বিষয়বস্তুতে চলুন

জল্পেশ মন্দির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জল্পেশ মন্দির
ভগবান শিবের জল্পেশ মন্দির
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিহিন্দুধর্ম
জেলাজলপাইগুড়ি
ঈশ্বরশিব
উৎসবমহাশিবরাত্রি
অবস্থান
অবস্থানময়নাগুড়ি
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
দেশভারত
স্থাপত্য
সৃষ্টিকারীবিশ্ব সিংহ
প্রতিষ্ঠার তারিখ১৫২৪ খ্রিস্টাব্দ

১৫৬৩ (পুনর্নির্মাণ)
১৬৫৩ (রাজা প্রাণ নারায়ণ দ্বারা পুনর্নির্মাণ)

১৮৯৯ সালের ৩০ জানুয়ারি (রানী জগদেশ্বরী দেবী দ্বারা পুনপ্রতিষ্ঠা)

জল্পেশ মন্দির পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ি থেকে ৭-৮ কিলোমিটার দূরে জরদা নদীর ধারে অবস্থিত।[১] ভ্রামরী শক্তিপীঠের ভৈরব হলেন জল্পেশ। মন্দিরটি মনোরম স্থাপত্য শৈলীতে নির্মিত হয়েছিল।

শিব লিঙ্গ[সম্পাদনা]

এখানে শিবলিঙ্গ হল জল লিঙ্গ। অর্থাৎ শিবলিঙ্গ এখানে গর্তের মধ্যে থাকে। যাকে অনাদিও বলা হয়।

প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

১৫২৪ সালে কোচবিহারের মহারাজা নরনারায়ণের পিতা বিশ্ব সিংহ জল্পেশ মন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা করেন। পরবর্তীকাল তিনি ১৫৬৩ সালে মন্দিরটি পুনর্নির্মাণ করেন। আবার ১০০ বছর পর রাজা প্রাণ নারায়ণ ১৬৬৩ খ্রিস্টাব্দে এই মন্দিরটি পুনর্নির্মাণ করেন।[২] এরপর কোচবিহারের রাজা লক্ষ্মী নারায়নের রাজত্বকালে কোচ রাজবংশের বশ্যতা অস্বীকার করার পর ১৬২১ খ্রিস্টাব্দে মহীদেব রায়কত তার স্বাধীনতা ঘোষণা করেন এবং কোচরাজাকে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে অস্বীকার করেন। এরপর থেকে মন্দিরটি বৈকুণ্ঠপুরের রায়কতদের তত্ত্বাবধানে ছিল। ১৮৯৯ সালের ৩০ জানুয়ারি রাজা জগেন্দ্র দেব রায়কতের স্ত্রী রানী জগদেশ্বরী দেবী এর পুনপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন।[৩]

উৎসব ও মেলা[সম্পাদনা]

এই মন্দিরটির উদযাপিত প্রধান উৎসব হলো মহাশিবরাত্রি[৪] জুলাই-আগস্ট মাসে ভগবান শিবের কাছে বিশেষ পূজা করার জন্য ফেব্রুয়ারি-আগস্ট মাসে শ্রাবণী মেলায় তীর্থযাত্রীরা আসে। সপ্তদশ শতকে মন্দির তৈরির পর থেকেই এখানে শিব রাত্রিতে বিখ্যাত মেলার সূচনা। সেই দিক থেকে মেলাটি গোটা রাজ্যেরই প্রাচীন মেলাগুলির অন্যতম। মেলাতে কয়েক লক্ষ লোকের সমাগম হয়। ডুয়ার্স যখন ভুটানের অংশ ছিল, তখন ময়নাগুড়িকে কেন্দ্র করেই পাহাড় ও সমতলের ব্যবসা হত। ফলে এই মেলার বাণিজ্যিক গুরুত্ব ছিল অসীম। ভারতবর্ষের স্বাধীনতা হওয়ার আগে,এখানে হাতি বিক্রি হত। নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ এবং অন্যান্য নিকটবর্তী রাজ্যের লোকেরা এখানে মেলায় আসে।[৩][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "জল্পেশ মন্দির"জল্পেশ মন্দির। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১১ 
  2. "Cooch Behar Government: Royal History : Book of Facts and Events"। ২৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৯ 
  3. desk, kolkata24x7 online (২০১৫-০২-১৭)। "শিব চতুর্দশী উপলক্ষ্যে জমজমাট শৈবতীর্থ জল্পেশ"Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-০৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. www.india9.com on Jalpesh Shiva Temple
  5. ভট্টাচার্য, বিশ্বজ্যোতি। "পর্যটক টানতে ঢেলে সাজা হচ্ছে জল্পেশ, জটিলেশ্বর"anandabazar.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-০৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]