প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

এখানে বলিউড প্রবেশদ্বারের নির্বাচিত চলচ্চিত্র বিভাগে স্থান পাওয়া নিবন্ধগুলো উল্লেখ করা হয়েছে:

টেমপ্লেট[সম্পাদনা]

নোট অ-স্ক্রলিং প্যানোরামার জন্য ব্যবহার করুন ডিফল্ট "size=" (size=150px)। ব্যাপক আকারগুলো একটি অনুভূমিক স্ক্রল বার অন্তর্ভুক্ত করবে।

{{প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/টেমপ্লেট
  | image = 
  | size = 
  | caption = 
  | text = 
  | link = 
}}


নির্বাচিত চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র ১–১০[সম্পাদনা]

প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১

চিত্র:Ek Tha Tiger Movie Poster.jpg

এক থা টাইগার (ইংরেজি: Ek Tha Tiger) হচ্ছে ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি বলিউড চলচ্চিত্র। অ্যাকশনধর্মী এই রোমান্টিক চলচ্চিত্রের মূল ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সালমান খানক্যাটরিনা কাইফ। চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন আদিত্য চোপড়া ও পরিচালনা করেছেন কবির খানযশ রাজ ফিল্মসের সঙ্গে এটি ছিল কবির খানের তৃতীয় চলচ্চিত্র, প্রথমটি ছিল কাবুল এক্সপ্রেস (২০০৬) এবং দ্বিতীয়টি নিউ ইয়র্ক (২০০৯)। এছাড়াও যশ রাজ ফিল্মসের সঙ্গে সালমান খানের এটি প্রথম কাজ ছিল। চলচ্চিত্রের গানগুলো তৈরী করেছেন সোহেল সেন এবং অতিথি সুরকার হিসেবে কাজ করেছেন সাজিদ-ওয়াজিদ। এই চলচ্চিত্রের মূল চিত্রায়ন ২০১১ সেপ্টেম্বর মাসে শুরু হয় এবং ২০১২ সালে জুন মাসে সম্পন্ন হয়। চলচ্চিত্রটি তিনটি মহাদেশের পাঁচটি দেশ জুড়ে চিত্রায়ন করা হয়েছে।


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/২

চিত্র:Chennai Express.jpg

চেন্নাই এক্সপ্রেস (হিন্দি: चेन्नई एक्सप्रेस, ইংরেজি: Chennai Express) হচ্ছে ২০১৩ সালের একটি ভারতীয় চলচ্চিত্র। এটি হিন্দি ভাষার একটি রোমান্টিক অ্যাকশন কমেডি চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন রোহিত শেঠি এবং রেড চিলিস এন্টারটেনমেন্টের অধীনে এটি প্রযোজনা করেছেন গৌরী খান। এই চলচ্চিত্রের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাহরুখ খান এবং দীপিকা পাড়ুকোন। এটি তাদের একসাথে করা দ্বিতীয় চলচ্চিত্র, প্রথমটি ছিল ফারাহ খান পরিচালিত ওম শান্তি ওম। এই চলচ্চিত্রটি ২০১৩ সালের ৯ আগস্ট বিশ্বব্যাপী মুক্তি পায়। মুক্তির পর চলচ্চিত্রটি বক্স অফিসে দুর্দান্ত সফলতা পায় এবং মুক্তির প্রথম সপ্তাহে বক্স অফিসের প্রায় সকল রেকর্ড ভেঙ্গে ফেলে। এটি শুধু ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বলিউডের সর্বোচ্চ আয়ের চলচ্চিত্রই নয়, এটি বলিউডের সর্বকালের সর্বোচ্চ আয় করা চলচ্চিত্রের মধ্যে অন্যতম।


