ভারত মহাসাগর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Indian Ocean থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভারত মহাসাগর
Blue Marble Eastern Hemisphere.jpg
ভারত মহাসাগরকে কেন্দ্র করে একটি সমন্বিত উপগ্রহ চিত্র
Indian Ocean surface.jpg
ভারত মহাসাগরের সমুদ্র তলটি বিস্তৃত শৈলশিরা এবং ভূকম্পনঘটিত কাঠামো দ্বারা ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিভক্ত হয়েছে
অবস্থানভারতীয় উপমহাদেশ, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, পশ্চিম এশিয়া, আফ্রিকার অন্তরীপ, পূর্ব আফ্রিকা, দক্ষিণাঞ্চলীয় আফ্রিকা এবং অস্ট্রেলিয়া
স্থানাঙ্ক২০° দক্ষিণ ৮০° পূর্ব / ২০° দক্ষিণ ৮০° পূর্ব / -20; 80স্থানাঙ্ক: ২০° দক্ষিণ ৮০° পূর্ব / ২০° দক্ষিণ ৮০° পূর্ব / -20; 80
ধরনমহাসাগর
সর্বাধিক দৈর্ঘ্য৯,৬০০ কিমি (৬,০০০ মা) (অ্যান্টার্কটিকা থেকে বঙ্গোপসাগর)[১]
সর্বাধিক প্রস্থ৭,৬০০ কিমি (৪,৭০০ মা) (আফ্রিকা থেকে অস্ট্রেলিয়া)[১]
পৃষ্ঠতল অঞ্চল৭,০৫,৬০,০০০ কিমি (২,৭২,৪০,০০০ মা)
গড় গভীরতা৩,৭৪১ মি (১২,২৭৪ ফু)
সর্বাধিক গভীরতা৭,২৫৮ মি (২৩,৮১২ ফু)
উপকূলের দৈর্ঘ্য৬৬,৫২৬ কিমি (৪১,৩৩৭ মা)[২]
জনবসতিডারবান, মুম্বই, পার্থ, কলম্বো, পাডাং, ম্যাপুটো
তথ্যসূত্র[৩]
উপকূলের দৈর্ঘ্য ভাল সংজ্ঞায়িত পরিমাপ হয়নি
ভারত মহাসাগর

ভারত মহাসাগর হল বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম মহাসাগরপৃথিবীর মোট জলভাগের ২০ শতাংশ এই মহাসাগর অধিকার করে আছে।[৪] এই মহাসাগরের উত্তর সীমায় রয়েছে ভারতীয় উপমহাদেশ; পশ্চিমে রয়েছে পূর্ব আফ্রিকা; পূর্বে রয়েছে ইন্দোচীন, সুন্দা দ্বীপপুঞ্জঅস্ট্রেলিয়া; এবং দক্ষিণে রয়েছে দক্ষিণ মহাসাগর সংজ্ঞান্তরে অ্যান্টার্কটিকা[৫][৬][৭]

ভারত মহাসাগর বিশ্ব মহাসাগরগুলির সঙ্গে আন্তঃসম্পর্কযুক্ত। ২০ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমা আটলান্টিক মহাসাগর থেকে এবং ১৪৬°৫৫' পূর্ব দ্রাঘিমা প্রশান্ত মহাসাগর থেকে ভারত মহাসাগরকে বিচ্ছিন্ন করেছে।[৮] ভারত মহাসাগরের সর্ব-উত্তর অংশটি পারস্য উপসাগরের ৩০ ডিগ্রি অক্ষরেখায় অবস্থিত। দক্ষিণভাগে (আফ্রিকা থেকে অস্ট্রেলিয়া পর্যন্ত) ভারত মহাসাগরের প্রস্থ প্রায় ১০,০০০ কিলোমিটার (৬,২০০ মাইল)। লোহিত সাগরপারস্য উপসাগরসহ এই মহাসাগরের মোট আয়তন ৭৩,৫৫৬,০০০ বর্গ কিলোমিটার (২৮,৩৫০,০০০ বর্গ মাইল)।[৯]

ভারত মহাসাগরের ঘনত্ব ২৯২,১৩১,০০০ ঘন কিলোমিটার (৭০,০৮৬,০০০ ঘন মাইল)।[১০] মহাসাগরের মহাদেশীয় প্রান্তসীমায় অনেক ছোটো ছোটো দ্বীপ অবস্থিত। ভারত মহাসাগরে অবস্থিত দ্বীপরাষ্ট্রগুলি হল মাদাগাস্কার (বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম দ্বীপ), রিইউনিয়ন দ্বীপ, কোমোরোস, সেশেল, মালদ্বীপ, মরিশাসশ্রীলঙ্কাইন্দোনেশিয়া দ্বীপপুঞ্জ এই মহাদেশের পূর্ব সীমায় অবস্থিত।

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

কমপক্ষে ১৫১৫ সাল থেকে ভারত মহাসাগরের নামকরণ করা হয়েছে ভারত নাম থেকে (ওশেনাস ওরিয়েন্টালস ইনডিকাস)। ভারত, তখন, "সিন্ধু নদীর অঞ্চল" এর গ্রীক / রোমান নাম।[১১]

প্রাচীন ভারতীয়রা একে সিন্ধু মহাসাগর বা সিন্ধুর বিশাল সমুদ্র বলে ডাকত, এই মহাসাগরকে বিভিন্ন ভাষায় হিন্দু মহাসাগর, ভারতীয় মহাসাগর ইত্যাদি বলা হত। আগে ভারত মহাসাগর 'পূর্ব মহাসাগর' নামেও পরিচিত ছিল, ১৮শ শতাব্দীর মাঝামাঝি সময়ে এই শব্দটি ব্যবহৃত হত।[১১] বিপরীতভাবে, যখন ১৫শ শতাব্দীতে চীন ভারত মহাসাগরে অন্বেষণ করছিল, তারা এটিকে "পশ্চিম মহাসাগর" বলে অভিহিত করেছিল।[১২]

