পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ
ঠিকানা
বীর উত্তম শহীদ মাহবুব সেনানিবাস , দিনাজপুর
দিনাজপুর, রংপুর
বাংলাদেশ
স্থানাঙ্ক২৫°৩৯′১৮″ উত্তর ৮৮°৫৯′০৩″ পূর্ব / ২৫.৬৫৪৮৬৪° উত্তর ৮৮.৯৮৪১৩৯° পূর্ব / 25.654864; 88.984139স্থানাঙ্ক: ২৫°৩৯′১৮″ উত্তর ৮৮°৫৯′০৩″ পূর্ব / ২৫.৬৫৪৮৬৪° উত্তর ৮৮.৯৮৪১৩৯° পূর্ব / 25.654864; 88.984139
তথ্য
ধরনক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ
নীতিবাক্যআধুনিক শিক্ষা ও সবোর্ৎকৃষ্ট সেবা
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৯৪
অধ্যক্ষলেঃ কর্নেল কাজী মো. আশীফ মোস্তফা
কর্মকর্তাপ্রায় ১৮৫ জন
শিক্ষার্থী সংখ্যাপ্রায় ২০০০
ওয়েবসাইট

পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ দিনাজপুর শহরের পার্বতীপুরের খোলাহাটিতে অবস্থিত বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এই স্কুল ও কলেজ দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড এর অন্তর্গত।

প্রতিষ্ঠার পটভূমি[সম্পাদনা]

১৯৯৪ খ্রিষ্টাব্দে দিনাজপুর তথা উত্তরবঙ্গের প্রথম আধুনিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেব প্রতিষ্ঠিত হয়।

বিভাগ সমূহ[সম্পাদনা]

বর্তমানে ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ এর স্কুল শাখায় ২ টি বিভাগ ( বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা) রয়েছে এবং কলেজ শাখায় ৩ টি বিভাগ (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) রয়েছে।

আসন সংখ্যা[সম্পাদনা]

প্রাথমিক মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক এর আসন সংখ্যা নিম্নে দেয়া হল । [১]

প্রাথমিক শ্রেণী নার্সারি কে জি শ্রেণী প্রথম শ্রেণী দ্বিতীয় শ্রেণী তৃতীয় শ্রেণী চতুর্থ শ্রেণী পঞ্চম শ্রেণী
আসন সংখ্যা ১০৫ ৯৫ ৮০ ৮০ ৮০ ৯০ ৯০
মাধ্যমিক শ্রেণী ষষ্ঠ শ্রেণী সপ্তম শ্রেণী অষ্টম শ্রেণী নবম শ্রেণী দশম শ্রেণী
আসন সংখ্যা ২০০ ২১০ ২০০ ২৩০ ২৪০
উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণী মানবিক বিজ্ঞান বাণিজ্য
আসন সংখ্যা ৭০ ৩০০ ৭০

স্কুল ভবন, কলেজ ভবন ও প্রশাসনিক ভবন[সম্পাদনা]

বর্তমান প্রতিষ্ঠানটির স্কুল ভবন ৪ তলা এবং কলেজ শাখাকার জন্য বৃহৎ চার তলা বিল্ডিং রয়েছে। স্কুলের প্রায় প্রত্যেক সারিতে ১২ টি রুম রয়েছে। কলেজের রয়েছে কম্পিউটার ল্যাব, বায়োলজি ল্যাব, কেমিস্ট্রি ল্যাব ও ফিজিক্‌স ল্যাব রয়েছে। প্রতিষ্ঠানের দুই'তলা প্রশাসনিক ভবন রয়েছে যেখানে প্রতিষ্ঠানের সকল কার্যক্রম ও দিক নিদের্শনা দেওয়া হয়। এছাড়াও শিক্ষকদের জন্য দুটি আলাদা কোয়ার্টার রয়েছে। এদের ২ টি চার তলা বিল্ডিং। এছাড়া প্রিন্সিপালের জন্য আলাদা বাসস্থান রয়েছে। প্রতিষ্ঠানের রয়েছে ৫০০ আসন বিশিষ্ট নিজেস্ব অডিটোরিয়াম।

ছাত্রাবাস[সম্পাদনা]