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৩

পদ্মাবত পোস্টার.jpg

পদ্মাবত (পূর্বে পদ্মাবতী নাম ছিল) হচ্ছে ২০১৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ভারতীয় মহাকাব্যিক সময়ের নাট্য চলচ্চিত্র। এটি পরিচালনা করেছেন সঞ্জয় লীলা ভন্সালী। ছবিতে নাম ভূমিকায় (রানী পদ্মিনী) অভিনয় করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন, পাশাপাশি শাহিদ কপূর মহারাওয়াল রতন সিং চরিত্রে এবং রনবীর সিং সুলতাল আলাউদ্দিন খিলজি চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এছাড়াও অন্যান্য পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন অদিতি রাও হায়দারি, জিম সর্ব, রাজা মুরাদ এবং অনুপ্রিয়া গোয়েঙ্কামালিক মুহাম্মদ জাইসি রচিত পদ্মাবত (১৫৪০) মহাকাব্যের উপর ভিত্তি করে নির্মিত এই চলচ্চিত্রটিতে রাজপুত রাণী পদ্মাবতীর কাহিনীর বিবৃতি করে, যিনি খিলজি থেকে নিজেকে বাঁচাতে জওহর (আত্মবলিদান) দেন। ১৯০ কোটি (US$২৬.৪৪ মিলিয়ন) নির্মাণ ব্যয়ে নির্মিত এই চলচ্চিত্রটি হচ্ছে বলিউডের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ভারতীয় চলচ্চিত্রের মধ্যে একটি।


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৪

টাইগার জিন্দা হ্যায় পোস্টার.jpg

টাইগার জিন্দা হ্যায় (হিন্দি: टाइगर जिंंदा है; বাংলা: টাইগার বেঁচে আছে) হচ্ছে আলী আব্বাস জাফর পরিচালিত একটি ভারতীয় গুপ্তচর থ্রিলার চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রে সালমান খান এবং ক্যাটরিনা কাইফের পাশাপাশি সাজ্জাদ দেলফ্রোজ অভিনয় করেছেন। এছাড়াও পার্শ্ব চরিত্রে অঙ্গদ বেদী, কুমুদ মিশ্র, নবাব শাহ, গিরিশ কর্ণদ এবং পরেশ রাওয়াল অভিনয় করেছেন। এই চলচ্চিত্রটি টাইগার চলচ্চিত্র সিরিজের দ্বিতীয় কিস্তি, এর প্রথম কিস্তি ছিল ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এক থা টাইগার। এই চলচ্চিত্রটি ২০১৭ সালের ২২শে ডিসেম্বরে বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেয়েছে। ২০১৭ সালে ১৮ই অক্টোবর তারিখে, দীপাবলি উপলক্ষে সালমান খান তার টুইটার অ্যাকাউন্টে এই চলচ্চিত্রের প্রথম প্রচ্ছদ প্রকাশ করেছিলেন। ২০১৭ সালে এপ্রিল মাসে, অস্ট্রিয়ায় এই চলচ্চিত্রের দৃশ্য ধারণ করা হয়েছিল।


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৫

রইস পোস্টার.jpg

রইস (বাংলা: সম্পদশালী) ২০১৭ সালের একটি ভারতীয় অ্যাকশন ক্রাইম থ্রিলার চলচ্চিত্র, পরিচালক রাহুল ঢোলাকিয়ারেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট ও এক্সেল এন্টারটেনমেন্টের ব্যানারে চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন গৌরী খান, রিতেশ সিধওয়ানি এবং ফারহান আখতার। এতে অভিনয় করেছেন শাহরুখ খান, মাহিরা খান এবং নওয়াজুদ্দীন সিদ্দিকী


