অসমাপ্ত আত্মজীবনী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অসমাপ্ত আত্মজীবনী
অসমাপ্ত আত্মজীবনী.jpg
অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইয়ের প্রচ্ছদ
সম্পাদকশামসুজ্জামান খান
লেখকশেখ মুজিবুর রহমান
প্রচ্ছদ শিল্পীসমর মজুমদার
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
বিষয়ইতিহাস, রাজনীতি
ধরনআত্মজীবনী
প্রকাশকইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড
প্রকাশনার তারিখ
জুন ২০১২
পৃষ্ঠাসংখ্যা৩৩০ (আত্মজীবনী ২৮৮)
আইএসবিএন9789845060592
পরবর্তী বইকারাগারের রোজনামচা 
পাণ্ডুলিপির একটি খাতায় জেল কর্তৃপক্ষের স্বাক্ষর।

অসমাপ্ত আত্মজীবনী শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মজীবনী সংকলন। ২০১২ সালের জুনে এ বইটি প্রকাশিত হয়।[১] এই বইটি ইংরেজি, জাপানি, চীনা, আরবি, ফরাসি, হিন্দী, তুর্কি, নেপালি, স্পেনীয়অসমীয়া ভাষায় অনূদিত হয়েছে।

সংকলনের ইতিহাস[সম্পাদনা]

শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের অনেক সময়ই কেটেছে জেলখানায় বন্দি অবস্থায়। ১৯৬৬-৬৯ সালে তিনি আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রাজবন্দি ছিলেন। এ নিরিবিলি নিরানন্দ সময়গুলোতে বন্ধুবান্ধব, সহকর্মী এবং সহধর্মিণীর অনুপ্রেরণায় তিনি জীবনী লেখা শুরু করেন। মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে শেখ মুজিবুর রহমানের ধানমন্ডির ৩২ নম্বর সড়কের বাড়িটি পাক হানাদার বাহিনীর দখলে ছিল। এই বাড়িতেই একটি ড্রেসিংরুমের আলমারির উপরে অন্যান্য খাতাপত্রের সাথে শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা এই আত্মজীবনী, স্মৃতিকথা, ডায়েরি, ভ্রমণ কাহিনীও ছিল। পাকিস্তানি বাহিনী সমগ্র বাড়িটি লুটপাট ও ভাঙচুর করলেও এই কাগজপত্রগুলোকে মূল্যহীন ভেবে অক্ষত রেখে যায়।

পঁচাত্তরের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের পর বাড়িটি জিয়া সরকার কর্তৃক সিলগালা করে দেওয়া হয়। ১৯৮১ সালে বাড়িটি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়। এ সময় ঐ বাড়িতে শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিকথা, ডায়েরি ও চীন ভ্রমণের খাতাগুলো খুঁজে পাওয়া গেলেও তাঁর আত্মজীবনীর পাণ্ডুলিপিটি পাওয়া যায় নি; শুধু কয়েকটি ছেড়া-উইপোকায় কাটা টাইপ করা ফুলস্কেপ কাগজ পাওয়া যায়।

দীর্ঘদিন পর ২০০৪ সালে শেখ মুজিবুর রহমানের এক ভাগ্নে অতি পুরানো-জীর্ণপ্রায় এবং প্রায়ই অস্পষ্ট লেখার চারটি খাতা শেখ হাসিনাকে এনে দেন। তিনি এই খাতা চারটি শেখ মুজিবের আরেক ভাগ্নে শেখ ফজলুল হক মণির অফিসের টেবিলের ড্রয়ার থেকে সংগ্রহ করেন। এই লেখাগুলোকে বঙ্গবন্ধু হারিয়ে যাওয়া পূর্বোক্ত আত্মজীবনী হিসেবে সুনিশ্চিত করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে শেখ মণিকে টাইপ করার জন্য এগুলো দেওয়া হয়েছিল। পরে এগুলো বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খানের সম্পাদনায় গ্রন্থাকারে অসমাপ্ত আত্মজীবনী নামে ২০১২ সালের জুনে প্রকাশ করা হয়। একই সঙ্গে এটি The Unfinished Memoirs নামে ইংরেজিতেও প্রকাশ করা হয় যার ভাষান্তর করেন ড. ফকরুল আলম

