শিকাগো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শিকাগো, ইলিনয়
শহর
শিকাগো সিটি
উপর থেকে ঘড়ির কাঁটার দিকে: শহরের কেন্দ্রস্থল, শিকাগো থিয়েটার, 'এল', নৌবাহিনীর জেটি, প্রিতৎসকার প্যাভিলিয়ন, ফিল্ড যাদুঘর, উইলিস টাওয়ার
শিকাগো, ইলিনয়ের পতাকা
পতাকা
শিকাগো, ইলিনয়ের অফিসিয়াল সীলমোহর
সীলমোহর
ব্যুত্পত্তি: টেমপ্লেট:Lang-mia ("wild onion" or "wild garlic")
টেমপ্লেট:Lang-pot
নীতিবাক্য: লাতিন: Urbs in Horto (একটি বাগানের মধ্যে শহর), আমি করব
টেমপ্লেট:Maplink
Interactive map outlining Chicago
লুয়া ত্রুটি মডিউল:অবস্থান_মানচিত্ এর 479 নং লাইনে: নির্দিষ্ট অবস্থান মানচিত্রের সংজ্ঞা খুঁজে পাওয়া যায়নি। "মডিউল:অবস্থান মানচিত্র/উপাত্ত/Illinois" বা "টেমপ্লেট:অবস্থান মানচিত্র Illinois" দুটির একটিও বিদ্যমান নয়।Location within Illinois##Location within the United States##Location within North America
স্থানাঙ্ক: ৪১°৫০′১৩″ উত্তর ৮৭°৪১′০৫″ পশ্চিম / ৪১.৮৩৬৯৪° উত্তর ৮৭.৬৮৪৭২° পশ্চিম / 41.83694; -87.68472স্থানাঙ্ক: ৪১°৫০′১৩″ উত্তর ৮৭°৪১′০৫″ পশ্চিম / ৪১.৮৩৬৯৪° উত্তর ৮৭.৬৮৪৭২° পশ্চিম / 41.83694; -87.68472[১]
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
রাষ্ট্রইলিনয়
কাউন্টিকুক, ডুপেজ
Settledপ্রায় ১৭৮০
Incorporated (town)আগস্ট ১২, ১৮৩৩
Incorporated (city)মার্চ ৪, ১৮৩৭
প্রতিষ্ঠা করেনজ্যান ব্যাপটিস্ট স্যান্ড পয়েন্ট
নামকরণের কারণটেমপ্লেট:Lang-mia
(বন্য পেঁয়াজ বা বন্য রসুন)
সরকার
 • ধরনমেয়র কাউন্সিল
 • শাসকশিকাগো সিটি কাউন্সিল
 • মেয়রRahm Emanuel (ডি)
 • নগর করণিকআনা ভ্যালেন্সিয়া (ডি)
 • City TreasurerKurt Summers Jr. (D)
আয়তন[২]
 • শহর২৩৪.১৪ বর্গমাইল (৬০৬ কিমি)
 • স্থলভাগ২২৭.৩৪ বর্গমাইল (৫৮৮ কিমি)
 • জলভাগ৬.৮০ বর্গমাইল (১৭.৬২ কিমি)  ৩.০%
 • মূল শহর২১২২ বর্গমাইল (৫৪৯৬ কিমি)
 • মহানগর১০৮৭৪ বর্গমাইল (২৮১৬০ কিমি)
উচ্চতা[১] (mean)৫৯৪ ফুট (১৮১ মিটার)
সর্বোচ্চ উচ্চতা
– near Blue Island
৬৭২ ফুট (২০৫ মিটার)
সর্বনিন্ম উচ্চতা
– at Lake Michigan
৫৭৮ ফুট (১৭৬ মিটার)
জনসংখ্যা (2010)[৫]
 • শহর২৬,৯৫,৫৯৮
 • আনুমানিক (2017)২৭,১৬,৪৫০
 • ক্রম3rd, U.S.
 • জনঘনত্ব১১৮৯৮/বর্গমাইল (৪৫৯৩.৯৫/কিমি)
 • মূল শহর৮৬,৬৭,৩০৩[৪]
 • মহানগর৯৫,৩৩,০৪০[৩]
 • CSA৯৯,০১,৭১১[৩]
বিশেষণChicagoan
সময় অঞ্চলCentral (ইউটিসি−06:00)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)Central (ইউটিসি−05:00)
ZIP Code Prefixes606xx, 607xx, 608xx
Area codes312/872 and 773/872
FIPS codeটেমপ্লেট:FIPS
GNIS feature IDটেমপ্লেট:GNIS4
Major AirportsChicago O'Hare, Chicago Midway
Commuter RailMetra Logo without slogan.png
Rapid transitChicago Transit Authority Logo.svg
ওয়েবসাইটwww.cityofchicago.org

শিকাগো (শুনুনi/ʃˈkɑːɡ/, locally also /-ˈkɔː-/), আনুষ্ঠানিকভাবে শিকাগো সিটি, হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় বৃহত্তম জনবহুল শহর । ২০১৭ সালের আদমশুমারি-অনুমান অনুযায়ী, এর জনসংখ্যার পরিমান ২,৭১৬,৪৫০ জন, যা এটিকে সবচেয়ে জনবহুল শহর তুলেছে ইলিনয় অঙ্গরাজ্য এবং মধ্যপশ্চিম যুক্তরাষ্ট্র উভয়ের মধ্যে। শিকাগো হচ্ছে কুক কাউন্টির কাউন্টি আসন (জেলার ব্যবসাকেন্দ্র), মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিতীয় জনবহুল কাউন্টি, এবং শিকাগো মহানগর এলাকা এর প্রধান শহর,যা প্রায়ই "শিকাগোল্যান্ড" হিসাবে উল্লেখ করা হয়। শিকাগো মহানগর এলাকায় প্রায় ১০ মিলিয়ন মানুষ বসবাস করে, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় বৃহত্তম, উত্তর আমেরিকার চতুর্থ বৃহত্তম, এবং পৌর এলাকা বা নগরায়িত এলাকার হিসেবে পৃথিবীর তৃতীয় বৃহত্তম মহানগর এলাকা

মিশিগান হ্রদ এর উপকূলে অবস্থিত, শিকাগো ১৮৩৭ সালে একটি শহর হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল একটি পোর্টেজের নিকটে গ্রেট লেক এবং মিসিসিপি নদীর জলবিভাজিকার মধ্যে এবং উনিশ শতকের মধ্যভাগে দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছিল।[৭] ১৮৭১ সালের শিকাগোর মহা অগ্নিকাণ্ডের পর, যা কয়েক বর্গমাইল ধ্বংস করেছিল এবং এক লাখ লোক গৃহহীন হয়ে পড়ে, ফলে শহরটি পুনর্নির্মাণের একটি চেষ্টা করা হয়েছিল। ভয়াবহ এই অগ্নিকান্ডের পর শিকাগো শহরের প্রশাসনিক এবং আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ে। এরপর শহর পুনর্গঠনের কাজ শুরু হয়। শিকাগোর ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড সত্ত্বেও শহরের মূল অবকাঠামো, পরিবহন এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় অক্ষত রয়ে যায় বলে নগর পুনর্গঠনের কাজ দ্রুত শুরু করা সহজ হয়। শুরু হয়ে যায় ব্যাপক অর্থনৈতিক কর্মযজ্ঞ। স্থাপত্যবিদদের সহায়তায় আধুনিক নগরায়ণের সব ধরনের সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা করা হয়। তৈরি হতে থাকে বড় বড় চোখ ধাঁধানো ইমারত। কয়েক বছরের অক্লান্ত চেষ্টায় শিকাগো হয়ে ওঠে এক আধুনিক শহর। বৃদ্ধি পেতে থাকে শহরের জনসংখ্যাও।[৮] পরবর্তী কয়েক দশক ধরে শহরটিতে নির্মাণের গতি বৃদ্ধির ফলে জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে, এবং ১৯০০ সালের মধ্যে শিকাগো বিশ্বের পাঁচটি বৃহত্তম শহরের মধ্যে একটি ছিল।[৯] এই সময়ের মধ্যে, শিকাগো লক্ষনীয়ভাবে নগর পরিকল্পনা এবং আঞ্চলিক মানে অবদান রাখে, নতুন নির্মাণ শৈলী (এর মধ্যে রয়েছে শিকাগো স্থাপত্য স্কুল), শহর সুন্দর আন্দোলনের উন্নয়ন, এবং ইস্পাত-কাঠামোর আকাশচুম্বী ভবন নির্মানসহ ইত্যাদিতে অবদান রাখে।[১০][১১]

শিকাগো অর্থ, বাণিজ্য, শিল্প, প্রযুক্তি, টেলিযোগাযোগ, এবং পরিবহনের জন্য একটি আন্তর্জাতিক কেন্দ্র। এটি শিকাগো বোর্ড অব ট্রেডের প্রথম মানসম্পন্ন ভবিষ্যৎ চুক্তি প্রণয়নের স্থান, যা আজ বিশ্বের বৃহত্তম এবং সবচেয়ে বৈচিত্র্যপূর্ণ অমৌলিক বাজার, যা পণ্য এবং আর্থিক ভবিষ্যৎ এর সমস্ত ভলিউমের ২০% উৎপাদন করে।[১২] ও’হেয়ার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হচ্ছে বিশ্বের ব্যস্ততম বিমানবন্দরগুলির মধ্যে একটি, এবং এই অঞ্চলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বেশি সংখ্যাক মহাসড়ক এবং রেলপথ মালবাহী সর্বাধিক পরিমাণে রয়েছে।[১৩] ২০১২-এ, গ্লোবালাইজেশন এবং ওয়ার্ল্ড সিটি রিসার্চ নেটওয়ার্ক কতৃর্ক শিকাগোকে আলফা গ্লোবাল শহর হিসাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল,[১৪] এবং এটি ২০১৭-এ গ্লোবাল সিটি ইনডেক্সে সমগ্র বিশ্বে সপ্তম স্থান লাভ করে।[১৫] শিকাগোতে বিশ্বের অন্যতম সর্বোচ্চ স্থূল মেট্রোপলিটন পন্য উৎপন্ন হয়, ২০১৭-এ এর পরিমান ছিল ৬৭৯.৬৯ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি। (স্থূল মেট্রোপলিটন পণ্য (জিএমপি) একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে একটি মহানগরী পরিসংখ্যানগত এলাকার মধ্যে উত্পাদিত সমস্ত চূড়ান্ত পণ্য এবং সেবা মানের একটি আর্থিক পরিমাপ।)[১৬] এছাড়াও, এই শহরে বিদ্যামান রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বৈচিত্র্যপূর্ণ এবং সুষম অর্থনীতিগুলির একটি, কোনও একটি শিল্পের উপর নির্ভরশীল নয়, কোনও শিল্পে ১৪% কর্মীর বেশি কর্মরত কোন শিল্প নেই এখানে।[১৭]

শিকাগো ২০১৮ সালে রেকর্ড পরিমান ৫৮ মিলিয়ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক দর্শকদের স্বাগত জানিয়েছে, এটি নিউইয়র্কের পরে দেশটিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পরিদর্শনকারী শহর।[১৮][১৯] শহরটি ২০১৮ সালের টাইম আউট সিটি লাইফ ইনডেক্সের প্রথম স্থান অর্জন করে, যা ৩২ টি শহরের ১৫,০০০ জন ব্যক্তির বৈশ্বিক জীবন মানের জরিপের উপর ভিত্তি করে তৈরি।।[২০][২১][২২][২৩][২৪]

শহরের ল্যান্ডমার্কগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল মিলেনিয়াম পার্ক, নেভি পিয়র, মেগনিফিসেন্ট মাইল, শিকাগো আর্ট ইনস্টিটিউট, মিউজিয়াম ক্যাম্পাস, উইলিস (সিয়ার্স) টাওয়ার, বিজ্ঞান ও শিল্প যাদুঘর, এবং লিঙ্কন পার্ক চিড়িয়াখানা । শিকাগোর সংস্কৃতিতে ভিজুয়াল আর্টস, সাহিত্য, চলচ্চিত্র, থিয়েটার, কমেডি, খাদ্য, এবং সঙ্গীত, বিশেষত জ্যাজ, ব্লুজ, সোল, হিপ-হপ, গসপেল এবং ইলেকট্রনিক ডান্স মিউজিক সহ সঙ্গীত রয়েছে। এখানে অনেকগুলি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এগুলোর মধ্যে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি এবং শিকাগোতে ইলিনয় ইউনিভার্সিটিকে "উচ্চতর গবেষণার" ডক্টরাল বিশ্ববিদ্যালয় হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ করা হয়। শিকাগোতে পেশাদারী ক্রীড়া লীগের প্রতিটির মধ্যে পেশাদারী ক্রীড়া দল আছে , এরমধ্যে রয়েছে দুটি মেজর লীগ বেসবল দল ।

ব্যুত্পত্তি এবং ডাকনাম[সম্পাদনা]

"শিকাগো" নামটি আদিবাসী মিয়ামি-ইলিনয় শব্দ শিকাকওয়া একটি ফরাসি অনুবাদ থেকে উদ্ভূত হয়েছে। যেটি দ্বারা পেঁয়াজের একটি বন্য জাতকে বুঝায়, উদ্ভিদবিজ্ঞানীদের কাছে পরিচিত অলিউম ট্রাইকোসিকাম এবং র্যাম্পস হিসাবে আরো সাধারণভাবে পরিচিত। "চেক্যাগও" হিসেবে বর্তমান শিকাগো শহরের নামের প্রথম তথ্যসূত্র পাওয়া যায় ১৬৭৮-এ রবার্ট ডি লাশেলের একটি স্মৃতিকথায়।[২৫] ১৬৮৮ সালে তার ডায়েরিতে হেনরি জুটেল উল্লেখ করেছিলেন যে এই অঞ্চলে বন্য "রসুন" এর পরিমাণ প্রচুর বৃদ্ধি পেয়েছিল।[২৬] ১৬৮৭ সালের সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে তার ডায়েরীর মতে:

...যখন আমরা "চেক্যাগও" নামক তথাকথিত স্থানে এসে পৌঁছালাম, আমরা যা জানতে পেরেছি তা অনুযায়ী, এই অঞ্চলে বনগুলিতে বেড়েছে এমন রসুনের পরিমাণের কারণে এই নামটি গ্রহণ করা হয়েছে।[২৬]

শহরটির ইতিহাসে বেশ কয়েকটি ডাকনাম রয়েছে যেমন বাতাাসের শহর, চি-টাউন, দ্বিতীয় শহর, এবং বড় কাঁধের শহর।[২৭]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সূচনা[সম্পাদনা]

