ডেমরা থানা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডেমরা থানা
ডেমরা
থানা
ডেমরা থানা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
ডেমরা থানা
ডেমরা থানা
বাংলাদেশে অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৪২.৫′ উত্তর ৯০°২৬.৫′ পূর্ব / ২৩.৭০৮৩° উত্তর ৯০.৪৪১৭° পূর্ব / 23.7083; 90.4417স্থানাঙ্ক: ২৩°৪২.৫′ উত্তর ৯০°২৬.৫′ পূর্ব / ২৩.৭০৮৩° উত্তর ৯০.৪৪১৭° পূর্ব / 23.7083; 90.4417
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগঢাকা বিভাগ
জেলাঢাকা জেলা
আয়তন
 • মোট৪৭.৩৫ কিমি (১৮.২৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (১৯৯১)
 • মোট৫,২১,১৬০
 • জনঘনত্ব১১০০৭/কিমি (২৮৫১০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটডেমরা থানার প্রাতিষ্ঠানিক মানচিত্র

ডেমরা থানা ঢাকা বিভাগের ঢাকা জেলার অন্তর্গত একটি থানা

ভৌগোলিক অবস্থান[সম্পাদনা]

ডেমরার অবস্থান ২৩.৭০৮৩° দক্ষিণ. ৯০.৪৪১৭° পূর্ব অক্ষাংশে। এর মোট আয়তন ৪৭.৩৫ বর্গ কিলোমিটার।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

১৯৯১ সালের আদমশুমারীতে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে ডেমরার জনসংখ্যা ৫২,১১,৬০ জন। পুরুষ ও মহিলার অনুপাত ৫৬.৪২ : ৪৩.৫৮। এই থানায় ১৮ বছর বয়সের অধিক জনসংখ্যা প্রায় ২৯০৯৮১ জন। সাক্ষরতার হার ৫২.৩%।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

ডেমরা থানার প্রধান আয় পাটকল থেকে। এছাড়া এখানে জামদানি হাট আছে। এই থানার মানুষের প্রধান আয়ের উৎস ঘড় ভাড়া দেওয়া।

এটি ঢাকা শহরের পূর্ব প্রান্ত নির্দেশক। বালু ও শীতলক্ষ্যা এ থানার সৌন্দর্য বাড়িয়েছে বহুগুণে। [১]

শিক্ষার হার,[সম্পাদনা]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড় হার ৫৮.৫৮%; পুরুষ ৬১.১৪%, মহিলা ৫০.৮০%। কলেজ ৫, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১৭, প্রাথমিক বিদ্যালয় ৫৫, মাদ্রাসা ১১। উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: শামসুল হক খান স্কুল এন্ড কলেজ, বাওয়ানী আদর্শ বিদ্যালয়, আনন্দলোক হাইস্কুল, আলী আকবর হাইস্কুল, মাতুয়াইল বহুমুখী হাইস্কুল, তিতাস গ্যাস আদর্শ হাইস্কুল, দয়াগঞ্জ বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইসলামিয়া মাদ্রাসা।

সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

ক্লাব ১০, লাইব্রেরি ৪, সিনেমা হল ৩, খেলার মাঠ ৩।

জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস[সম্পাদনা]

কৃষি ৪.৩৯%, অকৃষি শ্রমিক ২.৩৩%, শিল্প ২.৯৩%, ব্যবসা ২৫.৭০%, চাকরি ৩০.৬৬%, পরিবহন ও যোগাযোগ ১২.০৭%, নির্মাণ ৩.৯১%, ধর্মীয় সেবা ০.১৯%, রেন্ট অ্যান্ড রেমিট্যান্স ২.২৭% এবং অন্যান্য ১৫.৫৫%।

কৃষিভূমির মালিকানা ভূমিমালিক ৪৯.৩৫%, ভূমিহীন ৫০.৬৫%।

প্রধান কৃষি ফসল ধান, গম, শাকসবজি।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় ফসলাদি পাট, তিল, তিসি, ডাল।

প্রধান ফল-ফলাদি আম, কাঁঠাল, পেয়ারা, নারিকেল, পেঁপে, কূল, কলা।

যোগাযোগ বিশেষত্ব মোট সড়ক ২৩.১৬ কিমি।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় সনাতন বাহন পাল্কি, ঘোড়ার গাড়ি।

