বিলি ওয়াইল্ডার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বিলি ওয়াইল্ডার
বিলি ওয়াইল্ডার.png
জন্ম
সামুয়েল ভিল্ডার
কর্মজীবন১৯২৯ - ১৯৯৫
দাম্পত্য সঙ্গীJudith Coppicus (১৯৩৬-৪৬)
Audrey Young (১৯৪৯-২০০২)

বিলি ওয়াইল্ডার (ইংরেজি ভাষায়: Billy Wilder) (২২শে জুন, ১৯০৬ - ২৭শে মার্চ, ২০০২) অস্ট্রিয়ায় জন্মগ্রহণকারী ইহুদি মার্কিন সাংবাদিক, চিত্রনাট্যকার এবং একাডেমি পুরস্কার বিজয়ী চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজক। প্রায় ৫০ থেকে ৬০ বছর তিনি চলচ্চিত্র জগতের সাথে যুক্ত ছিলেন। তাকে হলিউড স্বর্ণযুগের অন্যতম প্রভাবশালী ও কৃতী চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে অভিহিত করা হয়। ওয়াইল্ডারের অনেক ছবিই দর্শক ও সমালোচকদের কাছে বিপুল প্রশংসিত হয়েছে।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সামুয়েল ভিল্ডার[১] ১৯০৬ সালের ২২শে জুন[২] সুচা বেস্কিদৎজকায় এক অস্ট্রিয় ইহুদি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মাক্স ভিল্ডার এবং মাতা ইউজেনিয়া (বিবাহপূর্ব ডিটলার)। তার মায়ের দেওয়া তার ডাকনাম ছিল "বিলি"। তার এক বড় ভাই ছিল, তার নাম উইলিয়াম লি ওয়াইল্ডার (১৯০৪-১৯৮২)। তিনিও একজন চিত্রনাট্যকার, চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিচালক ছিলেন। তার পিতামাতার সুচা রেল স্টেশনে একটি কেকের দোকান ছিল। তারা বিলিকে তাদের এই পারবারিক ব্যবসায়ে যোগ দেওয়ার জন্য পীড়াপীড়ি করেন। ইতোমধ্যে তারা সপরিবারে ভিয়েনা চলে যায়। বিলি সেখানে একটি বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। পরবর্তী কালে ভিয়েনা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার পরিবর্তে তিনি সাংবাদিকতা শুরু করেন। ১৯২৬ সালে জ্যাজ সঙ্গীতদলের প্রধান পল হোয়াইটম্যান ভিয়েনা সফরে যান। হোয়াইটম্যানের সঙ্গীতদলের ভক্ত ওয়াইল্ডার তার সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং তার সাক্ষাৎকার নেন।[৩] হোয়াইটম্যান তরুণ ওয়াইল্ডারকে বেশ পছন্দ করেন এবং তাকে বার্লিনে এক সঙ্গীত সফরে নিয়ে যান। সেখানে ওয়াইল্ডার বিনোদন জগতের আরও অনেকের সাথে পরিচিত হন। লেখক হিসেবে সফলতা লাভের পূর্বে তিনি বার্লিনে ট্যাক্সি নৃত্যশিল্পী হিসেবেও কাজ করেছেন।[৪][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "הם היו כל-כך יהודים, הם היו כל-כך אמריקנים"גלובס। এপ্রিল ৪, ২০০২। 
  2. "Billy Wilder Biography"বায়োগ্রাফি (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫। মে ৯, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মে ২০২০ 
  3. হারমেৎজ, আলজিন (মার্চ ২৯, ২০০২)। "Billy Wilder, Master of Caustic Films, Dies at 95"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মে ২০২০ 
  4. Philips, Alastair. City of Darkness, City of Light: Emigre Filmmakers in Paris, 1929–1939. Amsterdam University Press, 2004. p. 190.
  5. Silvester, Christopher. The Grove Book of Hollywood. Grove Press, 2002. p. 311

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]