Traditional Potawatomi regalia on display at the Field Museum of Natural History

১৮শ শতাব্দীর মধ্যভাগে, এলাকাটি একটি স্থানীয় আমেরিকান উপজাতি পোটাওয়াটোমিদের দ্বারা অধ্যুষিত ছিল, যারা এই জায়গাটি মিয়ামি এবং সোক ও ফক্স উপজাতিদের থেকে দখল করেছিল।[২৮] শিকাগোতে প্রথম পরিচিত অ-আদিবাসী স্থায়ী বাসিন্দা হচ্ছেন জঁ বাতিস্ত পোয়াঁ দ্যু সাব্ল। দ্যু সাব্ল আফ্রিকা এবং ফরাসি বংশধর ছিলেন এবং ১৭৮০ এর দশকে পৌঁছেছিলেন।[২৯][৩০][৩১] তিনি সাধারণত "শিকাগোর প্রতিষ্ঠাতা" হিসাবে পরিচিত।

১৭৯৫ সালে, উত্তর পশ্চিম ইন্ডিয়ান যুদ্ধের পর, একটি এলাকা যেটি শিকাগোর হচ্ছিল সেটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে যায় গ্রিনভিল চুক্তি অনুযায়ী স্থানীয় উপজাতিদের দ্বারা একটি সামরিক পোস্টের জন্য। ১৮০৩-এ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী ফোর্ট ডিয়ারবর্ন নির্মান করে, যেটি ১৮১২ সালে ফোর্ট ডিয়ারবর্ন এর যুদ্ধে ধ্বংস হয়ে যায় এবং পরে পুর্ননির্মান করা হয়।[৩২] ১৮১৬ খ্রিস্টাব্দের সেন্ট লুইস চুক্তির ফলে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে অটোয়া, ওজিবউই ও পোটাওয়াটোমি উপজাতিদের অতিরিক্ত জমি সমপর্ন করতে করেছিল। ১৮৩৩ সালে শিকাগো চুক্তির পর পোটাওয়াটোমিদের জোরপূর্বক তাদের ভূমি থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছিল।[৩৩][৩৪][৩৫]

প্রতিষ্ঠা এবং ১৯ শতক[সম্পাদনা]

The location and course of the Illinois and Michigan Canal (completed 1848)
State and Madison Streets, once known as the busiest intersection in the world (1897)

১৭৯০ এর গোড়ার দিকে জঁ বাতিস্ত পোয়াঁ দ্যু সাব্ল শিকাগো নদীর উত্তর শাখার মুখে বসতি স্থাপন করেছিলেন এবং এটি এখন পাইনিয়ার কোর্টে অবস্থিত একটি জাতীয় ঐতিহাসিক ল্যান্ডমার্ক হিসাবে চিহ্নিত। তিনি একটি বিস্তৃত এবং সমৃদ্ধ বাণিজ্যিক উপনিবেশ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন যা য়ে উঠে বর্তমানের শিকাগো শহর। ১৮০০ সালে তিনি শিকাগো নদীর সম্পত্তি বিক্রি করেন এবং সেন্ট চার্লসে চলে যান যা এখনকার মিসৌরি, যেখানে তাকে মিসৌরি নদী ফেরি চালানোর লাইসেন্স দেওয়া হয়েছিল। শিকাগো নদীর উপনিবেশ বিকাশে পয়েন্ট ডু সাবেলের সফল ভূমিকাটি ২০ শতকের মাঝামাঝি পর্যন্ত স্বীকৃত ছিল।

অগাস্ট ১২, ১৮৩৩-এ, শিকাগো শহরটি প্রায় ২০০ জন জনসংখ্যা নিয়ে সংগঠিত হয়েছিল।[৩৫] সাত বছরের মধ্যে এখানে ৪,০০০ এরও বেশি লোকের সমাগম হয়। জুন ১৫, ১৮৩৫-এ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পাবলিক মানির গ্রাহক হিসেবে এডমন্ড ডিক টেলরকে দিয়ে শুরু করে এখানে প্রথম জনসাধরনের উদ্দেশ্যে জমি বিক্রয় শুরু হয়। শিকাগো শহরটি শনিবার, ৪ মার্চ, ১৮৩৭-এ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল এবং কয়েক দশক ধরে বিশ্বের দ্রুততম ক্রমবর্ধমান শহর ছিল।[৩৬]

শিকাগো পোর্টেজের স্থান হিসেবে,[৩৭] শহরটি পূর্ব ও পশ্চিম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ পরিবহন কেন্দ্র হয়ে ওঠে। শিকাগোর প্রথম রেলওয়ে গালেনা এবং শিকাগো ইউনিয়ন রেলপথ, এবং ইলিনয় ও মিশিগান খাল ১৮৪৮ সালে খোলা হয়েছিল। খালটি মিসিসিপি নদীর সাথে সংযোগ স্থাপনের জন্য গ্রেট হ্রদে স্টিমবোট এবং পালতোলা জাহাজগুলিকে অনুমতি দেয়।[৩৮][৩৯][৪০][৪১]

একটি সমৃদ্ধ অর্থনীতি গ্রামীণ সম্প্রদায় এবং বিদেশ থেকে অভিবাসীদের প্রত্যাশীদের এখানে নিয়ে আসে। কারখানাজাত ও খুচরা ও অর্থ খাত প্রভাবশালী হয়ে ওঠে যা আমেরিকান অর্থনীতিকে প্রভাবিত করতে থাকে।[৪২] শিকাগো বোর্ড অফ ট্রেড (প্রতিষ্ঠিত ১৮৪৮) প্রথমবারের মতো "এক্সচেঞ্জ-ট্রেডেড" ফরওয়ার্ড চুক্তি তালিকাভুক্ত করে, যাকে বলা হতো ভবিষ্যৎ চুক্তি ।[৪৩]

An artist's rendering of the Great Chicago Fire of 1871

১৮৫০এর দশকে, সেনেটর স্টিফেন ডগলাস যিনি কানসাস-নেব্রাস্কা আইন এর বিজয়ী এবং দাসত্ব বিস্তারের বিষয়ে "জনপ্রিয় সার্বভৌমত্ব" পদ্ধতির প্রবক্তা, বাড়ি এখানে হওয়াতে শিকাগো জাতীয় রাজনৈতিক প্রাধান্য লাভ করে।[৪৪] এই বিষয়গুলি আরেকটি ইলিনয়ান, আব্রাহাম লিঙ্কনকে জাতীয় পর্যায়ে উন্নীত করতে সহায়তা করেছিল। ১৮৬০ সালের রিপাবলিকান জাতীয় কনভেনশনে মার্কিন প্রেসিডেন্টের জন্য লিঙ্কন মনোনীত হন, যা শিকাগোতে অবস্থিত উইগওয়্যাম নামক একটি অস্থায়ী ভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তিনি সাধারণ নির্বাচনে ডগলাসকে পরাজিত করেছিলেন, এবং এটি আমেরিকান গৃহযুদ্ধের জন্য মঞ্চ স্থাপন করেছিল।

দ্রুত জনসংখ্যা বৃদ্ধির এবং উন্নত পয়ঃনিষ্কাশন চাহিদার জন্য, শহরটি তার অবকাঠামো উন্নত করে। ১৮৫৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে শিকাগোর সাধারণ কাউন্সিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম ব্যাপক নিকাশী ব্যবস্থা নির্মাণের জন্য চেসবার্গের পরিকল্পনা অনুমোদিত করে।[৪৫] প্রকল্পটি কেন্দ্রীয় শিকাগোকে একটি একটি নতুন স্তরে উন্নীত করে। শিকাগো শহরটির এই উন্নতির সময় এবং প্রথমে নগরীর স্বাস্থ্য উন্নতিতে, অপরিশোধিত ড্রেনের ময়লা এবং শিল্প বর্জ্য তখন শিকাগো নদীর প্রবাহে প্রবাহিত হয়েছিল এবং পরবর্তীকালে মিশিগান লেকটিতে ঢুকে পড়েছিল, যা শহরটির প্রাথমিক মিষ্টি পানির উৎসকে দূষিত করেছিল।

শহরটি থেকে দুই মাইল লম্বা টানেল তৈরি করা হয়েছিল মিশিগান হ্রদ পর্যন্ত। ১৯০০-এ, শহরটিতে যখন একটি বড় প্রকৌশল কৃতিত্ব সম্পন্ন হয়েছিল তখন নিকাশী দূষণ সমস্যা বৃহদাকারে সমাধান করা হয়েছিল। এটি শিকাগো নদীর প্রবাহকে বিপরীত করে দেয় যাতে পানি মিশিগান হ্রদ থেকে দূরে সরে যায়। এই প্রকল্পটি ইলিনয় ও মিশিগান খালের নির্মাণ ও উন্নতির সাথে সাথে শুরু হয়েছিল এবং শিকাগো স্যানিটারি এবং জাহাজ খালের সাথে সম্পন্ন হয় যা ইলিনয় নদীর সাথে সংযোগ করে, যেটি মিসিসিপি নদীতে প্রবাহিত হয়।[৪৬][৪৭][৪৮]

১৮৭১ সালে গ্রেট শিকাগো ফায়ার ৪ মাইল (৬.৪ কিমি) লম্বা এবং ১-মাইল (১.৬ কিমি) প্রশস্ত একটি এলাকা ধ্বংস করে দেয়, সেই সময়ে যা শহরটির একটি বড় অংশ।[৪৯][৫০][৫১] রেলপথ এবং স্টকয়ার্ডসহ বেশিরভাগ শহরই বেঁচে ছিল,[৫২] এবং পূর্ববর্তী কাঠের কাঠামোর ধ্বংসাবশেষের পর থেকে ইস্পাত এবং পাথরের আরো আধুনিক নির্মাণ উত্থাপিত হয়। এগুলো বিশ্বব্যাপী নির্মাণের ক্ষেত্রে একটি উদাহরণ স্থাপন করে।[৫৩][৫৪] এটির পুনর্নির্মাণের সময়ে, ইস্পাত-কাঠামো নির্মাণ ব্যবহার করে শিকাগো ১৮৮৫ সালে বিশ্বের প্রথম আকাশচুম্বী ভবন নির্মাণ করে।[৫৫][৫৬]

শহরটি ১৮৫১ এবং ১৯২০ সালের মধ্যে অনেক প্রতিবেশী পৌরসভার সাথে একত্রিত হওয়ায় আকার এবং জনসংখ্যায় উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে, ১৮৮৯ সালে সর্ববৃহৎ সংযোজনটি ঘটেছিল পাঁচটি পৌরসভার একত্রে যোগদানের মাধ্যমে, এগুলোর মধ্যে রয়েছে হাইড পার্ক পৌরসভা, যা এখন শিকাগোর দক্ষিণ দিকের অধিকাংশই গঠিত করেছে এবং শিকাগোর দক্ষিণপূর্ব পর্যন্ত, এবং জেফারসন পৌরসভা, যা এখন শিকাগোর উত্তরপশ্চিম দিকের অধিকাংশ গঠিত করেছে।[৫৭] শহরটিতে যোগদানের ইচ্ছা পৌরসভার সেবাসমূহের দ্বারা চালিত হয়েছিল, যাতে শহরটি তার বাসিন্দাদের সেবা প্রদান করতে পারে।

শিকাগো এর সমৃদ্ধ অর্থনীতি বিপুল সংখ্যক ইউরোপীয় এবং পূর্ব আমেরিকার অভিবাসীদের আকৃষ্ট করেছিল। ১৯০০ সালে মোট জনসংখ্যার মধ্যে, ৭৭% এরও বেশি বিদেশে জন্মগ্রহণকারী বা বিদেশী পিতামাতার দ্বারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণ করেছেন। জার্মান, আইরিশ, পোলিশ, সুইডীয় এবং চেকরা বিদেশে জন্মগ্রহণকারী জনসংখ্যার (১৯০০ সালের মধ্যে, শহরের জনসংখ্যার ৯৮.১% শেতাঙ্গ ছিল) প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ।[৫৮][৫৯]

শ্রমিক দ্বন্দ্বগুলি শিল্পের গম্ভীর গর্জন অনুসরণ করে অর্থাৎ আকস্মিক বেড়ে যায় এবং শ্রম মজুদের দ্রুত বিস্তার করে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে মে ৪, ১৮৮৬-এর হাইমার্কেট অ্যাফেয়ার এবং ১৮৯৪-এর পুুলম্যান ধর্মঘট। নৈরাজ্যবাদী এবং সমাজতান্ত্রিক দলগুলি খুব বড় ও অত্যন্ত সংগঠিত শ্রমিক আন্দোলন তৈরিতে বিশিষ্ট ভূমিকা পালন করে। ১৮৮৯-এ হুল হাউস প্রতিষ্ঠা করতে শিকাগোর অভিবাসী দরিদ্রদের মধ্যে সামাজিক সমস্যাগুলির সচেতনতা সৃষ্টিতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন জেইন অ্যাডামসএলেন গেটস স্টার[৬০] সেখানে গড়ে ওঠা প্রোগ্রামগুলি সামাজিক কাজের নতুন ক্ষেত্রের জন্য একটি মডেল হয়ে ওঠে।[৬১]

১৮৭০ এবং ১৮৮০ এর দশকে, শিকাগো জনস্বাস্থ্যের উন্নতিতে আন্দোলনের নেতা হিসেবে জাতীয় মর্যাদা অর্জন করেছিলেন। শহর, এবং পরে, চিকিৎসা পেশার ক্ষেত্রে রাষ্ট্র যে আইন মান উন্নীত করেছিল তা কলেরা, গুটি বসন্ত, এবং পীতজ্বরের মতো শহুরে মহামারী রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল ও সেগুলো গৃহীত এবং প্রয়োগ করা হয়। এই আইন অন্যান্য শহরে এবং রাজ্যে জনস্বাস্থ্য সংস্কারের জন্য মাপকাঠি হয়ে ওঠে।[৬২]

শহরটি অনেক বড়, সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্যত পৌর উদ্যান স্থাপন করে, যার মধ্যে জনসাধারণের জন্য্ স্যানিটেশন সুবিধাও অন্তর্ভুক্ত ছিল। শিকাগোতে জনস্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য প্রধান আইনজীবী ড. জন এইচ রউচ, এম.ডি ১৮৬৬ সালে শিকাগোর পার্ক ব্যবস্থার জন্য একটি পরিকল্পনা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি অগভীর সমাধি দিয়ে ভরা একটি কবরস্থান বন্ধ করে লিঙ্কন পার্ক তৈরি করেছিলেন এবং ১৮৬৭ সালে কলেরার প্রাদুর্ভাবের প্রতিক্রিয়ায় তিনি একটি নতুন শিকাগো বোর্ড অফ হেলথ স্থাপন করতে সহায়তা করেছিলেন। দশ বছর পর, তিনি সচিব ও পরে প্রথম ইলিনয় স্টেট বোর্ড অব হেলথের সভাপতি হয়েছিলেন, যা শিকাগোতে তার বেশিরভাগ কার্যক্রম পরিচালনা করেছিল।[৬৩]