আত্মজীবনী[সম্পাদনা]

বইটিতে আত্মজীবনী লেখার প্রেক্ষাপট, লেখকের বংশ পরিচয়, জন্ম, শৈশব, স্কুল ও কলেজের শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড, দুর্ভিক্ষ, বিহার ও কলকাতার দাঙ্গা, দেশভাগ, কলকাতাকেন্দ্রিক প্রাদেশিক মুসলিম ছাত্রলীগ ও মুসলিম লীগের রাজনীতি, দেশ বিভাগের পরবর্তী সময় থেকে ১৯৫৪ সাল অবধি পূর্ব বাংলার রাজনীতি, কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক মুসলিম লীগ সরকারের অপশাসন, ভাষা আন্দোলন, ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা, যুক্তফ্রন্ট গঠন ও নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন, আদমজীর দাঙ্গা, পাকিস্তান কেন্দ্রীয় সরকারের বৈষম্যমূলক শাসন ও প্রাসাদ ষড়যন্ত্রের বিস্তৃত বিবরণ এবং এসব বিষয়ে লেখকের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার বর্ণনা রয়েছে।[২] আছে লেখকের কারাজীবন, পিতা-মাতা, সন্তান-সন্ততি ও সর্বোপরি সর্বংসহা সহধর্মিণী বেগম ফজিলাতুন্নেসার কথা, যিনি তাঁর রাজনৈতিক জীবনে সহায়ক শক্তি হিসেবে সকল দুঃসময়ে অবিচল পাশে ছিলেন। একইসঙ্গে লেখকের চীন, ভারত ও পশ্চিম পাকিস্তান ভ্রমণের বর্ণনাও বইটিকে বিশেষ মাত্রা দিয়েছে।[২]

অনুবাদ[সম্পাদনা]

তী অধুরা সম্সমরণহরু (সেই অপূর্ণ স্মৃতিগুলো); নেপালি ভাষায় অসমাপ্ত আত্মজীবনীর অনুবাদ।

এ পর্যন্ত ক্রমান্বয়ে ইংরেজি, জাপানি, চিনা, আরবি, ফরাসি, হিন্দি, তুর্কি, নেপালি, স্পেনীয় এবং সর্বশেষ অসমীয়া ভাষায় অসমাপ্ত আত্মজীবনীর অনুবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদ তালিকা:

ভাষা ঐ ভাষায় গ্রন্থের নাম অনুবাদক মোড়ক উন্মোচনের তারিখ মোড়ক উন্মোচনের স্থান মোড়ক উন্মোচনের উপলক্ষ
ইংরেজি The Unfinished Memoirs ড. ফকরুল আলম ১৮ জুন ২০১২
জাপানি কাজুহিরো ওয়াতানাবে ২রা আগস্ট ২০১৫ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, তেজগাঁও --
চিনা চাই শি ২৮শে জানুয়ারি ২০১৬ গণভবন --
আরবি (ফিলিস্তিন) মুহাম্মদ দিবাজাহ ডিসেম্বর ২০১৬
ফরাসি Mémoires Inachevés ফ্রান্স ভট্টাচার্য ২৬শে মার্চ ২০১৭
হিন্দি दास्ताँ और भी हैं প্রেম কাপুর ৮ই এপ্রিল ২০১৭ হায়দ্রাবাদ হাউজ, নয়াদিল্লি বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই অনুষ্ঠান
তুর্কি আতাতুর্ক সংস্কৃতি ও গবেষণা কেন্দ্র (তুরস্ক) ২৭শে মার্চ ২০১৮ সুইস হোটেল, আঙ্কারা স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে এক অনুষ্ঠান
নেপালি ती अधुरा संस्मरणहरु অর্জুন বাহাদুর থাপা ও মহেশ পৌড়েল ৮ই অক্টোবর ২০১৮ দরবার হল, হোটেল ইয়াক অ্যান্ড ইয়েতি, কাঠমণ্ডু
স্পেনীয় Memorias Inacabadas মারিয়া হেলেনা বারেরা-আগারওয়াল ও বেঞ্জামিন ক্লার্ক ১১ই অক্টোবর ২০১৮ গণভবন
১০ অসমীয়া অসমাপ্ত আত্মজীৱনী ড. সৌমের ভারতীয়া ও ড. জুরি শর্মা ২৫শে ডিসেম্বর ২০১৮ আসাম, ভারত ৩২তম গুয়াহাটি গ্রন্থমেলা
১১ রুশ কাজ চলছে[৩] --
১২ ইটালি কাজ চলছে[৪] -- -- --
১৩ মালয় কাজ চলছে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ এ পাণ্ডুলিপি প্রধানমন্ত্রীর নিকট হস্তান্তর [৫] -- --
১৩ উর্দু অনুদিত হয়েছে। তবে প্রকাশিত হওয়ার সুনিশ্চিত তথ্য নেই।[৬] -- -- -- --

