চিল্কা হ্রদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চিল্কা
Chilika Bhubaneswar.me.jpg
চিল্কা হ্রদে পরিযায়ী পাখি
স্থানাঙ্ক১৯°৪৩′ উত্তর ৮৫°১৯′ পূর্ব / ১৯.৭১৭° উত্তর ৮৫.৩১৭° পূর্ব / 19.717; 85.317স্থানাঙ্ক: ১৯°৪৩′ উত্তর ৮৫°১৯′ পূর্ব / ১৯.৭১৭° উত্তর ৮৫.৩১৭° পূর্ব / 19.717; 85.317
Lake typeঈষৎলোনা
প্রাথমিক অন্তর্প্রবাহভার্গভি, দয়া, মাকরা, মালাগুনি ও লুনা নদীসহ ৫২ টি স্ট্রিম[১]
প্রাথমিক বহিঃপ্রবাহআরাখাকুদাতে পুরোনো নদীমুখ, সাতপাড়াতে নতুন নদীমুখ; তারপর বঙ্গোপসাগর
অববাহিকা৩,৫৬০ কিমি (১,৩৭০ মা)
অববাহিকার দেশসমূহভারত
সর্বাধিক দৈর্ঘ্য৬৪.৩ কিমি (৪০.০ মা)
পৃষ্ঠতলীয় ক্ষেত্রফলmin.: ৯০০ কিমি (৩৪৭ মা)
max.: ১,১৬৫ কিমি (৪৫০ মা)
সর্বাধিক গভীরতা৪.২ মি (১৩.৮ ফু)
পানির আয়তন৪ কিমি (৩২,০০,০০০ acre·ft)
পৃষ্ঠতলীয় উচ্চতা0 – ২ মি (৬.৬ ফু)
দ্বীপ২২৩ কিমি (৮৬ মা):
বাডাকুডা, ব্রেকফারস্ট, হানিমুন, কালিজাই পাহাড়, পাখি দ্বীপ, কন্ঠপন্থ, নলবানা, নুয়াপাদা, সোমোলো এবং সানাকুডা।
জনবসতিপুরী এবং সাতপাড়া
তথ্যসূত্র[১][২]

চিল্কা হ্রদ একটি ঈষৎলোনা জলের উপহ্রদ যা ভারতের পূর্ব উপকূলের ওড়িশা রাজ্যের পুরী, খুরদা ও গানজাম জেলায় বিস্তৃত। দিয়া নদীর তীরে, বঙ্গোপসাগরে এটি ১১০০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিস্তৃত। এটি ভারতের বৃহত্তম উপকূলীয় লেগুন (উপহ্রদ) [৩][৪] এবং নিউ ক্যালিডোনিয়ার নিউ ক্যালিডোনিয়ার প্রবাল প্রাচীরের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম উপকূলীয় লেগুন।[২][৫]

গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Tripati, Sila; A. P. Patnaik (১০ ফেব্রুয়ারি ২০০৮)। "Stone anchors along the coast of Chilika Lake: New light on the maritime activities of Orissa, India" (PDF)Current Science। Bangalore: Indian Academy of Sciences। 94 (3): 386–390। 
  2. Mohanty, Prof. Prafulla Kumar; Dr. Sanjaya Narayan Otta (জুন ২০০৮)। "Dolphins of Chilika" (PDF)Orissa Review। Govt. of Orissa: 21–26। ১০ এপ্রিল ২০০৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. Forest and Environment Department। "Chilika"Wildlife Conservation in Orissa। Govt of Orissa। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১২-২১ 
  4. "Inventory of wetlands" (PDF)। Govt. of India। পৃষ্ঠা 314–318। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১২-০৯ 
  5. "New Caledonia - at the heart of the world's biggest lagoon</02.11>"www.boat-duesseldorf.com। ২০১৬-০৮-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৭-৩১