তমা মির্জা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
তমা মির্জা
জাতীয়তাবাংলাদেশী
যেখানের শিক্ষার্থীমানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল২০১০-বর্তমান

তমা মির্জা একজন বাংলাদেশী অভিনেত্রী। ২০১৫ সালে নদীজন চলচ্চিত্র অভিনয়ের মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেত্রী বিভাগে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

তমা মির্জার শৈশব কাটে বাগেরহাটের কচুয়ায়। সেখানে মাধ্যমিক পাশ করার পর ঢাকায় এসে সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজে ভর্তি হন ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। উচ্চমাধ্যমিকে পাশ করার পর মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন।

অভিনয় জীবন[সম্পাদনা]

শাহিন সুমন পরিচালিত ‘মনে বড় কষ্ট’ চলচ্চিত্রে পার্শ্বনায়িকা হিসেবে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তার। পরে বেশ কিছু চলচ্চিত্রে পার্শ্বনায়িকা হিসেবে অভিনয় করেন। অনন্ত হীরা পরিচালিত ‘ও আমার দেশের মাটি’ চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করে আলোচিত হন তিনি। ২০১৫ সালে শাহনেওয়াজ কাকলী পরিচালিত ‘নদীজন’ চলচ্চিত্রে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন তিনি। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি বিজ্ঞাপন ও নাটকেও অভিনয় করেন তিনি।

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

  • বলো না তুমি আমার (২০১০)
  • মানিক রতন দুই ভাই (২০১২)
  • ইভটিজিং (২০১৩)
  • তোমার মাঝে আমি (২০১৩)
  • নদীজন (২০১৫)
  • গেইম রিটার্নস (২০১৭)
  • অহংকার (২০১৭)
  • গ্রাস (২০১৭)
  • মিশন আমেরিকা (নির্মানাধীন)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "২০১৫ সালের 'জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার' ঘোষণা"দৈনিক জনকণ্ঠ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৪ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]