ্যামেরিকান হিস্ট্রি এক্স চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। পরের বছর ডেভিড ফিঞ্চার পরিচালিত ফাইট ক্লাব চলচ্চিত্রে বর্ণনাকারী হিসেবে অভিনয় করেন। চলচ্চিত্রটি চাক পালানিউকের একই নামের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত।

২০০০ সালে কিপিং দ্য ফেইথ চলচ্চিত্র দিয়ে নর্টনের পরিচালনা অভিষেক হয়। ২০০০ এর দশকে তিনি রেড ড্রাগন (২০০২), টোয়েন্টি ফিফথ আওয়ার (২০০২), কিংডম অফ হেভেন (২০০৫), দ্য ইলুশনিস্ট (২০০৬), এবং প্রাইড অ্যান্ড গ্লোরি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

২০১৪ সালে তিনি বার্ডম্যান চলচ্চিত্রে মাইক শাইনার চরিত্রের জন্য সেরা পার্শ্ব অভিনেতার জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, বাফটা পুরস্কারএকাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। একই বছর দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল এবং ২০১৬ সালে সসেজ পার্টিকলাটেরাল বিউটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ছয় বছর প্রেমের সম্পর্কের পর নর্টন কানাডীয় চলচ্চিত্র প্রযোজক শনা রবার্টসনকে ২০১১ সালে বিয়ের প্রস্তাব দেন এবং ২০১২ সালে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।[৫] তাদের একমাত্র সন্তান ২০১৩ সালে জন্মগ্রহণ করে।[৬]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

চাবি
double-dagger আসন্ন মুক্তি/নির্মাণাধীন
বছর চলচ্চিত্রের শিরোনাম চরিত্র পরিচালক টীকা
১৯৯৬ প্রাইমাল ফিয়ার অ্যারন স্ট্যাম্পলার / রয় গ্রেগরি হবলিট বিজয়ী: সেরা পার্শ্ব অভিনেতার জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার
মনোনীত: শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার
এভরিওয়ান সেজ আই লাভ ইউ হল্ডেন স্পেন্স উডি অ্যালেন
১৯৯৭ দ্য পিপল ভার্সাস ল্যারি ফ্লিন্ট অ্যালান আইজ্যাকম্যান মিলোঁ ফরমান
১৯৯৮ অ্যামেরিকান হিস্ট্রি এক্স ডেরেক ভিনইয়ার্ড টনি কায়ে মনোনীত: শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার
১৯৯৯ ফাইট ক্লাব বর্ণনাকারী ডেভিড ফিঞ্চার
২০০২ রেড ড্রাগন উইল গ্রাহাম ব্রেট র‍্যাটনার
টোয়েন্টি ফিফথ আওয়ার মন্টি ব্রগান স্পাইক লি প্রযোজক
২০০৫ কিংডম অফ হেভেন জেরুজালেমের চতুর্থ বাডউইন রিডলি স্কট মনোনীত: সেরা পার্শ্ব অভিনেতার জন্য স্যাটেলাইট পুরস্কার
২০০৬ দ্য ইলুশনিস্ট এইসেনহাইম নেল বুর্জার
২০০৮ দ্য ইনক্রেডিবল হাল্ক ব্রুস বেনার / দ্য হাল্ক লুই লেটারি
প্রাইড অ্যান্ড গ্লোরি রে টিয়েরনি গিভিন ও'কনর প্রযোজক
২০০৯ দ্য ইনভেনশন অফ লায়িং ট্রাফিক পুলিশ রিকি গার্ভাইস, ম্যাথু রবিনসন
২০১০ লিভস অফ গ্রাস বিল কিনকাইড / ব্র্যাডি কিনকাইড টিম ব্লেক নেলসন প্রযোজক
স্টোন জেরাল্ড "স্টোন" ক্রিসন জন কুরান
২০১২ মুনরাইজ কিংডম র‍্যান্ডি ওয়ার্ড ওয়েস অ্যান্ডারসন
দ্য বর্ন লেগেসি এরিক বাইলার টনি গিলরয়
২০১৪ দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল হেঙ্কেলস ওয়েস অ্যান্ডারসন
বার্ডম্যান মাইক শাইনার আলেহান্দ্রো গোন্সালেস ইনারিতু মনোনীত: শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার
মনোনীত: সেরা পার্শ্ব অভিনেতার জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার
২০১৬ কলাটেরাল বিউটি হুইট ওয়ার্ডশাম ডেভিড ফ্রাঙ্কেল
সসেজ পার্টি স্যামি বেগেল জুনিয়র গ্রেগ ট্রিয়েরনান, কনরাড ভার্নন
২০১৮ আইল অফ ডগস্‌ double-dagger রেক্স ওয়েস অ্যান্ডারসন

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

এডওয়ার্ড নর্টন গৃহীত উল্লেখযোগ্য পুরস্কার ও মনোনয়ন সমূহ হল:

একাডেমি পুরস্কার
পুরস্কারের বিভাগ বছর মনোনীত চলচ্চিত্র ফলাফল
শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা ১৯৯৬ প্রাইমাল ফিয়ার মনোনীত
১৯৯৮ অ্যামেরিকান হিস্ট্রি এক্স মনোনীত
২০১৪ বার্ডম্যান মনোনীত
গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার
পুরস্কারের বিভাগ বছর মনোনীত চলচ্চিত্র ফলাফল
সেরা পার্শ্ব অভিনেতা ১৯৯৬ প্রাইমাল ফিয়ার বিজয়ী
২০১৪ বার্ডম্যান মনোনীত
বাফটা পুরস্কার
পুরস্কারের বিভাগ বছর মনোনীত চলচ্চিত্র ফলাফল
সেরা পার্শ্ব অভিনেতা ১৯৯৬ প্রাইমাল ফিয়ার বিজয়ী
২০১৪ বার্ডম্যান মনোনীত

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Edward Norton"Biography.com 
  2. "Podcast: Sarah & Vinnie"। San Francisco: RadioAlice.radio.com। অক্টোবর ১, ২০১০। সংগৃহীত ২ এপ্রিল, ২০১৭ 
  3. "Latest news and profile of Edward Norton"। hellomagazine.com। সংগৃহীত ২ এপ্রিল, ২০১৭ 
  4. "Miss Lydia Rouse Wed"। The Baltimore Sun। মে ১৫, ১৯৬৬। সংগৃহীত ২ এপ্রিল, ২০১৭ 
  5. Chen, Joyce (এপ্রিল ১৮, ২০১৩)। "Edward Norton and Shauna Robertson Secretly Wed Before Son's Birth"Us Weekly। সংগৃহীত ২ এপ্রিল, ২০১৭ 
  6. Saad, Nardine (এপ্রিল ১৮, ২০১৩)। "Report: Edward Norton welcomes baby with fiancee Shauna Robertson"Los Angeles Times। সংগৃহীত ২ এপ্রিল, ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]