ডিসকভারি চ্যানেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডিসকভারি চ্যানেল
240xp
উদ্বোধনজুন ১৭, ১৯৮৫[১]
মালিকানাডিসকভারি কমিউনিকেশন্স
চিত্রের বিন্যাস1080i (HDTV)
480i (SDTV)
স্লোগানThe World is Just Awesome.
দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
প্রচারের স্থানবৈশ্বয়ীক
প্রধান কার্যালয়Silver Spring, Maryland
পূর্বতন নামThe Discovery Channel (1985-1995)
ভ্রাতৃপ্রতিম
চ্যানেল(সমূহ)
American Heroes Channel
Animal Planet
Destination America
Discovery Fit & Health
Hub Network
Investigation Discovery
Oprah Winfrey Network
Science
TLC
Velocity
ওয়েবসাইটDiscovery.com
প্রাপ্তিস্থান
টেরেস্ট্রিয়াল
Selective TV Inc.
(Alexandria, Minnesota)
K47KZ (Channel 47)
কৃত্রিম উপগ্রহ
DirecTV278 (HD/SD)
1278 (VOD)
Dish Network182 (HD/SD)
C-BandAMC 10-Channel 21
SKY México251
Dish Network Mexico402
Sky (UK and Ireland)520
ক্যাবল
CableVision (Argentina)52
Verizon FiOS620 (HD)
120 (SD)
আইপিটিভি
Sky Angel313
AT&T U-Verse1120 (HD)
120 (SD)

ডিসকভারি চ্যানেল (ইংরেজি: Discovery Channel) হল ডিসকভারি নেটওয়ার্ক পরিচালিত ২৪ঘন্টাব্যাপী প্রচারিত একটি শিক্ষামূলক স্যাটেলাইট সাবস্ক্রিপশন টেলিভিশন চ্যানেল।[২] চ্যানেলটির সার্বিক পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন ডিসকভারি কমিউনিকেশন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডেভিড জাস্লাভ। ২০১২ সালের জুন মাসের হিসেব অনুযায়ী ডিসকভারি চ্যানেল হল বিশ্বের ২য় সর্বাধিক বিতরণকৃত কেবল চ্যানেল, ১ম স্থান অধিকারী টিবিএস চ্যানেলের পর।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৪২ সালে জন হেন্ডরিক্স চ্যানেলটি প্রতিষ্ঠা করেন। ১৭ই জুন ১৯৮৫ থেকে চ্যানেলটি আনুষ্ঠানিক সম্প্রচার শুরু করে। প্রাথমিকভাবে এটি ১৫৬,০০০ গৃহস্থালী সংযোগ প্রদানের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করেছিল এবং এটি দৈনিক ১২ ঘন্টা (দুপুর ৩টা থেকে রাত ৩টা) সম্প্রচার করা হত। এর ৭৫ শতাংশ প্রোগ্রাম কন্টেন্ট ছিল আমেরিকার টেলিভিশনের ইতিহাসে একেবারেই নতুন ও অভূতপূর্ব। শুরুর বছরগুলোতেই চ্যানেলটি স্বাংস্কৃতিক ও প্রকৃতিনির্ভর প্রামাণ্যচিত্রের আঙ্গিকে শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান নির্মাণের দিকে লক্ষ্য রেখে তাদের কার্যক্রম পারিচালনা করে আসছে এবং এখনো চ্যানেলটি সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে চলেছে।

প্রোগ্রামসমূহ[সম্পাদনা]

বিয়ার গ্রিলসের ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড, সুপারহিউম্যান এবং ম্যান,ওম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড হল বিশ্বব্যাপী ডিসকভারি চ্যানেলের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও দর্শকনন্দিত প্রোগ্রামগুলোর মধ্যে অন্যতম। এছাড়াও ফুড ফ্যাক্টরি, হাও ইট ইজ মেড, সাইন্স অফ ম্যাজিক, হিস্টরি অফ দ্য ওয়ার্লড, কিউরিওসিটি, গোল্ড রাশ, গেটর বয়েজ, প্লানেট আর্থ, ফ্রোজেন প্লানেট,লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডিং প্রভৃতি প্রোগ্রামও ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়। এছাড়াও চ্যানেলটি সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়বস্তু ও প্রসঙ্গ নিয়েও সাময়িক তথ্যচিত্র প্রদর্শন করে।

