চামু চিভাভা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
চামু চিভাভা
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম চামুনোরা জাস্টিস চিভাভা
জন্ম (১৯৮৬-০৯-০৬) ৬ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ৩১)
মাসভিঙ্গো, জিম্বাবুয়ে
ডাকনাম চাম
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি মিডিয়াম
সম্পর্ক জে চিভাভা (বোন)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৮৮)
৩১ আগস্ট ২০০৫ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ ওডিআই ৮ নভেম্বর ২০০৯ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ )
২৮ নভেম্বর ২০০৬ বনাম বাংলাদেশ
শেষ টি২০আই ১৩ অক্টোবর ২০০৮ বনাম কানাডা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
২০০৬-বর্তমান সাউদার্নস
২০০৩-২০০৫ ম্যাশোনাল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি লিস্ট এ টি২০আই
ম্যাচ সংখ্যা ৬৩ ৭১ ১৩৫ ১৭
রানের সংখ্যা ১,৩১২ ৩,৭০৫ ২,৯৫৬ ৩৯১
ব্যাটিং গড় ২১.১৬ ২৮.২৮ ২৩.৪৬ ২৩.০০
১০০/৫০ ০/৯ ৪/২২ ১/১৮ ০/৩
সর্বোচ্চ রান ৭৩ ১০৫ ১২১* ৬৫
বল করেছে ৯৪২ ৫,৩৮০ ২,২৯৪ ১১৯
উইকেট ২০ ১০১ ৫৮
বোলিং গড় ৫৪.৯৫ ৩১.২৪ ৩৮.৯৪ ৩১.৬০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট n/a n/a n/a
সেরা বোলিং ২/২৮ ৫/৬৬ ৩/২৯ ১/১৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২৪/– ৩২/– ৫০/– ৫/–
উৎস: CricketArchive; espncricinfo, ৩ মার্চ ২০১৩

চামুনোরা জাস্টিস চামু চিভাভা (জন্ম: ৯ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৬) মাসভিঙ্গো এলাকায় জন্মগ্রহণকারী জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার। ডানহাতি ব্যাটসম্যান ও ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলিংয়ে পারদর্শী চামু চিভাভা জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য। ঘরোয়া ক্রিকেটে ম্যাশোনাল্যান্ড দলের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিচ্ছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

হারারেতে অনুষ্ঠিত শ্রীলঙ্কা এ-দলের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক সেঞ্চুরি করেন। উভয় ইনিংসে ৪০ ও ১০৩ রান করেন এবং খেলা ড্রয়ে পরিণত হয়। এর পূর্বের খেলায় সাউথ আফ্রিকা একাডেমির বিপক্ষে ৯৮ রানে রান-আউটের শিকার হন তিনি।

জুলিয়া নাম্নী তার বোন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে জাতীয় দলের পক্ষে খেলছেন।[১] সে নভেম্বর, ২০০৭ সালে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত মহিলাদের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে জিম্বাবুয়ের অধিনায়কত্ব করেন।[২]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৫-০৬ মৌসুমে ভিডিওকন ত্রি-দেশীয় সিরিজে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে। কিন্তু প্রথম খেলাতেই তিনি শূন্য রান পান। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে দূর্দান্ত ক্রীড়া প্রদর্শন করে তাকে পুণরায় জাতীয় দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ২০০৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে অনুষ্ঠিত প্রথম একদিনের আন্তর্জাতিকে দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী হলেও ছয় ওভারে তিনি ত্রিশ রান দেন। এরফলে জিম্বাবুয়ে পাঁচ উইকেটে পরাজিত হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]