১৮০০ এর দশকে, শিকাগো দেশের রেলপথের কেন্দ্র হয়ে ওঠে, এবং ১৯১০ সাল নাগাদ ২০ টির বেশি রেলপথ ছয়টি ভিন্ন শহরের কেন্দ্রস্থল টার্মিনাল থেকে যাত্রী পরিষেবা পরিচালনা করে।[৬৪][৬৫] ১৮৮৩ সালে, শিকাগোর রেল পরিচালকদের একটি সাধারণ সময় রেওয়াজের প্রয়োজন ছিল, তাই তারা উত্তর আমেরিকান সময় অঞ্চলের মানসম্মত সিস্টেম উন্নত করে।[৬৬] সময় বলার জন্য এই ব্যবস্থা মহাদেশ জুড়ে ছড়িয়ে গিয়েছিল।

১৮৯৩-এ, জ্যাকসন পার্কের বর্তমান অবস্থানে শিকাগো প্রাক্তন মার্শল্যান্ডের বৈশ্বিক কলম্বিয়ান প্রদর্শনীর আয়োজন করেছিল। প্রদর্শনীটি ২৭.৫ মিলিয়ন দর্শককে আকর্ষণ করেছিল, এবং ইতিহাসে সবচেয়ে প্রভাবশালী বৈশ্বিক মেলা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।[৬৭][৬৮] শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়, পূর্বে অন্য স্থানে, ১৮৯২ সালে একই দক্ষিণ দিকের অবস্থান সরানো হয়েছিল। একটি চমত্কার বা ভ্রাম্যমাণ আনন্দমেলার জন্য "মধ্যপথ" শব্দটি মূলত মধ্যপথ প্লাইস্যান্সকে উল্লেখ করে, পার্কের জমির একটি টুকরা যা এখনও শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের মধ্য দিয়ে সঞ্চালিত হয়, সেটি ওয়াশিংটন ও জ্যাকসন পার্ককে সংযোগ করেছে।[৬৯][৭০]

২০শ এবং ২১ শতক[সম্পাদনা]

Men outside a soup kitchen during the Great Depression (1931)

১৯০০ থেকে ১৯৩৯[সম্পাদনা]

Aerial motion film photography of Chicago in 1914 as filmed by A. Roy Knabenshue

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় এবং ১৯২০-এর দশকে শিল্পের একটি বড় বিস্তার ঘটে। কাজ প্রাপ্যতা দক্ষিন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আফ্রিকান আমেরিকানদের এখানে আসতে আকৃষ্ট করে। ১৯১০ থেকে ১৯৩০ এর মধ্যে, শিকাগোতে আফ্রিকান আমেরিকানদের সংখ্যা নাটকীয়ভাবে বৃদ্ধি পেয়ে ৪৪,১০৩ থেকে ২৩৩,৯০৩ এ পৌছায়।[৭১] এই বৃহৎ অভিবাসনের একটি অসাধারণ সাংস্কৃতিক প্রভাব ছিল, যা শিকাগো ব্ল্যাক রেনেসাঁ নামে পরিচিত, শিল্প, সাহিত্য, এবং সঙ্গীতে যেটি নিউ নিগ্রো আন্দোলনের অংশ।[৭২] ধারাবাহিক জাতিগত উত্তেজনা এবং সহিংসতা অব্যহত থাকে, যেমন ১৯১৯-এর শিকাগো জাতিগত দাঙ্গা এর মতো ঘটনাও ঘটেছিল।[৭৩]

১৯১৯ সালে সংবিধানের ১৮ তম সংশোধনীর অনুমোদন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় উৎপাদন ও বিক্রি (রপ্তানি সহ) অবৈধ করে দেয়। যা শুরুতে প্রবেশ করেছিল যখন এটি গ্যাংস্টার যুগে নামে পরিচিত ছিল, ১৯১৯ সাল থেকে ১৯৩৩ সাল পর্যন্ত মোটামুটি বিস্তৃতি লাভ করেছিল যখন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়। নিষেধাজ্ঞার এই যুগে ১৯২০-এর দশকে শিকাগোর রাস্তায় দেখা যেত এল ক্যাপন, ডিওন ও'বানিওন,বাগস মোরান এবং টনি অ্যাকার্ডো এর মতো গ্যাংষ্টারদের একে অন্যের সঙ্গে এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহীনীর সদস্যদের যুদ্ধ।[৭৪] শিকাগো ১৯২৯ সালে কুখ্যাত সেন্ট ভ্যালেন্টাইন্স ডে গণহত্যার স্থান ছিল, যখন প্রধান বিরোধী গ্যাং দলের নেতা জর্জ ‘বাগস’ মোরানকে হত্যা করতে খুব সতর্কতার সাথে এই ম্যাসাকার বা হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা করে দুর্ধর্ষ মাফিয়া ডন আল কাপোন। তৎকালীন সময়ের সবচেয়ে ক্ষমতাধর গ্যাংস্টার আল কাপোনের প্রধান উদ্দেশ্য ছিল প্রতিদ্বন্দ্বীদের পৃথিবী থেকে হটিয়ে মাফিয়া সাম্রাজ্যের একক অধিপতি হওয়া। বেআইনি আমদানি-রপ্তানি, জুয়া, পতিতাবৃত্তির ব্যবসার মতো অবৈধ সবকিছুর সাথে জড়িত ছিল সে ও তার দল। আল কাপোনের দীর্ঘদিনের শত্রু আইরিশ গ্যাংস্টার জর্জ ‘বাগস’ মোরানের সাত সহযোগীকে গ্যারেজে ফেলে হত্যা করে পুলিশের পোশাকধারী কয়েকজন খুনি। ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে দোষী সাব্যস্ত করা যায়নি, আল কাপোনের সাথে এই ঘটনার সরাসরি কোনো যোগসাজশ কেউ কখনো প্রমাণ করতে পারেনি। আল কাপোনকে প্রধান আসামি বিবেচনা করে অসমাপ্তই রয়ে যায় এই হত্যাকাণ্ডের বিচার। ১৯২৪ সাল থেকে ১৯৩০ সাল পর্যন্ত, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় চরমভাবে ব্যর্থ হয় শিকাগো পুলিশ। অনিয়ম, অনাচার আর সহিংসতার জন্য ব্যাপক পরিচিতি পায় শিকাগো। অ্যালকোহল ব্যবসার পাশাপাশি অবৈধ নাইটক্লাব পরিচালনা, জুয়া খেলা, পতিতাবৃত্তি ব্যবসা করে রাতারাতি কোটিপতিতে পরিণত হয় আল কাপোন। তখনকার দিনে আল কাপোনের বার্ষিক আয় ছিল প্রায় ৬০ মিলিয়ন ডলারের মতো। ১৯২৭ সালের দিকে তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১০০ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যায়। এই শহরেরই উত্তর পাশের একটি গ্যারেজে নিজের বেআইনি আমদানি-রপ্তানি ব্যবসা চালাত জর্জ বাগস মোরান, বাগস নামেই যে বেশি পরিচিত। কাপোনের সাম্রাজ্যে তিনিই ছিলেন প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী। দীর্ঘদিন যাবত দুজনের মধ্যে স্নায়ুযুদ্ধ চলছিল। এই শীতল যুদ্ধের ইতি টানতে তাই অস্ত্রশস্ত্র সহ নিজদলের লোকদের পথের কাঁটা দূর করতে পাঠিয়ে দেয় কাপোন। ১৯২৯-এর ফেব্রুয়ারির ১৪ তারিখে মোরানের প্রধান সাত সহযোগীর লাশ পাওয়া যায় তাদেরই গ্যারেজের অভ্যন্তরে। দেয়ালের দিকে মুখ করে লাইনে দাঁড় করিয়ে পেছন থেকে প্রায় ৭০ রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয় এই সাতজনের উপর। অবশ্য জর্জ বাগস মোরানকে খুন করতে কাপোনের এত পরিকল্পনা, তিনি বেঁচে গিয়েছিলেন এই ম্যাসাকারের হাত থেকে।[৭৫]

শিকাগো ছিল প্রথম আমেরিকান শহর যেখানে একটি সমকামী-অধিকার সংস্থা ছিল। ১৯২৪ সালে প্রতিষ্ঠিত সংগঠনটিকে সোসাইটি ফর হিউম্যান রাইটস বলা হতো। এটি সমকামিদের জন্য প্রথম প্রকাশনা করেছিল, যেটির নাম ছিল ফ্রেন্ডশিপ এন্ড ফ্রিডম। পুলিশ ও রাজনৈতিক চাপের কারণে সংগঠনটি ভেঙে পড়ে।[৭৬]

শহরটির ভারী শিল্পের উপর ব্যাপক নির্ভরতার কারণে গ্রেট ডিপ্রেশন এর সময় শিকাগো অভূতপূর্ব দুর্দশা ভোগ করে। লক্ষণীয়ভাবে, দক্ষিণ দিকে এবং শিকাগো নদীর উভয় শাখার আশেপাশে শিল্প এলাকাগুলি বিধ্বস্ত হয়েছিল, ১৯৩৩ সালের মধ্যে শহরটির ৫০% শিল্পের চাকরি হারিয়ে যায়, এবং শহরে কৃষ্ণাঙ্গ ও মেক্সিকানদের মধ্যে বেকারত্বের হার ৪০% এর বেশি দেখা দেয়। শিকাগোতে রিপাবলিকানদের রাজনীতি চূড়ান্তভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে এই অর্থনৈতিক সংকটের কারনে, এবং ১৯৩১ সাল থেকে প্রতিটি মেয়র ডেমোক্র্যাট দলের থেকে হয়েছেন। ১৯২৮ থেকে ১৯৩৩ পর্যন্ত, শহরটিতে কর বিদ্রোহ দেখা দেয় এবং শহরটি শ্রমিকদের মজুরি পূরণ করতে অক্ষম হয়ে পড়ে এবং ত্রাণ সরবরাহের প্রচেষ্টায়ও ব্যর্থ হয়। বেকার কর্মীদের, ত্রাণ প্রাপকদের, এবং অবৈতনিক স্কুলের শিক্ষকদের গ্রেট ডিপ্রেশন এর প্রাথমিক কালে বিশাল বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৩৩ সালে আর্থিক সংকট সমাধান করা হয়েছিল এবং একই সাথে, ফেডারেল ত্রাণ তহবিল শিকাগোতে ত্রান দিতে শুরু করে এবং লেক শোর ড্রাইভ নির্মাণ, সুন্দর অসংখ্য পার্ক, ৩০টি নতুন বিদ্যালয়, এবং একটি সম্পূর্ণরূপে আধুনিক রাষ্ট্রের রাস্তার সাবওয়ে নির্মাণে শহরটি সক্ষমতা অর্জন করে।[৭৭] শিকাগোও শ্রম সক্রিয়তার এক ক্ষেত্র ছিল, যার ফলে বেকার কর্মীরা দারিদ্র ও ত্রাণের চাহিদার সংহতি সৃষ্টির জন্য গোড়ার দিকে বিষণ্নতা বৃদ্ধিতে ব্যাপকভাবে ভূমিকা রেখেছিল, এই সংগঠনগুলো সমাজতান্ত্রিক এবং কমিউনিস্ট গ্রুপ কর্তৃক সৃষ্টি হয়। ১৯৩৫ সাল নাগাদ আমেরিকার শ্রমিকদের জোট দরিদ্র, শ্রমিক, বেকারদের সংগঠিত করে। ১৯৩৭ সালের বসন্তে রিপাবলিক স্টিল ওয়ার্কস ১৯৩৭ সালের পূর্ব দিকের আশেপাশের স্মারক দিবসের গণহত্যা প্রত্যক্ষ করেছিলো।

১৯৩৩-এ, শিকাগোর মেয়র এন্টন সিমাক মায়ামি, ফ্লোরিডাতে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি ফ্র্যাংকলিন ডি রুজভেল্টের উপর ঘটা ব্যর্থ হত্যাযজ্ঞের সময় মারাত্মকভাবে আহত হন। ১৯৩৩ এবং ১৯৩৪ সালে, শহরটি জন্মশতবার্ষিকী পালন করে অগ্রগতির শতাব্দীর আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে একটি বৈশ্বিক মেলার আয়োজন করে।[৭৮] শিকাগোর প্রতিষ্ঠার পর শতাব্দী ধরে প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনই ছিল মেলার মূল থিম।।[৭৯]

১৯৪০ থেকে ১৯৭৯[সম্পাদনা]

১৯৪০ সালে যখন সাধারণ সমৃদ্ধি ফিরে আসে, শিকাগো ছিল একটি গণতান্ত্রিক যন্ত্রের মতো, একটি সম্পূর্ণরূপে সুষ্ঠ নগর সরকার, একটি জনসংখ্যা যেটি উত্সাহীভাবে গণ সংস্কৃতি এবং গণ আন্দোলন ভাগ করে নিতো। শিকাগো এর উৎপাদন খাতের এক তৃতীয়াংশ কর্মী শ্রমিক সংগঠনের আওতাভুক্ত ছিল।[৭৭] দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়, শিকাগো শহরটি ১৯৩৯-১৯৪৫ সাল থেকে প্রতি বছর যুক্তরাজ্যের তুলনায় আরও বেশি ইস্পাত উৎপাদন করে এবং ১৯৪৩ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত নাৎসি জার্মানি থেকে বেশি। শহরটির বৈচিত্র্যময় শিল্প বৈচিত্র এটিকে ২৪ বিলিয়ন ডলারের যুদ্ধের সামগ্রী নির্মানে সহায়তা করে যা ডেট্রয়েটের পর দ্বিতীয় অবস্থান। ১,৪০০ টিরও বেশি কোম্পানি ফিল্ড রেশন থেকে প্যারাসুট থেকে টর্পেডো সবকিছু তৈরি করেছে । গ্রেট মাইগ্রেশন, যা হতাশার কারণে বিরতিতে ছিল, দ্বিতীয় তরঙ্গে আরও দ্রুত গতিতে আবার শুরু হয়েছিল, কারণ দক্ষিণ থেকে হাজার হাজার কৃষ্ণাঙ্গ শহরগুলির ইস্পাত মিল, রেলপথ এবং শিপিং ইয়ার্ডগুলিতে কাজ করতে এসেছিল।[৮০]

ডিসেম্বর ২, ১৯৪২-এ, পদার্থবিজ্ঞানী এনরিকো ফার্মি ‘‘টপ-সিক্রেট ম্যানহাটন প্রজেক্ট’’ এর অংশ হিসাবে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বের প্রথম নিয়ন্ত্রিত পারমাণবিক বিক্রিয়া পরিচালনা করেন। এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে পরমাণু বোমা সৃষ্টির দিকে পরিচালিত করেছিল, এটি ১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্যবহৃত হয়।[৮১]

মেয়র রিচার্ড জে. ডেলি, একজন ডেমোক্র্যাট, ১৯৫৫ সালে যন্ত্র রাজনীতির যুগে নির্বাচিত হন। ১৯৫৬-এ, শহর তার শেষ উল্লেখযোগ্য সম্প্রসারণ পরিচালিত করে যখন এটি ও'হারে বিমানবন্দরের অধীনে জমি অধিগ্রহণ করে, ডুপেজ কাউন্টির একটি ছোট অংশ সহ।