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৬

শোলে চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg

শোলে ১৯৭৫ সালের একটি হিন্দি-ভাষী অ্যাকশন-অ্যাডভেঞ্চার চলচ্চিত্র যা পরিচালনা করেছিলেন রমেশ সিপ্পী এবং প্রযোজনা করেছিলেন তার বাবা জি. পি. সিপ্পী। কাহিনী অনুসারে, দুই সাধারণ অপরাধী বীরু ও জয়কে (ধর্মেন্দ্রঅমিতাভ বচ্চন) প্রাক্তন পুলিশ অফিসার নিযুক্ত করেন নিষ্ঠুর ডাকাত গব্বর সিংকে (আমজাদ খান) ধরবার জন্যে। হেমা মালিনী এবং জয়া ভাদুড়ি অভিনয় করেছেন বীরু ও জয়ের প্রণয়ী রূপে। শোলে ভারতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ এবং ধ্রুপদী চলচ্চিত্র হিসেবে স্বীকৃত। ২০০২ সালে ব্রিটিশ ফিল্ম ইন্সটিটিউট প্রকাশিত সর্বকালের "শীর্ষ দশটি ভারতীয় চলচ্চিত্র" তালিকাতে এটি প্রথম স্থান পায়। ২০০৫ সালে ৫০তম ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের বিচারকগণ এটিকে "৫০ বছরের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র" বলে অভিহিত করেন। এটি ভারতের অনেক প্রেক্ষাগৃহে একটানা প্রদর্শনীর নতুন রেকর্ড গড়ে এবং মুম্বাইয়ের মিনের্ভা থিয়েটারেতা চলে পাঁচ বছরের বেশি। কোনো কোনো হিসাবমতে, মুদ্রাস্ফীতি ও অন্যান্য কারণে, শোলে সর্বোচ্চ আয়কারী ভারতীয় চলচ্চিত্র


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৭

দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে (১৯৯৫).jpg

দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে হল ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ভারতীয় হিন্দি ভাষার প্রণয়ধর্মী চলচ্চিত্র। ছবিটি পরিচালনা করেছেন আদিত্য চোপড়া, এবং এটিই তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র। ছবিটি প্রযোজনা করেন যশ চোপড়া এবং রচনা করেন জাভেদ সিদ্দিকী ও আদিত্য চোপড়া। ছবিটির প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাহরুখ খানকাজল। ১৯৯৫ সালের ২০শে অক্টোবর মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটি ভারতে ₹১.০৬ বিলিয়ন এবং দেশের বাইরে ₹১৬০ মিলিয়ন আয় করে সেই বছরে বলিউডের সর্বোচ্চ আয়কারী চলচ্চিত্র হয়ে ওঠে এবং এটি ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অন্যতম সফল চলচ্চিত্র। ছবিটি শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রসহ ১০টি বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করে এবং শ্রেষ্ঠ সুস্থ্য বিনোদন প্রদানকারী জনপ্রিয় চলচ্চিত্র বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে। চলচ্চিত্রটির অ্যালবামটি ১৯৯০-এর দশকের অন্যতম জনপ্রিয় অ্যালবাম।


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৮

কুছ কুছ হোতা হ্যায় ছবির প্রচ্ছদ.jpg

কুছ কুছ হোতা হ্যায় হল ১৯৯৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ভারতীয় হিন্দি ভাষার প্রণয়ধর্মী নাট্য চলচ্চিত্র। এটি রচনা ও পরিচালনা করেন করণ জোহর। এতে চতুর্থবারের মত কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন জনপ্রিয় পর্দা জুটি শাহরুখ খানকাজলরানী মুখার্জী পার্শ্ব অভিনেত্রী চরিত্রে এবং সালমান খান ক্ষণিক চরিত্রে অভিনয় করেন। ত্রিভূজ প্রেমের কাহিনী-নির্ভর চলচ্চিত্রটি বলিউডে ছবিটি ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করে এবং একাধিক পুরস্কার অর্জন করে, তন্মধ্যে রয়েছে শ্রেষ্ঠ সুস্থ্য বিনোদন প্রদানকারী জনপ্রিয় চলচ্চিত্র বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, জি সিনে পুরস্কার, স্ক্রিন পুরস্কারবলিউড মুভি পুরস্কার। চলচ্চিত্রটি আটটি বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করে এবং একমাত্র চলচ্চিত্র হিসেবে অভিনয়ের চারটি বিভাগে তথা শ্রেষ্ঠ অভিনেতা, শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী, শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতাশ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কার লাভ করে।


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৯ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/৯


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১০ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১০

চলচ্চিত্র ১১–২০[সম্পাদনা]

প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১১ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১১

প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১২ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১২


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৩ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৩


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৪ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৪


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৫ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৫


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৬ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৬


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৭ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৭


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৮ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৮


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৯ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/১৯


প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/২০ প্রবেশদ্বার:বলিউড/নির্বাচিত চলচ্চিত্র/২০