Cantonment Public School & College Hostel BUSMS

২০০৩ খ্রিষ্টাব্দে স্কুল ও কলেজের জন্য পরিকল্পিতভাবে নির্মিত প্রথম ছাত্রাবাস। এটিই বাংলাদেশের কোনো ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের জন্য নির্মিত প্রথম ছাত্রাবাস। বর্তমানে এটি ফেরদৌসী রহমান ছাত্রীনিবাস হিসেবে পরিচিত। ২০১৫ সালে "তারেক মাসুদ" ছাত্রাবাস নামে ছাত্রদের জন্য একটি ছাত্রাবাস নির্মাণ করা হয়। একুশ শতকে ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ, বি,ইউ,এস,এম,এস, বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান এবং শীর্ষস্থানীয় শিক্ষাঙ্গন। এর ছাত্রসংখ্যা প্রায় ২০,০০। এখানে মাধ্যমিক পাঠ্যক্রমের সাথে সাথে উচ্চ মাধ্যমিক পাঠ্যক্রমে তিনটি বিষয়ে শিক্ষাদান কার্যক্রম চালু রয়েছে। ছাত্র ছাত্রীদের জন্য কলেজের ১টি করে ছাত্রাবাস রয়েছে।

বর্তমান বিইউএসএমএস[সম্পাদনা]

পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ এ বছর এইচএসসিতে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে ষোল তম স্থান অর্জন করেছে। কলেজটি ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর এবারই সবচেয়ে ভালো ফলাফল করেছে। এ বছর কলেজ থেকে বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগে মোট ২৭২ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১৫ জন।[২] ২০১১ সালে পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ এসএসসি পরীক্ষায় দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে অষ্টম স্থানসহ দিনাজপুর জেলার মধ্যে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে। সেই সঙ্গে পেয়েছে শতভাগ সাফল্য। ফল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে উল্লাসে ফেটে পড়েন ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকরা। স্কুলটি থেকে এবার ১০০ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৭৪ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ৬৭ ও বাণিজ্যে ৭ জন। এদিকে পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড স্কুল থেকে ৪৬ পরীক্ষার্থীর সবাই কৃতকার্য হয়েছে। তাদের মধ্যে ৯ জন জিপিএ-৫ পেয়ে দিনাজপুর জেলার মধ্যে ষষ্ঠ স্থান অর্জন করেছে। [৩] ২০১২ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পার্বতীপুরের শহীদ মাহবুব সেনানিবাস ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে সপ্তম ও জেলায় দ্বিতীয় স্থান দখল করেছে। ২শ ৫৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২শ ৫৫ জন। পাসের হার শতকরা ৯৯.৬০ ভাগ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১শ ৩১ জন। [৪]

ক্যান্টিন[সম্পাদনা]

ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ এর দুটি ক্যান্টিন রয়েছে। একটি নাসার্রি থেকে অষ্টম শ্রেণী পযর্ন্ত, ছাএ ও ছাএী এবং সকল মেয়েদের জন্য (কলেজ সহ)। অন্যটি নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পযর্ন্ত শুধু ছাএদের জন্য।

সংগঠন[সম্পাদনা]

প্রতিষ্ঠার পর হতেই প্রতিষ্ঠানটি বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে জড়িত। যেমন ডিবেট ক্লাব, কালচারাল ক্লাব,ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ ক্লাব, সাধারণ জ্ঞান ক্লাব সহ আরো বেশ কিছু ক্লাব । প্রতি বৃহস্পপতি বার এটি সকল শীক্ষার্থীদের জন্যে বাধ্যর্তামূলক।

সাংস্কৃতিক[সম্পাদনা]

প্রতিষ্ঠার পর হতেই এটি বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করে আসছে । ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ সেনাবাহিনী প্রধান ট্রফি সহ অসংখ্য পুরুস্কার পেয়েছে। এছাড়াও টিভি অনুষ্ঠানে এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ডিবেটিংএ নিয়মিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Seats distribution"। Cantonment Public School and College। ২৭ জুন ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুন ২০১৪ 
  2. http://www.bd-pratidin.com/?view=details&type=single&pub_no=90&cat_id=3&menu_id=13&news_type_id=1&index=6&archiev=yes&arch_date=21-07-2010 বাংলাদেশ প্রতিদিন , পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ জেলায় প্রথম
  3. http://www.samakal.com.bd/details.php?news=16&view=archiev&y=2011&m=05&d=13&action=main&menu_type=&option=single&news_id=156016&pub_no=690&type= ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে সমকাল, দিনাজপুর বোর্ডে অষ্টম পার্বতীপুর ক্যান্ট. পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ
  4. http://www.banglanews24.com/detailsnews.php?nssl=2b6014c9942be8ab62897b69f3044359&nttl=127575[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ] বাংলা নিউজ ২৪ ডট কম , পার্বতীপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে সপ্তম

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]