প্রাচীন গ্রীক ভূগোল অনুযায়ী গ্রীকরা ভারত মহাসাগর অঞ্চলটিকে এরিথ্রিয়ান সাগর বলে জানত।[১৩] "ভারত মহাসাগর বিশ্ব" এর তুলনামূলকভাবে নতুন ধারণা অনুযায়ী এবং এর ইতিহাস পুনরায় লেখার চেষ্টার ফলস্বরূপ নতুন নামের প্রস্তাব হয়েছে, যেমন 'এশিয়ান সাগর' এবং 'আফরাশিয়ান সাগর'।[১৪]

অবস্থান[সম্পাদনা]

এর উত্তর দিকে রয়েছে ভারত, পাকিস্তানইরান; পশ্চিমে আরব উপদ্বীপআফ্রিকা; পুর্বে রয়েছে মালয় উপদ্বীপ, অস্ট্রেলিয়াইন্দোনেশিয়ার সুন্দা দ্বীপ এবং দক্ষিণ দিকে রয়েছে অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশ। ভারত সাগরের তিনটি প্রধান বাহু হচ্ছে: আরব সাগর, আন্দামান সাগরবঙ্গোপসাগর

সীমান্তবর্তী দেশ[সম্পাদনা]

এশিয়া
আফ্রিকা
অস্ট্রেলিয়া

এই দেশগুলির মাঝে দ্বীপ দেশ হচ্ছে শ্রীলংকা, মালদ্বীপ, বাহরাইন, কমোরোস, মাদাগাস্কার, মরিশাস ও সেশেল।

বাণিজ্য[সম্পাদনা]

বিশ্বের বৃহত্তম মহাসাগর বাণিজ্য রুটে উত্তর ভারত মহাসাগর অন্তর্ভুক্ত।

ভারত মহাসাগরের সমুদ্র লেনগুলি বিশ্বের সবচেয়ে কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে বিবেচিত হয়। ভারত মহাসাগর এবং এর অত্যাবশ্যক চোকপয়েন্টগুলির মধ্য দিয়ে বিশ্বের সমুদ্রসীমায় ৮০ শতাংশেরও বেশি তেল পরিবহনের বাণিজ্য সম্পূর্ণ হয়। এই মহাসাগরের সঙ্গে যুক্ত হরমুজ প্রণালীর মধ্য দিয়ে ৪০ শতাংশ, মালাক্কা প্রণালীর মধ্য দিয়ে ৩৫ শতাংশ এবং বাব-মান্দাব প্রণালীর মধ্য দিয়ে ৮ শতাংশ তেল পরিবহন করা হয়।[১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Demopoulos, Smith এবং Tyler 2003, Introduction, p. 219
  2. Keesing ও Irvine 2005, Introduction, p. 11–12; Table 1, p.12
  3. CIA World Fact Book 2018
  4. The Indian Ocean and the Superpowers। Routledge। ১৯৮৬। আইএসবিএন 0709942419, 9780709942412 |আইএসবিএন= এর মান পরীক্ষা করুন: invalid character (সাহায্য)  Authors list-এ |প্রথমাংশ1= এর |শেষাংশ1= নেই (সাহায্য)
  5. Indo-American relations : foreign policy orientations and perspectives of P.V. Narasimha Rao and Bill Clinton By Anand Mathur; Page 138 "India occupies the central position in the Indian- Ocean region that is why the Ocean was named after India"
  6. Politics of the Indian Ocean region: the balances of power By Ferenc Albert Váli; Page 25
  7. Geography Of India For Civil Ser Exam By Hussain; Page 12-251; "INDIA AND THE GEO-POLITICS OF THE INDIAN OCEAN"(16-33)
  8. Limits of Oceans and Seas ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৭ অক্টোবর ২০০৯ তারিখে. International Hydrographic Organization Special Publication No. 23, 1953.
  9. http://www.enchantedlearning.com/subjects/ocean/
  10. Donald W. Gotthold, Julia J. Gotthold (১৯৮৮)। Indian Ocean: Bibliography। Clio Press। আইএসবিএন 1851090347 
  11. Harper, Douglas। "Indian Ocean"Online Etymology Dictionary। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১১ ; Harper, Douglas। "India"Online Etymology Dictionary। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০১৮ 
  12. Hui 2010, Abstract
  13. Anonymous (১৯১২)। Periplus of the Erythraean Sea। Schoff, Wilfred Harvey কর্তৃক অনূদিত। 
  14. Prange 2008, Fluid Borders: Encompassing the Ocean, pp. 1382–1385
  15. DeSilva-Ranasinghe, Sergei (২ মার্চ ২০১১)। "Why the Indian Ocean Matters"The Diplomat 

উৎস[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • "The Indian Ocean in World History" (Flash)Sultan Qaboos Cultural Center। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৫ 
  • "The Indian Ocean Trade: A Classroom Simulation" (PDF)। African Studies Center, Boston University। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৫ 
  •  "Indian Ocean"। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ (১১তম সংস্করণ)। ১৯১১। [[বিষয়শ্রেণী:উইকিসংকলনের তথ্যসূত্রসহ ১৯১১ সালের এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা থেকে উইকিপিডিয়া নিবন্ধসমূহে একটি উদ্ধৃতি একত্রিত করা হয়েছে]]

টেমপ্লেট:Waters of South Asia টেমপ্লেট:Ocean