তিনাশি প্যানিয়াঙ্গারা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
তিনাশি প্যানিয়াঙ্গারা
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই টি২০ এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৯ ৩৮
রানের সংখ্যা ১৬২ ৯৮ ৭৫৬
ব্যাটিং গড় ২৩.১৪ ৫.৪৪ - ১৬.০৮
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/১
সর্বোচ্চ রান ৪০* ১৬* ১* ৫৪
বল করেছে ১০৬৩ ১,৩৭১ ৯৬ ৫,৭৭৬
উইকেট ১৭ ২৭ ৯৯
বোলিং গড় ২৮.৫২ ৪৭.০০ ১৭.৫০ ২৭.৬২
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট n/a
সেরা বোলিং ৩/২৮ ৩/২৮ ৪/৩৭ ৫/৬০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/- ৫/- ০/০ ১৩/০
উৎস: Cricinfo, ১৮ মার্চ ২০১৪

তিনাশি প্যানিয়াঙ্গারা (জন্ম: ২১ অক্টোবর, ১৯৮৫) ম্যারোনদেরা এলাকায় জন্মগ্রহণকারী জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটারজিম্বাবুয়ে জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনাশি টেস্ট ক্রিকেট, একদিনের আন্তর্জাতিক এবং টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে খেলছেন। তিনি ডানহাতে ব্যাটিং ও ডানহাতে ফাস্ট মিডিয়াম বোলিং করে থাকেন। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট ইতিহাসে তিনি দ্রুততম বোলারদের একজন হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৩-০৪ মৌসুমে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে প্যানিয়াঙ্গারা প্রথমবারের মতো সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হন। প্রতিযোগিতায় ৩১ রানে ৬ উইকেট দখল করে জিম্বাবুয়ের বিজয়ে ভূমিকা রাখেন। ২০০৪ সালে পনের জন বিদ্রোহী খেলোয়াড়ের পরিবর্তে তাকেও দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। বার্কিসল্যান্ড ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলার সময় গ্রীষ্মকালে ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে যান। তারপর তিনি নটিংহামে স্থানান্তরিত হন।

২০১৪ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় গ্রুপ-পর্বে আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দলের বিপক্ষে তিনি তার সেরা বোলিং নৈপুণ্য (৪/৩৭) প্রদর্শন করেন। তা স্বত্ত্বেও তার দল ৩ উইকেটের ব্যবধানে পরাজিত হয়।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]