ইংরেজি অনুবাদ[সম্পাদনা]

ইংরেজি ভাষায় গ্রন্থটির অনুবাদক ড. ফকরুল আলম। ২০১২ সালের ১৮ই জুন বাংলা সংস্করণের সাথে এটিও প্রকাশিত হয়। বাংলাদেশে ইংরেজি ও বাংলা দুটোই ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড প্রকাশ করেছে।[৭] ভারতে ইংরেজি সংস্করণটি প্রকাশিত হয়েছে ‘পেঙ্গুইন বুকস ইন্ডিয়া’ থেকে আর পাকিস্তানে ইংরেজী সংস্করণটি প্রকাশ করেছে ‘অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস পাকিস্তান’।[৮]

জাপানি অনুবাদ[সম্পাদনা]

কাজুহিরো ওয়াতানাবে বাংলা থেকে সরাসরি জাপানি ভাষায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীটি অনুবাদ করেছেন। ৬০০ পৃষ্ঠার এ সংস্করণটি প্রকাশ করেছে জাপানের শীর্ষস্থানীয় প্রকাশনা সংস্থা "আশাহি শোতেন"। ২রা আগস্ট ২০১৫ তারিখে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে অসমাপ্ত আত্মজীবনীর জাপানি অনুবাদের একটি কপি তাকে উপহার দেন। জাপানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনএইচকে’র বাংলা বিভাগের প্রধান অনুষ্ঠান পরিচালক একই সঙ্গে আশাহি শোতেনের প্রেসিডেন্ট এবং অনন্য বাংলাপ্রেমী এই অনুবাদক ইতোপূর্বে তাকেশি হায়াকাওয়ার আমার বাংলাদেশ ও তাদামাসা হুকিউরার রক্ত ও কাদা ১৯৭১ বই দুটি বাংলায় অনুবাদ করেছিলেন, তবে বাংলা থেকে জাপানি ভাষায় এটিই তাঁর প্রথম পূর্ণাঙ্গ অনুবাদ। উল্লেখ্য যে, জাপানে মোড়ক উন্মোচন করে নতুন বইয়ের প্রকাশনা উৎসবের প্রচলন নেই। শুধু নামী লেখকদের বেলায় নতুন বই বাজারে আসার প্রথম কয়েকটি দিন পাঠকদের জন্য নাম স্বাক্ষরের বিশেষ আয়োজন করা হয় এবং অন্যান্য দেশের মতই সংবাদমাধ্যমে নতুন বইয়ের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পাশাপাশি সেই সব বইয়ের কিছু কপি পর্যালোচনার জন্য জমা দেওয়া হয়। সেই দিক থেকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অসমাপ্ত আত্মজীবনীর অনুবাদ কপির আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর জাপানি প্রকাশনা সংস্কৃতিতে ব্যতিক্রমই বটে।[৯][১০][১১]