১৯৬০ এর দশকে, বেশ কয়েকটি শহরে শেতাঙ্গ বাসিন্দারা শহরতলির এলাকার জন্য শহর ছেড়ে গেছেন - অনেক আমেরিকান শহরে, কৃষ্ণাঙ্গরা ব্লাক বেল্টের দিকে অগ্রসর হয়ে আসার কারনে।[৮২] শিল্পের কাঠামোগত পরিবর্তন যেমন গ্লোবালাইজেশন এবং জব আউটসোর্সিং নিম্ন দক্ষ শ্রমিকদের জন্য ভীষনভাবে কাজের ক্ষতির সৃষ্টি করেছে। ১৯৬০ এর দশকে এটির শিখরে,শিকাগোতে ইস্পাত শিল্পে প্রায় ২৫০,০০০ শ্রমিক নিযুক্ত ছিল, কিন্তু ১৯৭০ ও ১৯৮০ এর দশকের ইস্পাত সংকট এই সংখ্যাটিকে ২০১৫ সালে মাত্র ২৮,০০০ এ নিয়ে আসে। ১৯৬৬-এ, মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র এবং অ্যালবার্ট রাবি শিকাগো ফ্রিডম মুভমেন্ট পরিচালনা করেন, যা মেয়র রিচার্ড জে. ডেলি এবং আন্দোলনের নেতাদের মধ্যে চুক্তির মাধ্যমে শেষ হয়।[৮৩]

দুই বছর পর, শহরটি ১৯৬৮ সালের গণতান্ত্রিক জাতীয় সম্মেলনের আয়োজন করেছিল, যার মধ্যে কনভেনশন হলের ভেতর ও বাইরে উভয় শারীরিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল, যুদ্ধবিরোধী বিক্ষোভকারীদের, সাংবাদিক ও পথচারীদের পুলিশ দ্বারা পেটানো হয়েছিলো।[৮৪] সিয়ার্স টাওয়ার সহ প্রধান নির্মাণ প্রকল্পগুলি ১৯৭৪ সালে বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা ভবন হয়ে ওঠে, শিকাগোতে ইলিনয় ইউনিভার্সিটি, ম্যাককর্মিক প্লেস এবং ও'হারে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রিচার্ড জে. ডেলির মেয়াদকালে গৃহীত হয়।[৮৫] ১৯৭৮ সালে জেন বার্ন শহরের প্রথম নারী মেয়র নির্বাচিত হন। তিনি সাময়িকভাবে অপরাধ-প্রবন ক্যাবরিনি-গ্রিন হাউজিং প্রকল্পে যাওয়ার জন্য এবং আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে থাকা শিকাগোর স্কুল ব্যবস্থাকে বের করে আনার নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য বিখ্যাত।[৮৬]

১৯৮০ থেকে বর্তমান[সম্পাদনা]

Aerial view of Goose Island and the North Branch of the Chicago River, from the south, near sundown

১৯৮৩-এ, হেরল্ড ওয়াশিংটন শিকাগোর প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মেয়র হন। ওয়াশিংটনের ক্ষমতার প্রথম মেয়াদে দরিদ্র ও পূর্বে অবহেলিত সংখ্যালঘু এলাকাগুলোর দিকে মনোযোগ দেওয়া হয়েছিল।। ১৯৮৭ সালে তিনি আবার নির্বাচিত হন তবে দ্রুতই হৃদরোগে মারা যান।[৮৭] ওয়াশিংটন ৬ষ্ঠ ওয়ার্ড নগরপাল ইউজিন সোয়ারের উত্তরসূরি হন, যিনি শিকাগো সিটি কাউন্সিল দ্বারা নির্বাচিত হন এবং একটি বিশেষ নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।

রিচার্ড জে. ডেলির পুত্র রিচার্ড এম. ডেলি ১৯৮৯ সালে নির্বাচিত হন। তার অর্জনগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল পার্কের উন্নতি এবং টেকসই উন্নয়ন জন্য প্রণোদনা তৈরি, পাশাপাশি রাতের মাঝখানে মেরিল সি মেইগস ফিল্ড বিমানবন্দর বন্ধ করা এবং রানওয়েগুলি ধ্বংস করা। পাঁচবার পুনরায় নির্বাচনে সফলভাবে জয় লাভের কারনে তিনি শিকাগো এর দীর্ঘ সময় ধরে সেবা প্রদানকারী মেয়র হয়ে উঠেন, রিচার্ড এম ডেলি সপ্তম মেয়াদের জন্য মেয়র হতে অস্বীকার করেন।[৮৮][৮৯]

১৯৯২-এ, কিনজি স্ট্রিট সেতুর কাছাকাছি একটি নির্মাণ দুর্ঘটনা শিকাগো নদীর সাথে একটি সুড়ঙ্গ সংযোগে একটি বেঘাত সৃষ্টি করে, যা একটি পরিত্যক্ত মালবাহী সুড়ঙ্গ ব্যবস্থার অংশ ছিল যেটি শহরের কেন্দ্রস্থল থেকে সর্বত্র বিস্তৃত ছিল। টানেলগুলিতে ২৫০ নিযুত ইউএস গ্যালন (১০,০০,০০০ মি) পানি ভরাট ছিল, সারা জেলা জুড়ে ভবনগুলিকে প্রভাবিত করে এবং একটি বৈদ্যুতিক শক্তিকেন্দ্র বন্ধ করে দেয়।[৯০] এলাকাটি তিন দিনের জন্য বন্ধ ছিল এবং কিছু ভবন সপ্তাহের জন্য পুনরায় খোলা হয়নি; এতে ক্ষতি ১.৯৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুমান করা হয়।[৯০]

২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১১-এ, সাবেক ইলিনয় কংগ্রেসম্যান এবং হোয়াইট হাউস চীফ অফ স্টাফ রাহম এমানুয়েল মেয়র নির্বাচনে জিতেন, শিকাগোর বাসিন্দা না হয়েও ৫৫ শতাংশ ভোটে পাঁচ প্রতিদ্বন্দ্বীকে পরাজিত করে,[৯১] এবং ১৬ মে, ২০১১-এ মেয়র হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন।

ভৌগলিক অবস্থান[সম্পাদনা]

Chicago skyline at dusk, from North Avenue Beach looking south

প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

Downtown and the North Side with beaches lining the waterfront

শিকাগো মিশিগান হ্রদের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে উত্তর-পূর্ব ইলিনয়ে অবস্থিত। এটি শিকাগো মহানগর এলাকার প্রধান শহর, মিড ওয়েস্টার্ন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং গ্রেট হ্রদ অঞ্চলে অবস্থিত। শিকাগো শহরটি শিকাগো পোর্টেজের জায়গায় একটি মহাদেশীয় বিভক্তির উপর অবস্থিত, শহরটি মিশিগান হ্রদের বিশালাকার মিঠাপানির জলাধারের পাশে অবস্থিত, এবং দুটি নদী— শহরের কেন্দ্রস্থলে শিকাগো নদী এবং শিল্প অঞ্চলের দূরে দক্ষিণ দিকে ক্যালুমেট নদী শিকাগোর মধ্য দিয়ে সম্পূর্ণরূপে বা আংশিকভাবে প্রবাহিত হয়েছে।[৯২][৯৩] শিকাগোর ইতিহাস ও অর্থনীতি মিশিগান হ্রদের নিকটবর্তীতার সাথে ঘনিষ্ঠভাবে আবদ্ধ। শিকাগো নদীটি ঐতিহাসিকভাবে অঞ্চলটির জলবাহিত পণ্যসম্ভারগুলির বেশিরভাগ পরিচালনা করেছে, বর্তমানের অনেক হ্রদ মালবাহী দক্ষিণ দিকে শহরটির ক্যালুমেট হ্রদ পোতাশ্রয় ব্যবহার করে। হ্রদটি আরও ইতিবাচক প্রভাব সরবরাহ করে: শিকাগোর জলবায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করে, শীতকালে নদীর সন্নিকটের এলাকাগুলিকে সামান্য উষ্ণ করে তোলে এবং গ্রীষ্মে শীতলতা প্রধান করে।[৯৪]

১৮৩৭ সালে যখন শিকাগো প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, তখন প্রথম দিকের ভবনগুলো শিকাগো নদীর মুখের কাছাকাছি ছিল, যেমন শহরের মূল ৫৮টি ব্লকের একটি মানচিত্রে দেখা যায়।[৯৫] শহরটির কেন্দ্রীয়, নির্মিত এলাকাগুলির সামগ্রিক মান এটির সামগ্রিক প্রাকৃতিক ভূগোলের স্বাভাবিক সমতলতার সাথে তুলনামূলকভাবে সামঞ্জস্যপূর্ণ, গড় ভূমি উচ্চতা সমুদ্রতল থেকে ৫৭৯ ফু (১৭৬.৫ মি) উপরে। যদিও পরিমাপ কিছুটা পরিবর্তিত হয় অনেক জায়গায়,[৯৬] সর্বনিম্ন বিন্দু হ্রদের তীর বরাবর ৫৭৮ ফু (১৭৬.২ মি), যেখান সর্বোচ্চ বিন্দু, শহরটির দক্ষিণ দিকের ব্লু দ্বীপের মোরাইনাল শৈলশিরা ৬৭২ ফু (২০৫ মি)।[৯৭]

শিকাগো লুপ কেন্দ্রীয় ব্যবসা জেলা, কিন্তু শিকাগো আশপাশ এলাকা নিয়েও গঠিত। শিকাগোর নদী সরোবর ইত্যাদির সন্নিহিত শহরাঞ্চলের একটি বড় অংশ লেক শোর ড্রাইভ সংলগ্ন।নদীর সন্নিকটে অবস্থিত কয়েকটী পার্ক হল লিঙ্কন পার্ক, গ্রান্ট পার্ক, বার্নহাম পার্ক এবং জ্যাকসন পার্ক। ২৬ মাইল (৪২ কিমি) নদীর সন্নিকট জুড়ে চব্বিশটি সৈকত আছে।[৯৮] ল্যান্ডফিল অংশ হ্রদটির অংশে বিস্তৃত, যা নৌবাহিনীর জেটি, নর্থেরলি দ্বীপ, জাদুঘর ক্যাম্পাস এবং ম্যাককরমিক প্লেস কনভেনশন সেন্টারের বৃহত্তর অংশ। শহরের বেশিরভাগ সুউচ্চ বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবন নদীর সন্নিকটে অবস্থিত।

সমগ্র শিকাগো মহানগর এলাকার একটি অনানুষ্ঠানিক নাম হচ্ছে "শিকাগোল্যান্ড", যা সাধারণত শহরটি এবং এটির শহরতলির বোঝায়। শিকাগো ট্রিবিউন এই নামটির দ্বারা এখানের অনেকগুলো জায়গাকে বুঝিয়েছে, এগুলোর মধ্যে রয়েছে শিকাগো শহর, কুক কাউন্টি বাকি অংশ, আটটি নিকটবর্তী ইলিনয় কাউন্টিকে: লেক, ম্যাকহেনরি, ডুপেজ, কেইন, ক্যান্ডাল, গ্রান্ডি, উইল এবং কানকাকি, এবং ইন্ডিয়ানা এর তিনটি কাউন্টি: লেক, পর্টার এবং লাপোর্তে[৯৯] ইলিনয় পর্যটন বিভাগ শিকাগো শহর ছাড়াই কুক কাউন্টিকে শিকাগোল্যান্ড হিসেবে সংজ্ঞায়িত করে।[১০০] শিকাগোল্যান্ড চেম্বার অব কমার্স এটিকে কুক এবং ডুপেজ, কেইন, লেক, ম্যাকহেনরি এবং উইল কাউন্টি হিসাবে সংজ্ঞায়িত করে।[১০১]

Wicker Park, a neighborhood northwest of downtown, known for its mix of bohemian and upscale styles

সম্প্রদায়[সম্পাদনা]

Community areas of the City of Chicago

শহরের প্রধান অংশগুলির মধ্যে অন্তর্ভুক্ত কেন্দ্রীয় ব্যবসায় জেলা, যাকে বলা হয় শিকাগো লুপ, এবং উত্তর, দক্ষিণ, পশ্চিম দিক।[১০২] শহরটির তিনটি দিক তিন অনুভূমিক সাদা ফিতে দ্বারা শিকাগোর পতাকায় প্রতিনিধিত্ব করে।[১০৩] উত্তর দিকটি শহরটির সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ আবাসিক অংশ এবং লেকফ্রন্টের পাশে শহরটির এই প্রান্তে অনেকগুলি সুউচ্চ ভবন রয়েছে।[১০৪] দক্ষিণ দিকটি শহরের বৃহত্তম অংশ, যা শহরের প্রায় ৬০% ভূমি এলাকা জুড়ে রয়েছে। দক্ষিণ দিকে শিকাগো বন্দরের অধিকাংশ অংশ রয়েছে।[১০৫]

১৯২০ এর দশকের শেষদিকে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞানীরা এই শহরটিকে ৭৭ টি স্বতন্ত্র সম্প্রদায় এলাকায় বিভক্ত করেছিলেন, যা আরো ২০০ টির বেশি অনানুষ্ঠানিকভাবে সংজ্ঞায়িত এলাকায় বিভক্ত করা যেতে পারে।[১০৬][১০৭]

রাস্তা[সম্পাদনা]

শিকাগোর রাস্তাগুলি একটি রাস্তার গ্রিডের মধ্যে বিন্যস্ত ছিল যেটি শহরের মূল শহরতলির ভূখণ্ড থেকে উদ্ভব যহয়েছে, যা পূর্ব দিকে মিশিগান হ্রদ, উত্তরে উত্তর এভিনিউ, পশ্চিমে উড স্ট্রিট এবং দক্ষিণে ২২নং রাস্তায দ্বারা বেষ্টিত ছিল।[১০৮] রাস্তাগুলি পাবলিক ল্যান্ড সার্ভে সিস্টেম অনুসরণ করে পরে ধারাবাহিক রেখা বাইরের অংশে আর্টারিয়াল বা ধামনিক রাস্তায় পরিণত হয়। As new additions to the city were platted, city ordinance required them to be laid out with eight streets to the mile in one direction and sixteen in the other direction (about one street per 200 meters in one direction and one street per 100 meters in the other direction). গ্রিড এর নিয়মানুবর্তিতা নতুন রিয়েল এস্টেট সম্পত্তিগুলির উন্নয়ন করার একটি কার্যকর উপায় প্রদান করে। তির্যক রাস্তায় একটি বিক্ষিপ্ত, এদের মধ্যে অনেকগুলি মূলত নেটিভ আমেরিকান ট্রেইল শহরটি অতিক্রম করে (এলসটন, মিলওয়াকি, অজডেন, লিংকন, ইত্যাদি)। শিকাগো পরিকল্পনায় অনেক অতিরিক্ত তির্যক রাস্তার সুপারিশ করা হয়েছিল, কিন্তু শুধুমাত্র ওডগেন এভিনিউ সম্প্রসারণের কাজই হয়েছিল।[১০৯]

২০১৬-এ, শিকাগো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ষষ্ঠতম সর্বাধিক হাঁটারযোগ্য বৃহৎ শহর হিসেবে স্থান লাভ করে।[১১০] শহরের অনেক আবাসিক রাস্তায় ঘাসের বিস্তৃত প্যাচ রয়েছে এবং / অথবা রাস্তার মধ্যে বা ফুটপাথে গাছ রয়েছে। এটি পথচারীদের প্বার্শপথ বা ফুটপাথে আকৃষ্ট করে রাস্তার ট্র্যাফিক থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে সাহায্য করে। শিকাগোর ওয়েস্টার্ন এভিনিউ বিশ্বের দীর্ঘতম একটানা শহুরে রাস্তা।[১১১] অন্যান্য বিখ্যাত রাস্তাগুলোর মধ্যে রয়েছে মিশিগান এভিনিউ, স্টেট স্ট্রিট, ক্লার্ক স্ট্রিট, এবং বেলমন্ট এভিনিউ। নগর সুন্দর আন্দোলন শিকাগোর বুলভার্দ এবং পার্কের রাস্তাগুলোকে অনুপ্রাণিত করেছে।

স্থাপত্য[সম্পাদনা]

The Chicago Building (1904–05) is a prime example of the Chicago School, displaying both variations of the Chicago window.