সিরিজ তালিকা[সম্পাদনা]

  • এ হান্টিং
  • আফ্রিকা (বিবিসি ডকুমেন্টারী সিরিজ)
  • এয়ারক্রাশ কনফিডেন্টাল

অ-টেলিভিশন উদ্যোগ[সম্পাদনা]

প্রো সাইক্লিং টিম[সম্পাদনা]

২০০৪ সালের ট্যুর ডি ফ্রান্স আরম্ভ হওয়ার পূর্বে,সাতবার ট্যুর ডি ফ্রান্স প্রতিযোগিতা বিজয়ী লেন্স আর্মস্ট্রং কর্তৃক ২০০৫ প্রতিষ্ঠিতব্য পেশাদার প্রো সাইক্লিং টিমের প্রাইমারি স্পন্সর হওয়ার অনাড়ম্বর ঘোষণা দেয় ডিসকভারি চ্যানেল| অবশেষে, ২০০৭ সালে আলবার্টো কনটাডোরকে সাথে নিয়ে বিজয়ী হওয়ার পর চ্যানেলটি স্পন্সরশীপ চালিয়ে না যাওয়ার ঘোষণা দেয় এবং ২০০৭ সালে এর সমাপ্তি ঘটায় |

ডিসকভারি চ্যানেল বেতার[সম্পাদনা]

ডিসকভারি চ্যানেল বেতার ছিল একটি বেতার নেটওয়ার্ক, যার অনুষ্ঠানমালা ডিসকভারি কমিউনিকেশন পরিবারের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর জনপ্রিয় অনুষ্ঠানসমূহের অডিও সংষ্করণ সংবলিত ছিল|

দোকান[সম্পাদনা]

দূরবীক্ষণ[সম্পাদনা]

ডিসকভারি চ্যানেল ডিসকভারি চ্যানেল দূরবীক্ষণ নির্মাণেও অর্থায়ন করছে, লয়্যাল অবজারভেটরি নামক প্রতিষ্ঠানের সাথে যৌথ অংশীদারত্বে|

ওয়েবসাইট[সম্পাদনা]

discovery.com হল ডিসকভারি চ্যানেলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট, যেটি প্রধানত চ্যানেলটির অনুষ্ঠানসূচি ও প্রোগ্রামগুলোর সাথে সংযুক্ত ও সম্পর্কিত বিভিন্ন কন্টেন্ট বিষয়ক তথ্য সরবরাহ করে; এছাড়াও এতে কিছু স্বতন্ত্র ব্রাউজারভিত্তিক গেমস রয়েছে, যেগুলো বিভিন্ন বিজ্ঞানভিত্তিক ও সামাজিক চ্যালেঞ্জের উপর নির্মিত হয়েছে|

বিপণন ও ব্র্যান্ডিং[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

কানাডা[সম্পাদনা]

ইউরোপ[সম্পাদনা]

অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড[সম্পাদনা]

দক্ষিণপূর্ব এশিয়া[সম্পাদনা]

ভারত[সম্পাদনা]

ডিসকভারি ইন্ডিয়া করপোরেশন মূল ইংরেজি এবং ভারতের তিনটি আঞ্চলিক ভাষা হিন্দি, তেলুগুবাংলা ভাষায় অডিও ফিড চ্যানেলের জন্য সরবরাহ করে। এছাড়াও ২০১১ সালের ১৫ই আগস্ট ডিসকভারি ইন্ডিয়া 'ডিসকভারি তামিল' নামে তামিলনাড়ুর জন্য সম্পূর্ণ আলাদাভাবে ডিসকভারি চ্যানেলের একটি শাখা চ্যানেল উদ্বোধন করে|

‌ বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

আফ্রিকা[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The 59th Academy Awards (1987) Nominees and Winners"oscars.org। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-২৩ 
  2. "Top 20 Cable Program Networks – NCTA.com"। ৫ নভেম্বর ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৪ 
  3. "DCI :: Businesses & Brands :: Discovery Channel"। ১২ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

প্রধান[সম্পাদনা]

অন্যান্য[সম্পাদনা]