চিনা অনুবাদ[সম্পাদনা]

চিনা ভাষায় বইটির অনুবাদ করেন বাংলাদেশে চিনের সাবেক রাষ্ট্রদূত চাই শি। ২০১৬ সালের ২৮শে জানুয়ারি গণভবনে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অনুবাদক চাই শি। ২০১৪ সালে বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীটির অনুবাদের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। চাই শি ২০০৩-২০০৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে চীনের রাষ্ট্রদূত ছিলেন।[১২][১৩][১৪]

আরবি অনুবাদ[সম্পাদনা]

ঢাকাস্থ ফিলিস্তিন দূতাবাসের উদ্যোগে ফিলিস্তিনি আরবিতে গ্রন্থটির অনুবাদ করেন ফিলিস্তিনের অনুবাদক মো. দিবাজাহ এবং সম্পাদনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুল্লাহ আল মারুফ। ২০১৬ খ্রীস্টাব্দে কুয়েত থেকে এ সংস্করণটি প্রকাশিত হয়। ২০১৬ খ্রীস্টাব্দের ১২ ডিসেম্বর গণভবনে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. রিয়াদ এন. এ. মালকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে বইটির আরবি সংস্করণের অনুলিপি তাঁর হাতে তুলে দেন।[১৫][১৬]

ফরাসি অনুবাদ[সম্পাদনা]

প্যারিস বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটুট ন্যাশনাল দেস ল্যাঙ্গুয়েজ এট সিভিলাইজেশনস ওরিয়েন্তালেস (প্রাচ্য ভাষা ও সভ্যতার জাতীয় ইনস্টিটিউট) (ইনালকো) প্রফেসর এমেরিটাস মিসেস প্রফেসর ফ্রান্স ভট্টাচারিয়া অসমাপ্ত আত্মজীবনীটির ফরাসিতে Mémoires Inachevés নামে অনুবাদ করেছেন।[১৭]ফরাসি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান জিংকো এডিটর এই সংস্করণটি প্রকাশ করে। বইটি প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশের ৪৭তম স্বাধীনতা দিবস ও বাংলাদেশ-ফ্রান্স কূটনৈতিক সম্পর্কের ৪৫তম বার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত হয়েছে। বইটি ২৬শে মার্চ ২০১৭ তারিখে ফ্রান্সের সর্ববৃহৎ বইমেলা ‘সালোন লিভর প্যারিস’-এ পরিবেশিত হয়েছে। বইটির প্রকাশনা, ভাষাগত পরিশুদ্ধতা ও সর্বাঙ্গীন সৌষ্ঠব নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদেশে নিযুক্ত সাবেক ফরাসি রাষ্ট্রদূত সার্জ দেগালে, ইনালকোর বাংলা বিভাগের প্রধান ড. ফিলিপ বেনোয়া ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ফিলিপ রাত একযোগে কাজ করেছেন। এর উপক্রমণিকা লিখেছেন ফ্রান্সের ভূতপূর্ব পররাষ্ট্র মন্ত্রী হুবার্ট ভেদ্রিন এবং পাদটীকাসমূহ লিখেছেন ইনালকোর বাংলা ভাষা ও সভ্যতার শিক্ষক জেরেমি কদ্রন।[১৮][১৯]

হিন্দি অনুবাদ[সম্পাদনা]

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উদ্যোগে বর্ষীয়ান অনুবাদক ও নাট্য-সমালোচক প্রেম কাপুর হিন্দি ভাষায় दास्ताँ और भी हैं (দাস্তাঁ অউর ভী হ্যায়) নামে এর অনুবাদ করেছেন।[২০]২০১৭ খ্রীস্টাব্দের ৮ই এপ্রিলে নয়াদিল্লির হায়দ্রাবাদ হাউজে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই অনুষ্ঠানে হিন্দি সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। দিল্লির রাজকমল প্রকাশন প্রাইভেট লিমিটেড বইটি প্রকাশক করেছে।[২১][২২]