গ্রেট শিকাগো ফায়ার দ্বারা সৃষ্ট ধ্বংসের কারণে এর পরবর্তীতে জাতির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ভবন নির্মানের গতি দেখা দেয়। ১৮৮৫ সালে, প্রথম ইস্পাত-কাঠামোর উঁচু ভবন, হোম বীমা বিল্ডিং শহরটিতে বেড়ে উঠেছিল শিকাগোতে যখন আকাশচুম্বী ভবনের যুগের সূচনা ঘটেছিল,[৫৬] যা পরে বিশ্বের অন্যান্য অনেক শহরে দ্বারা অনুসরণ করা হয়।[১১২] আজ, শিকাগোর স্কাইলাইন বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা এবং ঘনতমগুলোর অন্যতম।[১১৩]

যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি লম্বা টাওয়ার শিকাগোতে অবস্থিত; ওয়ান ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের পর উইলিস টাওয়ার (পূর্বে সিয়ার্স টাওয়ার) পশ্চিম গোলার্ধে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভবন এবং ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেল ও টাওয়ার যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় বৃহত্তম লম্বা ভবন।[১১৪] শিকাগো লুপের ঐতিহাসিক ভবনগুলোর মধ্যে রয়েছে শিকাগো বোর্ড অফ ট্রেড বিল্ডিং, ফাইন আর্টস বিল্ডিং, ৩৫ ইস্ট রাকার, এবং শিকাগো বিল্ডিং, মিঃ ভ্যান ডের রোহ এর ৮৬০-৮৮০ লেক শোর ড্রাইভ অ্যাপার্টমেন্ট । অনেক অন্যান্য স্থপতিরা শিকাগো স্কাইলাইনের উপর তাদের ছাপ রেখে গেছেন যেমন ড্যানিয়েল বার্নারহাম, লুই সুলিভান, চার্লস বি. এটউড, জন রুট এবং হেলমুৎ জান।[১১৫][১১৬]

পৃথিবীর বৃহত্তম ভবনগুলির তালিকায় মার্চেন্ডাইজ মার্ট প্রথম স্থানে ছিল, বর্তমানে ৪৪ তম বৃহত্তম হিসাবে তালিকাভুক্ত (৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ (২০১৩-০৯-০৯) মোতাবেক), এটির ২০০৮ পর্যন্ত নিজস্ব জিপ কোড ছিল এবং শিকাগো নদীর উত্তর ও দক্ষিণ শাখার সংযোগস্থলের কাছে দাঁড়িয়ে আছে।[১১৭] বর্তমানে, শহরগুলির চারটি লম্বা বিল্ডিং হল উইলিস টাওয়ার (পূর্বে সিয়ার্স টাওয়ার, এটির নিজস্ব জিপ কোড রয়েছে), ট্রাম ইন্টারন্যাশনাল হোটেল ও টাওয়ার, আয়ন সেন্টার (পূর্বে স্ট্যান্ডার্ড অয়েল বিল্ডিং) এবং জন হ্যানকক সেন্টার।[১১৮]

Chicago gave its name to the Chicago School and was home to the Prairie School, two movements in architecture.[১১৯] একাধিক ধরণের এবং আকৃতির ঘর, টাউনহাউস,কন্ডোমিনিউমস, এবং অ্যাপার্টমেন্ট ভবন শিকাগো জুড়ে পাওয়া যায়। হ্রদ থেকে দূরে অবস্থিত শহরটির আবাসিক এলাকাগুলির বৃহত ফাকা জমির অংশে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষের দিকে ২০ শতকের প্রথম দিকে ইটের বাংলো নির্মিত হয়েছিল। শিকাগো এছাড়াও গির্জা স্থাপত্যে পোলিশ ক্যাথিড্রাল শৈলীর জন্য একটি বিশেষ কেন্দ্র। শিকাগো শহরতলির ওক পার্কে বিখ্যাত স্থপতি ফ্রাঙ্ক লয়েড রাইটের বাড়ি ছিল, যিনি শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে অবস্থিত রবি হাউসের ডিজাইন করেছিলেন।[১২০][১২১]একটি জনপ্রিয় পর্যটক কার্যকলাপ হচ্ছে শিকাগো নদীর বরাবর একটি স্থাপত্য নৌকা সফর নেওয়া।[১২২]

স্মৃতিসৌধ এবং পাবলিক আর্ট[সম্পাদনা]

শিকাগো এটির বাইরের পাবলিক আর্টের জন্য বিখ্যাত, দাতারা এই ধরনের শিল্পের জন্য তহবিল প্রতিষ্ঠা করে যতদূর ফিরে বেঞ্জামিন ফার্গুসনের ১৯০৫ সালের ট্রাস্টের মতো।[১২৩] শিকাগোর এর কিছু পাবলিক আর্টের কাজ বেশ কয়েকজন আধুনিক প্রতীকী শিল্পীদের দ্বারা সৃষ্টি হয়েছিল। এগুলোর মধ্যে রয়েছে চাগালের চার ঋতু; শিকাগো পিকাসো; মিরোর শিকাগো; ক্যালডার'স ফ্লেমিংগো; ওল্ডেনবুর্গ'স ব্যাটকলাম; ম্যুর'স লার্জ ইন্টেরিয়র ফর্ম, ১৯৫৩-৫৪, ম্যান ইন্টার্স দ্য কসমস এবং নিউক্লিয়ার এনার্জি; ডুবুফেট'স মনুমেন্ট উইথ স্টান্ডিং বিষ্ট, অবকানোওইসিজ'স আগোরা; এবং, আনিস কাপুর এর ক্লাউড গেটযা শহরের একটি আইকনে পরিণত হয়েছে। শহরটির ইতিহাসের কিছু ঘটনা শিল্পকর্মের দ্বারা স্মরণীয় করা হয়েছে, এগুলোর মধ্য্যে রয়েছে গ্রেট নর্দান মাইগ্রেশন (সার) এবং ইলিনয় রাষ্ট্রসত্তার জন্মশতবার্ষিকী। পরিশেষে, লুপের কাছে দুটি ঝর্ণাও শিল্পের স্মারক হিসাবে কাজ করে: জুমে প্লেনস এর ক্রাউন ফোয়ারা পাশাপাশি ড্যানিয়েল বার্নহাম এবং বেনেটের বাকিংহাম ফোয়ারা

আরো প্রতিনিধিত্বমূলক এবং প্রতিকৃতি মূর্তি রয়েছে লোরাডো টাফ্টের অনেক কাজ রয়েছে। যেমন: (ফাউন্টেন অব টাইম, দ্য ক্রুসেডার, এটারর্নাল সাইলেন্স, এবং ক্রুনেলে এর হেরাল্ড স্কয়ার মনুমেন্ট), ড্যানিয়েল চেস্টের ফ্রেঞ্চ এর স্ট্যাচু অফ দ্য রিপাবলিক, এডওয়ার্ড কেমিস'স লায়ন্স, অগাস্টাস সেন্ট গাউডেন্স এর আব্রাহাম লিঙ্কন: ম্যান (দাঁড়িয়ে লিঙ্কন এই নামেও পরিচিত) এবং আব্রাহাম লিংকন: দি হেড অফ স্টেট ( উপবিষ্ট লিঙ্কন নামেও পরিচিত), ব্রিয়োসিস এর ক্রিস্টোফার কলম্বাস, ইভান মেস্রোভিচ এর দ্য বোম্যান এন্ড দ্য স্পেয়ারম্যান, সাইরাস এডউইন ডালিন এর সিগনাল অব পিস, এভার্ড ফেয়ারব্যাঙ্কস এর দ্য শিকাগো লিঙ্কন, জন বয়েল এর দ্য এলার্ম, আলবিন পোলাসেক নির্মিত থমাস গেরিজ মাশারেক এর স্মৃতিসৌধ, চোৎসনিকি, স্ট্রাচোবৎসকি, এবং থরভাল্ডসেন এর নির্মিত তাদুসজ কোস্কিয়ুসজকো, কারেল হাভিলিক বোরভস্কি এবং নিকোলাউস কোপের্নিকুস এর উদ্দেশ্যে নির্মিত সংহতি বিহার, অগাস্টাস সেন্ট গাউডেন্স এর নির্মিত জন এ. লোগান এর স্মৃতিসৌধ ,ওয়াকল সিৎসমানোস্কির এর নির্মিত ফ্রেদেরিক শোপাঁ এবং কিয়ার্নে এর মোস (ডব্লিউ-০২-০৩)। মূর্তিগুলির কিছু সংখ্যাক সাম্প্রতিক সময়ের স্থানীয় হিরোদের উদ্দেশ্য করেও বানানো হয়েছে যেমন মাইকেল জর্ডন (অম্রি আমরানি এবং রোটেব্লেট-আমরানি কর্তৃক নির্মিত), ইউনাইটেড সেন্টার এর বাইরে অবস্থিত স্ট্যান মিকিটা, এবং ববি হাল; হ্যারি কারে (অম্রি আমরানি এবং শেলা কর্তৃক নির্মিত) আউটসাইড ওইগলে ফিল্ড, ডব্লিউজিএন স্টুডিও এর পাশে জ্যাক ব্রিকহাউস (জেরি ম্যাককেনা কর্তৃক নির্মিত), এবং ওয়াবাশ এভিনিউ সেতু-এ ইরভ কাপছিনেট[১২৪][১২৫]

জলবায়ু[সম্পাদনা]

Water vapor rising from the Chicago River in January 2014

শহরটি গরম গ্রীষ্মের আর্দ্র মহাদেশীয় জলবায়ু (কোপেন: ডিএফএ) অঞ্চলের মধ্যে অবস্থিত, এবং চারটি স্বতন্ত্র ঋতু অনুভব করে। গ্রীষ্ম গরম এবং প্রায়ই আর্দ্র হয়, জুলাইয়ে দৈনিক গড় উচ্চ তাপমাত্রা ৮৫.০ °ফা (২৯.৪ °সে)। একটি স্বাভাবিক গ্রীষ্মে, তাপমাত্রা ছাড়িয়ে যেতে পারে ৯০ °ফা (৩২ °সে) ২৭ দিন হিসাবে অনেক এবং মাঝে মাঝে অতিক্রম করে ১০০ °ফা (৩৮ °সে)। শীতকাল ঠান্ডা এবং তুষারময়, যদিও শহরটি সাধারণত পূর্ব উপকূলের তুলনায় শীতকালে কম তুষার ও বৃষ্টি অনুভব করে; তুষারঝড় ঘটে, যা ঘটেছিল ২০১১ সালে।[১২৬] শীতকালে রৌদ্রজ্জ্বল দিনও দেখা যায়। স্বাভাবিক শীতকাল ডিসেম্বর থেকে মার্চে বৃদ্ধি পায় প্রায় ৩৬ °ফা (২ °সে), জানুয়ারী এবং ফেব্রুয়ারী সবচেয়ে ঠান্ডা মাস হয়; জানুয়ারী ২০১৯ এর মেরু ঘূর্ণি প্রায় ২৭ ডিগ্রি ফারেনহাইট ডিগ্রির রেকর্ডটি ভেঙ্গে দেয়, যা ২০ জানুয়ারি, ১৯৮৫ সালে রেকর্ড করা হয়েছিল।[১২৭][১২৮][১২৯] বসন্ত এবং শরৎ সাধারণত কম আর্দ্রতার সঙ্গে হালকা ও সংক্ষিপ্ত ঋতু। গ্রীষ্মে শিশির বিন্দু তাপমাত্রা জুনে ৫৫.৭ °ফা (১৩.২ °সে) থেকে জুলাইয়ে ৬১.৭ °ফা (১৬.৫ °সে) এর মধ্যে থাকে।[১৩০] শহরটি ইউএসডিএ প্লান্ট হার্ডাইন্স জোনের 6a এ অবস্থিত, শহরতলিতে এটি 5b এ রুপান্তর হয়।[১৩১]

জাতীয় জলবায়ু পরিষেবা অনুযায়ী, জুলাই ২৪, ১৯৩৪-এ, শিকাগোর সর্বোচ্চ অফিসিয়াল তাপমাত্রা ১০৫ °ফা (৪১ °সে) রেকর্ড করা হয়েছিল [১৩২] যদিও শিকাগো মিডওয়ে বিমানবন্দর একদিন আগে ১০৯ °ফা (৪৩ °সে) পৌঁছেছিল এবং ১৯৯৫-এ শিকাগোর তাপপ্রবাহ এর সময়ে তাপ সূচক রেকর্ড করা হয়েছিল ১২৫ °ফা (৫২ °সে)।[১৩৩] সর্বনিম্ন অফিসিয়াল তাপমাত্রা −২৭ °ফা (−৩৩ °সে) রেকর্ড করা হয়েছিল জানুয়ারী ২০, ১৯৮৫-এ, ও'হারে বিমানবন্দরে।[১৩০][১৩৩] তীব্র আবহাওয়ার সঙ্গে বসন্ত এবং গ্রীষ্মে বজ্রবিদ্যুত সাধারণ।[১৩৪] অন্যান্য প্রধান শহরগুলির মত, শিকাগোতে একটি শহুরে তাপ দ্বীপের মতো তাপমাত্রা পরিলক্ষিত হয়, যা শহরটি ও শহরতলীকে আশেপাশের গ্রামীণ এলাকাগুলির তুলনায় হালকা বা নাতিশীতোষ্ণ তাপমাত্রা প্রদান করে, বিশেষ করে রাতে এবং শীতকালে। মিশিগান হ্রদ এটির নিকটবর্তী শিকাগো লেকফন্ট অর্থাৎ হ্রদের পাশের এলাকায় গ্রীষ্মে কিছুটা শীতল রাখে এবং শীতকালে কম নির্মম ঠান্ডা প্রদান করে হ্রদের থেকে দূরের এলাকার তুলনায়।[১৩৫] অঞ্চলটির দক্ষিণে প্রস্থান করার সময় শীতকালীন ঘূর্ণিঝড় থেকে উত্তর-পূর্ব বাতাস কখনও কখনও শহরটিতে হ্রদ-প্রভাব তুষার আনে।[১৩৬]

