২০১৮ আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
২০১৮ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
তারিখ ১ মার্চ ২০১৮ (২০১৮-০৩-০১) – ৪ এপ্রিল ২০১৮ (2018-04-04)
ব্যবস্থাপক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল
ক্রিকেটের ধরন একদিনের আন্তর্জাতিক
লিস্ট এ ক্রিকেট
প্রতিযোগিতার ধরন রাউন্ড-রবিননক-আউট
আয়োজক জিম্বাবুয়ে
বিজয়ী  আফগানিস্তান (১ম শিরোপা)
অংশগ্রহণকারী ১০
খেলার সংখ্যা ৩৪
প্রতিযোগিতার সেরা
খেলোয়াড়
সিকান্দার রাজা
সর্বোচ্চ রান জিম্বাবুয়ে ব্রেন্ডন টেলর(৪৫৭)
সর্বোচ্চ উইকেট

স্কটল্যান্ড সাফিয়ান শরীফ(১৭)
আফগানিস্তান মুজিব উর রহমান (১৭)

আফগানিস্তান রশীদ খান(১৭)
প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট www.icc-cricket.com


২০১৮ আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব (ইংরেজি: 2018 Cricket World Cup Qualifier) ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিতব্য ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের চূড়ান্ত বাছাইয়ের লক্ষ্যে মার্চ, ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিতব আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতার শীর্ষ দুই দল আফগানিস্তানওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা লাভ করে।তারা আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপ মাধ্যমে উত্তীর্ণ বাকি ৮ দলের সাথে বিশ্বকাপে খেলবে।ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে আফগানিস্তান চ্যাম্পিয়ন হয়।[১]

১৯৮৩ সালের পর এই প্রথম জিম্বাবুয়ে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারে নি।[২]

প্রথমে প্রতিযোগিতাটি বাংলাদেশে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিলো।[৩]তবে বাংলাদেশ স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়, তাই এটি পরিবর্তিত হয়।[৩]সংযুক্ত আরব আমিরাত,জিম্বাবুয়েস্কটল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড যৌথ এই তিনটি আবেদন নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছিল।[৪][৫] ১৩ অক্টোবর ২০১৭ তে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় এটা জিম্বাবুয়েতে হবে।[৬]

অংশগ্রহণকারী দল[সম্পাদনা]

২০১৯ সালে আইসিসি’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিতব্য ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়। এরফলে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নতুন ধরনের ব্যবস্থা প্রণীত হয় যাতে কমপক্ষে দুইটি টেস্টভূক্ত দেশ বাছাইপর্ব প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে হবে। ফলশ্রুতিতে প্রথমবারের মতো টেস্টভূক্ত দেশের বিশ্বকাপে খেলা অনিশ্চয়তার মুখোমুখি হতে পারে। আয়ারল্যান্ড এবং আফগানিস্তানের নতুন টেস্ট দল হলেও তাদেরও এটা খেলতে হবে। ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখের মধ্যে শীর্ষ আট দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে।[৭] আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপ র‌্যাঙ্কিংয়ে নীচেরসারির চারটি দল ২০১৫-১৭ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ চ্যাম্পিয়নশীপের শীর্ষ চার দল এবং ২০১৮ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ দ্বিতীয় বিভাগের দুই ফাইনালিস্টের সাথে যোগ দেবে। এরফলে কমপক্ষে দুইটি সহযোগী দল বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে বা পাবে না যদি টেস্টভূক্ত দেশগুলোর কাছে পরাজিত হয়।

যোগ্যতার ধরন তারিখ মাঠ অন্তর্ভূক্তি যোগ্যতা লাভ
আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপ (শেষ ৪ দল) ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিভিন্ন

 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
 আফগানিস্তান
 জিম্বাবুয়ে
 আয়ারল্যান্ড

২০১৫-১৭ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ চ্যাম্পিয়নশীপ ডিসেম্বর, ২০১৭ বিভিন্ন

 নেদারল্যান্ডস[৮]
 স্কটল্যান্ড[৯]
 হংকং
 পাপুয়া নিউ গিনি[৮]

২০১৮ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ দ্বিতীয় বিভাগ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ নামিবিয়া নামিবিয়া    নেপাল