তুর্কি অনুবাদ[সম্পাদনা]

তুরস্কের বাংলাদেশ দূতাবাস আতাতুর্ক সুপ্রিম কাউন্সিলর সহায়তায় তুর্কি ভাষায় অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইটির অনুবাদ প্রকাশ করেছে। এর অনুবাদ করেছে আতাতুর্ক সংস্কৃতি ও গবেষণা কেন্দ্র। ২০১৮ খ্রীস্টাব্দের ২৭শে মার্চ আঙ্কারাস্থ সুইস হোটেলে বাংলাদেশের ৪৮তম[২৩] স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তুর্কি সংস্করণের মোড়ক উন্মোন করা হয়।[২৪] [২৫]

নেপালি অনুবাদ[সম্পাদনা]

নেপালি ভাষায় অসমাপ্ত আত্মজীবনীর যৌথভাবে অনুবাদ করছেন নেপালের সাবেক বিদেশ সচিব ও সার্কের সাবেক মহাসচিব অর্জুন বাহাদুর থাপা এবং ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাতত্ত্বের অধ্যাপক মহেশ পৌড়েল। নেপালি সংস্করণে ती अधुरा संस्मरणहरु (তী অধুরা সম্সমরণহরু) নামে এটি প্রকাশিত হয়েছে।[২৬] নেপালের বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে নেপাল অ্যাকাডেমির সহযোগিতায় এ সংস্করণ প্রকাশ করা হয়। ২০১৮ খ্রীস্টাব্দের ৮ই অক্টোবর কাঠমণ্ডুতে হোটেল ইয়াক অ্যান্ড ইয়েতির দরবার হলে এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়।[২৭] [২৮]

স্পেনীয় অনুবাদ[সম্পাদনা]

স্পেনীয় ভাষায় Memorias Inacabadas নামে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর অনুবাদ করেছেন মারিয়া হেলেনা বাররেরা-আগারওয়াল এবং বেঞ্জামিন ক্লার্ক। তাঁরা যৌথভাবে ইংরেজি সংস্করণ The Unfinished Memoirs থেকে এ অনুবাদ করেন। ঢাকাস্থ স্পেনীয় দূতাবাসের উদ্যোগে স্পেনীয় এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (AECID) এর প্রকাশনা করে। ২০১৮ খ্রীস্টাব্দের ১১ই অক্টোবর গণভবনে এর মোড়ক উন্মোচন হয়।[২৯][৩০][৩১]

অসমীয়া অনুবাদ[সম্পাদনা]