সময় অঞ্চল[সম্পাদনা]

ইলিনয় রাজ্যে বাকি হিসাবে, শিকাগো কেন্দ্রীয় সময় অঞ্চল নিয়ে গঠিত। পূর্ব সময় অঞ্চলের সঙ্গে সীমানা অল্প পূর্বে অবস্থিত, মিশিগানে এবং ইন্ডিয়ানার কিছু অংশ ব্যবহৃত হয়।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ঐতিহাসিক জনসংখ্যা
আদমশুমারি জন.
Est. ২০১৭[১৪৪]
U.S. Decennial Census
[১৪৫]

এটির প্রথম শতাব্দীর মধ্যে, শিকাগো বিশ্বের দ্রুততম ক্রমবর্ধমান শহরগুলির মধ্যে একটি ছিল। ১৮৩৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হলে ২০০ এরও কম লোক বসতি স্থাপন করেছিল যা তখন ছিল আমেরিকান সীমান্ত। এটির প্রথম আদমশুমারির সময়, সাত বছর পরে, জনসংখ্যা ৪,০০০ এর উপরে পৌঁছেছিল। ১৮৫০ থেকে ১৮৯০ সাল পর্যন্ত চল্লিশ বছরে, ৩০,০০০ এর কিছু কম থাকা জনসংখ্যা থেকে বেড়ে ১ মিলিয়নের উপরে পৌছে যায় শহরের জনসংখ্যা । ১৯ শতকের শেষে, শিকাগো বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম শহর ছিল,[১৪৬] এবং শহরগুলোর বৃহত্তম ছিল যেগুলোর শতাব্দীর প্রারম্ভে অস্তিত্ব ছিল না। ১৮৭১ সালের গ্রেট শিকাগো ফায়ারের ৬০ বছরের মধ্যে, জনসংখ্যা প্রায় ৩০০,০০০ থেকে ৩ মিলিয়নের অধিকে পৌছায়,[১৪৭] এবং ১৯৫০ আদমশুমারির হিসেবে সর্বোচ্চ রেকর্ড করা ৩.৬ মিলিয়নে জনসংখ্যা পৌছায়।

১৯ শতকের শেষ দুই দশক থেকে, শিকাগো আয়ারল্যান্ড, দক্ষিণ, মধ্য ও পূর্ব ইউরোপ, এগুলোর মধ্যে ইতালীয়, ইহুদী, পোলস, গ্রীক, লিথুনিয়, বুলগেরিয়, আলবেনিয়, ক্রোয়েশিয়, সার্বিয়, বসনিয়, মন্টেনেগ্রিয় এবং চেক অভিবাসী স্রোতের গন্তব্য ছিল[১৪৮] শিকাগোর কৃষ্ণাঙ্গ জনসংখ্যা ১৯১০ থেকে ১৯২০ এর মধ্যে দ্বিগুণ হয়ে ওঠে এবং ১৯২০ থেকে ১৯৩০ এর মধ্যে আবার দ্বিগুণ হয়, এই জাতিগত গোষ্ঠীগুলির জন্য, শহরটির শিল্প শ্রমিক শ্রেণীর ভিত্তি দক্ষিণ আমেরিকান থেকে আফ্রিকান আমেরিকানদের একটি অতিরিক্ত প্রবাহ যোগ করে।[১৪৮]

১৯২০ এবং ১৯৩০ এর দশকে, শিকাগোতে যাওয়া কৃষ্ণাঙ্গদের একটি বিশাল সংখ্যাগরিষ্ঠ জনসংখ্যা "ব্লাক বেল্ট" নামে পরিচিত শহরের দক্ষিন দিকে বসবাস শুরু করে।[১৪৮] কৃষ্ণাঙ্গদের একটি বিশাল সংখ্যা পশ্চিম দিকে বসতি স্থাপন শুরু করে। ১৯৩০ সাল নাগাদ, শিকাগোর কৃষ্ণাঙ্গদের দুই-তৃতীয়াংশ শহরের আশেপাশে বসবাস করত যা ছিল জাতিগত গঠনের ৯০% কৃষ্ণাঙ্গ।[১৪৮] শিকাগোর দক্ষিণ দিক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহুরে কৃষ্ণাঙ্গ ঘনত্ববহুল এলাকা হিসাবে আবির্ভূত হয়, নিউইয়র্কের হারলেম এর পরে। আজ, শিকাগো এর দক্ষিণ দিক এবং দক্ষিণ শহরতলির সংলগ্ন এলাকায় সমগ্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম কালো সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকা গঠিত হয়েছে।।[১৪৮]

২০ শতকের শেষার্ধে শিকাগো এর জনসংখ্যা হ্রাস পায়, যা ১৯৫০ সালের ৩.৬ মিলিয়ন জনসংখ্যা থেকে কমে ২০১০ সালের মধ্যে ২.৭ মিলিয়নে চলে আসে। ১৯৯০ সালে সরকারী আদমশুমারী গণনা করার সময়, যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হিসাবে লস এঞ্জেলেস এটিকে অতিক্রম করে ফেলে।[১৪৯]

২০০০ সালের আদমশুমারিতে শহরটির জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেতে দেখা গেছে এবং ২০২০ সালের আদমশুমারিতে বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।[১৫০]

প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আদমশুমারিতে অনুযায়ী জুলাই ২০১৬ মোতাবেক, শিকাগোর বৃহত্তম জাতিগত গোষ্ঠী হচ্ছে অ-হিস্পানিক শেতাঙ্গরা যা জনসংখ্যার ৩২.৬%, হিস্পানিকদের সংখ্যা জনসংখ্যার ২৯.৭% এ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং কৃষ্ণাঙ্গরা ৩২.৯% থেকে কমে জনসংখ্যার ২৯.৩% এ এসেছে ২০১০-ঐ-এ।[১৫১][১৫২][১৫৩][১৫৪]

জাতিগত গঠন ২০১০[১৫৫] ১৯৯০[১৫৪] ১৯৭০[১৫৪] ১৯৪০[১৫৪]
শ্বেতাঙ্গ ৪৫.০% ৪৫.৪% ৬৫.৬% ৯১.৭%
 —অ-হিস্পানিক ৩১.৭% ৩৭.৯% ৫৯.০%[১৫৬] ৯১.২%
কৃষ্ণাঙ্গ বা আফ্রিকান আমেরিকান ৩২.৯% ৩৯.১% ৩২.৭% ৮.২%
হিস্পানিক বা ল্যাটিনো (যে কোন গোষ্ঠী) ২৮.৯% ১৯.৬% ৭.৪%[১৫৬] ০.৫%
এশিয়ান ৫.৫% ৩.৭% ০.৯% ০.১%
Map of racial distribution in Chicago, 2010 U.S. Census. Each dot is 25 people: White, Black, Asian, Hispanic or Other (yellow)

২০১০ আদমশুমারী অনুযায়ী,[১৫৭] শিকাগোতে বসবাসরত ১,০৪৫,৫৬০ টি পরিবারে ২,৬৯৫,৫৯৮ জন লোক বসবাস করে। ইলিনয় রাজ্যের অর্ধেকের বেশি জনগোষ্ঠী শিকাগো মহানগর এলাকায় বসবাস করে। শিকাগো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ প্রধান শহরগুলির মধ্যে একটি এবং গ্রেট লেক মেট্রোপোলিস এ বৃহত্তম শহর। শহরের জাতিগত গঠনটি ছিল:

শিকাগোতে হিস্পানিক বা ল্যাটিনো জনসংখ্যা ২৮.৯% । (এর সদস্য সংখ্যায় যে কোনো জাতি অন্তর্গত হতে পারে; ২১.৪% মেক্সিকান, ৩.৮% পুয়ের্তো রিকান, ০.৭% গুয়াতেমালান, ০.৬% ইকোয়াডোরিয়ান, ০.৩% কিউবান, ০.৩% কলম্বিয়ান, ০.২% হন্ডুরান, ০.২% সালভাডোরান, ০.২% পেরুভীয়)[১৫৮]

শিকাগোতে যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় বৃহত্তম এলজিবিটি জনসংখ্যা রয়েছে। ২০১৫-এ, মোটামুটিভাবে জনসংখ্যার আনুমানিক ৪% এলজিবিটি হিসাবে চিহ্নিত।[১৫৯][১৬০] যেহেতু ২০১৩ সালে ইলিনয়ে একই লিঙ্গের বিবাহ বৈধকরণ করা হয়, কুক কাউন্টি-এ ১০,০০০ একই লিঙ্গের দম্পতির বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়, যা শিকাগোর সংখ্যাগরিষ্ঠ।[১৬১][১৬২]

যুক্তরাষ্ট্রের জনগণনা দপ্তরের আমেরিকান কমিউনিটির জরিপের তথ্য অনুযায়ী ২০০৮-২০১২ এ, শহরে একটি হাউজহোল্ডের (একটি হাউজহোল্ডের একই ঘর, কনডমিনিয়াম বা অ্যাপার্টমেন্টে এক বা একাধিক ব্যক্তি বাস করে। তারা আত্মীয়তার সূত্রে আবদ্ধ হতে পারে বা নাও হতে পারে।) গড় আয় $৪৭,৪০৮ ডলার ছিল, এবং একটি পরিবারের (একটি পরিবারে একই বাড়িতে দুই বা তার বেশি সদস্য বাস করে। এবং তারা জন্ম, বিবাহ বা গ্রহণ দ্বারা সম্পর্কিত হয়) গড় আয় $৫৪,১৮৮ ছিল। পূর্ণ-সময়ে কাজ করা পুরুষ শ্রমিকদের গড় আয় ছিল $৪৭,০৭৪ মার্কিন ডলার যেখানে নারীদের ছিল $৪২,০৬৩ মার্কিন ডলার। প্রায় ১৮.৩% পরিবার এবং ২২.১% জনগোষ্ঠী দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করে।[১৬৩] ২০১৮-এ, অতি উচ্চ-নিট-সম্পত্তির বাসিন্দার সংখ্য বিবেচনায় শিকাগো বিশ্বে সপ্তম স্থানে রয়েছে, প্রায় ৩,৩০০ বাসিন্দার ৩০ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি মূল্যমান সম্পত্তি রয়েছে।[১৬৪]

২০০৮-২০১২ আমেরিকান কমিউনিটি জরিপ অনুযায়ী,শিকাগোতে ১০,০০০ বা তার বেশি বাস করা জাতি বা গোষ্ঠীগুলো হল:[১৬৫]

"অন্যান্য গোষ্ঠী" হিসাবে নিজেকে দাবি করা বা সনাক্তকারী ব্যক্তি ১.৭২ মিলিয়ন লিপিবদ্ধ করা হয়েছিল, এবং শ্রেণীবিভক্ত করা হয়নি এমন বা প্রতিবেদন করা হয়নি এমন প্রায় ১৫৩,০০০ এর কাছাকাছি।[১৬৫]

ধর্ম[সম্পাদনা]

১৮৯৩-এ বিশ্ব ধর্মের প্রথম সংসদ

৭১% খ্রিস্টান হিসাবে চিহ্নিত, অন্যান্য ধর্মীয় বিশ্বাসের অনুসারি হিসেবে চিহ্নিত ৭% , এবং ২২% এর কোন ধর্মীয় সম্বন্ধ নেই।[১৬৬][১৬৭] শিকাগোতে অনেক ইহুদী, মুসলমান, বৌদ্ধ, হিন্দু এবং অন্যান্য ধর্মের অনুসারী রয়েছে। শিকাগো বিভিন্ন ধর্মীয় গোষ্ঠীর কেন্দ্রস্থান, এগুলোর মধ্যে রয়েছে এভাঞ্জেলিক্যাল কোভেন্যান্ট চার্চ এবং এভাঞ্জেলিক্যাল লুথেরান চার্চ ইন আমেরিকা। এটি কিছু বিশপের এলাকার আসন।. সদস্যতার ভিত্তিতে চতুর্থ প্রেসবিটারিয়ান চার্চ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম প্রেসবিটারিয়ান কংগ্রেশনালসগুলোর মধ্যে একটি।[১৬৮]

শিকাগোতে ১৮৯৩ ও ১৯৯৩ সালে বিশ্ব ধর্মের প্রথম সংসদ অনুষ্ঠিত হয়।[১৬৯] অনেক আন্তর্জাতিক ধর্মীয় নেতা শিকাগো পরিদর্শন করেছেন, যেমন: মাদার তেরেসা, চতুর্দশ দলাই লামা[১৭০] এবং ১৯৭৯-এ পোপ দ্বিতীয় জন পল[১৭১]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

শিকাগোতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় বৃহত্তম গ্রস মেট্রোপলিটন প্রোডাক্ট বা জিএমপি রয়েছে যা ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরের হিসাবে প্রায় $৬৭০.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।[১৭২] উচ্চ পর্যায়ের বৈচিত্রপূর্ণ অর্থনীতির কারণে এই শহরটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে সুষম অর্থনীতি হিসাবে নির্ধারণ করা হয়েছে।[১৭৩] ২০০৭-এ, মাস্টারকার্ড বিশ্বব্যাপী কেন্দ্রীয় বাণিজ্য সূচকে শিকাগোকে চতুর্থ-সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক কেন্দ্র হিসাবে চিহ্নিত করেছিল।[১৭৪] উপরন্তু, শিকাগো মহানগর এলাকা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পঞ্জিকাবর্ষ ২০১৪-এ সর্বাধিক নতুন বা প্রসারিত কর্পোরেট সুবিধা বৃদ্ধির দিক দিয়ে রেকর্ড করেছে।[১৭৫] শিকাগো মহানগর অঞ্চলে দেশটির যে কোনও মহানগর অঞ্চলের হিসেবে তৃতীয় বৃহত্তম বিজ্ঞান ও প্রকৌশল কর্মী বাহিনী রয়েছে।[১৭৬] ২০০৯ সালে শিকাগো ইউবিএস এর বিশ্বের সবচেয়ে ধনী শহরগুলির তালিকায় নবম স্থানে অবস্থান করেছিল।[১৭৭] শিকাগো শিল্পপতি জন জন ক্রিরার, জন হুইটফিল্ড বুন, রিচার্ড টেলার ক্রেন, মার্শাল ফিল্ড, জন ফারওয়েল, জুলিয়াস রোসেনওয়াল্ড এবং অন্যান্য অনেক বাণিজ্যিক স্বপ্নদর্শীদের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের ভিত্তি ছিল যারা মিড ওয়েস্টার্ন এবং বিশ্বব্যাপী শিল্পের জন্য ভিত্তি স্থাপন করেছিলেন।

