খায়রুল আলম সবুজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
খায়রুল আলম সবুজ
খায়রুল আলম সবুজ.jpg
২০২০ সালে বাংলা একাডেমী প্রাঙ্গণ মিডিয়া সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন।
জন্ম (1949-02-24) ২৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৯ (বয়স ৭২)
পূর্ব নারায়ণপুর, উজিরপুর, বরিশাল
জাতীয়তাবাংলাদেশী
শিক্ষাস্নাতক, স্নাতকোত্তর (ইংরেজি)
মাতৃশিক্ষায়তনঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেতা, লেখক, অনুবাদক
দাম্পত্য সঙ্গীশিরীন আলম
সন্তান
পুরস্কারবাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার

খায়রুল আলম সবুজ হলেন একজন বাংলাদেশী অভিনেতা,[১] লেখক, ও অনুবাদক। মঞ্চাভিনয়ের মধ্য দিয়ে কর্মজীবন শুরু করা সবুজ পরবর্তী কালে টেলিভিশন নাটকে নিয়মিত হন। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি সাহিত্যচর্চার সাথেও জড়িতে। তিনি অনুবাদ সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০২০ সালে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেন।[২][৩]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

খায়রুল আলম সবুজ ১৯৪৯ সালের ২৪শে ফেব্রুয়ারি বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার পূর্ব নারায়ণপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৬৭ সালে করাচির বাংলা স্কুল থেকে মাধ্যমিক এবং ১৯৬৯ সালে বাংলা কলেজ উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। পরে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে ১৯৭২ সালে স্নাতক সম্মান এবং ১৯৭৩ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১২ বছর বয়স থেকে বরিশালে থাকাকালীন অভিনয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন খায়রুল আলম সবুজ। তখন মঞ্চদল করে নাটকে অভিনয় করতেন। তার অভিনীত প্রথম মঞ্চ নাটক ছিল ‘সূর্যমুখী’। এরপর পড়াশোনা করতে পাকিস্তানের করাচিতে চলে যান। সেখানে গান এবং অভিনয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। পিটিভিতে (পাকিস্তান টেলিভিশন) তাকে ১৯৭০ সালে প্রথম গান গেয়েছেন। ১৯৭১ সালের ১৮ মার্চ খায়রুল আলম সবুজ ঢাকায় চলে আসেন। এসে ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সাহিত্যে। সেখানে ম. হামিদের সঙ্গে ডাকসু নাটক বিভাগ ‘নাট্যচক্র’ গড়ে তোলেন। ম. হামিদ ছিলেন সভাপতি আর সবুজ ছিলেন সাধারণ সম্পাদক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ‘নাট্যচক্র’র মাধ্যমেই তার কর্মজীবন শুরু হয়। [৪] মঞ্চে তিনি পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়, এখানে এখন, ওথেলো, সেনাপতিসহ একাধিক নাটকে অভিনয় করেন।[৫]

টেলিভিশনে তার প্রথম কাজ ছিল বিটিভির টেলিভিশন নাটক জলের রঙ্গে লেখা। টিভিতে তার অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক নাটক ছিল ঢাকায় থাকি[৫] তিনি হুমায়ূন আহমেদের কোথাও কেউ নেই টেলিভিশন ধারাবাহিকে মামুন চরিত্রে অভিনয় করেন। চলচ্চিত্রে তার আত্মপ্রকাশ ঘটে পুনে ইনস্টিটিউট থেকে নির্মিত উজান চলচ্চিত্রে। এরপর তিনি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ছাড়পত্র-এ অভিনয় করেন।[৫]

২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে তিনি মীর সাব্বিরের পরিচালনায় আরটিভির টেলিভিশন ধারাবাহিক নোয়াশাল-এ অভিনয় করছেন। নোয়াখালীবরিশাল এই দুটি অঞ্চলের দুটি পরিবারের গল্প নিয়ে আবর্তিত এই ধারাবাহিকে তিনি বরিশাল পরিবারের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন।[৬] এই বছরের নভেম্বর মাস থেকে তিনি আফসানা মিমি ও রাকেশ বসুর পরিচালনায় এটিএন বাংলার ডলস হাউস ২: সাতটি তারার তিমির-এ অভিনয় করছেন।[৭] এটি মিমির ডলস হাউজ টেলিভিশন ধারাবাহিকে দ্বিতীয় কিস্তি।[৮][৯]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

খায়রুল আলম সবুজের সহধর্মিণী শিরীন আলম। তাদের এক মেয়ে প্রতীতি পূর্ণা।

সাহিত্যকর্ম[সম্পাদনা]

অনুবাদ
  • সোফিয়া লোরেন : তার আপন কথা
  • এন এনিমি অব দ্য পিপল
  • ওয়াইল্ড ডাক
  • লিংকনের সোনালী ভাষন
  • হেনরি ইবসেন এর তিনটি নাটক
  • দ্য পিলার্স অব সোসাইটি
  • অন্তেগনি
গল্পগ্রন্থ
  • স্বর্ণলতার বৃক্ষ চাই
  • বুড়ো বট ও শকুন
  • মমতাজ গায়েন
  • পবিত্র ও আড্ডাবাজ কয়েকজন
অন্যান্য
  • বন্ধুত্ব
  • আকাশের কাছে বাড়ি
  • ঝলপই পাতা ঝরেছিল
  • লালটুক টুকে কমলা
  • দিনান্তে দিন
  • শোভনের মহারাজ
  • পনির ও তীতুমামু
  • সোনামনি তোমায় দিলাম
  • ভালবাসা বোঝিনি পাখি
  • ছোট ছোট মেঘ
  • রং শুধু রং নয়
  • গোস্টস
  • ইতিহাসের বাকে বাকে
  • চিরায়িত শ্রেক্সপিয়র
  • ইউরিডাইস
  • পাতা
  • উপনের জমি
  • গল্পগুলো তোমার জন্য
  • বিলাসপুরের ইসকি

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র ভূমিকা টীকা
১৯৯৬ নদীর নাম মধুমতী কমান্ডার
২০০৫ মোল্লা বাড়ীর বউ বকুলের বাবা
২০০৬ নন্দিত নরকে রাবেয়ার বাবা
২০১১ মেহেরজান মেহেরের বাবা
২০১৫ শোভনের স্বাধীনতা
২০১৫ হরিযূপীয়া
২০১৭ ভয়ংকর সুন্দর রিকশাচালক
২০১৯ কারণ তোমায় ভালোবাসি
২০২০ রূপসা নদীর বাঁকে নির্মানাধীন

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "শিল্পীবাড়িতে খায়রুল আলম"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "বাংলা-একাডেমি-সাহিত্য-পুরস্কার-২০১৯-ঘোষণা"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. "বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন খায়রুল আলম সবুজ"যায়যায়দিন। ২৬ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  4. "খায়রুল আলমের একাল সেকাল"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  5. আফ্রিদী, মিলান (৩ মার্চ ২০১৬)। "সবুজের কাছাকাছি..."দৈনিক ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  6. মঈনুদ্দীন, অভি (১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮)। "চার বছর একই ফ্রেমে তারা"দৈনিক নয়া দিগন্ত। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  7. "২৯ নভেম্বর থেকে সাতটি তারার তিমির"বাংলা ট্রিবিউন। ২৪ নভেম্বর ২০১৪। ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  8. "আবার 'ডলস হাউস'"দৈনিক প্রথম আলো। ২৭ নভেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  9. "ডলস হাউস ২ : সাতটি তারার তিমির"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ১৭ নভেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  10. "নাট্যকার এর চরিত্র খায়রুল আলম"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  11. "বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন যাঁরা"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]