অসমীয়া ভাষায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইটির অনুবাদ করেন বিখ্যাত বাঙালি লেখক ড. সৌমেন ভারতীয়া ও ড. জুরি শর্মা। অসমীয়া সংস্করণে অসমাপ্ত আত্মজীৱনী (অখমাপ্ত আত্মজীওনী) নামটি রাখা হয়েছে। ২০১৮ খ্রীস্টাব্দের ২৫শে ডিসেম্বরে ভারতের আসামে ৩২তম গুয়াহাটি গ্রন্থমেলায় এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়। বাংলাদেশ সরকার ও ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশের বিশেষ সহায়তায় গুয়াহাটির ভিকি পাবলিকেশন্স থেকে এটি প্রকাশিত হয়।[৩২][৩৩][৩৪]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. সরকার, মোনায়েম (আগস্ট ২৬, ২০১২)। "ভালোবাসার টানেই বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীর সঙ্গে যুক্ত হয়েছি : ফকরুল আলম"যায়যায়দিন। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  2. "বঙ্গবন্ধুর 'অসমাপ্ত আত্মজীবনী'প্রকাশিত হচ্ছে আজ"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  3. "স্পেনীয় ভাষায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর মোড়ক উন্মোচন", প্রথমআলো, ১১ অক্টোবর ২০১৮
  4. "আমার দুঃখ শেখ মুজিবকে দেখতে পারিনি: আন্না", ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
  5. "মালয় ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’, প্রধানমন্ত্রীর হাতে পান্ডুলিপি", ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
  6. "www.uplbooks.com"
  7. "ভালোবাসার টানেই বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীর সঙ্গে যুক্ত হয়েছি : ফকরুল আলম"[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ], দৈনিক প্রথম আলো, ১৪ আগস্ট ২০১৫
  8. The Unfinished Memoirs, Oxford University Press Pakistan
  9. "কাজুহিরো ওয়াতানাবে: অনন্য বাংলাপ্রেমী", মনজুরুল হক, ০৮ নভেম্বর ২০১৩
  10. "জাপানি ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’", মনজুরুল হক, দৈনিক প্রথম আলো, ১লা আগস্ট ২০১৫
  11. "জাপানি ভাষায় অনূদিত বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী"নয়া দিগন্ত, ৩রা আগস্ট ২০১৫
  12. "চীনা-ভাষায়-বঙ্গবন্ধুর-‘অসমাপ্ত-আত্মজীবনী’", প্রথমআলো, ২৮ জানুয়ারি ২০১৬
  13. "বঙ্গবন্ধুর 'অসমাপ্ত আত্মজীবনী' এবার চীনা ভাষায়"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ২৮ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  14. "এবার চীনা ভাষায় বঙ্গবন্ধুর 'অসমাপ্ত আত্মজীবনী'"দৈনিক ইত্তেফাক। ২৭ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  15. "বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী আরবি ভাষায়", আল ফাতাহ মামুন, ১০ আগস্ট ২০১৮
  16. "বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’র আরবি সংস্করণ প্রকাশ করলো ঢাকাস্থ ফিলিস্তিন দূতাবাস", মিরাজ রহমান, ২৩ আগস্ট ২০১৭
  17. livre.fnac.com
  18. "ফরাসী ভাষায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী", বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন, ২৭ মার্চ ২০১৭
  19. ‘The Unfinished Memoirs’ published in French,DhakaTribune, March 27th, 2017
  20. "भारतीय साहित्य संग्रह"
  21. "বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীর হিন্দি অনুবাদক প্রেম কাপুর", সুব্রত আচার্য, ২৭ আগস্ট ২০১৭
  22. "বাংলাদেশ-ভারত ২২ চুক্তি ও সমঝোতা সই", ৮ এপ্রিল ২০১৭
  23. বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৪৭তম বার্ষিকী উপলক্ষে। ১৯৭১ এর ২৬শে মার্চ বাংলাদেশের প্রথম স্বাধীনতার দিবস।
  24. তুরস্কে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন, তথ্য অধিদফতর (পিআইডি); তথ্যবিবরণী নম্বর: ১০১৯
  25. "বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী এবার তুর্কি ভাষায়", ৩১ মার্চ ২০১৮
  26. Embassy of Bangladesh, Kathmandu,Nepal, Official Facebook page
  27. "Bangabandhu’s Unfinished Memoirs released in Nepali", NTV online, 09 October 2018
  28. "Nepali Translation Of Unfinished Memoirs Of Bangabandhu Unveiled", NEW SPOTLIGHT ONLINE, 14 October 2018
  29. "স্পেনীয় ভাষায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর মোড়ক উন্মোচন", প্রথম আলো, ১১ অক্টোবর ২০১৮
  30. "books.google.com.bd"
  31. "Memorias inacabadas de Sheik Mujibur Rahman"
  32. আগরতলা, প্রতিনিধি (ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮)। "কাল আসামে প্রকাশিত হচ্ছে 'অসমাপ্ত-আত্মজীবনী'"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮ 
  33. "অসমীয়া ভাষায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী প্রকাশ", The Daily Star Bangla, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮
  34. "অসম আৰু বাংলাদেশ ভাই ভাই আছিল, আগলৈয়ো সেয়া ৰাখিব লাগিব : ড০ পৰমানন্দ ৰাজবংশী", কল্পজ্যোতি শইকীয়া, গুৱাহাটী, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]