ওয়েন জেমস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ওয়েন জেমস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামওয়েন রবার্ট জেমস
জন্ম (1965-08-27) ২৭ আগস্ট ১৯৬৫ (বয়স ৫৪)
বুলাওয়ে, জিম্বাবুয়ে
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাব্যাটসম্যান, উইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২২)
১৬ ডিসেম্বর ১৯৯৩ বনাম পাকিস্তান
শেষ টেস্ট২৬ অক্টোবর ১৯৯৪ বনাম শ্রীলঙ্কা
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২১)
২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৯২ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ ওডিআই৩ সেপ্টেম্বর ১৯৯৬ বনাম শ্রীলঙ্কা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯২/৯৩ - ১৯৯৭/৯৮মাতাবেলেল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১১ ৪০ ৩৬
রানের সংখ্যা ৬১ ১০১ ২৪৪২ ৪৬৮
ব্যাটিং গড় ১৫.২৫ ১৪.৪২ ৩৮.১৫ ১৫.০৯
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ৩/১৬ -/-
সর্বোচ্চ রান ৩৩ ২৯ ২১৫ ৫৭
বল করেছে - - - -
উইকেট - - - -
বোলিং গড় - - - -
ইনিংসে ৫ উইকেট - - - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - - - -
সেরা বোলিং - - - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৬/০ ৬/০ ১০১/৭ ২২/১
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ওয়েন রবার্ট জেমস (ইংরেজি: Wayne James; জন্ম: ২৭ আগস্ট, ১৯৬৫) বুলাওয়েতে এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ও সাবেক জিম্বাবুয়ীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯২ থেকে ১৯৯৬ সময়কালে জিম্বাবুয়ের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। ১৯৮০-এর দশকের শেষদিক থেকে ১৯৯০-এর দশকের সূচনাকাল পর্যন্ত জিম্বাবুয়ের ধ্রুপদী ব্যাটসম্যান ও চমকপ্রদ ফিল্ডার হিসেবে সুনাম কুড়িয়েছেন। এ সময়ে চারটি টেস্ট ও এগারোটি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নিয়েছেন তিনি। নিয়মিতভাবে দলের উইকেট-রক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটে মাতাবেলেল্যান্ড দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষক হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে কার্যকরী ব্যাটিং করতেন ওয়েন জেমস

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৮৬-৮৭ মৌসুম থেকে ১৯৯৬-৯৭ মৌসুম পর্যন্ত ওয়েন জেমসের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান করেন ২১৫। ১৯৯৫-৯৬ মৌসুমের লোগান কাপে মাতাবেলেল্যান্ডের সদস্যরূপে এ রান তুলেন। ঐ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত খেলায় উইকেট-রক্ষক হিসেবে এক ইনিংসে নয়জনকে ডিসমিসাল করে যৌথ রেকর্ডের ভাগীদার হন।[১] সাতটি ক্যাচ ও দুইটি স্ট্যাম্পিং করেন তিনি। দ্বিতীয় ইনিংসে তিনি আরও চারটি ক্যাচ গ্লাভসবন্দী করেন। খেলায় তিনি সর্বমোট ১৩ ডিসমিসাল ঘটান।[১] একই খেলায় প্রথম ইনিংসে ৯৯ ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ৯৯ রান করে নতুন রেকর্ড গড়েন। একমাত্র খেলোয়াড়ে হিসেবে এ দ্বৈত অর্জন করা থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে চারটিমাত্র টেস্ট ও এগারোটি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন ওয়েন জেমস। ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৯৩ তারিখে লাহোরে স্বাগতিক পাকিস্তান দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২৬ অক্টোবর, ১৯৯৪ তারিখে হারারেতে সফরকারী শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৯৩-৯৪ ও ১৯৯৪-৯৫ মৌসুমে অনুষ্ঠিত সবকটি টেস্টে অংশগ্রহণ করেন। তবে, খেলাগুলোয় তেমন কোনো প্রভাববিস্তার করতে পারেননি। ফলশ্রুতিতে, বিখ্যাত উইকেট-রক্ষক ও ব্যাটসম্যান অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন।

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর ২০১০ থেকে ২০১৪ সময়কালে জাতীয় দল নির্বাচকমণ্ডলীর অন্যতম সদস্যরূপে দায়িত্ব পালন করেন।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "'Is that you, John Wayne?'"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. "Zimbabwe selector Wayne James axed"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]