শিল্প ও কলকারখানা পাটকল, স্টিল মিল, আটা কল।

কুটিরশিল্প স্বর্ণশিল্প, লৌহশিল্প, সূচিশিল্প, কাঠের কাজ।

হাটবাজার ও মেলা হাটবাজার ১০। উল্লেখযোগ্য হাটবাজার: সারুলিয়া হাট, রানী মার্কেট।

প্রধান রপ্তানিদ্রব্য কাপড়, ময়দা।

বিদ্যুৎ ব্যবহার এ থানার সবক’টি ইউনিয়ন বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতাধীন। তবে ৯৭.৪৭% পরিবারের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

পানীয়জলের উৎস নলকূপ ৬৯.৩২%, ট্যাপ ২৮.৬১%, পুকুর ০.২৮% এবং অন্যান্য ১.৭৯%।

স্যানিটেশন ব্যবস্থা এ থানার ৮৪.২২% পরিবার স্বাস্থ্যকর এবং ১৫.৩৩% পরিবার অস্বাস্থ্যকর ল্যাট্রিন ব্যবহার করে। ০.৪৫% পরিবারের কোনো ল্যাট্রিন সুবিধা নেই।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র স্বাস্থ্যকেন্দ্র ২, মাতৃসদন ১, পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র ৭।

এনজিও ব্র্যাক, প্রশিকা, আশা।

ডেমরা থানা[সম্পাদনা]

ডেমরা থানা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ওয়ারী বিভাগের আওতাভুক্ত। অর্থাৎ এই থানার তদারকি কর্মকর্তা হচ্ছেন ডিসি ওয়ারী জোন এবং এসি ডেমরা জোন।

ঠিকানা আহম্মেদ বাওয়ানী টেক্সটাইল মিল, ডেমরা, ঢাকা।

ডেমরা থানার ফাঁড়িগুলো

ডেমরা থানায় মোট ২টি পুলিশ ফাঁড়ি আছে। ফাঁড়ির নাম: কোণাপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি, কোণাপাড়া, ঢাকা ডেমরা পুলিশ ফাঁড়ি সারুলিয়া, ডেমরা

থানার সাধারণ কার্যক্রম[সম্পাদনা]

যেকোন থানার সার্বিক দায়িত্বে থাকেন ওসি (অফিসার ইন চার্জ)। তিনি একজন ইন্সপেক্টর র‍্যাংকের কর্মকর্তা। থানায় একই র‍্যাংকের আরও কর্মকর্তা থাকেন। তাঁদের বলা হয় ইন্সপেক্টর তদন্ত বা ইন্সপেক্টর ইনভেষ্টিগেশন। থানার সাব-ইন্সপেক্টরদের মধ্যে যাঁরা তদন্ত করেন তাঁরা ইন্সপেক্টর তদন্তের অধীনে কাজ করেন। থানার সাব-ইন্সপেক্টরদের মধ্যে যিনি সিনিয়র তাকে বলা হয় অপারেশন অফিসার (বাইরের জেলা সমূহে অপারেশন অফিসারের পরিবর্তে সেকেন্ড অফিসার বলা হয়) একজন সাব-ইন্সপেক্টর পালাক্রমে আট ঘন্টা দায়িত্ব পালন করেন। একটি থানার সব সাব-ইন্সপেক্টরই পালাক্রমে ডিউটি অফিসার হিসেবে কাজ করেন।

থানার সীমানা[সম্পাদনা]

ডেমরা থানার উত্তরে সবুজবাগ থানা, পশ্চিমে যাত্রাবাড়ী থানা এবং দক্ষিণে শ্যামপুর থানা। ডেমরা থানার পূর্বে সীমানা হচ্ছে ঢাকা মহানগরীর পূর্বী সীমানা।

ওয়ারী বিভাগ

প্রতিটি বিভাগের সার্বিক দায়িত্বে থাকেন একজন ডিসি আর তাঁকে সাহায্য করেন চারজন এসি। আবার এসিকে সাহায্য করার জন্য একজন করে এডিসি থাকেন। এসি অফিসে এসির কক্ষের পাশেই এডিসির কক্ষ থাকে। ওয়ারী বিভাগের জোন দু’টি একটি ওয়ারী অন্যটি ডেমরা। ওয়ারী ও ডেমরার এসি ছাড়াও পেট্রোল ও প্রশাসনের জন্য একজন করে এসি আছেন।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Population Census Wing, BBS."। ২৭ মার্চ ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৩