শিকাগো যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় বৃহত্তম কেন্দ্রীয় ব্যবসা জেলার পাশাপাশি একটি প্রধান বৈশ্বিক আর্থিক কেন্দ্র।[১৭৮] শহরটি ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অফ শিকাগো এর কেন্দ্র,যা ব্যাংকের সপ্তম জেলা। শহরটিতে প্রধান আর্থিক এবং ভবিষ্যত বিনিময় কেন্দ্র আছে, এগুলোর মধ্যে রয়েছে শিকাগো স্টক এক্সচেঞ্জ, শিকাগো বোর্ড অপশনস এক্সচেঞ্জ (সিবিওই), এবং শিকাগো মার্চেন্টাইল এক্সচেঞ্জ ( "মার্ক"), যেটি শিকাগো বোর্ড অফ ট্রেড (সিবিওটি) এর সাথে শিকাগোর সিএমই গ্রুপের মালিকানাধীন। ২০১৭-এ, শিকাগোর এক্সচেঞ্জগুলি এক কোয়াড্রিলিয়ন ডলার অভিহিত মূল্য বা ফেইস ভ্যালু সহ ৪.৭ বিলিয়ন ডেরিভেটিভসের ব্যবসা করে। চেস ব্যাংকের শিকাগো এর চেস টাওয়ারে বাণিজ্যিক ও খুচরা ব্যাংকিং সদর দপ্তর রয়েছে।[১৭৯] শিক্ষাগতভাবে, শিকাগোর অর্থনীতি শিকাগো স্কুল অব ইকোনমিকস এর মাধ্যমে প্রভাবশালী হয়েছে, যা এখানকার ১২ জন অর্থনীতিবিদের অর্থনীতিতে নোবেল প্রাপ্তিতে ভূমিকা রাখে।

শহরটি এবং এটির পার্শ্ববর্তী মহানগর অঞ্চলে প্রায় ৪.৬৩ মিলিয়ন কর্মী বাহিনীর মজুদ রয়েছে যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় সর্বোচ্চ।[১৮০] ইলিনয় ফরচুন ১০০০ এর ৬৬ টি কোম্পানির কেন্দ্র, যেগুলো শিকাগোতে রয়েছে।[১৮১] শিকাগোতে ১২টি ফরচুন গ্লোবাল ৫০০ কোম্পানি এবং ১৭টি ফাইন্যান্সিয়াল টাইমস ৫০০ কোম্পানি রয়েছে। শহরটিতে 'ডো' ৩০ কোম্পানির ৩টি রয়েছে। এগুলো হল: অ্যারোস্পেস জায়ান্ট বোয়িং, যেটি ২০০১ সালে সিয়াটল থেকে শিকাগো লুপে তাঁদের সদর দফতর স্থানান্তর করে,[১৮২] অন্য দুটি হল বিশ্বের সর্ববৃহৎ হ্যামবার্গার ফাস্ট ফুডের রেস্তোরাঁ ম্যাকডোনাল্ড’স এবং আমেরিকান খাদ্য কোম্পানি ক্রাফ্ট হেইঞ্জ। 'সাইট সিলেকশন' সাময়িকির মতে, শিকাগো এলাকাটিতে চারটি ধারাবাহিক চার বছর ২০১৩ থেকে ২০১৬-এ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বেশি কর্পোরেট সদর দপ্তর স্থানান্তর বা সম্প্রসারণ প্রকল্প দেখা গেছে[১৮৩] Caterpillar Inc. will be moving its global headquarters, with about 300 executives and staff and support personnel, to the Chicago suburb of Deerfield, Illinois, while its high-technology center is in Chicago, by the end of 2018.[১৮৪][১৮৫] The headquarters of United Continental Holdings, its subsidiary United Airlines, and its operations center are in the Willis Tower in Chicago.

Manufacturing, printing, publishing and food processing also play major roles in the city's economy. Several medical products and services companies are headquartered in the Chicago area, including Baxter International, Boeing, Abbott Laboratories, and the Healthcare division of General Electric. In addition to Boeing, which located its headquarters in Chicago in 2001, and United Airlines in 2011, GE Transportation moved its offices to the city in 2013 and GE Healthcare moved its HQ to the city in 2016, as did ThyssenKrupp North America, and agriculture giant Archer Daniels Midland.[১৩] Moreover, the construction of the Illinois and Michigan Canal, which helped move goods from the Great Lakes south on the Mississippi River, and of the railroads in the 19th century made the city a major transportation center in the United States. In the 1840s, Chicago became a major grain port, and in the 1850s and 1860s Chicago's pork and beef industry expanded. As the major meat companies grew in Chicago many, such as Armour and Company, created global enterprises. Although the meatpacking industry currently plays a lesser role in the city's economy, Chicago continues to be a major transportation and distribution center. Lured by a combination of large business customers, federal research dollars, and a large hiring pool fed by the area's universities, Chicago is also the site of a growing number of web startup companies like CareerBuilder, Orbitz, Basecamp, Groupon, Feedburner, Grubhub and NowSecure.[১৮৬]

Prominent food companies based in Chicago include the world headquarters of Kraft Heinz, Mondelez International, Ferrara Candy Company, McDonald's, Quaker Oats, and ConAgra.

Chicago has been a hub of the Retail sector since its early development, with Montgomery Ward, Sears, and Marshall Field's. Today the Chicago metropolitan area is the headquarters of several retailers, including Walgreens, Sears, Ace Hardware, Claire's, ULTA Beauty and Crate & Barrel.

Late in the 19th century, Chicago was part of the bicycle craze, with the Western Wheel Company, which introduced stamping to the production process and significantly reduced costs,[১৮৭] while early in the 20th century, the city was part of the automobile revolution, hosting the Brass Era car builder Bugmobile, which was founded there in 1907.[১৮৮] Chicago was also the site of the Schwinn Bicycle Company.

Chicago is a major world convention destination. The city's main convention center is McCormick Place. With its four interconnected buildings, it is the largest convention center in the nation and third-largest in the world.[১৮৯] Chicago also ranks third in the U.S. (behind Las Vegas and Orlando) in number of conventions hosted annually.[১৯০]

