দশমিনা উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

স্থানাঙ্ক: ২২°১৭′০০″উত্তর ৯০°৩৫′২৫″পূর্ব / ২২.২৮৩৩° উত্তর ৯০.৫৯০৩° পূর্ব / 22.2833; 90.5903

দশমিনা উপজেলা
BD Districts LOC bn.svg
Red pog.svg
দশমিনা
বিভাগ
 - জেলা
বরিশাল বিভাগ
 - পটুয়াখালী জেলা
স্থানাঙ্ক ২২°১৭′০০″উত্তর ৯০°৩৫′২৫″পূর্ব / ২২.২৮৩৩° উত্তর ৯০.৫৯০৩° পূর্ব / 22.2833; 90.5903
আয়তন ৩০০.৭৪ বর্গকিমি
সময় স্থান বিএসটি (ইউটিসি+৬)
জনসংখ্যা (২০০১)
 - ঘনত্ব
 - শিক্ষার হার
১,১৮,১৮০জন[১]
 - ১০৪৮ বর্গকিমি
 - ৬৫%
ওয়েবসাইট: উপজেলা প্রশাসনের ওয়েবসাইট

দশমিনা বাংলাদেশের বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

অবস্থান[সম্পাদনা]

আয়তন: ৩০০.৭৪ বর্গ কিমি। অবস্থান: ২২°০৮´ থেকে ২২°২২´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯০°২৮´ থেকে ৯০°৩৯´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ। সীমানা: উত্তরে বাউফল উপজেলা, দক্ষিণে গলাচিপা উপজেলা, পূর্বে লালমোহন উপজেলাচরফ্যাশন উপজেলা, পশ্চিমে গলাচিপা উপজেলা ৮৩১

প্রশাসনিক এলাকা (ইউনিয়ান পরিষদ সমূহ)[সম্পাদনা]

দশমিনা উপজেলা ৬টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছেঃ

নং ইউনিয়নের নাম জিও কোড আয়তন (একর) জনসংখ্যা
রনগোপালদি ৮৪ ২২১৫৬ ১০৭৯৭
আলীপুর ১০ ৮০৪৪ ১০১৮০
বেতাগী সানকিপুরা ৪২ ৭৯৪০ ৮৭৮৬
দশমিনা ৫২ ১৪৪১৪ ১২২৩০
বহরমপুর ২১ ৫৯৯১ ৭৮৯২
বাঁশবাড়ীয়া ৩১ ৮০২৮ ৮৩৯৫

ইতিহাস[সম্পাদনা]

দশমিনা থানা গঠিত হয় ১৯৭৯ সালে এবং ১৯৮৩ সালে থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয়। ৬ টি গ্রাম ৪৯ টি মৌজা ৫৩ টি গ্রামের স্বমনয় দশমিনা উপজেলা গঠিত।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা ১১৭০৩৭ জন; পুরুষ ৫৮২৮০ জন, মহিলা ৫৮৭৫৭ জন। মুসলিম ১০৯০৮৮ জন, হিন্দু ৭৯৩৯ জন এবং অন্যান্য ১০ জন। জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিমিতে ৩৩৩ জন

শিক্ষা[সম্পাদনা]

দশমিনা উপজেলার শিক্ষার গড় হার ৪১.৮%; পুরুষ ৪৬.৯%, মহিলা ৩৬.৯%।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

দশমিনা উপজেলায় কলেজ ৪ টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২৫ টি, প্রাথমিক বিদ্যালয় ১০৯ টি, মাদ্রাসা ১৯ টি।

উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থপিত
আব্দুর রশিদ তালুকদার ডিগ্রী কলেজ ১৯৭৭
আলীপুর কলেজ ১৯৯৯
ডলি আকবর মহিলা কলেজ ২০০৯
দশমিনা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১৯৫৬
গছানী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১৯৫৮
চাঁদপুরা এবিসি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১৯৬০
নেহালগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১৯৬৭
দশমিনা আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয় ১৯৫৪
দশমিনা ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা ১৯৬৮
আদমপুর ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা ১৯৬৫
চর হোসনাবাদ সিনিয়র মাদ্রাসা ১৯৬৪

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

দশমিনা উপজেলার জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস কৃষি ৬৪.৮৬%, অকৃষি শ্রমিক ৫.৬৯%, শিল্প ০.৫৭%, ব্যবসা ১০.২৫%, পরিবহণ ও যোগাযোগ ১.৯৯%, চাকরি ৫.৮৮%, নির্মাণ ১.৪৮%, ধর্মীয় সেবা ০.২৫%, রেন্ট অ্যান্ড রেমিটেন্স ০.১৩% এবং অন্যান্য ৮.৯০%।

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • বারী তালুকদার, সাবেক গর্ভনর ব্যাংলাদেশ ব্যাংক
  • বাতেন তালুকদার, সাবেক শিক্ষা মন্ত্রী

বিবিধ[সম্পাদনা]

  • প্রধান জলাশয়ঃ তেঁতুলিয়া নদী।
  • যোগাযোগ ব্যবস্থাঃ পাকা রাস্তা ৩৯ কিমি, আধা-পাকারাস্তা ১৩ কিমি, কাঁচারাস্তা ৬৩২ কিমি।
  • বিদ্যুৎ ব্যবহারঃ এ উপজেলার ইউনিয়ন পল্লিবিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতাধীন। তবে ৪.৫৪% (শহরে ১৪.৬১% ও গ্রামে ২.৯২%) পরিবারের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।
  • স্বাস্থ্যকেন্দ্রঃ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১, উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ৬, এনজিও পরিচালিত স্বাস্থ্যকেন্দ্র ১।
  • এনজিওঃ আশা, ব্র্যাক, ভোস্ড, টেরি-ডেস-হোম্স, বিডিএস, পদক্ষেপ, পিডিও, ব্রাক,গ্রামীন ব্যাংক, কারিতাস, স্পীড ষ্ট্রাস,।
  • ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানঃ মসজিদ ৪৬৮ টি, মন্দির ১১ টি, মাযার ২ টি।
  • হাটবাজারঃ সর্বমোট হাটবাজার ৪১ টি এর মধ্যে দশমিনা বাজার, নলখোলা হাট, আরজবেগী হাট, রণগোপালদি হাট, গছানি হাট উল্লেখযোগ্য।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে দশমিনা"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগৃহীত ২০ মার্চ, ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]