 সংযুক্ত আরব আমিরাত

সর্বমোট ১০

আইসিসি ওডিআই চ্যাম্পিয়নশীপে অবস্থান[সম্পাদনা]

বর্তমান র‌্যাঙ্কিংয়ে ৪ দল নিচেরসারিতে অবস্থান করছে:

২০১৫-১৭ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ চ্যাম্পিয়নশীপে অবস্থান[সম্পাদনা]

শীর্ষ ৪ দল বর্তমান র‌্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান করছে:

দল খেলা জয় পরাজয় টাই এনআর পয়েন্ট এনআরআর
 নেদারল্যান্ডস () ১২ ২২ +.৯৬৭
 স্কটল্যান্ড () ১২ ১৯ +০.৩৫৩
 হংকং () ১০ ১৮ +০.৯৯৬
 পাপুয়া নিউ গিনি () ১২ ১৬ -০.২৪০
 কেনিয়া () ১২ ১২ -০.১৪৭
   নেপাল () ১০ -০.২১১
 নামিবিয়া () ১২ -০.৫৪৭
 সংযুক্ত আরব আমিরাত () ১২ -০.৫৯৪

     অনুষ্ঠিতব্য ২০১৮ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে খেলার সুযোগ পাবে
     দ্বিতীয় বিভাগে অবনমন ঘটবে
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো

২০১৮ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ দ্বিতীয় বিভাগে অবস্থান[সম্পাদনা]

  1.  কেনিয়া
  2.  সংযুক্ত আরব আমিরাত
  3.    নেপাল
  4.  নামিবিয়া
  1.  কানাডা
  2.  ওমান

প্রতিযোগিতার বিন্যাস[সম্পাদনা]

প্রাথমিকভাবে ১০ টি দল ২টি গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে।প্রতিটি জয়ে ২ পয়েন্ট,ড্র হলে বা খেলা পরিত্যক্ত হলে ১ পয়েন্ট ও হারলে কোনো পয়েন্ট দেয়া হবে না।[১০]প্রত্যেক গ্রুপের সেরা ৩ টি দল সেরা ৬ এ খেলবে।সেখানে শুধুমাত্র প্রাথমিক রাউন্ড থেকে উত্তীর্ণ দলগুলোর মধ্যকার খেলায় প্রাপ্ত পয়েন্ট ও নেট রান রেট যোগ করা হবে।বাদ পড়া দলগুলোর পয়েন্ট ও নেট রান রেট বাদ দেয়া হবে।[১১]প্রতিটি দল অন্য গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ ৩টি দলের সাথে খেলবে।সেরা ৬ এর প্রথম ২ টি দল বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।[১২]

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

এ বিভাগ[সম্পাদনা]

ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হয় হারারে স্পোর্টস ক্লাব এবং ওল্ড হারারিয়ান্স-এ ।

দল
খেলা জয় হার ড্র পরিত্যক্ত পয়েন্ট এনআরআর Net run rate মন্তব্য
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ (উ) +১.১৭১ সেরা ৬ এ অগ্রসর
 আয়ারল্যান্ড (উ) +১.৪৭৯
 সংযুক্ত আরব আমিরাত (উ) –১.১৭৭
 নেদারল্যান্ডস (ব) –০.৭০৯ ৭ম-৮ম প্লে অফে অগ্রসর
 পাপুয়া নিউ গিনি (ব) –০.৮৬৫ ৭ম-৮ম প্লে অফে অগ্রসর

বি বিভাগ[সম্পাদনা]

ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হয় কুইন্স স্পোর্টস ক্লাব এবং বুলাওয় অ্যাথলেটিক ক্লাব -এ।

দল
খেলা জয় হার ড্র পরিত্যক্ত পয়েন্ট এনআরআর মন্তব্য
 জিম্বাবুয়ে (উ) +১.০৩৫ সেরা ৬ এ অগ্রসর
 স্কটল্যান্ড (উ) +০.৮৫৫
 আফগানিস্তান (Q) +০.০৩৮
   নেপাল (ব) –০.৮৯৩ ৭ম-১০ম প্লে অফে অগ্রসর
 হংকং (ব) –১.১২১

প্লে অফ[সম্পাদনা]