Chicago's minimum wage for non-tipped employees is one of the highest in the nation and will incrementally reach $13 per hour by 2019.[১৯১]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. টেমপ্লেট:Cite GNIS
  2. "2016 U.S. Gazetteer Files"। United States Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৯, ২০১৭ 
  3. Bureau, US Census। "Metro/Micro Area Population Totals Tables: 2010-2016"www.census.gov। জুন ২২, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১, ২০১৭ 
  4. https://censusreporter.org/profiles/40000US16264-chicago-il-in-urbanized-area/
  5. "American FactFinder"United States Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৪ 
  6. https://www.poetryfoundation.org/poetrymagazine/poems/12840/chicago
  7. Janice L. Reiff; Ann Durkin Keating; James R. Grossman, সম্পাদকগণ (২০০৫)। "Metropolitan Growth"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৫, ২০১৩ 
  8. "Urban Infernos Throughout History"। History। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৪, ২০১৭ 
  9. "Largest Cities Throughout History"। ThoughtCo। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৪, ২০১৭ 
  10. "Skyscrapers"। Encyclopedia of Chicago। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৪, ২০১৭ 
  11. Glancey, Jonathan। "The city that changed architecture forever."bbc.com। BBC। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩০, ২০১৮ 
  12. "Economy"World Business Chicago। World Business Chicago। সংগ্রহের তারিখ মে ৩, ২০১৮ 
  13. Rodriguez, Alex (জানুয়ারি ২৬, ২০১৪)। "Chicago takes on the world"। Chicago Tribune। Sec. 1 p. 15। 
  14. "The World According to GaWC 2012"। Globalization and World Cities Research Network। জানুয়ারি ১৩, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ মে ৫, ২০১৪ 
  15. "2017 Global Cities Index"। A.T. Kearney। সংগ্রহের তারিখ মে ১৫, ২০১৮ 
  16. "GDP by Metropolitan Area" (PDF)Bureau of Economic Analysis। সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮। 
  17. "Chicago Economy"World Business Chicago। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৭ 
  18. Rackl, Lori। "Chicago sets new tourism record with nearly 58 million visitors in 2018 — and the mayor is thrilled"chicagotribune.com। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  19. "Chicago's tourism hot streak continues"Crain's Chicago Business (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  20. Gabriel Martin, James (জানুয়ারি ৩১, ২০১৮)। "Chicago revealed as the world's number one city for having fun and enjoying life"Lonely Planet। সংগ্রহের তারিখ মে ২, ২০১৮ 
  21. Millington, Alison (এপ্রিল ২৫, ২০১৮)। "The 32 most fun, friendly, and affordable cities in the world"Business Insider। সংগ্রহের তারিখ মে ২, ২০১৮ 
  22. "Chicago named world's best city by Time Out, ahead of London, New York and Melbourne"News Corp Australia Network। জানুয়ারি ৩১, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ মে ২, ২০১৮ 
  23. Mellor, Joe (জানুয়ারি ৩০, ২০১৮)। "World's best cities revealed..."। London Economic। সংগ্রহের তারিখ মে ২, ২০১৮ 
  24. Olsen, Morgan (জানুয়ারি ২৯, ২০১৮)। "Chicago named the world's best city for having it all"Time Out। সংগ্রহের তারিখ মে ২, ২০১৮ 
  25. Quaife, Milo M. (১৯৩৩)। Checagou: From Indian Wigwam to Modern City, 1673–1835। Chicago, Ill: University of Chicago Press। ওসিএলসি 1865758 
  26. Swenson, John F. (Winter ১৯৯১)। "Chicagoua/Chicago: The origin, meaning, and etymology of a place name"। Illinois Historical Journal84 (4): 235–248। আইএসএসএন 0748-8149ওসিএলসি 25174749 
  27. Sarah S. Marcus (২০০৫)। "Chicago's Twentieth-Century Cultural Exports"। Janice L. Reiff; Ann Durkin Keating; James R. Grossman। Encyclopedia of Chicago। Chicago: Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৬, ২০১৫ 
  28. Keating, Ann Durkin (২০০৫)। Chicagoland: City and Suburbs in the Railroad Age। The University of Chicago Press। পৃষ্ঠা 25। আইএসবিএন 0-226-42882-6এলসিসিএন 2005002198 
  29. Genzen, Jonathan (২০০৭)। The Chicago River: A History in Photographs। Westcliffe Publishers। পৃষ্ঠা 10–11, 14–15। আইএসবিএন 978-1-56579-553-2এলসিসিএন 2006022119 
  30. Keating (2005), pp. 30–31, 221.
  31. Swenson, John W (১৯৯৯)। "Jean Baptiste Point de Sable—The Founder of Modern Chicago"Early Chicago। Early Chicago, Inc.। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৮, ২০১০ 
  32. Genzen (2007), pp. 16–17.
  33. Buisseret (1990), pp. 22–23, 68, 80–81.
  34. Keating (2005), pp. 30–32.
  35. "Timeline: Early Chicago History"Chicago: City of the Century। WGBH Educational Foundation And Window to the World Communications, Inc.। ২০০৩। মে ২৬, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৬, ২০০৯ 
  36. Walter Nugent. "Demography" in Encyclopedia of Chicago. Chicago Historical Society.
  37. Keating (2005), p. 27.
  38. Buisseret (1990), pp. 86–98.
  39. Condit (1973), pp. 30–31.
  40. Genzen (2007), pp. 24–25.
  41. Keating (2005), pp. 26–29, 35–39.
  42. Conzen, Michael P.। "Global Chicago"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। 
  43. "Timeline-of-achievements"CME Group। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২০, ২০১৩ 
  44. "Stephen Douglas"। University of Chicago। সংগ্রহের তারিখ মে ২৯, ২০১১ 
  45. "Chicago Daily Tribune, Thursday Morning, February 14"। nike-of-samothrace.net। মার্চ ২৫, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ৪, ২০০৯ 
  46. Condit (1973), pp. 15–18, 243–245.
  47. Genzen (2007), pp. 27–29, 38–43.
  48. Buisseret (1990), pp. 154–155, 172–173, 204–205.
  49. Buisseret (1990), pp. 148–149.
  50. Genzen (2007), pp. 32–37.
  51. Lowe (2000), pp. 87–97.
  52. Lowe (2000), p. 99.
  53. Bruegmann, Robert (২০০৫)। "Built Environment of the Chicago Region"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৫, ২০১৩ 
  54. Condit (1973), pp. 9–11.
  55. Allen, Frederick E. (ফেব্রুয়ারি ২০০৩)। "Where They Went to See the Future"American Heritage54 (1)। ফেব্রুয়ারি ২০, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৫, ২০১৩ 
  56. Lowe (2000), pp. 121, 129.
  57. Cain, Louis P. (২০০৫)। "Annexations"The Electronic Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৪, ২০১৫ 
  58. "Chicago: Population"1911 Encyclopædia Britannica। Project Gutenberg। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৫, ২০১৩ 
  59. "Race and Hispanic Origin for Selected Cities and Other Places: Earliest Census to 1990"। U.S. Census Bureau। আগস্ট ৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  60. "Hull House Maps Its Neighborhood"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১১, ২০১৩ 
  61. Johnson, Mary Ann। "Hull House"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  62. Sandvick, Clinton (২০০৯)। "Enforcing Medical Licensing in Illinois: 1877–1890"Yale Journal of Biology and Medicine82 (2): 67–74। PMID 19562006পিএমসি 2701151অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  63. Beatty, William K. (১৯৯১)। "John H. Rauch – Public Health, Parks and Politics"। Proceedings of the Institute of Medicine of Chicago44: 97–118। 
  64. Condit (1973), pp. 43–49, 58, 318–319.
  65. টেমপ্লেট:Holland-Classic
  66. United States. Office of the Commissioner of Railroads (১৮৮৩)। Report to the Secretary of the Interior। U.S. Government Printing Office। পৃষ্ঠা 19। 
  67. "Chicago's Rich History"। Chicago Convention and Tourism Bureau। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১১ 
  68. Lowe (2000), pp. 148–154, 158–169.
  69. "Exhibits on the Midway Plaisance, 1893"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  70. Harper, Douglas। "midway"Chicago Manual Style (CMS)। Online Etymology Dictionary। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  71. Martin, Elizabeth Anne (১৯৯৩)। "Detroit and the Great Migration, 1916–1929"Bentley Historical Library Bulletin। University of Michigan। 40। জুন ১৫, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৫, ২০১৩ 
  72. Darlene Clark Hine (২০০৫)। "Chicago Black Renaissance"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৬, ২০১৩ 
  73. Essig, Steven (২০০৫)। "Race Riots"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৬, ২০১৩ 
  74. "Gang (crime) – History"। Britannica Online Encyclopedia। ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ জুন ১, ২০০৯ 
  75. O'Brien, John। "The St. Valentine's Day Massacre"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  76. "Timeline: Milestones in the American Gay Rights Movement"PBS। WGBH Educational Foundation। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  77. "Great Depression"Encyclopedia of Chicago। Chicago History Museum। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৭, ২০১৮ 
  78. "Century of Progress World's Fair, 1933–1934 (University of Illinois at Chicago) : Home"। Collections.carli.illinois.edu। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০১১ 
  79. Robert W. Rydell। "Century of Progress Exposition"Encyclopedia of Chicago। Chicago Historical Society। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০১১ 
  80. "World War II"Encyclopedia of Chicago। Chicago History Museum। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৭, ২০১৮ 
  81. "CP-1 (Chicago Pile 1 Reactor)"Argonne National Laboratory। U.S. Department of Energy। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  82. Mehlhorn, Dmitri (ডিসেম্বর ১৯৯৮)। "A Requiem for Blockbusting: Law, Economics, and Race-Based Real Estate Speculation"। Fordham Law Review67: 1145–1161। 
  83. Lentz, Richard (১৯৯০)। Symbols, the News Magazines, and Martin Luther King। LSU Press। পৃষ্ঠা 230। আইএসবিএন 0-8071-2524-5 
  84. Mailer, Norman। "Brief History Of Chicago's 1968 Democratic Convention"Facts on File, CQ's Guide to U.S. Elections। CNN। 
  85. Cillizza, Chris (সেপ্টেম্বর ২৩, ২০০৯)। "The Fix – Hall of Fame – The Case for Richard J. Daley"The Washington Post 
  86. Dold, R. Bruce (ফেব্রুয়ারি ২৭, ১৯৭৯)। "Jane Byrne elected mayor of Chicago"Chicago Tribune 
  87. Rivlin, Gary; Larry Bennett (নভেম্বর ২৫, ২০১২)। "The legend of Harold Washington"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  88. "Chicago and the Legacy of the Daley Dynasty"Time। সেপ্টেম্বর ৯, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  89. "National Building Museum to honor Daley for greening of Chicago"Chicago Tribune। এপ্রিল ৮, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১২, ২০১৩ 
  90. "1992 Loop Flood Brings Chaos, Billions In Losses"। CBS2 Chicago। এপ্রিল ১৪, ২০০৭। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১১, ২০০৮ 
  91. "News: Rahm Emanuel wins Chicago mayoral race"। MSNBC। ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১১। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০১১ 
  92. Condit (1973), pp. 5–6.
  93. Genzen (2007), pp. 6–9.
  94. Angel, Jim। "State Climatologist Office for Illinois"Illinois State Water SurveyPrairie Research Institute। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৪, ২০১৩ 
  95. "Thompson's Plat of 1830"। Chicago Historical Society। ২০০৪। এপ্রিল ২৩, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০১১ 
  96. "The Elevation of Chicago: A Statistical Mystery"Chicago Public Library (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-২২ 
  97. "Chicago Facts" (PDF)Northeastern Illinois University। পৃষ্ঠা 46। নভেম্বর ১০, ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৩ 
  98. Fulton, Jeff। "Public Beaches in Chicago"USA Today। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৩ 
  99. "Chicago Tribune Classifieds map of Chicagoland"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ মে ৪, ২০০৯ 
  100. "Chicagoland Region"EnjoyIllinois.com। Illinois Department of Tourism। সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৪, ২০০৯ 
  101. "Fast Facts About The Chicagoland Chamber of Commerce"। Chicagoland Chamber of Commerce। ফেব্রুয়ারি ৯, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৬, ২০১৪ 
  102. "South Side"। Encyclopedia.chicagohistory.org। আগস্ট ১, ১৯৭১। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৩ 
  103. "Municipal Flag of Chicago"। Chicago Public Library। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২২, ২০১৩ 
  104. "Lakeview (Chicago, Illinois)"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৩ 
  105. "CPS Teacher Housing: Chicago Communities"Chicago Public Schools। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২২, ২০১৩ 
  106. "List of Chicago Neighborhoods – Chicago"। StreetAdvisor। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৩ 
  107. "Chicago and its Neighborhoods"। articlecell। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২২, ২০১৩ 
  108. "Gulp! How Chicago Gobbled Its Neighbors"। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২০, ২০১৬ 
  109. Condit (1973), pp. 31, 52–53.
  110. "Chicago neighborhoods on Walk Score"walkscore.com 
  111. Rodolphe El-Khoury; Edward Robbins (জুন ১৯, ২০০৪)। Shaping the City: Studies in History, Theory and Urban Design। Taylor & Francis। পৃষ্ঠা 60–। আইএসবিএন 978-0-415-26189-0। সংগ্রহের তারিখ মে ৯, ২০১৩ 
  112. "The Home Insurance Building"Chicago Architecture Info। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৪ 
  113. World's Tallest Cities. UltrapolisProject.com.
  114. "U.S.A.'s tallest buildings – Top 20"Emporis। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৩ 
  115. Bach, Ira J. (১৯৮০)। Chicago's Famous Buildings। The University of Chicago Press। পৃষ্ঠা 9, 41, 67–68, 97–98। আইএসবিএন 0-226-03396-1এলসিসিএন 79023365 
  116. Lowe (2000), pp. 118–127.
  117. Pridmore, Jay (২০০৩)। The Merchandise Mart। Pomegranate Communications। আইএসবিএন 0-7649-2497-4এলসিসিএন 2003051164 
  118. Bach (1980), pp. 70, 99–100, 146–147.
  119. "Chicago School of Architecture"। Boundless 
  120. Hoffmann, Donald (১৯৮৪)। Frank Lloyd Wright's Robie House: The Illustrated Story of an Architectural Masterpiece। New York: Dover Publications। পৃষ্ঠা 19–25। আইএসবিএন 0-486-24582-9 
  121. "Frederick C. Robie House"। Frank Lloyd Wright Trust। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৪ 
  122. "Chicago Architecture Foundation River Cruise Aboard Chicago's First Lady Cruises"Chicago Architecture Foundation - CAF (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ মে ২৯, ২০১৮ 
  123. "The Public Art Scene You're Missing in Chicago"। Conde Nast Traveler। অক্টোবর ১, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৮, ২০১৩ 
  124. Potempa, Philip (আগস্ট ২, ২০০৬)। "Columnist Irv Kupcinet remembered with statue dedication"। Northwest Indiana Times। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৮, ২০১৩ 
  125. "?" 
  126. Photos: The blizzard of 2011 Chicago Tribune
  127. Extreme cold in Midwest will finally begin to ease grasp CNN, Holly Yan and Madeline Holcombe, January 31, 2019
  128. At 23 below, Wednesday marked Chicago's 4th coldest temperature recorded Chicago Tribune, Jonathon Berlin and Kori Rumore, 1/31/2019
  129. University of Iowa student dies during polar vortex; 7 other deaths linked to wintry blast Fox News, Stephen Sorace, 1/31/2019
  130. "NowData - NOAA Online Weather Data"। NWS Romeoville, IL। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-১৮ 
  131. "USDA Plant Hardiness Zone Map"। USDA/Agricultural Research Center, PRISM Climate Group Oregon State University। ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৬, ২০১৪ 
  132. Chicago's Official Records. National Weather Service. Retrieved November 25, 2012.
  133. "Top 20 Weather Events of the Century for Chicago and Northeast Illinois 1900–1999"। NWS Romeoville, IL। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-১৬ 
  134. "A Study of Chicago's Significant Tornadoes"National Weather ServiceNOAA। সংগ্রহের তারিখ মে ১০, ২০১৩ 
  135. "Heat Island Effect" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২০, ২০১৬ 
  136. "Ask Tom: Does Chicago Get Lake-Effect Snow?"। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৬, ২০১৮ 
  137. "Station Name: IL CHICAGO MIDWAY AP"। National Climatic Data Center। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-১২ 
  138. "NOWData – NOAA Online Weather Data"। Chicago Weather Forecast Office। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০১-০৬ 
  139. "CHICAGO MIDWAY AP 3 SW, ILLINOIS"। Western Regional Climate Center। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-১২ 
  140. History of the Chicago and Rockford weather observation sites
  141. ThreadEx
  142. "Station Name: IL CHICAGO OHARE INTL AP"। National Oceanic and Atmospheric Administration। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-১৮ 
  143. "Chicago/O'Hare, IL Climate Normals 1961-1990"। National Oceanic and Atmospheric Administration। সংগ্রহের তারিখ মে ১৪, ২০১৩ 
  144. "Population and Housing Unit Estimates"। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০১৭ 
  145. "US Census Bureau is shutdown"। Factfinder2.census.gov। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১২, ২০১৩ 
  146. "Top 10 Cities of the Year 1900"। Geography.about.com। সংগ্রহের তারিখ মে ৪, ২০০৯ 
  147. "Chicago Growth 1850–1990: Maps by Dennis McClendon"। University Illinois Chicago। ডিসেম্বর ১১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৯, ২০০৭ 
  148. Lizabeth Cohen, Making a New Deal: Industrial Workers in Chicago, 1919–1939. Cambridge, England: Cambridge University Press, 1990; pp. 33–34.
  149. Marshall Ingwerson (এপ্রিল ১৩, ১৯৮৪)। "It's official: Los Angeles ousts Chicago as No. 2 city"। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৮, ২০১৭ 
  150. "Archived copy"। নভেম্বর ২৯, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১, ২০১৪ 
  151. "COMPARATIVE DEMOGRAPHIC ESTIMATES 2016 American Community Survey 1-Year Estimates Chicago"। U.S. Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭ 
  152. Chicago Sun Times: "Census: Hispanics surpass blacks as Chicago’s 2nd-largest racial group" by Mitchell Armentrout September 14, 2017
  153. CBS News: "Hispanic Population Surges In Chicago, New Census Data Shows" By Jeremy Ross September 15, 2017
  154. "Illinois – Race and Hispanic Origin for Selected Cities and Other Places: Earliest Census to 1990"। U.S. Census Bureau। আগস্ট ৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২২, ২০১২ 
  155. "Chicago (city), Illinois"State & County QuickFacts। U.S. Census Bureau। ডিসেম্বর ৩১, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  156. ১৫% নমুনা থেকে
  157. American Community Survey: Chicago city আর্কাইভকৃত মে ২০, ২০১১ ওয়েব্যাক মেশিনে.. Retrieved March 6, 2011.
  158. Data Access and Dissemination Systems (DADS)। "American FactFinder – Results"। মে ২০, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২০, ২০১৬ 
  159. Inc., Gallup,। "San Francisco Metro Area Ranks Highest in LGBT Percentage"gallup.com 
  160. "The Metro Areas With the Largest, and Smallest, Gay Populations"The New York Times। মার্চ ২১, ২০১৫। 
  161. Leonor Vivanco (এপ্রিল ১৮, ২০১৬)। "Same-sex marriage licenses could hit 10,000 in Cook County this summer"Chicago Tribune 
  162. Shields, Nick (আগস্ট ৩১, ২০১৬)। "10,000th same-sex couple issued marriage license in Cook County"Cook County Clerk। ডিসেম্বর ১৩, ২০১৬ তারিখে মূল (Press release) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৬, ২০১৭ 
  163. "Selected Economic Characteristics: 2008–2012 American Community Survey 5-Year Estimates: Chicago city, Illinois"। U.S. Census Bureau, American Factfinder। ডিসেম্বর ১৪, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১, ২০১৪ 
  164. "These are the cities with the most ultra-rich people"Crain's Chicago Business (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  165. "Community Facts: First Ancestry Reported, Chicago city, Illinois"2008–2012 American Community Survey 5-Year Estimates। U.S. Census Bureau, American Factfinder। সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১, ২০১৪ 
  166. Major U.S. metropolitan areas differ in their religious profiles, Pew Research Center
  167. "America's Changing Religious Landscape"Pew Research Center: Religion & Public Life। মে ১২, ২০১৫। 
  168. "Table 6 Fifteen Largest PC(USA) Congregations Based on Membership Size, 2014" (PDF)। Research Services, Presbyterian Church (U.S.A.)। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৮, ২০১৭ 
  169. Avant, Gerry (সেপ্টেম্বর ১১, ১৯৯৩)। "Parliament of World's Religions" 
  170. Watts, Greg (২০০৯)। Mother Teresa: Faith in the Darkness। Lion Books। পৃষ্ঠা 67–। আইএসবিএন 978-0-7459-5283-3 
  171. Davis, Robert (অক্টোবর ৫, ১৯৭৯)। "Pope John Paul II in Chicago"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৩ 
  172. "Gross Domestic Product by Metropolitan Area, 2016"bea.gov 
  173. "Moody's: Chicago's Economy Most Balanced in US (January 23, 2003)" (PDF)। নভেম্বর ২৯, ২০০৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। . Accessed from World Business Chicago.
  174. "London named world's top business center by MasterCard", CNN, June 13, 2007.
  175. Rasmussen, Patty। "Strength in Diversity"। Siteselection.com। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৭, ২০১৫ 
  176. "Washington area richest, most educated in US: report"The Washington Post। জুন ৮, ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৭, ২০১০ 
  177. "World's richest cities by purchasing power"। City Mayors। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৬, ২০১০ 
  178. "North America's largest downtown business districts by office space, according to Colliers (compare, places) – City vs. City – Page 26 – City-Data Forum"www.city-data.com। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৬ 
  179. "JPMorgan History | The History of Our Firm"। Jpmorganchase.com। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৬, ২০১০ 
  180. "Chicago Area Employment — February 2018"www.bls.gov/regions/midwest। U.S. Bureau of Labor Statistics। সংগ্রহের তারিখ মে ৩, ২০১৮ 
  181. "FORTUNE 500 2007: States – Illinois"। CNNMoney.com। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৩, ২০০৭ 
  182. "The World According to GaWC 2008"Globalization and World Cities Research Network। GaWC Loughborough University। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৯, ২০০৯ 
  183. LaTrace, A. J. (মে ১, ২০১৭)। "Chicago once again ranked top metro for corporate investment"Curbed Chicago। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১, ২০১৭ 
  184. "Caterpillar Names Deerfield, Illinois, as New Global Headquarters"www.caterpillar.com। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১, ২০১৭ 
  185. Becky Yerak (জানুয়ারি ৩১, ২০১৭)। "Caterpillar will move headquarters to Chicago area, citing transportation access"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৭ 
  186. "Why You Should Start a Company in ... Chicago"। FastCompany.com। ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১০। ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৬, ২০১০ 
  187. Norcliffe 2001, পৃ. 107
  188. Clymer 1950, পৃ. 178
  189. "Retrieved January 26, 2010"। Exhibitorhost.com। সেপ্টেম্বর ২৬, ১৯৮৭। মার্চ ১৫, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৭, ২০১০ 
  190. Carpenter, Dave (এপ্রিল ২৬, ২০০৬)। "Las Vegas rules convention world"USA TodayAssociated Press। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৬, ২০১৪ 
  191. "City of Chicago :: City of Chicago Minimum Wage"cityofchicago.org 


উদ্ধৃতি ত্রুটি: "lower-alpha" নামক গ্রুপের জন্য <ref> ট্যাগ রয়েছে, কিন্তু এর জন্য কোন সঙ্গতিপূর্ণ <references group="lower-alpha"/> ট্যাগ পাওয়া যায়নি, বা বন্ধকরণ </ref> দেয়া হয়নি