বেসবল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Wrigley field 720.jpg
শিকাগোর রিগলে ফিল্ডের বেসবল ডায়মন্ড
প্রথম খেলা হয়েছেMid-18th century or prior, England (early form)
June 19, 1846, Hoboken, New Jersey (first recorded game with codified rules)
বৈশিষ্ট্যসমূহ
দলের সদস্য
ধরণব্যাট ও বলের খেলা
খেলার সরঞ্জামবেসবল
বেসবল ব্যাট
বেসবল গ্লাভস
বেস
প্রচলন
অলিম্পিক১৯১২, ১৯৩৬, ১৯৫২, ১৯৫৬, ১৯৬৪, ১৯৮৪, এবং ১৯৮৮ এর গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে খেলা হয়
১৯৯২ - ২০০৮ এর গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক অনুষ্ঠান

বেসবল ব্যাট ও বলের একটি দলীয় খেলা যাতে নয়জন খেলোয়াড়বিশিষ্ট দুইটি দল অংশ নেয়। নিক্ষিপ্ত বলে ব্যাট দ্বারা আঘাত করে একটি ৯০ ফুটের রম্বসাকৃতি অংশের চারকোণায় চারটি বেস স্পর্শ করে রান নেয়ার মধ্য দিয়ে খেলাটি সম্পন্ন হয়। ব্যাটিং দলের খেলোয়াড়েরা ফিল্ডিং দলের পিচারের বলের মোকাবিলা করে। পিচার বিভিন্ন উপায়ে ব্যাটিং দলের খেলোয়াড়দের আউট করতে সচেষ্ট হয়। ব্যাটিং দলের একজন খেলোয়াড় যেকোন বেসে থামতে পারেন এবং পরবর্তী সময়ে দলের সহখেলোয়াড়দের হিটের মাধ্যমে বা অন্যান্য উপায়ে পুনরায় এগিয়ে যেতে পারেন। ফিল্ডিংরত দল তিনটি হিটার আউট করলে একটি ইনিংসের সমাপ্তি হয়। মোট নয়টি ইনিংস নিয়ে একটি পেশাদার বেসবল খেলা সম্পন্ন হয়। যে দল এই সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করতে পারে সেই দল বিজয়ী বলে বিবেচিত হয়।

পুরাতন ব্যাট-বলের খেলা হতে বিবর্তিত হয়ে বেসবলের প্রথমদিককার সংস্করণ সৃষ্টি হয়, যা ইংল্যান্ডে অষ্টাদশ শতকের মাঝামাঝি সময়ে খেলা হত। অভিবাসীরা উত্তর আমেরিকায় খেলাটির প্রচলন ঘটায় এবং সেখানেই এর আধুনিক সংস্করণ সৃষ্টি হয়। ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষদিক হতে এটি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় খেলা হিসেবে পরিচিতি পায়। বেসবল বর্তমানে উত্তর আমেরিকায়, মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকায়, ক্যারিবীয় অঞ্চল ও পূর্ব এশিয়ার অঞ্চলগুলোতে জনপ্রিয়।

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায়, পেশাদার মেজর লীগ বেসবল দলগুলো জাতীয় লীগ ও আমেরিকান লীগে বিভক্ত, যার প্রতেকটিতে আবার পূর্ব, পশ্চিম ও মধ্য এ তিনটি বিভাগ রয়েছে। বিশ্ব সিরিজে প্লে-অফের মধ্য দিয়ে মেজর লীগের বিজয়ী নির্ধারিত হয়। প্রতেকটি লীগ হতে পাচঁটি করে দল প্লে-অফে অংশগ্রহণ করেঃ তিনটি বিভাগীয় জয়ী দল ও সাথে দুইটি ওয়াইল্ড কার্ড প্রাপ্ত দল। জাপান ও কিউবাতেও বেসবল দেশগুলোর প্রধান দলগত খেলা। উভয় দেশেই শীর্ষ পর্যায়ে খেলাটি দুইটি লীগে বিভক্ত। জাপানে কেন্দ্রীয় লীগ ও প্রশান্ত বা প্যাসিফিক লীগ এবং কিউবাতে পশ্চিম লীগ ও পূর্ব লীগ।

নিয়মাবলী[সম্পাদনা]

বেসবল ম্যাচ দুটি দলের মধ্যে খেলা হয়, প্রতিটি দলে সাধারণত নয়জন খেলোয়াড় থাকে, উভয় দল পালা করে অফেন্স (ব্যাটিং এবং বেস রানিং) এবং ডিফেন্স (পিচিং এবং ফিল্ডিং) করে। উভয় দল একবার করে অফেন্স এবং একবার করে ডিফেন্স করলে একটি ইনিংস সম্পন্ন হয়। প্রতিটি ম্যাচ নয়টি ইনিংস নিয়ে গঠিত।

খেলার উদ্দেশ্য হল অন্য দলের চেয়ে বেশি পয়েন্ট (রান) স্কোর করা। ব্যাট হাতে দলের খেলোয়াড়রা বর্গাকার আকৃতির বেসবল ডায়মন্ডের কোণে সেট করা চারটি বেস স্পর্শ করে রান করার চেষ্টা করে। একজন খেলোয়াড় হোম প্লেটে ব্যাট করে এবং ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে, প্রথম বেস থেকে দ্বিতীয় বেস ও তৃতীয় বেস হয়ে রান করার জন্য হোম প্লেটে নিরাপদে ফিরে আসার চেষ্টা করে। প্রতিবার সফলভাবে ফিরে আসার জন্য একটি করে রান পাওয়া যায়। ফিল্ডিং এ থাকা দল আউট করার মাধ্যমে রান আটকানোর চেষ্টা করে, যতক্ষণ না তাদের ব্যাট করার পরবর্তী পালা আবার আসে। তিনটি আউট হলে একটি হাফ ইনিংস শেষ হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

লীগ ও সংস্থাসমূহ
পরিসংখ্যান ও খেলার দলিল
খবর ও অন্যান্য তথ্যসমূহ