সেরা ৬[সম্পাদনা]

ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হয় হারারে স্পোর্টস ক্লাব, ওল্ড হারারিয়ান্স এবং কুইন্স স্পোর্টস ক্লাব-এ।

দিল
খেলা জয় হার ড্র পরিত্যক্ত পয়েন্ট এনআরআর Status
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ +০.৪৭২ ফাইনালে অগ্রসর, ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ
 আফগানিস্তান +০.৩০২
 জিম্বাবুয়ে +০.৪২০
 স্কটল্যান্ড +০.২৪৩
 আয়ারল্যান্ড +০.৩৪৬
 সংযুক্ত আরব আমিরাত –১.১৯৫০

ফাইনাল[সম্পাদনা]

২৫ মার্চ ২০১৮
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
ওয়েস্ট ইন্ডিজ 
২০৪ (৪৬.৫ ওভার)
 আফগানিস্তান
২০৬/৩ (৪০.৪ ওভার)
মোহাম্মদ শেহজাদ ৮৪ (৯৩)
ক্রিস গেইল ২/৩৮ (৫.৪ ওভার)
আফগানিস্তান ৭ উইকেটে জয়ী
হারারে স্পোর্টস ক্লাব, হারারে
আম্পায়ার: সায়মন ফ্রাই (অস্ট্রেলিয়া) Michael Gough|মাইকেল গুঘ (ইংল্যান্ড)
সেরা খেলোয়াড়: মোহাম্মদ শেহজাদ (আফগানিস্তান)
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজ টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়।
  • শাই হোপ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) ওডিআইইতে ১,০০০ রান করে।[১৩]
  • রশীদ খান (আফগানিস্তান) ওডিআইতে ১০০ উইকেট লাভ করে।

চূড়ান্ত অবস্থান[সম্পাদনা]

অবস্থান
দল
ফলাফল
১ম  আফগানিস্তান ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য উত্তীর্ণ
২য়  ওয়েস্ট ইন্ডিজ
৩য়  জিম্বাবুয়ে
৪র্থ  স্কটল্যান্ড ২০২২ পর্যন্ত ওডিআই স্ট্যাটাস রেখেছে
৫ম  আয়ারল্যান্ড
৬ষ্ঠ  সংযুক্ত আরব আমিরাত ২০২২ সাল পর্যন্ত ওডিআই স্ট্যাটাস রেখেছে
৭ম  নেদারল্যান্ডস
৮ম    নেপাল ২০২২ সাল পর্যন্ত ওডিআই স্ট্যাটাস পেয়েছে
৯ম  পাপুয়া নিউ গিনি দ্বিতীয় বিভাগে অবনমন এবং ওডিআই স্ট্যাটাস হারিয়েছে
১০ম  হংকং

বি.দ্র: বাকি দলগুলোর আগে থেকেই ২০২২ সাল পর্যন্ত ওডিআই স্ট্যাটাস আছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://www.icc-cricket.com/media-releases/650669
  2. https://www.hindustantimes.com/cricket/live-cricket-score-zimbabwe-vs-uae-icc-world-cup-qualifiers-2018-super-six-harare/story-v0K4NDjN5pGSvu4Ccu539N.html
  3. "West Indies to host Pakistan in March-May 2017"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. https://www.independent.co.uk/sport/cricket/2019-cricket-world-cup-2018-qualifying-ireland-and-scotland-bangladesh-a7741136.html
  5. http://www.cricketeurope.com/DATABASE/ARTICLES2017/articles/000039/003963.shtml
  6. https://www.icc-cricket.com/media-releases/490161
  7. "Ireland and Afghanistan included in ODI Championship"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জানু ২০১৫ 
  8. "Netherlands and PNG qualify for ICC Cricket World Cup Qualifier 2018"International Cricket Council। ১৬ অক্টোবর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৭ 
  9. "Scotland trounce Kenya to make sure of World Cup Qualifier place"BBC Sport। ৬ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  10. https://www.icc-cricket.com/media-releases/632347
  11. https://www.icc-cricket.com/news/629321
  12. https://www.icc-cricket.com/media-releases/595210
  13. "Mujeeb orchestrates Afghanistan triumph"Wisden India। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৮ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]