রুনা খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মিসেস রুনা খান
জন্ম
বাসস্থানঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
জাতিসত্তাবাঙালি
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল২০০৬-বর্তমান
সন্তানরাজেশ্বরী (কন্যা)
পুরস্কারমেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার (২০১৭)

রুনা খান হলেন একজন বাংলাদেশী অভিনেত্রী। টেলিভিশন নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তার কর্মজীবন শুরু হয়। তিনি হালদা (২০১৭), গহীন বালুচর (২০১৭) ও ছিটকিনি (২০১৭) ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন। ছিটকিনি ছবিতে তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীর জন্য মেরিল-প্রথম আলো সমালোচক পুরস্কার অর্জন করেন।[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

রুনা খানের শৈশব কাটে টাঙ্গাইল শহরে। ১৯৯৮ সালে তিনি ঢাকা আসেন। তার পিতা ছিলেন একজন সরকারি চাকুরিজীবী। খান তার পিতামাতার জ্যেষ্ঠ সন্তান।[২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০১৬ সালে নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নাম গোত্রহীন মঞ্চনাটকের মঞ্চায়নে তিনি অপি করিমের স্থলাভিষিক্ত হন। পাকিস্তানি লেখক সাদাত হাসান মান্টোর তিনটি ছোটগল্প অবলম্বনে নাটকটির চিত্রনাট্য রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন ঊষা গাঙ্গুলী। এছাড়া তিনি আসাদুজ্জামান নূর নির্দেশিত নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের দেওয়ান গাজীর কিসসা মঞ্চনাটকে অভিনয় করেন।[৩] রুনা খান সংগ্রাম, দহন, গোলাম সোহরাব দোদুল নির্দেশিত সংসার, সোহেল আরমান নির্দেশিত ‘জলরঙ’, আবু হায়াৎ মাহমুদ নির্দেশিত ‘বৃষ্টিদের বাড়ি’, অনিমেষ আইচ নির্দেশিত বুবুনের সাত সতের, বিইউ শুভ নির্দেশিত লাইফ ইন অ্যা মেট্রো, রায়হান খানের প্রেসিডেন্ট সিরাজ-উদ-দৌলা এবং সাত ঘর এক উঠান টেলিভিশন ধারাবাহিকগুলোতে অভিনয় করেন।[৪][৫] তিনি ২০১৭ সালে হালদা, গহীন বালুচরছিটকিনি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তৌকীর আহমেদ পরিচালিত হালদা চলচ্চিত্রে তাকে জাহিদ হাসান অভিনীত চরিত্রে বড় বউ জুঁই চরিত্রে দেখা যায়।[৬] বদরুল আনাম সৌদ পরিচালিত গহীন বালুচর ছবিতে শামীমা চরিত্রে অভিনয় করেন।[৭] সাজেদুল আউয়াল পরিচালিত ছিটিকিনি ছবিতে ময়মুনা চরিত্রে অভিনয় করেন।[৮] ছবিটি ১৬শ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়। খান ২০তম মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারে সমালোচনা শাখায় শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কৃত হন।[১] এছাড়া তিনি আহত পাখির গান টেলিভিশন নাটকে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে আরটিভি স্টার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন।[৯]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

রুনা খানের একমাত্র কন্যা রাজেশ্বরী।[১০]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার ২০১৭: পাঠক জরিপে চলচ্চিত্রে সেরা তাঁরা"দৈনিক প্রথম আলো। ৩০ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  2. হালদার, মিঠু (১১ জানুয়ারি ২০১৮)। "দুঃখ বিলাসিতার সময় আমার নাই: রুনা খান"প্রিয়.কম (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  3. "অপি করিমের বিকল্প রুনা খান"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ নভেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  4. কিবরিয়া, মারুফ (২৯ নভেম্বর ২০১৬)। "প্রস্তুত রুনা খান"দৈনিক মানবজমিন। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  5. "উচ্ছ্বসিত রুনা খান"বাংলা ট্রিবিউন। ১৬ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  6. মিথিলা, হাবিবা নাজনীন (১৭ নভেম্বর ২০১৭)। "'হালদা'য় চট্টগ্রামের ভাষা বলতে তেমন অসুবিধা হয়নি: রুনা খান"চ্যানেল আই অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "সিনেমায় ব্যস্ত রুনা খান"দৈনিক ইত্তেফাক। ৩০ নভেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  8. "প্রথম চলচ্চিত্র নিয়ে আসছেন রুনা খান"দৈনিক ভোরের কাগজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২১ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  9. ইসলাম, কামরুল (২৯ ডিসেম্বর ২০১৭)। "সত্যিই আমি ভাগ্যবতী: রুনা খান"বিডি জার্নাল। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 
  10. "মেয়েকে নিয়ে 'ছিটকিনি' দেখলেন রুনা খান"এনটিভি অনলাইন। ১৫ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]